somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

অগ্রজ ব্লগারদের হাল-হকিকত

০৫ ই আগস্ট, ২০২৩ রাত ৮:৪৮
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :



ব্লগার কামাল ১৮ এর ব্লগের পরিসংখ্যানে;
• পোস্ট করেছি: ০টি
• মন্তব্য করেছি: ৪০৬৩টি
• মন্তব্য পেয়েছি: ০টি • ব্লগ লিখেছি: ২ বছর ৩ মাস
৩১শে জুলাই তিনি আমার পোস্টে একটা মন্তব্য করেছিলেন;
কামাল১৮ বলেছেন: …যেহেতু আমি ব্লগ লিখি না সেই অর্থে আমি ব্লগার না। আমি শুধু মন্তব্য করি।
~তিনি যদি ব্লগার না হয়ে থাকেন তবে ব্লগার কারা? আমার মাথায় ঘুরতে থাকে; শুধু মন্তব্যকারী যদি ব্লগার না হয়ে থাকেন তবে শুধু পোস্টদাতা কি খাঁটি ব্লগার? কমিউনিটি ব্লগিং কি শুধু নিজের ঢোল পেটানো- কিংবা নিজের ভাবনা শেয়ার করা? অন্যের মতামত বা ভাবনাকে মূল্যায়ন না করা কি আসল ব্লগারের পরিচয়? অন্যের পোস্টে মন্তব্য না করা বা কারো মন্তব্যের উত্তর না দেয়ার মানে কি নিজে যে জাঁদরেল ব্লগার- এটা প্রমাণ করা?
*******
ব্লগ লেখা ও মন্তব্যে আমাদের অগ্রজ ব্লগার, মাঝারি বয়সের ব্লগার, আঁতেল ব্লগার, কবি ব্লগার, ধুমকেতুর মত মাঝে মধ্যে উদিত হওয়া ব্লগার, সহ নব্য ব্লগারদের অবদান কতটুকু; এই নিয়ে এক বছরের একটা পরিসংখ্যান করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু এতটা সময় দেয়া আমার পক্ষে অসম্ভব! তাই অনেক ধৈর্য নিয়ে এক মাসের একটা পরিসংখ্যান নিয়ে আসলাম।
আমার অধ্যাবসয় ধৈর্য ও বেকার খাটুনি আসলে ব্লগ ও ব্লগারের কি উপকারে লাগবে কিংবা আদৌ লাগবে কি না আমার জানা নেই। তবে এই পোস্টের পরে অনেক ব্লগারের চক্ষুশূল হব আমি। ধারনা করছি আমার আলগা একটা ভদ্র ইমেজের দফারফা হবে নিশ্চিত! তবে আশার কথা এই যে, যাদের নিয়ে মুলত সমালোচনা করেছি তারা বেশীরভাগই ব্লগ থেকে দূরে থাকেন কিংবা অন্য ব্লগারদের লেখা ভুলেও পড়েন না। তাই খানিকটা আশান্বিত হচ্ছি।

ব্লগিং বহু কিসিমের আছে। ব্যাক্তিগত ব্লগ, বিজনেস ব্লগ, প্রফেশনাল ব্লগ, মাল্টিমিডিয়া ব্লগ।
আমরা সামুতে যে ধরনের ব্লগিং করে থাকি এটাকে সম্ভবত কমিউনিটি ব্লগিং বলে।


মিউনিটি ব্লগিং হল একটি সম্মিলিত ধারণা যা সাধারণতা নিজেদের ভাবনা শেয়ার করা ও সমমনা মানুষদের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে তোলার আগ্রহের জন্য গঠিত ব্লগারদের গ্রুপ। কমিউনিটি ব্লগিং এর লেখকদের সাধারণ বৈশিষ্ট্য এবং ব্লগের বিষয়গুলির সাথে সংযুক্ত হতে সাহায্য করার জন্য বিদ্যমান যা তাদের একসাথে বেড়ে ওঠার পাশাপাশি একে অপরের অভিজ্ঞতা থেকে শেখার সুযোগ দেয়। কমিউনিটি ব্লগিং হল তেমনই একটি ওয়েবসাইট যা ব্লগারদের তাদের আগ্রহের বিষয়বস্তুগুলোকে আরও ভালভাবে জানতে সাহায্য করে।

