somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

Enigma ব্যান্ড নিয়ে কিছু কথা

১৬ ই মার্চ, ২০০৮ বিকাল ৩:১২
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

মেলা বড় পোস্ট! /:)

Enigma ব্যান্ডটি শ্রোতারের কাছে জনপ্রিয় তাদের সম্পুর্ণ ভিন্নধর্মী স্টাইলের জন্য। সবকিছুতেই এক নতুনের ছোঁয়া এনে দিয়েছিল তারা। তাদের কারনেই Enigmatic Music নামে জন রা (Genre) শুরু হয় মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে। এই ব্যান্ডের যাত্রা শুরু ১৯৯০ সালে। Michael Cretu, David Fairstein and Frank Peterson ছিলেন এই ব্যান্ডের মূল চালিকাশক্তি। অবশ্য Cretu এর স্ত্রীও বেশ কিছু গানে কন্ঠ দিয়েছেন।

রোমানিয়ান Cretu যদিও বেশ আগে থেকেই গানের জগতে ছিলেন কিন্তু Enigma এর মাধ্যমেই তিনি মূলত জনপ্রিয়তা পান। তাঁর স্ত্রীর (Sandra) বেশ কিছু সিঙ্গেলস জনপ্রিয় হয়েছিল, যেমন Maria Magdalena গানটি ২১ দেশে নাম্বার ওয়ান হয়েছিল এক সময়।


MCMXC a.D

এটি রিলিজ হয় ১৯৯০ সালে। MXMXC a.D (রোমানিয়ান ভাষায় ১৯৯০) নামের এই কনসেপ্ট অ্যালবামটি করার প্রেরণা তাঁরা পান Art of Noise and Pink Floyd এর কাছ থেকে। নতুন ঘরানার গানের ভুবনে এটিকে অন্যতম সেরা বলে এখনো বিবেচনা করা হয়। যৌনতা আর ধর্ম এই অ্যালবামের প্রধান থিম। Sadness I গানটিতে Marquis de Sade নামক অষ্টাদশ শতাব্দীর দার্শনিকের (পর্নগ্রাফিক দার্শনিকও বলা যেতে পারে, Sadism শব্দটি তাঁর নাম থেকেই উৎপত্তি) বিশ্বাসকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়। এছাড়া খ্রীস্টান ধর্ম ও মহাবিশ্বের সমাপ্তি বিষয়গুলোও উঠে এসেছে বিভিন্ন গানের ফাঁকে ফাঁকে। Principles of Lust (Sadness এর প্রথম অংশ) গানটিতে গ্রেগরিয়ান চ্যান্ট (দশম শতাব্দীর ধর্মীয় অনুষ্টান) আর ড্রামের মিলন ঘটানো হয় মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে সম্ভবত প্রথমবারের জন্য। গ্রেগরিয়ান চ্যান্ট, অপেরা মিউজিশিয়ান, ফ্রেঞ্চ ভোকাল, জাপানি Shakuhachi বাঁশি, Sandra এর মোলায়েল ব্যাকগ্রাউন্ড, অ্যারাবিয়ান স্টাইলের সংযোজন, Book of Revelation (Revelation of Jesus Christ নামেও পরিচিত, ধর্মীয় গ্রন্থ) থেকে অংশবিশেষের ব্যবহার ইত্যাদি কারনে অ্যালবামটি তুমুল জনপ্রিয়তা পায় নতুন একটি ধারার সূচনার জন্য। ৪১ টি দেশে এই অ্যালবামটি সেরা হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিল সে সময়ে। আমেরিকান বিলবোর্ড ২০০ এ সর্বমোট ২৮২ সপ্তাহ জুড়ে দাপটে রাজত্ব করে। অ্যালবামটি ডাবল প্ল্যাটিনাম উপাধি অর্জন করে USA তে। Sadness I জার্মানিতে সর্বকালের সবচেয়ে বেশি বিক্রিত সিঙ্গেলসের খ্যাতি পায়। দুইটি মুভিতে (Single White Female and Boxing Helena) এখান থেকে কিছু গান ইউজ করা করা হয়।

