somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

ছাইদিবাদী বিবর্তনবাদীদের সহায়তামূলক পোস্ট

০৪ ঠা আগস্ট, ২০২০ রাত ১০:২০
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

ব্লগে মাঝে মাঝে এক ধরণের বিবর্তনবাদীর উদ্ভব ঘটে, যারা তাদের বিবর্তনবিষয়ক আলোচনায় বিতর্ক প্রতিযোগিতার প্রথম বক্তার মতো হুজুরদের অনুসারীদের আক্রমণ করে থাকে। তাদের আক্রমণটি এরূপ: বাংলাদেশের হুজুরদের মুরিদগণ নাকি না বুঝেই বিবর্তনবাদকে দোষারোপ করে থাকে যে, "বানর থেকে মানুষের উৎপত্তি, ডারউইনের এ কথাটি মারাত্মক ভুল", অথচ বিবর্তনের কোথাও নাকি বলা হয়নি বানর থেকে মানুষের উৎপত্তি।

মুরিদগণ কূপমণ্ডূক, বিবর্তন নিয়ে পড়াশোনা করে না, সুতরাং বিবর্তন নিয়ে তাদের ভুল মতামত থাকবে, ঠিক আছে। কিন্তু এই তালগাছবাদী শিক্ষিত বিবর্তনবাদীরা গুরুদেব ডারউইনের বইও কেন পড়ে দেখে না, বড় আফসোস! বহুকাল আগে আসিফ মহিউদ্দীনকে বলেছিলাম ডারউইনের The Descent of Man, and Selection in Relation to Sex বইটি পড়তে। সে কথাটিই পুনরাবৃত্ত করতে হচ্ছে আবার: ডারউইন গ্রন্থটিতে বলেছেন,

"We may thus ascend to the Lemuridae; and the interval is not very wide from these to the Simiadae. The Simiadae then branched off into two great stems, the New World and Old World monkeys; and from the latter, at a remote period, Man, the wonder and glory of the Universe, proceeded."

আশা করা যায়, New World আর Old World monkey নিয়ে ত্যানা প্যাঁচানোর পূর্বে বিষয়গুলো নিয়ে আরও পড়াশোনা করবে তারা।

তবে একটি ব্যাপার বেশ মজার, এই তালগাছীরা মনে হয় বানর থেকে মানুষের বিবর্তনের ধারণায় খুব লজ্জা পায়। কথা হচ্ছে, বানর থেকেই হোক, কিংবা (ধরা যাক) উত্তরাধুনিক মতে, আরও পূর্বে সরীসৃপ বা সরীসৃপের বিষ্ঠা থেকেই বিবর্তনটি হোক, তাদের সমস্যা কোথায়, অশিক্ষিত মুরিদদের ভুল ধারায় আক্রমণের হেতুই বা কী! কারণ, এরাও এক প্রকার তালগাছবাদী। অধিক পড়াশোনা মানুষের হৃদয় নরম করে, তালগাছী বিবর্তনবাদীদের ভেতর এই নরম ভাবটি নেই। এরা ভাবে নিজেরা সবজান্তা সমশের।
সর্বশেষ এডিট : ০৪ ঠা আগস্ট, ২০২০ রাত ১০:২০
১৭টি মন্তব্য ১১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

হেদায়াত পেতে আলেম বাদ দিয়ে ওলামাকে মানুন

লিখেছেন মহাজাগতিক চিন্তা, ১২ ই এপ্রিল, ২০২৪ সকাল ৯:১৭



সূরাঃ ৩৫ ফাতির, ২৮ নং আয়াতের অনুবাদ-
২৮। এভাবে রং বেরং- এর মানুষ, জন্তু ও আন’আম রয়েছে। নিশ্চয়ই আল্লাহর বান্দাদের মধ্যে আলেমরাই তাঁকে ভয় করে।নিশ্চয়্ই আল্লাহ পরাক্রমশালী ক্ষমাশীল।

সহিহ... ...বাকিটুকু পড়ুন

স্বপ্নিল

লিখেছেন খায়রুল আহসান, ১২ ই এপ্রিল, ২০২৪ দুপুর ১২:২৪

বালকটি একা একাই খেলতো। একদিন একটা সাইকেলের চাকার রিমের পেছনে এক টুকরো লাঠি দিয়ে ঠেলে ঠেলে মনের আনন্দে ডিস্ট্রিক্ট বোর্ডের কাঁচা রাস্তা ধরে সে দৌড়ে বেড়াচ্ছিল। দৌড়াতে দৌড়াতে মফস্বলের রেল... ...বাকিটুকু পড়ুন

দিক দিগন্তে ছড়িয়ে পড়ুক বর্ষবরণের সৌন্ধর্য ও অসাম্প্রদায়িক চেতনা

লিখেছেন মিশু মিলন, ১২ ই এপ্রিল, ২০২৪ দুপুর ২:২৭

এই দেশ থেকে উপমহাদেশ, তার বাইরে ব্রিটেন, অস্ট্রেলিয়া, ইউরোপ, আমেরিকা সর্বত্র আজ বাঙ্গালির অসাম্প্রদায়িক উৎসব হয়ে দাঁড়াচ্ছে নববর্ষ- পয়লা বৈশাখ। বাংলাদেশে পহেলা বৈশাখের মাস খানেক আগে থেকে ঢাকার ছায়ানট সংস্কৃতি... ...বাকিটুকু পড়ুন

ঈদ মোবারক।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ১২ ই এপ্রিল, ২০২৪ বিকাল ৪:১৩



সবাই কে ঈদের সুভেচ্ছা। ঈদ মোবারক। দীর্ঘ এক মাস রোযা রাখলাম। তারাবী পড়লাম। শেষ তারাবির সময় কেমন যেন মনটা খারাপ হয়ে গেলো। মনে হচ্ছিলো যেমন রোযা তাড়াতাড়ি... ...বাকিটুকু পড়ুন

শাহ সাহেবের ডায়রি ।। গুলশানের হাই রাইজ বিল্ডিং

লিখেছেন শাহ আজিজ, ১২ ই এপ্রিল, ২০২৪ রাত ৯:২৬

নিকেতন থেকে ভর সন্ধ্যায় রূপনগর ফিরছি উবের চড়ে । আজকের ফাকা শুনশান রাস্তায় গুলশান দেখা শুরু করলাম । বাহ অনেক দালান উঠেছে দুপাশে । সন্ধ্যার আলো জালানো দালানগুলো খুব চমৎকার... ...বাকিটুকু পড়ুন

×