কিন্তু কমিউনিটি ব্লগিং মানে কি শুধু; নিজের লেখা প্রচার করা- অন্যেরা কি লিখল বা না লিখল তাঁর কোন ধারনা না রাখা বা পাত্তা না দেয়া।
আমি মনে করি কমিউনিটি ব্লগিং এ নিজের ভাবনা শেয়ার করার পাশাপাশি অন্যের ভাবনাকে মুল্যায়ন করা। তাঁর কোন ভুল বা অসঙ্গতি দৃষ্টিতে আসলে গঠনমুলক মন্তব্য করে তাঁকে আরো ভাল কিছু লিখতে উৎসাহিত করা।
এধরনের ব্লগে সবাই সবার পরিপূরক। কাউকে খাটো করে দেখার উপায় নেই।
***
বার আমরা একটু দেখে আসি দীর্ঘ পাঁচদিন ধরে স্টিকি করে রাখা পোস্টের লেখক সিনিয়র এক সিনিয়র একজন ব্লগারের খতিয়ান;

এক নিরুদ্দেশ পথিক; পেশাঃ প্রকৌশলী, টেকনিক্যাল আর্কিটেক্ট, ভোডাফোন। আসল নাম ‘ফয়েজ আহমদ তৈয়্যব’। তাঁর মত একজন অনন্য গুণে গুণী ব্যক্তিত্ব আমাদের হতমান এই ব্লগের আঙ্গিনা মাড়ান সেইটেই বড় গর্বের। ( ইঁনাকে নিয়ে একটু বেশী ও আলাদাভাবে আলাপ করছি)
প্রথমে এই গুণী ব্যাক্তির পরিসংখ্যানটা একটু দেখে আসি;
• পোস্ট করেছি: ২৫৪টি
• মন্তব্য করেছি: ১৬৮৩টি
• মন্তব্য পেয়েছি: ২৬৭৮টি
• ব্লগ লিখেছি: ৯ বছর ৫ মাস
তিনি শেষবার মন্তব্য করেছেন ২০২১ সালে ২৬ জুলাই ব্লগার রাজীব নুরের পোস্টে। তাঁর প্রিয় পোস্টের সবগুলো নিজেরই ব্লগের পোষ্ট!! কেন কিজন্য? আমার জানা নেই!!

তিনি এর আগের যে পোষ্ট দিয়েছিলেন, 'আসেন বাজেটের ভালো ২টা দিক নিয়ে কথা বলি!’ শিরোনামে সেখানে ৭ টির মধ্যে মাত্র ১টির উত্তর দিয়েছিলেন। তিনি শেষ ৫০টি মন্তব্যের মাত্র ৪টির উত্তর দিয়েছেন।

তবে তিনি প্রথম আলো সহ জাতীয় দৈনিকে নিয়মিত কলাম লেখেন। প্রচুর পড়াশুনা ও লেখালেখির পাশাপাশি বিভিন্ন সভা-সেমিনারে যোগদান করতে হয় তাঁকে। এছাড়া জীবন জীবিকার তাগিদে দৌড়াতে তো হয়ই।
কিন্তু আমার কথা হচ্ছে; তাঁর শেষ পোস্টে ভোট স্বাধীনতার কথা বলে ব্লগারদের বাক স্বাধীনতা রুদ্ধ করলেন কেন? আর ব্লগ টিম কোন আক্কেলে এমন একটা পোষ্ট( হোক সেটা যতই মান সম্পন্ন) স্টিকি করে রাখলেন। অন্য ব্লগারদের মনে প্রশ্ন অঠা স্বাভাবিক; তাহলে কি ব্লগটিম পক্ষপাতিত্ব করে? আমার ধারনা এই প্রথম মন্তব্য রোধ করা কোন পোষ্ট সামুতে স্টিকি হল। এই নিয়ে কয়েক ঘন্টার মধ্যে সামুর জনপ্রিয় তিনজন ব্লগার তাদের ক্ষোভের কথা জানিয়ে আস্ত পোষ্ট দিয়েছেন।
অন্য একজন ব্লগার যদিও ব্যাখ্যা করেছিলেন কেন তিনি এমনটা করেছেন। কিন্তু জনাব ফজলে আহমেদ ব্লগ ও ব্লগারদের এতই কম খোঁজ খবর রাখেন যে, তিনি জানেনও না বেশ কয়েক মাস সেই ব্লগারের মন্তব্য করার ক্ষমতা রহিত আছে।

২০ ফেবুয়ারি ২০২২ তিনি 'অপ্রতিরোধ্য উন্নয়নের অভাবনীয় কথামালা!' শিরোনামে-তাঁর নিজের বই নিয়ে যেভাবে গর্বভরে বলেছেন;
দুই মলাটের ভিতরে বাংলাদেশের উন্নয়ন নিয়ে এমন তথ্য নির্ভর, ঝাঁঝালো, গঠনমূলক ও যৌক্তিক সমালোচনা খুবই খুবই কম পাবেন, চ্যালেঞ্জ করলাম!

