somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

ব্লগ ডে- ২০১৯

২২ শে নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:০৮
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


"ব্লগ ডে" এ দু'টি শব্দ মনে পড়লে আমার চোখে ভাসে কৌশিকভাইয়ার অসাধারণ কন্ঠে উপস্থাপনার ছবিটি। চোখে ভাসে জানা আপুর ছিপছিপে শাড়ি পরা চেহারাটা। চোখে ভাসে প্রায় তুষার কন্যা টাইপ ধপধপে ফর্সা চেহারার আইরিন আপুনির কথা। মনজুরুলভাইয়া, কালপুরুষভাইয়া, শরৎভাইয়া এরাই সব তখন ব্লগের মাথা অথবা ব্লগের প্রাণ ছিলো আমার কাছে। আমার প্রিয় এই ব্লগটি তখন আমার কাছে এক বিস্ময়! এক আশ্চর্য্যের জগৎ। বাংলাতে লেখাই শিখে ফেলি আমি এই ব্লগটির কল্যানে।

তখনও বাংলা ভাষায় টাইপিং এত সহজ হয়ে ওঠেনি। সেই সময় একজনকে বাংলায় টাইপ করতে দেখে মুগ্ধ হয়ে গেলাম। আর সেই থেকেই জানলাম এই ব্লগটির কথা। এইখানে বাংলা লেখা এত সহজ!!!!! ব্যাস তারপরই আমার ব্লগেই পড়ে থাকা। দিন নেই রাত নেই আমার নিকটা ২৪ ঘন্টাই লগ ইন থাকে। যদিও আমি একদিনেই সেইফ হয়ে যাই এবং আমার সেই অংবং লেখাও মানুষ পড়ছে দেখতে পাই এবং শুধু পড়ছেই না, ভালোভাবেই পড়ছে দেখি। অবাক হতেই হয় তখন আমার!

ব্লগে সবার সাথে লিখে লিখে যোগাযোগটা থেকেই এই ব্লগের মানুষগুলো হয়ে ওঠে আমার কাছে এক একজন স্বপ্নলোকেের মানুষ। তাই যখন তাদের লেখা অপরবাস্তব বইটার কথা জানতে পাই। সেটি সংগ্রহ করতে বেশি সময় নষ্ট করিনি। একটা কথা বলি, আজ কত শত ফেসবুক গ্রুপ, কত শত সংকলন। সেই অপরবাস্তবের মত মায়াবী আর ভালো লাগার সংকলনটির মত আমার আর কোনোটাকেই মনে হয়নি কখনও। আর নামটা কে রেখেছিলো জানিনা। তবে ভারচুয়াল ওয়ার্ল্ডের এই জগতের মানুষগুলোর লেখা নিয়ে সেই অপরবাস্তব বইটির নামাকরণের মত আর কিছুই মনে হয় হয়না কখনও! অপরবাস্তব তাই আমার কাছে সবচেয়ে প্রিয় একটি সংকলন!

বলছিলাম সেই হারিয়ে যাওয়া দিনগুলিতে ব্লগ ডের কথা। নানা চড়াই উৎরাই বাঁধা বিপত্তি পেরিয়েও আজও মাথা তুলে দাঁড়িয়ে আছে আমার আর আমাদের প্রাণের ব্লগ সামহ্যোয়ারইন ব্লগ! এই ব্লগ আমাকে কি দিয়েছে, কি শিখিয়েছে তা বলার জন্য আরও কয়েকটি রচনা লাগবে আমার। তাই সে কথা আর বলতে চাইনা। প্রতি বছর ডিসেম্বর আসলে মনে হয় এই মাসে আমার প্রিয় ব্লগটির জন্মদিন। কত সকাল, সন্ধ্যা, দুপুর কেটে গেছে আমার এই ব্লগটিতে। কত মান অভিমান ভালোবাসা লেখা আছে এর পাতায় পাতায়। এই প্রিয় ব্লগটি দীর্ঘজীবি হোক! জন্ম নিক আরও শত শত ব্লগার এই প্রিয় প্রাঙ্গনে। নতুন দিনের মানুষেরা বাঁচুক বাক স্বাধীনতায়, স্বাধীন প্রাণচাঞ্চল্যে মাথা উঁচু করে।

