somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

আমার কারো কাছে নেই কোন অভিমানের দেনাপাওনা, নেই কোন কষ্টের হিসাব, তবুও লুকিয়ে থাকা হাহাকার পরম যতনে আগলে রাখি-- প্রথম পাওয়া চিঠির মত, আমি এই রকমই বন্ধু ।

আমার পরিসংখ্যান

জিএম হারুন -অর -রশিদ
quote icon
আরেকটা জীবন যদি পেতাম আমি নির্ঘাত কবি হতাম
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

কেউ কি আমার বন্ধু শাহেদের ঠিকানা জানেন?

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১০:১৩

কেউ কি আমার বন্ধু শাহেদের ঠিকানা জানেন?
আমার খুবই জরুরি তার ঠিকানাটা জানা,
আমি অনেক চেষ্টা করেও ওর ঠিকানা জোগাড় করতে পারছিনা।
আমি অনেক দিন যাবত ওকে খুঁজে বেড়াচ্ছি,
এই ধরুণ, বিশ-একুশ বছর।
আশ্চর্য্য হচ্ছেন সবাই?
শাহ্পরান হলে থাকতাম তখন-৪৩৯/ডিতে।
একদিন খুব ভোরবেলা ঘুম থেকে তুলে বললো,
-“বন্ধু তোর কাছে একটা জিনিস রাখতে দেবো,
খুবই জরুরি,
তুই কিন্তু... বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ১৪১ বার পঠিত     like!

শুদ্ধ মানুষ সব ভুলে না

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ১৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৯:১৮


প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠলেই
কে যেন ডাকে আমায়,
বুকের ভিতর থেকে ডাকে.
মাথার ভিতর থেকে ডাকে,
ডেকে বলে, “সব ভুলে যেতে নেই,
শুদ্ধ মানুষ সব ভুলে না”।
আমি জানিনা আমি কিভাবে শুদ্ধ হবো ?
আমার শুদ্ধতার গায়ে অশুদ্ধতা
লেপ্টে থাকে পোষা বিড়ালের মতো।
আমার অশুদ্ধতাকেও আমি
ভালোবেসে ফেলি সব ভুলে।
অশুদ্ধতায় আমি ভুলে যাই
ভালোবাসার মানুষদের কথা,
অভিমান... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৬৮ বার পঠিত     like!

কবিতা ও কষ্ট

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ০৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৯:৩১


আমি আজ অনেক দিন পর আকাশের দিকে তাকালাম।
আকাশের রঙটা একেবারে ভুলে গিয়েছিলাম।
মাঝে মাঝে মনে হতো আকাশের রঙ বোধহয়-
সাদা, নীল, সবুজ হয়তো বা বেগূনী।
নাকি প্রতিনিয়ত বদলে অন্য কোনো রঙ হয়ে গেছে।

মনোলীনা,
আমি উনিশ বৎসর আকাশের দিকে তাকাইনা,
-শুধু একটি কবিতার জন্য।

শুধু একটি কবিতার জন্য
-আমি ঘরে বাস করেও গৃহত্যাগী হয়েছি।
অসংখ্য মানুষের ভীড়েও আমি... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৫১ বার পঠিত     like!

আমার ছায়াটা মরেই গেলো

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:২৯


মনোলীনা,
আমার ছায়াটা বোধহয় মরেই যাবে!
প্রতিদিন একটু একটু করে আমার ছায়াটা মরে যাচ্ছে।
ছায়াটা আমার সাথেই ছিলো সারাজীবন।
পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডাবল এম, এ করা ছায়া,
ভালো স্কুল,কলেজে পড়েছে,
তুখোড় বক্তা ছিলো একসময়,
ভালে বিপ্লবী কবিতাও লিখতো মাঝে মাঝে।
ইদানিং সে শরীরের ভিতর থেকে বের হতেই চায়না,
লজ্জায় আর ভয়ে কুকড়ে থাকে সারাক্ষন।
ছায়াটা বোধহয় নিজেকেই মারছে আমার অজান্তে!
আমাকেও... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৪৮ বার পঠিত     like!

জোড়াতালি মারা জীবন

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ৩০ শে আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:১৩


আমার জীবন
এতো জোড়াতালি মারা জীবন!!
টানতে টানতে প্রতিদিনই আরো ছিড়ে ফেলি,
দর্জিওয়ালা ও করুনার হাসি দিয়ে বলে,
“এতো ছেড়া জীবন আর সেলাই করে কি হবে!!
ফেলে দিলেই হয়,
অযথা সবার সময় নষ্ট।”
ঘুমোতে যাবার আগে প্রতি রাতে
নিজেই সুই সুতো নিয়ে বসে যাই
সেলাই করি-
ছিড়ে যাওয়া এক অদৃশ্য রং উঠা বিবর্ন আমার জীবনকে।
তারপর রাতের মধ্যেই ধুয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১৪৬ বার পঠিত     like!