সেখানে ব্লগার গাজী সাহেব মন্তব্য করেছিলেন; আপনি বরাবরই পোষ্ট দিয়ে উদাও হয়ে যান; কে কি বললো, তাতে আপনার কিছু আসে যায় না; আপনি পাঠক পাবেন কিভাবে? (নির্ভেজাল সত্যকথন)
উত্তরে লেখক বলেছেন: ভাষার মাসে মার্জিত নিকে আসুন। চাঁদগাজী সোনাগাজী এসব ভদ্রলোকের নিক হতে পারে না।
আমার প্রথম দুটা বই বেষ্ট সেলার। এটা ৩য় বই। 'চতুর্থ শিল্পবিপ্লব ও বাংলাদেশ' বই রকমারিতে অর্থনীতিতে চতুর্থ বেষ্ট সেলার। 'বাংলাদেশ অর্থনীতির ৫০ বছর' বইটা অর্থনীতিঃ প্রসঙ্গ বাংলাদেশ ক্যাটাগরিতে ৩য় অবস্থানে আছে এই মহুর্তে।
তারপরেও আমার পাঠক নিয়ে আপনার চিন্তায় ভাল লাগা রইল।
ভাষার মাসে মার্জিত নিকে আসুন, আলাপ হবে।

জনাব গাজীর মন্তব্য নিয়ে আমাদের অনেকেরই তিক্ত অভিজ্ঞতা ও বিরক্তি আছে। তিনি আমাকে বিশেষভাবে অপছন্দ করেন- আমিও তাঁকে পছন্দ করি সেটাও নয়। ‘যাকে দেখতে নারি-তার চরন বাঁকা’ তবুও মন্তব্যের প্রতিউত্তর এমন ঝাঁঝালো হলে হয় ব্লগারেরা মন্তব্য করতে উৎসাহ হারিয়ে ফেলেন, না হয় আক্রমানত্মক হয়ে ওঠেন। যদু মদু নিক থাকলে তাঁর সাথে আলাপ করতে সমস্যা হবার কি আছে সেটা আমার মত অকাটমুর্খের মাথায় আসছে না!!!।


বার দেখে আসি আমাদের কিছু অগ্রজ ব্লগারদের আমলনামা( এই পরিসংখ্যানটা নেয়া হয়েছে ২০২৩ সালের জুলাই মাসে যারা পোষ্ট দিয়েছেন শুধু তাঁদের নিয়ে; মুলত যারা কম মন্তব্য করেন ও মন্তব্যের উত্তর দেন। পরিসংখ্যানে ভুল-ভ্রান্তি হতে পারে তাই সবিশেষ অনুরোধ করছি কোন ব্লগারের এই লেখায় ভুল নজরে আসলে সেটা যেন সংশোধন করে দেন। )
মোহাম্মদ আলী আকন্দ
ব্লগের অন্যতম পুরনো ব্লগার মোহাম্মদ আলী আকন্দ ১৩ জুলাই পোষ্ট 'রুজভেল্ট আইল্যান্ড পার্ক, ওয়াশিংটন, ডি.সি.
তাঁর ব্লগিং পরিসংখ্যান;
পোস্ট করেছি: ৪২৯টি
মন্তব্য করেছি: ১৬৭৮টি
মন্তব্য পেয়েছি: ৪২৮০টি
ব্লগ লিখেছি: ১৬ বছর ৪ মাস।
তিনি মুলত ৩ এর ১ ভাগ মন্তব্যের উত্তর দিয়েছেন।
২০১৮ সালের জুলাই থেকে ২৩ সালের জুলাই পর্যন্ত তিনি মোট পাঁচটি মন্তব্য করেছেন। এসময়ে তিনি পোষ্ট দিয়েছেন ৯০ এর অধিক। শুধু জুলাই মাসে তিনি পোষ্ট দিয়েছিলেন ২১টি। [/sb]শুরু করেছিলেন ১৩ই জুলাই থেকে-এর অর্থ তিনি কোন কোন দিন একাধিক পোষ্ট দিয়েছিলেন।

সাইফুলসাই- ।দিনের পর দিন ব্লগে কবিতা দিয়ে নিজের উপস্থিতি জানান দিয়ে যাচ্ছেন কবি ‘সাইফুলসাই’। তাঁর কবিতা প্রায়শই মন্তব্যশুন্য থাকে। প্রায় ১৫ বছর ব্লগে একটিভ থেকে তিনি মোট পোষ্ট করেছেন ২৫৬টি যার বেশীরভাগই কবিতা। অবশ্য বেশ কয়েকতা ছোটখাট গাদ্যিক লেখা থাকলেও ব্লগারদের নজরে তেমন করে আসেনি। শুধু জুলাই মাসে তিনি ১৩খানা কবিতা দিয়েছেন।
তিনি পুরনো ব্লগার হলেও মন্তব্য ও কবিতায় একটিভ হন ২০১৩ সালে। এযাবৎ তিনি সর্বমোট ৪০খানা মন্তব্য করেছেন।
তিনি ২৫৬টি পোস্টের বিপরিতে ৩৪৫টি মানে পোষ্ট প্রতি ১.৩৫ টি মন্তব্য পেয়েছেন। তবুও তাঁর ভাবাবেগ বোঝা অসম্ভব। নিরলসভাবে তিনি লিখেই যাচ্ছন।
* এই কবির বিষয়ে আরো খানিকটা জানব কবিদের হাল হকিকতের পোস্টে।