কাল্পনিক ভালোবাসা ভাইয়ার পোস্টে দেখা যাচ্ছে আগামী ২০ ডিসেম্বর, শুক্রবার সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রে ব্লগ দিবস অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে। এ অনুষ্ঠানে থাকবে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ এবারে নাকি রাতের খাবারও পরিবেশন করা হবে। এই ব্লগ দিবস উপলক্ষ্যে এবারে বিশেষ ম্যাগাজিনও প্রকাশ হতে যাচ্ছে। জানিনা সেটার নাম কি? তবে আমার মতে অপরবাস্তব নামটা হলেই সবচেয়ে ভালো হত। ব্লগ ডে নিয়ে অনেক অনেকবার অনুষ্ঠান হয়েছে তবে এত বড় পরিকল্পনা আমি এর আগে কখনও দেখিনি। বিশেষ করে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের কথা শুনে আমি নাচুনে বুড়ির প্রাণ একেবারেই নেচে উঠলো।

কিন্তু আমি আবার নাচুনে বুড়ি হলে কি হবে। এক্কেবারেই লজ্জাবতী লতা। :P তাই নাচতে নাচতে কি করে ব্লগ ডে তে চলে যাই সেই কথা ভেবেই লজ্জায় লাল হয়ে গেলাম। কিন্তু অনেক ভেবে ভেবে শেষ পর্যন্ত মনে হলো অনেক হয়েছে, অপরবাস্তবের মানুষগুলোকে এবার একটু বাস্তবেই দেখে ফেলি। :P তাই অনেক ভেবে চিন্তে শেষে নিবন্ধন করেই ফেললাম! !!!!!!!!!!!!!!!!!!! দরকার পড়লে অবশ্য বোরখা পরে যেতে হতে পারে! :P


কিন্ত এখন আবার চিন্তা হচ্ছে এত কষ্ট করে এত ভেবে চিন্তে লাজ লজ্জা ঝেড়ে আমি যে নিবন্ধন করলাম! আমার প্রিয় ভাইয়া আপুনিরা তারা কে কে যাচ্ছে ব্লগ ডের এই অনুষ্ঠানে। কৌশিকভাইয়া, মনজুরুল ভাইয়া, জানা আপু তারা কি থাকবেন? আমার আখেনাটেন ভাইয়া, শকুনভাইয়া, খায়রুলভাইয়া, নীল ভাইয়া, করুনাধারা আপুনি, ভুয়া মফিজ ভাইয়া, আহমেদ জি এসভাইয়া তারাই বা কি ভাবছেন ? আরজুপনি আপু, কি করি ভাইয়া, অগ্নিসারথী ভাইয়া, নেক্সাস ভাইয়া,কাওসার ভাইয়া, ছবি আপু, রাবেয়া আপু, মিথী আপু তোমাদের সবার খবর কি? সেলিমভাইয়া আর তানিমভাইয়া এই দুই কবি ভাইয়ারাতো অবশ্যই যাবে বলেই আমি নিশ্চিৎ। সবাইকে দেখতে ইচ্ছা করে এই দুচোখ ভরে। জানতে ইচ্ছা করে এই ব্লগ আর ব্লগারের অন্তরালে, ফেসবুক আর ফেসবুকের অন্তর্জালের বাইরে আসলেই তারা ঠিক কেমন কেমন ???