অবশ্য এই অ্যালবামটি কয়েকটি দেশে ব্যান করা হয়েছিল। গ্রেগরিয়ান চ্যান্ট ব্যবহারের জন্য একটি ধর্মীয় গ্রুপকে বিশাল অঙ্কের জরিমানাও দিতে হয় তাদের। Principles of Lust গানটির মিউজিক ভিডিও প্রচার করা বন্ধ করে দেয় MTV. কিছু সমালোচক ব্লাশফেমি বলে আখ্যা দেয় গানগুলোকে। ডাচ ন্যাশনাল রেডিও তিনটি বম্ব অ্যাটাকের হুমকিও পেয়েছিল। তারপরও সাধারন শ্রোতাদের কাছে তুমুল জনপ্রিয় হয় অ্যালবামটি। Cretu রোলিং স্টোন ম্যাগাজিনকে বলেছিলেন “MCMXC a.D. was like revenge against everything I was hearing. I didn't want to write songs, I wanted to write moods”. নিজেকে একজন নাস্তিক আখ্যা দিয়ে তিনি আরও বলেন “The institution of the Church doesn't really fit with our times. I believe in destiny, which is a much more powerful belief”.

Principles of lust

অডিও লিঙ্ক

Find Love

The principles of lust are easy to understand
Do what you feel, feel until the end
The principles of lust are burned in your mind
Do what you want, do it until you find love
[[[The principles of lust are easy to understand
Do what you feel, feel until the end
The principles of lust are burned in your mind
Do what you want, do it until you find love
I am to come...


The Cross of Changes

১৯৯৩ সালে এটি রিলিজ হয়। এই অ্যালবামের Return to Innocence গানটি সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা পায়। এই গানটি বেশ কিছু মুভিতে ব্যবহার করা হয়েছিল। প্রথম অ্যালবামে ব্যবহার করা গ্রেগরিয়ান চ্যান্ট বাদ দিয়ে এখানে তাঁরা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের আদি চ্যান্ট ব্যবহার করেন। যেমন উপরে উল্লেখ করা গানটিতে Ami Chant ( আদি তাইওয়ানিজ) ব্যবহার করা হয়। দশ থেকে বারো মিলিয়ন কপি বক্রি হয়েছিল এই অ্যালবামের। I Love You, I'll Kill You গানটি লেড জেপলিনের The Battle of Evermore গানটির ধাঁচে করা। Sliver ছবিটির "Carly's Song" and "Carly's Loneliness গানদুটি (Cretu কর্তৃক লিখিত) মিলে Age of Loneliness গানটি করা হয়। ইউ২, জেনেসিস, জন বোনহ্যাম, পিটার গ্যাব্রিয়েল থেকেও কিছু মিউজিক ধার নেয়া হয়েছে। Vangelis Papathanassiou ( গ্রিক কম্পোজার, ২০০২ ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ থিমের কম্পোজার) এর করা নাসার মার্স ওডেসি মিশনের (২০০১) থিম মিউজিকটিরও কিছু অংশ The Eyes of Truth এ ব্যবহার করা হয়।

I Love you I'll Kill You

Return to innocence



Return to Innocence

Love - Devotion
Feeling - Emotion
Don't be afraid to be weak
Don't be too proud to be strong
Just look into your heart, my friend
That will be the return to yourself
The return to innocence.
(The return to innocence)
And if you want, then start to laugh
If you must, then start to cry
Be yourself, don't hide
Just believe in destiny.
Don't care what people say
Just follow your own way
Don't give up, and use the chance
To return to innocence.
That's not the beginning of the end
That's the return to yourself
The return to innocence.
(That's the return to innocence)



Le Roi Est Mort, Vive Le Roi!

