somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আজ মহান বিজয় দিবস, আজ আমার পিতার ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী।

১৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ১১:২৪
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

আমার পিতা মরহুম কে. এম. টি হুসেইন (১৯৩৬-২০১৩) একজন রাষ্ট্রীয় সম্মানপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধার এবং ভাষাসৈনিক ছিলেন। তিনি সংস্থাপন মন্ত্রণালয়য় এর অধীন বাংলাদেশ সরকারী মুদ্রণালয় (BG Press) এর Pakistan Civil Service পরবর্তীতে Bangladesh Civil Service-BCS এর Non BCS Cadre ভুক্ত ‘শ্রম-কল্যান অফিসার’ (১ম শ্রেণির গেজেটেড অফিসার) পদে কর্মরত ছিলেন।


তিনি বাংলাদেশ সরকারী মুদ্রণালয় এর CBA এর নির্বাচিত সভাপতি ছিলেন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্য পেয়েছিলেন। চাকুরীর পাশাপাশি তিনি লেখালেখি করতেন। দৈনিক বাংলা এবং ইত্তেফাকে তার লেখা কলাম এবং চিঠিপত্র বিভাগে তার লেখা নিয়মিত প্রকাশিত হতো। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার চন্ডিবরদী গ্রামে পাক হানাদারগণ আগুন জ্বালালে এবং মুক্তিযোদ্ধাদের ক্যাম্পে আক্রমণ করলে আমার বাবা জীবনের মায়া ছেড়ে দিয়ে উর্দু ভাষায় পাকবাহিনীদের সাথে তুমুল বাক-বিতণ্ডা করেন এবং মুক্তিযোদ্ধাদের উপরে আক্রমণ করতে নিষেধ করেন। তার কথায় পাক বাহিনী ভড়কে যায় এবং উক্ত গ্রাম থেকে চলে যায়। এভাবে উক্ত এলাকাটি পাক হানাদারদের আক্রমণের হাত থেকে মুক্তি পায়। (তথ্যসূত্রঃ সোলায়মান আলী মোল্লার লিখিত এবং তপন বাগচী সম্পাদিত ‘ফরিদপুরের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস’ গ্রন্থ)


তিনি পাক হানাদারদের সাথে সম্মুখ যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন এবং আহত হন। দেশ স্বাধীন হবার পরে তিনি সরকারী চাকুরী থেকে অবসর গ্রহন করে BEXIMCO GROUP এ ব্যাবস্থাপক (প্রশাসন) পদে দীর্ঘ ১২ বছর কাজ করেন। পরবর্তীতে তিনি SILVA Group এর মহা ব্যাবস্থাপক (প্রশাসন) Top Taste Food Processing Ltd এর মহা ব্যাবস্থাপক, Kawlam Sweater Ltd এর মহা ব্যাবস্থাপক (প্রশাসন) Debonair Garments Ltd. এর মহা ব্যাবস্থাপক (প্রশাসন) এবং Industrial Consumers Supply Ltd এর মহা ব্যাবস্থাপক এর পদে চাকুরী করেন।

২০০১ সালে তিনি চাকুরী জীবন সমাপ্ত করে নিজ জন্মস্থান ফরিদপুরে বসবাস শুরু করেন। এলাকায় বসবাস কালীন সময়ে তিনি রাজনীতির সাথে সক্রিয় হয়ে এবং উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল এর সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৩ সালের ১৬ ডিসেম্বর সকালে উপজেলা পরিষদ কর্তৃক আয়োজিত ‘বিজয় দিবসের সরকারী অনুষ্ঠানে’ তার সভাপতিত্বে করার কথা থাকলেও উক্ত দিন সকাল ৫ ঘটিকায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। আজ আমার পিতার ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী। আমার মরহুম পিতার আত্মার শান্তি ও মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করছেন মাননীয় সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী এমপি।

আমার পিতার আত্মার শান্তি কামনা করে সকল ব্লগার বন্ধুদের কাছে দোয়া চাচ্ছি।

আমার পিতার কর্মময় জীবন
জায়েদ হোসাইন লাকী সম্পাদিত
সর্বশেষ এডিট : ১৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ১১:২৫
৪টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

টুকরো টুকরো সাদা মিথ্যা- ৯৮

লিখেছেন রাজীব নুর, ১৬ ই জুন, ২০১৯ রাত ৯:১৬




অনেক বছর আগের কথা।
কত বছর আগের কথা(?) তা আর আজ মনে নেই। তবে কোনো মানুষ'ই অতীতের কথা পুরোপুরি ভুলে যেতে পারে না। হুটহাট করে কিছুটা মনে পড়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

@এপিটাফ

লিখেছেন , ১৭ ই জুন, ২০১৯ সকাল ৮:১২

@এপিটাফ


সব মায়ার বাঁধন ছিন্ন করে কষ্টের ডিঙি বেয়ে সমুদ্দুর,
তোমার থেকে দূরে গিয়ে পরখ করবো মমত্ব কতদূর !

আজ নির্ঘুম রাত্রিতে পাহারা দেয় দীর্ঘশ্বাসের নোনাজল,
এই বুকের ভিটায় আদিম নৃত্য... ...বাকিটুকু পড়ুন

মোহনীয় রমণীয় প্যারিস (পর্ব ২)

লিখেছেন ভুয়া মফিজ, ১৭ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৮



১ম পর্বের লিঙ্কview this link


আমি আজ পর্যন্ত যতগুলো নগরী দেখেছি, তার মধ্যে প্যারিসকে মনে হয়েছে সবচেয়ে রুপবতী। সত্যিকারের প্রেমে পরার মতোই একটা নগরী। ভেবে দেখলাম, এতোটা সাদামাটা আর ম্যাড়মেড়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

সাময়িক পোষ্ট

লিখেছেন জুন, ১৭ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৫:১৭

সামুতে এখন ৩৯ জন ব্লগার। কতদিন, কতদিন পর এত লোকজন দেখে কি যে ভালোলাগছে বলার নয় :)

...বাকিটুকু পড়ুন

কিছুই পড়েনা মনে আর , শালা !

লিখেছেন আহমেদ জী এস, ১৭ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৬



কিছুই পড়েনা মনে আর , শালা !
একদিন যে, এই পথে হেটেছি অনেক,
দেখেছি কিছু ঘর-বাড়ী, বাগান-সড়ক,
ঝুলে থাকা বারান্দার গরাদে তিথীর ব্রা
কিছু কায়া , কিছু ছায়া সবই ছাড়া ছাড়া,
বেওয়ারিশ... ...বাকিটুকু পড়ুন

×