বিজন রয়
পহেলা জুলাইয়ে প্রথম পোষ্ট নিয়ে এসেছিলেন বিজন রয় –‘অভিমান কিংবা বকুলগন্ধা’ শিরোনামে একটা কবিতা নিয়ে। একসময় নিয়মিত অন্যের পোস্টে মন্তব্য করে পোস্টদাতাকে অনুপ্রাণিত করা এই ব্লগার আচমকা অন্যের পোস্টে মন্তব্য থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে নিলেন। ২০২১ সালের পরে ২০২৩ সালে এসে বেশ জনপ্রিয় এই ব্লগার মাত্র দুটো পোষ্ট করেছেন। তিনি শেষ মন্তব্য ৮ই জুলাই করে ফের হারিয়ে গেছেন। বিজন রয় একসময় প্রচুর মন্তব্য করতেন। সাড়ে ৬ হাজার মন্তব্যের বিপরিতে তিনি ব্লগারদের পোস্টে মন্তব্য করেছেন প্রায় ২৩ হাজার। এমন ব্লগারের ব্লগ বিমুখতা ব্লগারদের জন্য দুর্ভাগ্যের।

এর পরের পোষ্ট এসেছিল নিয়মিত পোষ্ট দেয়া আর মন্তব্যে সরব থাকা মোহাম্মদ গোফরানের ('এই দেশে আইন করে ভন্ড হুজুরদের ওয়াজ নিষিদ্ধ করা সময়ের দাবী'।) তাঁর দীর্ঘসময় অনুপস্থিতি ব্লগের মন্তব্য খড়ার জন্য সামান্য হলেও দায়ী।

ব্রহ্মপুত্র .
১৫ জুলাই এর পোষ্ট 'বুড়িয়ে হয়তো গেছে খানিকটা কিন্তু ফুরিয়ে যায় নি রিয়াদ'
পোস্ট করেছি: ২৩টি
মন্তব্য করেছি: ১৫টি
মন্তব্য পেয়েছি: ৬৭টি
ব্লগ লিখেছি: ১৩ বছর ৭ মাস

তাঁর ব্লগিং জীবনে তিনটে মন্তব্য করেছেন মাত্র। শেষ মন্তব্য ২০১০ সালে!!!!!!!!! মারহাবা

আফিফা আফরিন
১০ই জুলাই 'দুইটা মেয়েলোকের সমান একটা পুরুষলোকের বুদ্ধি!' শিরোনামে পোস্টটি ব্লগের বেশীরভাগ নিয়মিত ব্লগার পড়েছেন ও মন্তব্য করেছেন। কিন্তু আফিফা আফরিন ১০টি মন্তব্যের মধ্যে ৫টির উত্তর আজ অব্দি দেননি। তাঁর ব্লগিং পরিসংখ্যান;
পোস্ট করেছি: ২২টি
মন্তব্য করেছি: ৬১টি
মন্তব্য পেয়েছি: ১৭৬টি
ব্লগ লিখেছি: ১২ বছর ৯ মাস
তিনি এ যাবত অন্য ব্লগারের পোস্টে মোট মন্তব্য করেছেন ২টি!!!!

জহিরুল ইসলাম কক্স ব্লগ পোস্টঃ 'কর্মফল'
১টি মন্তব্য- উত্তর দেননি। শেষবার মন্তব্য করেছিলেন ২০২১ সালে ব্লগার ইন্দ্রনীলা’র একতা পোস্টে। ৮ বছর ২ মাসে ৭৫টি পোষ্ট দিয়েছেন। তিনি ২০২০ সালের জুন মাস থেকে এপর্যন্ত আটটা পোষ্ট দিয়ে ১৮টি মন্তব্য পেয়েছেন যার কোন উত্তর দেবার প্রয়োজন বোধ করেননি।
এমন কারো পোষ্ট মন্তব্য শুন্য হলে কষ্ট হয় না।
[sb]তিনি ২০২০ সাল থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১৮০খানা পোষ্ট দিলেও মন্তব্য করেছেন মাত্র ৪টি। তাও বইমেলা উপলক্ষে তাঁর যে বই বের হয়েছে সেসবের জানান দিতে। একটা শুধু অতি ভাগ্যবান রাজীব নুরের 'ঈশ্বরের খোঁজে' নামক পোস্টে।
এই ব্লগারের পরিসংখ্যান;
• পোস্ট করেছি: ৬৩০টি
• মন্তব্য করেছি: ১৫৪৯টি
• মন্তব্য পেয়েছি: ৩৪০০টি
• ব্লগ লিখেছি: ১২ বছর ২ মাস

