somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

গ্রীষ্মকালীন পরিকল্পনা করুন কুমাওনের এই বিশেষ পাহাড়ী স্টেশনগুলিতে

২৭ শে মার্চ, ২০১৯ বিকাল ৫:৩০
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

দেবভূমি উত্তরাখণ্ড দুটি প্রধান অংশে বিভক্ত, একটি গারোওয়াল এবং দ্বিতীয় কুমাওন মণ্ডল। গারোওয়াল অধীনে 7 টি প্রধান জেলা রয়েছে এবং 6 টি জেলা কুমাউন বিভাগের অন্তর্গত। আলমোড়া, বাগেশ্বর, চাঁপাওয়াত, নৈনিতাল, পিথোরাগড় ও উধাম সিং নগর জেলাগুলি উত্তরাখণ্ডের কুমাউন বিভাগের অন্তর্গত।

প্রাকৃতিক দৃষ্টিকোণ থেকে কুমাউনের সমগ্র এলাকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। হিমালয়ের সুন্দর পাহাড় থেকে আপনি পাহাড় এবং বন্যপ্রাণীকে নিকটবর্তী স্থানে দেখতে পারেন। গ্রীষ্মকালে কুমায়ুন দেশের পর্যটকদের জন্য একটি প্রধান গন্তব্য হয়ে ওঠে। ঐতিহাসিকভাবে কুমাওন বেশ বিখ্যাত বলে মনে করা হয়। এখানে কাত্য়ুরি রাজবংশ দীর্ঘকাল ধরে শাসন করা হয়েছে।

রানিখেত:



হিমালয়ের সবচেয়ে সুন্দর জমির মধ্যে রানিখেতকে গণনা করা হয়। ঐতিহাসিক প্রমাণ নির্দেশ করে যে কুমাওনের রাণী পদ্মিনি এই পাহাড়ী স্টেশনটি পছন্দ করতেন। রাজা সুর্ধাদেভ এখানে রানী পদ্মিনির জন্য একটি প্রাসাদ নির্মাণ করেন এবং রানিখেত নাম দেন। যদিও পরিবর্তিত সময়ের সাথে নির্মিত প্রাসাদটি তার অস্তিত্ব হারিয়েছে , তবে পাহাড়ী অবস্থান একই রকম। অজানা অজ্ঞাত এই যায়গাটি ব্রিটিশরা পুনঃ আবিষ্কার করে,এখানে জমি কিনে নেয় এবং এটি একটি সুন্দর পাহাড়ী স্টেশনে রূপান্তর করে। এই জায়গাগুলি ব্রিটিশরা সামরিক ভর্তি কেন্দ্র এবং গ্রীষ্মকালীন গন্তব্য হিসাবে ব্যবহার করেছে। 21876 বর্গ কিমি এলাকা নিয়ে 188২ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত রানিখেত আজ পর্যটকদের মধ্যে খুব জনপ্রিয় বলে মনে করা হয়। উত্তরাখন্ডে আসা পর্যটকরা অবশ্যই এখানে একবার আসতে চান। রানিখেত একটি সুন্দর পাহারি গন্তব্য যেখানে আপনি বছরের যে কোনও সময় যেতে পারেন।

কৌশানি :



কৌশানি উত্তরাখণ্ড রাজ্যের কুমাওন মন্ডলের একটি সুন্দর পাহাড়ী স্টেশন। এখানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দ্বারা প্রভাবিত হয়ে মহাত্মা গান্ধী একবার এই স্থানটিকে 'সুইজারল্যান্ড অফ ইন্ডিয়া' নাম দিয়েছিলেন। সমুদ্রতল থেকে 1890 মিটার উঁচুতে অবস্থিত কৌশানি সারা বিশ্বে হিমালয়ের বরফের চূড়াগুলি এবং প্যানোরামিক দৃশ্যগুলির জন্য পরিচিত।এখানে গান্ধি আশ্রমটি সব সময় পর্যটক দ্বারা মুখরিত।

আলমোড়া :



উত্তরাখণ্ডের কুমাওন বিভাগের অধীনে আলমোরা তার সংস্কৃতি, বন্য জীবন এবং ঐতিহ্যগত অভ্যাসের জন্য পরিচিত। পাহাড়ের উপর অবস্থিত আলমোড়া শহর সমুদ্রতল থেকে প্রায় 1,646 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত। আলমোরা চন্দ রাজার অধীনে ছিল এবং রাজাপুর নামেও পরিচিত ছিল। মহাত্মা গান্ধী ও স্বামী বিবেকানন্দ পাইন ও পাইন বন দ্বারা ঘেরা এই পাহাড়ীএলাকায় ঘুরতে যান। নৈনিতাল ও রানিখেতের মতো প্রতিবেশী পাহাড়ী কেন্দ্রগুলির পাশে আলমোরা জনতা দ্বারা বসবাসযগ্য হয়ে উঠেছিল, যেখানে নৈনিতাল ও রানিখেত ব্রিটিশদের দ্বারা গড়ে ওঠে। আলমোরা অনেক পর্যটকদের কাছে ধর্মীয় স্থানগুলির (যেমন বাগেশ্বর) জন্য সুপরিচিত।

বেরিনাগ :