ফ্রেঞ্চ ভাষায় Le Roi Est Mort, Vive Le Roi! মানে হচ্ছে The King is Dead, Long Live the King! (১৪৪২ সালে প্রথমবারের মত ফ্রান্সে চালু হয়)। ১৯৯৬ সালে মুক্তি পাওয়া এই অ্যালবামটি সেই সময়ে পুরো ইউরোপে ৩য় স্থান দখল করে। এই অ্যালবামটিকে ধরা হয় প্রথম দুটি অ্যালবামের ব্রেইন চাইল্ড হিসেবে যার ইঙ্গিত দেয়া হয় Third of Its Kind গানটিতে। এটি ১৯৯৮ সালে গ্র্যামি আওয়ার্ডের জন্য মনোনীত হয়েছিল। গ্রেগরিয়ান আর ট্রাইবাল চ্যান্টের প্রভাব এই অ্যালবামটিতেও দেখা যায়। এছাড়া মহাশূন্য অভিযানের কিছু সাউন্ডের ইউজও লক্ষনীয়। Beyond the Invisible গানে ল্যাটভিয়ান চ্যান্ট ব্যবহার করা হয়। এই গানটির মিউজিক ভিডিওটি ইউকে তে ধারন করা। ফ্রেঞ্চ আইস স্কেটিং দম্পত্তিকে দিয়ে করা ভিডিওটির জন্য আলাদাভাবে আইস স্কেটিং মাঠের ব্যবস্থা করা হয়।

TNT for the Brain

Beyond the Invisible





Beyond The Invisible

I look into the mirror
See myself, I'm over me
I need space for my desires
Have to dive into my fantasies
I know as soon as I'll arrive
Everything is possible...
Cause no one has to hide
Beyond the invisible
Sajaja brammani totari ta, raitata raitata, radu ridu raitata, rota
Close your eyes...
Just feel and realize
It is real and not a dream
I'm in you and you're in me
It is time
To break the chains of life
If you follow you will see
What's beyond reality
Ne irascaris Domine,
ne ultra memineris iniquitatis.
Ecce civitas Sancti facta est deserta:
Sion deserta facta est:
Jerusalem desolata est.
Domus sanctificationes tuae et gloriae tuae...
Sajaja brammani totari ta, raitata raitata, radu ridu raitata, rota
Close your eyes...
Just feel and realize
It is real and not a dream
I'm in you and you're in me
It is time
To break the chains of life
If you follow you will see
What's beyond reality
Close your eyes...
Just feel and realize
It is real and not a dream
I'm in you and you're in me
It is time
To break the chains of life
If you follow you will see
What's beyond reality


The Screen Behind the Mirror

এটিকে Enigma র বেশ ম্যাচিউরড অ্যালবাম হিসেবে ধারনা করা হয়। মডার্ন থিমের আধিক্যও নজরে পরে। ১৯৯৯ সালে মুক্তি পাওয়ার পরে এ অ্যালবামটি সমালোচনার মুখে পরে জার্মান কম্পোজার Carl Orff এর Carmina Burana (যা ১৮০৩ সালে ব্যাভারিয়ান মনাসটারি থেকে উদ্ধার করা Burana Codex, যাতে ১১৯ টি পাতার উপরে সর্বমোট ২২৮ টি কবিতা ছিল যার রচনাকাল ধরা হয় ১২০০ থেকে ১২৩০ সাল, এর কিছু কবিতা নিয়ে কম্পোজ করা) সংকলনের অতিরিক্ত ব্যবহারের জন্য (১১ টি গানের মাঝে ৪ টিতে বব্যহার করা হয়েছিল)। Vangelis Papathanassiou এর একটি গানের ধাঁচে অ্যালবামটি শুরু হয়। জাপানি Shakuhachi বাঁশি আবারো এই অ্যালবামে ইউজ করা হয়। তাছাড়া গ্রেগরিয়ান চ্যান্টের রিভার্সও লক্ষনীয়। বিখ্যাত পাঁচ এলিমেন্টের দুইটির (আগুন ও পানি) সিম্বোলাইজ করা হয় একটি গানে। Gravity of Love গানটিতে লেড জেপলিনের একটি গানের ড্রামস ব্যবহার করা হয়। এই গানের মিউজিক ভিডিওটি ১৯৩০ সালের একটি মাসকারেড বলের (Masquerade ball, মুখোসসহ পার্টি) কাহিনী দেখানো হয়। Push the limit গানের মিউজিক ভিডিওতে দেখানো হয় এক ছেলে তার বান্ধবীকে নিয়ে কম্পিউটার গেম খেলতে বসে (তলোয়ার যুদ্ধ)। একই সাথে ব্যাকগ্রান্ডে মাঝে মাঝে দেখানো হয় তারা পরস্পরকে আদর করছে আর তলোয়ার যুদ্ধে একে অন্যকে আক্রমন করে যাচ্ছে; আবার গেমের মধ্যে একে অপরকে আঘাত করে বাস্তবে অবাক দৃষ্টিতে তাকাচ্ছে। ৫ মিলিয়নের বেশি কপি বিক্রি হয় এই অ্যালবামের।

