somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

আমি ঘুরতে ভালোবাসি। আমি খুব নেট পাগল। আমি নবম শ্রেণী থেকে অনার্স পযর্ন্ত নানী বাড়িতে ছিলাম।

আমার পরিসংখ্যান

নাহল তরকারি
quote icon
আমি ধার্মিক। আমি সব কিছু ধর্মগ্রন্থ অনুযায়ী বিচার বিশ্রেশণ করি। আমি সামাজিক রীতিনীতি, সমাজিক কু সংস্কার, আবেগ দিয়ে কোন কিছু বিচার করি না।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

আমার অনার্স জীবনে কিছু ভুল।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ২০ শে জানুয়ারি, ২০২২ সকাল ১০:৪৪



আমি অনার্স এ অধ্যয়নরত অবস্থাতে অনেক ভুল করেছি। যারা যারা অনার্স এ পড়েন সেগুলা ভুল আপনারা করবেন না।

০১। টাকা জমানো: আমি যদি অনার্স ১ম বর্ষ থেকে ৬ বছরের জন্য যদি ব্যাংকে ডিপিএস করতাম তাহলে আজ কিছু টাকা সঞ্চয় থাকতো। বা সেই টাকা দিয়ে ব্যাবসা শুরু করতে পারতাম।... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১৫১ বার পঠিত     like!

২০০৫ সালের বিদুৎ সমস্যা।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ১৮ ই জানুয়ারি, ২০২২ বিকাল ৫:৩১



২০০৫ সাল। আমি ক্লাস ফাইবে পড়তাম। আমার আব্বুর পোস্টিং ছিলো নরসিংদী। সে সময় দুর্নীতি চরম শিখরে ছিলো। এই দুর্নীতির প্রভাব বিদুৎ বিভাগের উপরেও ছিলো। সে সময় মনে করেন আমাদের বিদুৎ দরকার ছিলো ১০০। আর বিদ্যুৎ উৎপাদন ৫।

আর সে সময় দিনে গড়ে ৬ ঘন্টা কারেন্ট থাকতো কি না সন্দেহ।... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৩৪ বার পঠিত     like!

ভাইরাস হবার জন্য যা ইচ্ছা তাই।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২২ রাত ৮:৪৩



খবরের উৎস।

আমার এই লেখা প্লিজ কেউ রিমুভ করবেন না।

আজ আমি একটি খবর দেখলাম। কে বা কারা কবরে কৃত্রিম উপায়ে আগুন লাগাইছে। মানে শুকনা পাতা আর কাগজ দিয়ে কবে আগুন লাগাইছে। কেন আগুন লাাগাইছে জানি না। হয়তো প্রতিশোধ নেবার জন্য সেই কবরে আগুন লাগাইছে। অথবা টিকটক বা ফেসবুকে ভাইরাল/... বাকিটুকু পড়ুন

১১ টি মন্তব্য      ১৯৪ বার পঠিত     like!

এক কাপ চা।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ১৪ ই জানুয়ারি, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৪৮

চা। চা খাওয়া ভালো। আমি নিয়মিত চা খাই। তবে আমি চা তে লেবুর রস বেশী দিতে বলি। বলবে পারেন একটি লেবুর অর্ধেক টা দিতে বলি।

চা বিভিন্ন ধরণ আছে। যেমন দুধ চা, রং চা, লেবু ওয়ালা চা, সাত স্তরের চা ইত্যাদি। আমি সাত লেয়ারে চা খেয়েছিলাম ২০১১ সালে মৌলভীবাজারে।... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৭৩ বার পঠিত     like!