এটি এম উল্লাহ
যার পোষ্ট ছিল জমি, বাড়ী, প্লট, ফ্ল্যাটের ক্ষেত্রে নতুন উৎস কর সম্পর্কে জেনে নিন
নিয়মিত ব্লগিং করতে থাকা এই ভদ্রলোকের ব্লগিং পরিসংখ্যানটা একটু দেখে আসি;
পোস্ট করেছেন: ৪১৬টি
মন্তব্য করেছেন: ৭৫৫টি ,মন্তব্য পেয়েছেন: ১৮৮৫টি, ব্লগ লিখেছেন: ১১ বছর ৯ মাস

যিনি ‘অমর একুশে বইমেলা ২০১৯, ব্লগারদের প্রকাশিত বইসমুহ’ তে ২০১৯ সালে শেষ মন্তব্য করেছিলেন। যেখানে মুলত নিজের প্রকাশিত একটা বইয়ের আপডেট দিয়েছিলেন।
**কিন্তু এই সময়কালে তিনি প্রায় ২৪৪টি পোষ্ট দিয়েছেন। কোন কোন মাসে তিনি ২৫টি পর্যন্ত পোষ্ট দিয়েছেন!!!!!

সোনালী ডানার চিল একজন পরিচিত ও পুরনো ব্লগার! ব্লগিংকাল ১১ বছর ৩ মাস।
২০২১শের জুলাই থেকে ২৩ এর জুলাই পর্যন্ত তিনি মাত্র তিনখানা মন্তব্য করেছেন। এ সময়ের মধ্যে তিনি পোষ্ট দিয়েছেন ২১টি। ১৪ জুলাই তিনি 'কষ্টকল্পনায় নষ্টজীবন' একটি পোষ্ট দিয়েছেন।
জুন জুলাই মাসে তিনি তিনটে পোষ্ট দিয়ে ১৫টি মন্তব্য পেয়েছেন। কিন্তু একটা মন্তব্যেরও উত্তর দেননি।
কোন লেখা পড়ে মন্তব্য করে উত্তর না পেলে যে কোন নিশ্চিতভাবে ব্লগার হতাশ হবেন এবং অপমানিতবোধ করবেন। আমাদের পুরনো ব্লগারেরা যদি সেটা উপলব্ধি না করেন তাহলে সেটা মেনে নেয়া কষ্টকর।
ব্লগারদের কাজ কি শুধুই ব্লগ লিখে যাওয়া। সামু ব্লগ কিছু মানুষ তাদের শ্রম আর গাঁটের পয়সা দিয়ে চালায়। কেউ যদি মনে করে তাদের লেখা যে সামুয়ে পোষ্ট দিচ্ছেন সেটাই বিশাল ব্যাপার- সামু ও সামুর ব্লগারদের গর্ব হওয়া উচিৎ। তবে এদের নিয়ে নতুন করে ভাববার আছে।

কামরুল ইসলাম মান্না
শেষ ৩টা পোস্টে নিজের ছবি মহাসমারহে প্রচার করেছেন আর সবাইকে ফ্রি ল্যান্সিং শিখিয়েছেন।
১১ বছরে পোষ্ট দিয়েছেন ৩১টি কিন্তু মন্তব্য পেয়েছেন মাত্র ৬৫টি। ফের প্রতিমন্তব্য আরো কম।
শেষ মন্তব্য করেছেন ২০১৩ সালে। তিনি পোষ্ট দেয়া শুরুও করেছিলেন ২০১৩ সালে কিন্তু প্রথম পোষ্ট দেবার পরে উনি এলিট ব্লগারের কাতারে পৌছে গেছেন। আর মন্তব্য করার প্রয়োজন অনুভব করেননি।

মোঃ ইকরাম
এর পরের পোস্ট করেছেন মোঃ ইকরাম ‘মানুষের ভুল পরিচয় আসল পরিচয়’- শিরোনামে। সুদীর্ঘ ৮ মাস পরে তিনি ব্লগে এই পস্ট নিয়ে এসে জুলাই মাসে মোট তিনটে লেখা পোষ্ট করেছেন।
সুদীর্ঘ ১০ বছর ৪ মাস ব্লগিং জীবনে তিনি মাত্র একখানা মন্তব্য করেছেন!!! সাবাস
এমনকি তিনি তাঁর পোস্টে ৩০৭ খানা মন্তব্যের বিপরিতে মাত্র ৪৫টার প্রতিমন্তব্য করেছেন!!!


