somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

পোস্টটি যিনি লিখেছেন

এস্কিমো
আমি সুশীল ব্লগার না..নিরপেক্ষও না।

দেউলিয়াত্বের শেষ সীমায় মাহফুজ আনাম আর মতিউর রহমান

২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ভোর ৫:৩৫
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রচার মাধ্যম হিসাবে প্রথম আলো আর ডেইলি স্টারের ভূমিকা আমরা সবাই জানি। মাইনাস টু ফমূর্লার মুখপাত্র হিসাবে এই দুই পত্রিকা শুধু যে ডিজিএফআইএর নোটগুলোই ছাপেনি -এর পক্ষে উপসম্পাদকীয় এবং কমেন্টারী লিখে জনমত তৈরী করেছেন। ব্যক্তিগত ভাবে আমিও এই দুইজনের লেখা গোগ্রাসে গিলতাম - পরে যখন দেখলাম মুজাহিদ আর নিজামী ওয়ারেন্ট নিয়েও ঘুরে বেড়ায় আর খালেদা আর হাসিনাকে ওয়ারেন্ট ছাড়াই এরেস্ট করে জেলে ঢুকাচ্ছে - তখন কিছুটা সন্দেহের মাঝে পড়ে যাই - পরে রাজনীতি বন্ধ করে ইউনুস সাহেবের জন্যে যখন মাঠ খালি করে গোল দেওয়ার ব্যবস্থা করা হলো - তখন বুঝা গেলো - এইটা আসলে ভিন্ন খেলা। যে খেলার শুরু হয়েছিলো ২৮ শে অক্টোবর দিনেদুপুরের মানুষ হত্যার লাইভ টেলিকাষ্ট করার মাধ্যমে - তারপর শুরু হয়েছে বিরাজনীতি করনের প্রক্রিয়া।

আসলে যা হয়েছিলো - তাকে বলে - মেরিটোক্রেসি -
(mer·i·toc·ra·cy
ˌmerəˈtäkrəsē/
noun
government or the holding of power by people selected on the basis of their ability.
a society governed by meritocracy.
plural noun: meritocracies
a ruling or influential class of educated or skilled people.)


বাংলাদেশের তথাকথিত শিক্ষিত শ্রেনী ভোটের রাজনীতিতে কোন সুবিধা করতে পারছে না - তাই এরা ঠিক করেছিলো - নিজেরা একটা বিশেষ পদ্ধতিতে দেশ শাসন করবে - দুই নেত্রীকে বিদায় দিলে তখন রাজনৈতিক দলগুলো উপর তাদের প্রভাব খাটানো সহজ হবে। এইটা অবশ্যই বাংলাদেশের প্রলিত সংবিধান এবং আইনের পরিপন্থী।

যাই হোক মাহফুজ আনাম স্বীকার করেছেন - কিন্তু যারা মুন্নী সাহার টকশো দেখেছে - তারা জানেন উনি ফাঁদে পড়ে স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছে - এখন এমন একটা ভাব করছেন - ভুল স্বীকার করে উনি বিরাট উদারতার পরিচয় দিয়েছে।

আসলে কি তাই - একজন বাস ড্রাইভার ভুল করে গাড়ী নদীতে ফেলে দিয়ে যেমন দায়িত্ব এড়াতে পারে না - তেমনি মাহফুজ আনামও তার ভুলের কারনে যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন - তাদের বিষয়ে দায়িত্ব এড়াতে পারেন না।

শুধু ১/১১ এ যা করেছেন উনারা তাই যদি শেষ হতো - তা হলে কথা ছিলো না - কিন্তু পদ্মা সেতু নিয়ে উনারা নিজের দেশের সরকারের বিরুদ্ধে দাড়িয়ে বিশ্বব্যাংকের পক্ষে জনমত তৈরী করছেন - যার ফলে পদ্মা সেতু বানানোর জন্যে যে কালক্ষেপনের কারনে আর্থিক ক্ষতি হয়েছে তার দায়ও এই সম্পাদককেই নিতে হবে।

যে মামলাগুলো হচ্ছে তা অর্থহীন - শেখ হাসিনা ৭ বছর সময় পেয়েছেন এই দুইজনের কিছু করার - কিন্তু নির্যাতিত হয়েও উনি ধৈর্য্য ধরেছেন - আশা করি এই বিষয়ে উনি এর চেয়ে বেশীদুর যাবেন না। দুইজন অংহকারী মানুষ হিসাবে নিজেদের সকল আইনের বাইরে নিজেদের বিবেচনা করছেন উনারা - মামলা হলেই শাস্তি হয়ে যায় না - হাইকোর্টে একটা রিট করে মামলাগুলো স্থগিত করা খুবই সহজ কাজ - কিন্তু এই দুইজন বসে বসে এখন মামলা গুনছেন আর ক্ষতিপুরনের অংক যোগ দিয়ে তা পত্রিকায় প্রচার করে জনমত বিভ্রান্ত করা চেষ্টা করছেন