যাইহোক নিবন্ধনের নিয়মটা বলে দেই। ০১৭০৭০০৮২১৭ এই বিকাশ নাম্বারে ৩০০ টাকা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। বিকাশ করার পর, নিজের নাম, ব্লগ নাম, যে নাম্বার থেকে বিকাশ করা হবে সেই নাম্বার [email protected] ঠিকানায় মেইল করে জানাতে হবে অথবা ফোন করা যাবে। তখন ব্লগ থেকে একটা রিসিপ্ট দেওয়া হবে। যেটা নিয়ে আসতে হবে।
ডিসেম্বর ১৪এর মাঝে নিবন্ধন করতেই হবে নয়তো এই অনুষ্ঠানটিই নাকি বাতিল হয়ে যেতে পারে। :( :( :(

ব্লগ ডেতে ব্লগারদের মিলনমেলায় মুখরিত হয়ে উঠুক সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র। চারিদিকে বাজুক হাসি আর আনন্দ কলোরোল। সকল দুঃখ বেদনা ব্যাথা ভুলে সকলে গেয়ে উঠুক আনন্দ সঙ্গীত!!!
সর্বশেষ এডিট : ২৩ শে নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৪৮
৭৯টি মন্তব্য ৮৩টি উত্তর পূর্বের ৫০টি মন্তব্য দেখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

চামড়া ও চামড়াশিল্পের কেন আজ এই ভয়াবহ পরিস্থিতি?#২

লিখেছেন শেরজা তপন, ০৮ ই আগস্ট, ২০২০ সকাল ১১:২৯


আগের পর্বের জন্য: Click This Link
হাজারীবাগ
১৯৪০ এর দশকে এক ব্যবসায়ী আর.পি. শাহা কর্তৃক নারায়ণগঞ্জে বাংলাদেশের প্রথম ট্যানারি স্থাপন করা হয়েছিল। ট্যানারিটি পরে(১৯৪৫ সালে দিকে- মতান্তর আছে, কোথাও বলা হয়েছে... ...বাকিটুকু পড়ুন

খুকু ও মুনীরের পরকীয়ার বলি শারমীন রীমাঃ হায়রে পরকীয়া !!

লিখেছেন নূর মোহাম্মদ নূরু, ০৮ ই আগস্ট, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩১


পরকীয়া একটি নিষিদ্ধ সম্পর্কের নাম। মানবসমাজে কত ধরণের প্রেমই তো আছে! তবে যত ধরণের প্রেমই থাকুক না কেন ‘পরকীয়া’ প্রেমকে সবাই একটু ভিন্ন চোখে দেখে। নিষিদ্ধ জিনিষের প্রতি... ...বাকিটুকু পড়ুন

মেয়েটি চলল প্রবাসের পথে - আগমনী বার্তা (সামু পাগলার নতুন সিরিজ :) )

লিখেছেন সামু পাগলা০০৭, ০৮ ই আগস্ট, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪০



এই পোস্টটি মূলত নতুন সিরিজ আসার আগমনী বার্তা। আবার একদিক দিয়ে দেখলে আমার জীবনে প্রবাসের আগমনী বার্তাও বটে।
আমি সাধারণত কোন সিরিজ শুরু করলে শেষ করতে পারিনা। সেজন্যেই... ...বাকিটুকু পড়ুন

বৈরুত – হিরোশিমার মিনি ভার্সন

লিখেছেন শাহ আজিজ, ০৮ ই আগস্ট, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫৭



বৈরুতকে একসময় প্রাচ্যের প্যারিস বলা হত । ৪০এর দশকে আমাদের এই অঞ্চলের ছেলেরা বৈরুতের আমেরিকান বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে যেত । ওখানে চিকিৎসা এবং হাসপাতাল ব্যাবস্থা খুব উন্নত ছিল... ...বাকিটুকু পড়ুন

নির্ঘুম রাত

লিখেছেন মিরোরডডল , ০৮ ই আগস্ট, ২০২০ রাত ১০:৫২





আবারও আসলাম কিছু প্রিয় গান নিয়ে ।
সাধারণত মেল ভোকালে বেশী গান শোনা হয় কিন্তু আজ কিছু ফিমেল ভোকালে গান শেয়ার করছি ।

আমি কেমনে কাটাই এ রাত... ...বাকিটুকু পড়ুন

×