ছয় বন্ধুর একজনই প্রেমিকা

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ০৮ ই আগস্ট, ২০২১ রাত ১২:৪৯


অনেকদিন পর আজ
প্রায় পঁচিশ বছর হবে হয়তো,
আমাদের ছয় বন্ধুর দেখা হলো।
সবাই আমরা এখন কম বেশী পঞ্চাশ এর যুবক।

সবাই থাকি আমরা দেশের বাইরে।
অদ্ভুত মিল ছিলো আমাদের
সবাই যাত্রাবাড়ীর ওয়াসা গলিতে ভাড়া করা বাড়িতে থাকতাম,
আর আমরা সবাই মিলে প্রেমে পড়েছিলাম এক বাড়িওয়ালার কিশোরী মেয়ের।

কিশোরীটি নিজেদের দোতলা বাড়ীর বারান্দায় যখনই দাঁড়াতো-
আমরা ছয়জনই ক্ষুধার্ত লোভী... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ৯৫ বার পঠিত     like!

ভেসে যায় লক্ষিন্দরের বাসর ঘর

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ০৫ ই আগস্ট, ২০২১ রাত ১০:৩৩


আষাঢ়ে বিষণ্নতায় ভুগছে এই শহরের আকাশ,
সে কাঁদছে বোকার মতো।

পুরো শহর সেই বিষণ্নতার কান্নার জলে ডুবে থই থই,
তুমি ছাড়া আকাশের এই কান্না থামানোর কেউ নেই এই শহরে।
পুরো আষাঢ় জুড়েই শোকার্ত কিছু কদম ফুল নিয়ে
আমি দু'পা ডুবিয়ে দাঁড়িয়ে আছি সেই 'মনমরা জলে'
ঠিক তোমার ঘরের এক নিষ্প্রাণ... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৯৭ বার পঠিত     like!

আমার কোনো বন্ধু নেই এই শহরে

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ২৬ শে জুলাই, ২০২১ বিকাল ৫:৪৫


নির্জনে বসে একা একা
আমি কাঁদি,
আমি কাঁদি
আমারই জন্য।
আমার কোনো বন্ধু নেই
আহারে আমার কোনো বন্ধু নেই
এই ঢাকা শহরে।

বিশাল এই শহরে বন্ধুহীন আমি তাই
নিঃসঙ্গতার জ্বরে ভুগি,
বুকের অসুখে ছটফট করে ‌অঘুমে সাঁতরাই সারারাত।
অকোমল এই ঢাকা শহরে আমি বন্ধু হতে যার কাছে‌ই হাত পাতি,
আমার একলা হাতে ধরিয়ে দেয় ভিন্ন ভিন্ন বিষাদের... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৭১ বার পঠিত     like!

মানব বৃক্ষ

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ১৯ শে জুলাই, ২০২১ রাত ১:৪৫


আমি দাঁড়িয়ে,
একাকী দাঁড়িয়ে,
নিত্য দাঁড়িয়ে,
আমার শরীর থেকে আজ অপেক্ষার শিকড় আশ্রম গেড়েছে মাটিতে।

তুমি চলে যাও,
তুমি কখনোই দেখোনা,
তুমি বুঝোনা,
একাকী এক মানব বৃক্ষের ‌অপেক্ষা।

বৃক্ষের কষ্ট কেউ বুঝেনা,
বুঝে শুধু মাটি।

মনোলীনা,
দু’হাটু গেড়ে তোমার কাছে আজ নিবেদন জানাই-
পর জন্মে তুমি মাটি হইও,
আমি না হয় বৃক্ষই হবো।
----------
রশিদ হারুন
১৯/০৭/২০২১ বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৬১ বার পঠিত     like!

জীবনচক্র

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ১৪ ই জুলাই, ২০২১ রাত ৮:০৩

জীবনচক্র
------------------
প্রতি ঈদের নামাজের পর
ঈদগাহ থেকে বাড়ির পথে
শীতের কুয়াশা অথবা আষাঢ়ের জলে ভেঁজা মাটির পিচ্ছিল রাস্তা ধরে,
বাবার পেছন পেছন হাঁটতে হাঁটতে
আমরা দু’ভাই ভয়ে ভয়ে বাবাকে বলতাম;
“ঈদের দিন না গেলে হয়না,
বাড়িতে গিয়ে নতুন কাপড় পরে ঘুরতে বের হবো।”
বাবা খুব গম্ভীর ভরাট গলায় বলতো
“এইতো বেশি সময় লাগবে নাহ।”

একটি বৃদ্ধ ডুমুর... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৪৬ বার পঠিত     like!