অনিরুদ্ধ রহমান
কানাডিয়ান ড্রিম-৪-অনিরুদ্ধ রহমান তিনি এ যাবতকালে পোস্ট করেছেন: ১৫০টি মন্তব্য করেছেন: ২৪৯টি মন্তব্য পেয়েছেন: ৭৩৬টি। প্রায় ১২ বছর ব্লগিং জীবনে তিনি মন্তব্য করেছেন মাত্র ৩ খানা। শেষ মন্তব্য ২০১৩ সালে। ব্রাভো!!!
অথচ তিনি জুলাই মাসেই ৫টি পোষ্ট দিয়েছেন। যেখানে তিনি ১৮খানা মন্তব্যের বিপরিতে ১৬টি মন্তব্যের উত্তর দিয়েছেন।

গণবিবেক
১০ বছর ৫ মাস ব্লগিং জীবনে তিনটে মাত্র পোষ্ট এবং তাঁর সবগুলো বিগত জুলাই মাসে।
এ যাবতকালে তিনি একতা মাত্র মন্তব্য করেছেন।
যদিও তিনি মোট ১৭টি মন্তব্য পেয়েছেন কিন্তু তাঁর পরিসংখ্যান দেখাচ্ছে ২৩ টি ( সম্ভবত উত্তরের ৬টি যোগ করে দেয়া) উত্তর দিয়েছেন ৬টির মাত্র। শেষ পোস্টের মন্তব্যের কোন উত্তর তিনি দেননি। প্রথম পোস্টে ৮টি মন্তব্যের মাত্র একটির উত্তর দিয়েছিলেন। তাঁর নাম গনবিবেক নয় ব্লগারবিবেক হওয়া উচিৎ।

সম্‌প্রীতি
ব্লগিং এর বয়স ১০ বছর ৩ মাস। ৮ টি পোষ্টে ৪২টি মন্তব্য পেয়েছেন -উত্তর দিয়েছেন ৫টির।
তাঁর ব্লগিং জিন্দেগীতে তিনি কারো পোস্টে মন্তব্য করেন নি।

মঞ্জুর চৌধুরী
১০বছর ১ মাস ব্লগিং করা মোটামুটি পুরনো এই ব্লগার নিয়মিত ব্লগিং করেন। এপর্যন্ত ৭১৮টি পোষ্ট দিয়েছেন। মন্তব্য পেয়েছেন ৬০০০ এর উপরে উত্তর দিয়েছেন তিনের এক ভাগ। তিনি নিশ্চিতভাবে পড়াশুনা করা বেশ মানসম্পন্ন ব্লগার।
একসময় তিনি বেশিরভাগ পোস্টে মন্তব্যের উত্তরই দিতেন না। এই নিয়ে আমি একদিন ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলাম। তিনি বেশ উন্নাসিকতার সুরে বলেছিলেন, তাঁকে একতা অনলাইন মিডিয়ার প্রায় দু তিন লক্ষ মেম্বারকে সামলাতে হয়। তাঁর হাতে একদম সময় নেই।
আমি যে অল্প কিছু ব্লগার ভাল লিখলেও মন্তব্য করি না তাঁর মধ্যে সে একজন। তবে জুলাই মাসে তিনি ৫টি পোষ্ট করে প্রায় সব মন্তব্যের উত্তর দিয়েছেন। যদিও ব্লগে এ পর্যন্ত তিনি মাত্র ছয়টি পোস্টে মন্তব্য করেছেন।

মুনাওয়ার সিফাত।
দুঃখ বিলাসেও কি উচ্চবিত্ত হতে হয়? লিখেছেন মুনাওয়ার সিফাত। ১০ বছর ব্লগিং করলেও তিনি লেখা শুরু করেন ২০২২ সালে। ১ বছর ১০ মাসে তিনি পোষ্ট দিয়েছেন ৩৩ টি যার ৩টি পোস্ট করেছেন জুলাই মাসে। তিনটি পোস্টে তিনি ২৬খানা মন্তব্য পেয়েছেন কিন্তু প্রতি উত্তর করেছেন মাত্র ৮ টির।
তাঁর সর্বাধিক পঠিত মন্তব্যের পোস্টে (১৮টি মন্তব্য) তিনি কোন প্রতিউত্তর করেন নি।


পথ হারা কিশোর
৩১শে জুলাই অনুভুতির লুকানো খাতা’ শিরোনামের পোস্টে আমি একটা মন্তব্য করেছিলাম;
শেরজা তপন বলেছেন: আপনার ব্লগিং ডাটাঃ
পোস্ট করেছি: ১৩টি
মন্তব্য করেছি: ০টি
মন্তব্য পেয়েছি: ১৫টি
ব্লগ লিখেছি: ১০ বছর ১১ মাস
১৩টি পোষ্ট করে ১৫টি মন্তব্য পেয়ে ১ মন্তব্যেরও উত্তর দেননি। প্রায় ১১ বছর ব্লগিং জীবনে ১টা মন্তব্যও করেননি কারো পোস্টে!!!!!! পারেন বটে
কিছু মনে করবেন না- আপনার কোন পোষ্ট মন্তব্য শুন্য থাকাই স্বাভাবিক!
তিনি সেই প্রথম উত্তর দিয়েছিলেন; জ্বি, আপনাকে দিয়ে উদ্বোধন করলাম।
~ আমি নিশ্চিত বিশেষ সৌভাগ্যবান।