অনেকদিন পর পছন্দের রাস্তায় ঘুরাঘুরি।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ১১ ই জানুয়ারি, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৪২



এটা আমার প্রিয় রাস্তা। এখানে আমার বেশ শান্তি লাগে। এই রাস্তাটি কলেজ রোড আর সাতকাহনিয়া (গজারিয়া, মুন্সিগজ্ঞ।) সংযোগ স্থাপন করেছে। এই রাস্তাটি থেকে ঢাকা চট্টগ্রাম বেশী দূর না।

এই রাস্তাটি তৈরি হয় ২০১৯ সালে। আমাদের ২০১৮ বর্ষের অনার্স পরীক্ষার পরে, আর রেজাল্ট এর আগে। তখন আমার বিয়ে হয় নি,... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ৬৮ বার পঠিত     like!

আমার প্রাণের ঢাকা চট্টগ্রাম।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ১০ ই জানুয়ারি, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:২৯


চিত্র: ঢাক-চট্টগ্রাম মহাসড়ক।
স্থান: ভবেরচর বাস স্ট্যান্ড এর নিকটে। গজারিয়া, মুন্সিগজ্ঞ।

ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়ে আমার প্রিয় হাইওয়ে। কারণ আমার বাসা এই মহাসড়ক এর পাশে আমার বেড়ে ওঠা। এই মাহসড়কের পাশেই আমাদের বাসা। আমাদের গজারিয়া উপজেলার উপর দিয়ে চলে গেছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক। আমাদের উপজেলা উত্তরে মেঘনা ব্রীজ এবং দক্ষিনে দাউদকান্দি ব্রীজ।... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৬০ বার পঠিত     like!

স্মৃুত চারণ: মহাকাশ।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ০৬ ই জানুয়ারি, ২০২২ রাত ৮:২২



মহাকাশ। আমাদের দৃষ্টিতে অসীম সীমানা। রাতের আকাশে মিট মিট করে তারা জ্বলে। দেখতে ভালো লাগে।

আমার এক বন্ধু আছে যার নাম নূরে আলম। সে সাই্ন্সের ছাত্র ছিলো। সে একদিন বলছে যে তারা গুলা এক একটি তারা। এই তারা গুলো কে প্রদক্ষিন করছে বিভিন্ন গ্রহ আর উপগ্রহ।

চুয়াডাঙ্গা তে যখন... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ৬৮ বার পঠিত     like!

আমাদের উপজেলায় ভোট হচ্ছে।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২২ সকাল ১০:৩০



আজ আমাদের গজারিয়া উপজেলার সকল ইউনিয়নে ভোট হচ্ছে। আমাদের গজারিয়া মুন্সিগজ্ঞ জেলার অধীনে। কিন্তু আমাদের গজারিয়া নদী বেষ্টিত হওয়ায় মুন্সিগজ্ঞ থেকে বিচ্ছিন্ন।

আমি “সাতকাহনিয়া” সেন্টারে ভোটার। আমার সেন্টার পড়েছে। আলীপুরা সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়ে। খব শান্তিপূর্ন উপায়ে ভোট হচ্ছে। আমি ভোটার হবার পর এখনো কোন ভোট মিস করি... বাকিটুকু পড়ুন

১৬ টি মন্তব্য      ১৪৩ বার পঠিত     like!

স্মৃতিচারণ: একটি জানালা। ও একটি টেলিভিশন।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০২২ রাত ৯:২০



আমি এখন আমার নানীর বাড়িতে। অনেকদিন পর আমি নানীর বাড়িতে। নানীর বাড়িতে আমি SSC, HSC, এবং অনার্স পাশ করি। স্বাভাবিক ভাবেই এখানে আমার অনেক স্মৃতি ও আবেগ কাজ করে।

এখানে যে জানালা দেখতে পারছেন তা দিয়ে ঢাকা চট্টগ্রাম হাইওয়ে দেখা যায়। আমি ২০১৯ সালের ঈদ-উল-ফিতরের আগের দিন এই রাতে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৫৭ বার পঠিত     like!