এদের পুরো চরিত্র আবার দেখা দিয়েছে - মামলার সংখ্যা দেখিয়ে জনগনের সহানুভূতি যোগাড় করতে চাইছেন - দুই পরষ্পরবিরোধী দলের কোন্দলকে কাজে লাগাতে চাইছে - - ইতোমধ্যে বিএনপি সেই ফাঁদে পাও দিয়ে ফেলেছে - সুতরাং উনাদের কৌশলগুলো কাজ করছে বলেই মনে করা হচ্ছে। দিন শেষে উনারা আবার প্রমান করবেন - সকল সমস্যার মুলে রাজনীতিবিদগন আর সুশীলরা হলো ধোঁয়া তুলশীপাতা।

তবে বাংলাদেশের মানুষ আগের চেয়ে অনেক সচেতন - প্রতারকদের ফাঁদে পা দেওয়ার সম্ভাবনা কম।

সবচেয়ে ভাল হতো যদি এই ভুল স্বীকার করে মাহফুজ আনাম পদত্যাগ করতেন - যারা প্রতিনিয়ত বিদেশের উদাহরন দিয়ে দেশের মানুষকে নসিহত করেন - নিজেদের বেলায় তা পালন করেন না - এরা হলো সত্যিকারে হিপোক্রেট - মাহফুজ আনাম আর মতিউর রহমানের মতো হিপোক্রেটরাই বাংলাদেশের ইন্টেলেকচুয়াল - এইটাই হলো বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বদ নসীব।



সর্বশেষ এডিট : ২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ভোর ৫:৫৫
২টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

ভালোবাসা ও নৌকা

লিখেছেন সাব্বির আহমেদ সাকিল, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:৩৯

ভালোবাসা হলো একটা ডিঙি নৌকার মতো । যেখানে নৌকাকে ব্যালেন্স করবার জন্য দু’জন মানুষ থাকে । দু’জন মানুষের কাছে থাকে একটা বৈঠা । একজন বৈঠা বাইতে বাইতে ক্লান্ত হয়ে গেলে... ...বাকিটুকু পড়ুন

এটা ধর্মীয় পোষ্ট নহে

লিখেছেন রাজীব নুর, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:১০

ছবিঃ আমার তোলা।

আল্লাহ আমার উপর সহায় আছেন।
অথচ আমি নামাজ পড়ি না। রোজা রাখি না। এক কথায় বলা যেতে পারে- ধর্ম পালন করি না। তবু আল্লাহ আমাকে বাঁচিয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আওয়ামী লীগের আমলে ২২ জন ছাত্রলীগারের ফাঁসী?

লিখেছেন চাঁদগাজী, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২৫




** এই রায় সঠিক নয়, ইহা আজকের জন্য মুলা; হাইকোর্টে গেলে ২/৩ জনের ফাঁসীর রায় টিকে থাকবে, বাকীরা জেল টেল পাবে। ****

১ম বিষয়: আওয়ামী লীগের শাসনামলে,... ...বাকিটুকু পড়ুন

পথের প্রেম

লিখেছেন মৌরি হক দোলা, ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:৫১



সেদিন তোমার কাছে প্রতিশ্রুতি চেয়েছিলাম,
ভয়ে বিবর্ণতা জাপটে ধরেছিল তোমায়।‌
সেদিন তোমার ভীতসন্ত্রস্ত মন,
আমাদের মাঝে নিয়ে এলো
পাহাড়সম দূরত্ব।

বিচ্ছিন্ন দুই প্রান্তরে হারিয়ে গেলাম
তুমি আর আমি।
অদেখা - অস্পর্শে
বয়ে গেল বহুদিন...

আজ আর কোনো... ...বাকিটুকু পড়ুন

নগ্নতা : (ফর অ্যাডাল্টস ওনলি)

লিখেছেন মরুভূমির জলদস্যু, ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৪৪

শচীন ভৌমিকের লেখা ফর এডাল্টস ওনলি থেকে কিছু কিছু অংশ যা পড়ে বেশ তৃপ্তি (!!) পেয়েছি। যারা বইটি পড়েননি তাঁরা পড়ে দেখতে পারেন।----



ষাটের দশকে আমেরিকায় Mooning বলে একটা... ...বাকিটুকু পড়ুন

×