মিশু মিলন
উনার লেখা আমি পছন্দ করি। কষ্ট লাগে যখন দেখি তাঁর লেখা মন্তব্যশুন্য থাকে। আমি তাঁর শেষ পোস্টে মন্তব্য করেছিলাম;
শেরজা তপন বলেছেন: আপনার লেখা আমি পছন্দ করি। অন্তত ব্যতিক্রম কিছু লেখেন আপনি।
কিন্তু আমার আক্ষেপ অন্য জায়গায়- ব্লগটাকে খুব বেশী অবহেলা করেন আপনি, সেজন্য অতি উত্তম কিছু লেখায় কোন মন্তব্য আসে না। আপনার মত একজন উঁচু দরের লেখকের লেখায় মন্তব্য না থাকাটা আমাকে ভীষণ কষ্ট দেয় ।
০১ লা আগস্ট, ২০২৩ দুপুর ১২:৪৭০
লেখক বলেছেন: আপনার অভিযোগ মাথা পেতে স্বীকার করছি। আসলে লেখালেখি, লেখালেখির জন্য বিস্তর পড়াশোনা, চাকরি, আর ব্যক্তিজীবনের চড়াই-উৎরাই। সব সামলে ব্লগে সময় দেওয়াটা হয়ে ওঠে না। এজন্য সত্যিই আমি দুঃখিত।
অনেক ধন্যবাদ লেখা পড়ার জন্য।

আমার সমসাময়িক এই ব্লগার খুব কম মন্তব্য করেন। তিনি শেষ মন্তব্য করেছিলেন ২০২০ সালের ৭ মার্চ।
এই সময়ের মাঝে তিনি পোষ্ট দিয়েছেন ১৪৫টি। ভাবা যায়!!
!
***************
সবার শেষে আমি কামাল১৮ এর পাশাপাশি বেশী মন্তব্য করা দুজন ব্লগারের খতিয়ান তুলে ধরছি- যারা ব্লগে তুমুল জনপ্রিয়;
নজসু এর ব্লগ পরিসংখ্যান;

• পোস্ট করেছি: ২১টি
• মন্তব্য করেছি: ৪৬৫৩টি
• মন্তব্য পেয়েছি: ১৩৭৫টি
• ব্লগ লিখেছি: ৪ বছর ১১ মাস
নজসু। তিনি শেষ মন্তব্য করেছেন ৩রা আগষ্ট। আর শেষ পোস্ট দিয়েছেন ১০ই ফেব্রুয়ারি।

এবার আসি ব্লগার মিরোরডডল এর ব্লগ পরিসংখ্যানে;

• পোস্ট করেছি: ৪৪টি
• মন্তব্য করেছি: ৮২৭৭টি
• মন্তব্য পেয়েছি: ৩২৮৪টি
• ব্লগ লিখেছি: ৬ বছর ৩ সপ্তাহ
৩১শে মে থেকে তিনদিন সার্ভার ডাউন থাকার জন্য তিনি শুধু ব্লগারদের উৎসাহিত করার জন্য তিনটে পোষ্ট দিয়েছিলেন।
তিনি মুলত শেষ পোস্টটা করেছেন ‘স্মৃতি জাগানিয়া রান্না সমাচার’ শিরোনামে গত ১২ ফেব্রুয়ারিতে।

ব্লগার কামাল ১৮ - আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রাম বা মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বের সাথে অংশগ্রহণ করা বীর মুক্তিযোদ্ধা জীবনে অনেক চড়াই উতরাই পার করে হাজারো স্মৃতির ভারে ন্যুজ্ব প্রবীণ এই মানুষটি অনেকের বারংবার অনুরোধ স্বত্বেও আজ পর্যন্ত কোন লেখা দেননি। আমি নিশ্চিত তিনি ব্লগ লিখলে, যা-ই লিখুন না কেন সেটা সুপারহিট হবে।
মিরোর আপুর মন্তব্যগুলো শুধু ভাল, সুন্দর,চমৎকার জাতীয় শব্দের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। তাঁর মন্তব্যের গভীরতায় যে কোন ব্লগার বিমোহিত ও অনুপ্রাণিত হন। তাঁর মন্তব্য না পড়লে বোঝা যাবে না তাঁর জানার গণ্ডি কত ব্যাপক।
নজসু বেছে বেছে ভাল লাগার কিছু পোস্টে মন্তব্য করলেও নিয়মিত মন্তব্য করেন। তাঁর যে কোন পোষ্ট আসলে ব্লগারেরা একযোগে হুমড়ি খেয়ে পড়েন।