পোস্ট অফিস ও ই-কর্মাস

লিখেছেন নাহল তরকারি, ০২ রা জানুয়ারি, ২০২২ সকাল ১১:৫৪



ইনি আমাদের ভবেরচর পোস্ট অফিসের পোস্ট মাষ্টর। ভবেরচর পোস্ট অফিস, গজারিয়া, মুন্সিগজ্ঞ। ইনি মাষ্টার রুলে কাজ করে। আমি এক সময় পোস্ট মাষ্টারের সাথে সময় কাটাতাম। দেখতাম rokomari.com খেকে বই আসতো। তারপর বিভিন্ন ঔষুধ আসতো। যেমন: যৌন দুর্বলতা, মিলণের অক্ষমতা, মোটা হউন, চিকন হউন ইত্যাদি।

তার মত যারা মাষ্টার রুলে... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ১৩৩ বার পঠিত     like!

আজ জানুয়ারির ১ তারিখ।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ০১ লা জানুয়ারি, ২০২২ সকাল ১০:৪৮



আজ জানুয়ারির ১ তারিখ। সোজা কথা? জানুয়ারির ১ তারিখ বলে কথা। ১ম থেকে ৫ম শ্রেনী পযর্ন্ত আমি ফ্রি নতুন বই পেতাম। সেই বই ছিলো খুব মজার। কি সুন্দর ছিলো তাহার ঘ্রাণ। ২০০৬ সালে যখন সিক্সে ওঠি তখন থেকে আর ফ্রি নতুন বই পাই নাই। সম্ভবত ২০১০ সাল থেকে আওয়ামীলীগ... বাকিটুকু পড়ুন

৯ টি মন্তব্য      ৮০ বার পঠিত     like!

আজ ২০২১ সালের শেষ দিন।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ৩১ শে ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ৯:৪৮




আজ ৩১ শে ডিসেম্বর ২০২১ ইং তারিখ। বাংলাতে ১৫ পৌশ ১৪২৮ এবং ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩। রোজ শুক্রবার।

আজকের পরে এই ক্যালেন্ডার আমাদের কোন উপকারে আসবে না। এই ক্যালেন্ডার এই বছর আমাদের সাথে সুখে দুখে পাশে ছিলো। আগামীকাল এর পর থেকে নামিয়ে নেওয়া হবে। এখানে শোভা পাবে নতুুন বছরের... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ১৫৭ বার পঠিত     like!

আমাদের ইপিজেড।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ২৯ শে ডিসেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:০২



সময় টি ২০১১ সাল। কিছু জমি অধিগ্রহন করা হয়। উদেশ্য এখানে ইপিজেট বানানো হবে। আমরা মূলত একে বাউশিয়া ইপিজেড বলিয়া ডাকি। ঠিকানা: বাউশিয়া ইপিজেড, গজারিয়া, মুন্সিগজ্ঞ।

যেভাবে যাবেন: গুলিস্থান থেকে দাউদকান্দি বা গৌরিপুরের বাসে উঠবেন। বাস ওয়ালা কে বলবেন ইপিজেট নামিয়ে দিতে। ওরা নামিয়ে দিবে। আর যারা ঢাকা চট্টগ্রাম... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৯১ বার পঠিত     like!

হাসনা‌হেনা গাছ।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ২৬ শে ডিসেম্বর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৪৭



এটা হাসনেহেনা গাছ। আমার খুব প্রিয় গাছ। এই গাছ থেকে সুন্দর সুঘ্রাণ বাহির হয়। রমজান মাসে যখন তারাবী নামায পড়তে যেতাম তখন এই গাছ থেকে খুব সুন্দর ঘ্রাণ বাহির হতো।

আমি এই ঘাসে নিয়মিত পানি দিতাম। গোবার দিতাম। ইউরিয়া সার দিতাম। এখন গাছটি কত তাজা হয়েছে। যাই হউক এই... বাকিটুকু পড়ুন

১১ টি মন্তব্য      ৮৪ বার পঠিত     like!

আমি যখন ছোট ছিলাম তখন যে কার্টুন দেখেছি।

লিখেছেন নাহল তরকারি, ২৫ শে ডিসেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:২৪
১১ টি মন্তব্য      ১৪৪ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ১১৭৮৫ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