দূরত্ব

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ০৬ ই জুলাই, ২০২১ বিকাল ৩:৪০


তোমার বাড়ির জানালা
আমার দু'চোখ থেকে মাত্র
আমারই শরীর সমান দূরতম।

বুক পোড়া রোদে তোমার বাড়ির ছায়াতে
আমি ক্লান্ত দাঁড়কাকের মতো দাঁড়িয়ে আমার শরীর জুড়াই।
কপাল থেকে ঘাম ঝরতে থাকা চোখের উপরের লবণজল সরিয়ে
তোমার জানলার দিকে তাকিয়ে থাকলে হঠাৎ আগোছালো বাতাসে পর্দা সরে গেলে
মাঝে মাঝে দেখা দেয়,
-রঙিন ফুলের... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৬৩ বার পঠিত     like!

ধান আর ঘুমের কৃষক

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ০৩ রা জুলাই, ২০২১ বিকাল ৩:৩০



যদি তুমি আমাকে কিছু ঘুম ধার দিতে আমি সংসারী হয়ে যেতাম।

অসংসারী মানুষের মতো আমি
প্রতিদিনই ঘুমের দোকান থেকে
জীর্ণমলিন আর রঙ ওঠা গণিকার শরীরের মুখোশের মিথ্যা ঘুম ভাড়া করি।
প্রতি গভীর রাতে সেই মিথ্যা মুখোশের ঘুমেই
আমি আমার ‌অঘুমের দু’চোখ লুকাই।

সূর্য উঠার পরও মলিন ঘুমকে বৃথাই লুকিয়ে রাখতে যাই দু’চোখে।
সকাল হলেই... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৫৩ বার পঠিত     like!

ক্ষ্যাপা নদী

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ০১ লা জুলাই, ২০২১ দুপুর ১:৩৩


তুমি সাঁতার শিখতে চেয়েছিলে বন্ধ্যা পুকুরে,
অথচ আমি কিনা বোকার মতো অস্থির হয়ে
একটা ক্ষ্যাপা নদী পালক নিলাম এই বুকে।

এখন তোমার সাঁতারের দাবড়ানিতে
আমার পালক ক্ষ্যাপা নদীর জল উছলায়
শুধু উছলায়,
তার সাথে উছলায় আমার শরীর।
আমি সংশয়ে থাকি প্রতি মুহূর্তে
তোমার উছলানিতে আমার বুকের দু’কুলের জমিন
না জানি ভেঙে যায়।

‘মনালোয়া’ আগ্নিগিরি অনেকদিন থেকে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৬৬ বার পঠিত     like!

তুমি চলে যাচ্ছো আমি কাঁদছি

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ২৬ শে জুন, ২০২১ রাত ৯:৫৯


তুমি চলে যাচ্ছো,
পিছনে ফিরে একবারও দেখলে না
আমি বুকের ভিতরে কাঁদছি।
মাটিতে ছুঁয়ে আছে তোমার লাল শাড়ির আঁচল।
মাটিই জানে এই আঁচলের ছোঁয়া কতোটুকু কঠোর কোমল
নাকি অনুভূতিশূন্য?
তুমি চলে যাচ্ছো
আমি বুকের ভিতরে কাঁদছি।
-----------
র শি দ হা রু ন
২৬/০৬/২০২১ বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ৮৪ বার পঠিত     like!

তুমি কি আজ বাড়ি ফিরবে?

লিখেছেন জিএম হারুন -অর -রশিদ, ২৫ শে জুন, ২০২১ বিকাল ৩:৫০


সাতদিন ধরে বারান্দায় ঝুলছে তোমার হলুদ শাড়িটা ,
তার পাশেই আমার কালো রঙের একটা পাঞ্জাবি।

হলুদ শাড়িটা হঠাৎ করেই মাঝে মাঝে দমকা এক বাতাসে এলোমেলো হয়ে যায়,
আর তখনই সে পাঞ্জাবিটার শরীরে ঝাপটা আঘাত দেয়।
কোনো কিছুরই পরোয়া নেই এই জগতে তোমার শাড়িটার,
সবকিছুতেই যেনো তার অহংকার আর খামখেয়ালিপনা।

শাড়িটার পাশেই আমার কালো পাঞ্জাবিটা
নিথর হয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ১৩৪ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৬৪৬৩৪ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