* ব্লগে জনপ্রিয় ও প্রচুর মন্তব্য করা( মুলত গঠনমুলক) অগ্রজ ব্লগারদের কথা শেষ পর্বে তুলে ধরব।
******
• এডিট করা হয়নি। প্রচুর বানান ও ব্যাকারনগত ভুল থাকা অস্বাভাবিক নয়। আর একটি কথা; ব্লগে মন্তব্য করেছি আর মন্তব্য পেয়েছি এই দুটো পরিসংখ্যানে যদি ভেজাল থেকে থাকে সেজন্য আমি দায়ী নই।
* যে সকল ব্লগার একটু ডিটেইল, গঠনমূলক সমালোচনা করে সুদীর্ঘ মন্তব্য করেন আমি তাদের মন্তব্যের উত্তর একটু সময় করে ভেবে চিন্তে দেই। সে কারনে আশা করি তারা পরের মন্তব্যের উত্তর আগে দিলে নাখোশ হবেন না।
সর্বশেষ এডিট : ০৬ ই আগস্ট, ২০২৩ সন্ধ্যা ৭:৩৪
৪৮টি মন্তব্য ৪৮টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

আমাদের সাধারণ ছাত্ররা একা একা আন্দোলন করার মতো দক্ষ নয়।

লিখেছেন সোনাগাজী, ১৮ ই জুলাই, ২০২৪ রাত ২:৫০



পাকিস্তান আমলে ছাত্রলীগ ও ছাত্র ইউনিয়ন আইয়ুব খানের বিপক্ষে কয়েকটি শক্ত আন্দোলন করেছিলো; তখন এই ২ দলের কেন্দ্রীয় কমিটি ছিলো ও উভয় দলই তাদের মুল রাজনৈতিক দল ও... ...বাকিটুকু পড়ুন

কাউকে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে দেওয়া হবে না

লিখেছেন জ্যাক স্মিথ, ১৮ ই জুলাই, ২০২৪ রাত ২:৫৮



ছাত্রদের কোটা আন্দোলনের সুযোগ নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার কোন সুযোগ নেই, বিম্পি-জামাত ঝড়ে আমার কুড়াতে খুবই উস্তাদ। শ্বান্তিপূর্ণ একটি আন্দোলনে সাধারণ ছাত্রদের উস্কানী দিয়ে, সোশ্যাল নেটওয়ার্কে গুজব ছড়িয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

প্রিয় দেশবাসী কর্মস্থলে আসুন। আজ প্রকৃত দেশপ্রেমিক ছাত্রলীগরা আপনাদের নিরাপত্তা দিবে।

লিখেছেন মোহাম্মদ গোফরান, ১৮ ই জুলাই, ২০২৪ সকাল ১০:৪৭



যারা চাকুরী ব্যাবসা বাণিজ্য করেন তাদের সাথে কোটা আন্দোলন কারীদের কোন বিরোধ নেই। আমাদের সকল শিল্পী, মুক্তমনা ব্লগাররা কোটা সংষ্কার এর পক্ষে।আমাদের পরিবারের সদস্যরাও কোটা আন্দোলনে রাজপথে নামছে। উপরের... ...বাকিটুকু পড়ুন

নির্বাচিত আর অনির্বাচিত সরকারের মধ্যে পার্থক্য।

লিখেছেন জাদিদ, ১৮ ই জুলাই, ২০২৪ দুপুর ২:১৭

অনেকেই জিজ্ঞেস করেন যে নির্বাচিত আর অনির্বাচিত সরকারের মধ্যে পার্থক্য কি?

একটি নির্বাচিত সরকার জনগণের মতের মূল্যায়ন করেন, সম্মান করেন এবং সেইভাবেই কাজ করার চেষ্টা করে। আর একটি অনির্বাচিত, অগণতান্ত্রিক... ...বাকিটুকু পড়ুন

মাথার উপর থেকে বাড়ির চাল উড়ে গেলে কেবল সহানুভূতিতে কোন কাজ হয় না

লিখেছেন করুণাধারা, ১৮ ই জুলাই, ২০২৪ দুপুর ২:৩৮



আবু সাঈদের স্বজনদের কান্না।


আমি ভাবছিলাম আবু সাঈদের পরিবারের কথা। তাদের স্বপ্ন ছিল পরিবারের একমাত্র শিক্ষিত ছেলেটি এক সময় চাকরি করবে, পরিবারের অভাব দূর করবে। সেই স্বপ্ন ভেঙে দিয়েছে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×