Push the limit




Silence must be heard

Silence Must Be Heard

Look into the others' eyes, many frustrations
Read between the lines, no words, just vibrations
Don't ignore hidden desires
Pay attention, you're playing with fire
Silence must be heard, noise should be observed
The time has come to learn that silence...silence must be heard
Or diamonds will burn, friendly cards will turn
Cause silence has the right to be heard
People talk too much for what they have to say
Words without a meaning, they are fading away
Silence must be heard, noise should be observed
The time has come to learn, that silence...silence must be heard
Or diamonds will burn, friendly cards will turn


Cause silence has the right to be heard.
Silence must be heard...
Silence must be heard, noise should be observed (etc.)


Voyageur

২০০৪ সালে রিলিজ হওয়া এই অ্যালবামে আগের চারটি অ্যালবামের কোন রেশ পাওয়া যায়নি। জাপানি Shakuhachi বাঁশি, গ্রেগরিয়ান বা অন্য কোন চ্যান্ট সম্পূর্ন অনুপস্থিত এই অ্যালবামে। এটি তাদের সবচেয়ে দীর্ঘ অ্যালবামও বটে। মানুষের দৈনন্দিন জীবন, পারস্পরিক সম্পর্ককে ফোকাস করা হয়। এই অ্যালবামটি শ্রোতাদের কিছুটা হতাশ করে আগের কোন কিছুই খুঁজে না পেয়ে।


A Posteriori

ল্যাটিন এই শব্দটির মানে হলো after the fact যা দার্শনিকবিদ্যার epistemological শাখার অন্তর্গত। ২০০৬ সালে মুক্তি পাওয়া এই অ্যালবামে আগের কোন কিছুই একেবারেই খুঁজে পাওয়া যায় নি (Enigmatic Horn ছাড়া, যা আগের প্রতিটি অ্যালবামের শুরুতে ব্যবহার করা হয়েছে)। Hello and Welcome গানটি ২০০৫ সালে প্রথম রিলিজ করা হয়। এই অ্যালবামটি Cretu এর নিজস্ব মোবাইল স্টুডিও Alchemist এ রেকর্ড করা। প্রথম গান Eppur si muove (And yet it moves) গ্যালিলিওর মৃত্যুদন্ড পাওয়ার ঘটনাকে রেফার করে। প্রতিটি গান সম্পুর্ন ভিন্ন একটা আমেজ দেয়। আগের থেকে ভিন্ন ট্র্যাকে গানগুলোকে নিয়ে যাবার কারন হিসেবে Cretu বলেন “It would bore me to death if I just copied myself over and over”. এই অ্যালবামে লিউনার্দো দ্য ভিঞ্চি থেকে শুরু করে জুলভার্ন, ইটি, অ্যান্ড্রোমিডা গ্যালাক্সি, ইত্যাদি অনেক কিছুর প্রসংগ ফুটিয়ে তোলা হয়।


এই অ্যালবামগুলো ছাড়াও তাদের আরো বেশ কিছু সিঙ্গেলস রয়েছে, এছাড়া 15 Years After নামে একটি পুরান অ্যালবামের কালেকশন, কিছু নতুন গানসহ, ২০০৫ সালে রিলিজ হয়।