উত্তরাখণ্ডের পিথোরাগড় জেলার নৈনিতাল থেকে 160 কিলোমিটার উত্তরে এই সুন্দর পাহাড়ী যায়গাটির অবস্থান। এখানে বেরিনাগ মন্দিরের নামে নামকরণ করা হয় বেরিনাগ। এটি বেরিনাগ পাহাড়ে অবস্থিত নাগ দেবতাকে উৎসর্গিত একটি বিখ্যাত মন্দির। বেরিনাগে হিমালয়ের পীকগুলি তুষারাবৃত এবং বিস্ময়কর, বিশেষত আপনি সহজেই নন্দা দেবী ও পন্চচুলি দেখতে পাবেন । এই স্থানটি ব্রিটিশ যুগে চা বাগানের জন্য পরিচিত ছিল। এমনকি আজও বেরিনাগে উৎপাদিত চার লন্ডনে প্রচুর চাহিদা রয়েছে

একটি সম্ভাভ্য টুর:-

দিন 0 - সিয়ালদাহ-নয়া দিল্লি দুরন্ত এক্সপ্রেস
দিন 1 - নতুন দিল্লিতে পৌঁছে - একই রাতে রাণীখেত এক্সপ্রেস / 5013 এ রামনগর
******* প্রকৃত ট্রিপ শুরু *********
দিন 2 - রামনগর পৌঁছান - পারমিট গ্রহণ করুন - ধিকালা এফএইচ-তে যান - রাত থাকুন
দিন 3 - ধিকালা হাতি সাফারি এবং জিপ সাফারি - রাত থাকুন
দিন 4 - চেক আউট - নৈনিতাল যান (একটি গাড়ী বুক করে)
দিন 5 - নৈনিতাল - রাত থাকুন
দিন 6 - রানীখেতের যান - রাত থাকুন
দিন 7 ও 8 - কৌশানিতে যান এবং রাত থাকুন
দিন 9 - মুকতেশ্বরে চলে যান - রাত থাকুন
********** প্রকৃত ট্রিপ শেষ*********************
দিন 10 - কাঠগোদাম ফিরে আসুন,উত্তরাখণ্ড 5036 সম্পর্ক ক্রান্তি এক্সপ্রেস ধরুন/ নয়া দিল্লিতে পৌছান
দিন 11 - নতুন দিল্লি পৌঁছাবার পর - রাত্রি - কলকাতায় সিয়ালদাহ দুরন্ত এক্সপ্রেস ধরুন
দিন 1২-কলকাতায় পৌঁছান।

জিম করবেট সাফারির জন্য অনুগ্রহ করে যোগাযোগ করুন:


The Director
Corbett Tiger Reserve
Ramnagar – pincode-244 715
Distt. Nainital
(Uttarakhand)
Tel.: +91-5947-253977, Reception – 251489
Fax: +91-5947-251489 and 251376

ফ্যাক্স: + 91-5947-251489 এবং 251376
সর্বশেষ এডিট : ২৭ শে মার্চ, ২০১৯ বিকাল ৫:৩২
৩টি মন্তব্য ১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

অটোপসি

লিখেছেন জাহিদ অনিক, ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:৩২

যে পাহাড়ে যাব যাব করে মনে মনে ব্যাগ গুছিয়েছি অন্তত চব্বিশবার-
একবার অটোপসি টেবিলে শুয়ে নেই-
পাহাড়, ঝর্ণা, জংগলের গাছ, গাছের বুড়ো শিকড়- শেকড়ের কোটরে পাখির বাসা;
সবকিছু বেরিয়ে আসবে... ...বাকিটুকু পড়ুন

মুক্তিযুদ্ধ আমাদের গৌরব গাঁথা আমাদের ইতিহাস : ঘটনাপঞ্জি ও জানা অজানা তথ্য। [১]

লিখেছেন ইসিয়াক, ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:১৮


আমার এ পোষ্টটি সবার ভালো না ও লাগতে পারে । যাদের মুক্তিযুদ্ধ ও আমাদের স্বাধীনতার গৌরবগাঁথা সর্ম্পকে বিন্দু মাত্র শ্রদ্ধাবোধ বা আগ্রহ নাই তারা... ...বাকিটুকু পড়ুন

নিজ দেশে অবহেলিত এশিয়া কাপে স্বর্ণ পদক বিজয়ী!

লিখেছেন ঘূণে পোকা, ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:০৪

‘আমার দেশে আমার কোনো দাম নেই’



রোমান সানা (তীরন্দাজ) : ‘বড় পর্যায়ের কারও কাছ থেকে কোনো শুভেচ্ছা পাইনি। এটা নিয়ে কষ্ট হচ্ছে। অথচ ক্রিকেটে জিম্বাবুয়েকে হারানোর পর আফিফ হোসেনকে কত... ...বাকিটুকু পড়ুন

ঢাকার পথে পথে- ১৪ (ছবি ব্লগ)

লিখেছেন রাজীব নুর, ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:২৩



ঢাকা শহরের মানুষ গুলো ঘর থেকে বাইরে বের হলেই হিংস্র হয়ে যায়। অমানবিক হয়ে যায়। একজন দায়িত্বশীল পিতা, যার সংসারের প্রতি অগাধ মায়া। সন্তনাদের প্রতি সীমাহীন ভালোবাসা- সে-ও... ...বাকিটুকু পড়ুন

ছাত্রলীগ নিয়ে শেখ হাসিনার খোঁড়া সমাধান!

লিখেছেন চাঁদগাজী, ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৫



Student League News

স্বাধীনতা যুদ্ধের পর, ছাত্র রাজনীতির দরকার ছিলো না; ছাত্ররা ছাত্র, এরা রাজনীতিবিদ নয়, এরা ইন্জিনিয়ার নয়, এরা ডাক্তার নয়, এরা প্রফেশালে নয়, এরা শুধুমাত্র ছাত্র;... ...বাকিটুকু পড়ুন

×