আরো কিছু তথ্য

১. Sadness I ব্যবহার করা হয় Charlie’s Angels মুভিতে
২. Return To Innocence and Sadeness part I ইউজ হয় Exit to Eden মুভিতে
৩. Gravity of Love ব্যবহার করা হয় The Scorpions King ছবির ট্রেলারে। এছাড়া জনপ্রিয় গেম Final Fantasy IX এর থিম এই গানটি
৪. The Eyes of Truth গানটি The Matrix ছবির ট্রেলারে বহুল ব্যবহৃত হয়
৫. Return to Innocence গানটি Man of the House মুভির শেষে ইউজ করা হয়
৬. Smell of Desire গানটি Bounce মুভির ট্রেলারে ইউজ হয়
৭. One Night Stand, Body of Evidence আর Eraser ছবির ট্রেলারেও Enigma এর গান দেখা যায়
৮. Baywatch এও I Love You...I'll Kill You গানটি ব্যবহার করা হয়।


সাহায্য নেয়া হয়েছেঃ
১.
২.
৩.
৪.
৫.
৬.
৭.
৮.
৯.
১০.
১১.
১২.
১৩.
১৪.


Enigma লিরিক্স


এই পোস্টটিতে আরো কিছু গানের লিঙ্ক দেয়া আছে।
সর্বশেষ এডিট : ২৭ শে নভেম্বর, ২০০৮ সকাল ৭:৪১
৫৪টি মন্তব্য ৪৮টি উত্তর পূর্বের ৫০টি মন্তব্য দেখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

চন্দ্রনাথের মন্দির-গুলিয়াখালি সী বিচ-মহামায়া ইকো পার্ক(ভ্রমন ও ছবি ব্লগ)

লিখেছেন অপু দ্যা গ্রেট, ১৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১২:৩৪




কাজী নজরুল বলেছেন, "আল্লাহ আমাদের হাত দিয়েছেন বেহেশত ও বেহেশতী চিজ চাইয়া লইবার জন্য" । আর মহাপুরষ অপু বলেছেন, " আল্লাহ আমাদের পা দিয়াছেন তার সৃষ্টি সুন্দর এই দুনিয়া... ...বাকিটুকু পড়ুন

টেস্ট পোস্ট

লিখেছেন আর্কিওপটেরিক্স, ১৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ১:৪৩

আমিই বাংলাদেশ

লিখেছেন হাবিব স্যার, ১৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ দুপুর ২:২২

ছবিসূত্র: গুগল.....

আমিই বাংলাদেশ জন্ম আমার উনিশ শ' একাত্তরে,
লাখো শহীদের রক্তে ভেসে ফিরেছি আপন ঘরে।
শেখ মুজিবের হুঙ্কারে আমি ফিরে পেয়েছি প্রাণ,
হাজারো মা-বোন আমাকে ফেরাতে হারিয়েছে সম্মান।
পাক হানাদার দেশি রাজাকার রক্তে... ...বাকিটুকু পড়ুন

একাত্তর বার বার

লিখেছেন শিখা রহমান, ১৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৩৪


ভুমিকম্প হচ্ছে নাকি? শরীর ঝাঁকি দিচ্ছে; সৌম্য ঘুমের চোটে চোখ খুলতে পারেছে না। অনেক কষ্টে চোখ খুলতেই দেখলো একটা ছায়ামূর্তি ওর ওপরে ঝুঁকে আছে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই মানুষটা... ...বাকিটুকু পড়ুন

গল্পঃ রহস্যময় অপু

লিখেছেন অপু তানভীর, ১৬ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৭



বেশ রাত। একটু আগেও রাতের যে কোলাহল ছিল সেটাও এখন থেমে গেছে । মাঝে মাঝে পাড়ার কুকুর গুলো ডেকে উঠছে কেবল । তাড়াছা আর কোন আওয়াজ আসছে না... ...বাকিটুকু পড়ুন

×