somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

সামহোয়ারইন ব্লগের নতুন আউটলুকটা দেখতে পারেন :) [সাথে একটা বাগ, ইনকমপ্লিট ফিচার]

২৯ শে ডিসেম্বর, ২০১১ সকাল ১১:১০
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

আমার মনে হয় ২০০৫ এর পরে থেকে সামহোয়ারইনের কোন আউটলুকে পরিবর্তন হয়নি, সেই হিসেবে ৬ বছর পরে নতুন এই পরিবর্তনটি অবশ্যই একটি বলার মত ঘটনা। কিভাবে ভার্সনটা পেলাম সেটা না বলাই ভালো কারণ এখনো ভালোই বাগ আছে ভার্সনটাতে। তবে নতুন ভার্সনটাতে বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আছে। সেগুলো নিচে লিখছি:

■ সামহোয়ারইন ব্লগের ডিফল্ট সাইজ ১০২৪ পিক্সেল, বাম পাশে সরানো। ফলে যাদের স্ক্রীন সাইজ এর চেয়ে বড় (বিশেষ করে ল্যাপটপ ব্যবহারকারীদের) তারা সবসময় সাইটটিকে বামে পড়ে থাকতে দেখেন কিন্তু কমন ট্রেন্ড হলো সাইটটি মাঝে এসে থাকবে। নতুন ভার্সনে এটা করা হয়েছে।


■ সাইডবারের কালারগুলি এখন যেমন নীল তারথেকে আরো লাইট ব্লুতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। উপরের ছবিটায় "নতুন অ্যাকাউন্ট খুলুন" বাটনের নীচের অংশের রংটা খেয়াল করুন।

■ বর্তমানে টপ মেনুবারে যা আছে সব গুলিকে আইকনে রূপান্তর করা হয়েছে টেক্সট এর বদলে। নিচের স্কীনশটটি দেখুন:


■ দিন অনুসারে ব্লগ দেখার ব্যবস্থা বা হোমপেজে যেই ক্যালেন্ডারটি আছে সেটা এখন সবসময় উপরে মেনুবারে দেখা যাবে:


■ পোস্ট খুঁজবেন নাকি ব্লগার খুঁজবেন সেটা আপনাকে সিলেক্ট করতে হবে আইকন দিয়ে। উপরের ছবিগুলোতে সার্চবারের পাশের বাটন দুইটি পোস্ট নাকি ব্লগার সেটা সিলেক্ট করার কাজ করবে

■ হোমপেজের সকল পোস্ট, নির্বাচিত (যেটা আসলে সংকলিত) পোস্ট, নোটিশবোর্ড লিংক এগুলিও সবসময় ভিজিবল:


■ বিশাল একটা নতুন অ্যাকাউন্ট খুলুন বাটন বিদ্যমান।

■ সবশেষে, কিছু বাগ আছে, যেমন ডাটাবেজ কুয়েরীটা সরাসরি পেজে দেখা যাচ্ছে:

শুধু এই বাগটার জন্যেই আমি মূলত নতুন ভার্সনটার লিংক শেয়ার করলাম না।

******************
এই ছিলো প্রথম দেখায় নোটিশ করা পয়েন্টগুলো। আমাকে সামহোয়ারইন ব্লগ অথরিটি এগুলো টেস্ট করার দায়িত্ব দেয়নি, আমি নিতান্তই এই ভার্সনটা দেখে ফেলেছি তাই আপনাদের সাথেও শেয়ার করলাম। আমি এই ভার্সনটা নিয়ে কমেন্টও করতে চাই, যদিও ভালো করেই জানি ব্লগ টিম আমার কথা শুনবে না। তাতে কি. . .

■ উপরে এখনকার মত টেক্সট লিংকগুলোই ভাল আছে, কেন এটাকে আইকন দিয়ে রিপ্লেস করা হল ঠিক ক্লিয়ার না। যদি আপনাদের সিদ্ধান্ত হয় যে, হোমপেজের সবকিছুই সব পেজে থাকবে তাহলে আপনারা যেটা করতে পারেন তা হল বর্তমানে মেনু বারের লিংকগুলোকে একদম পেজের উপরে নিয়ে যান। এর নিচে রিক্সার ব্যানার ইমেজটি দিন। তার নিচে সার্চ বারের মত জিনিসগুলো দিন যেগুলো হোমপেজ থেকে আনছেন। মনে রাখবেন, ইনফরমেশন অ্যাক্সেস লেভেল যত বাড়বে সেটা তত বাজে ডিজাইন। এই ব্লগের পোস্ট সংখ্যা এত বেশী যে গুগল সার্চ, ফেসবুক থেকেও অনেক ইউজার প্রথম বারের মত এই সাইটে আসেন এবং তাদের জন্য বর্তমান মেনুবারটি পারফেক্ট। অন্যদিকে সবপেজেই সার্চবার, দিন অনুসারে পোস্টের লিংক ঠিক কার দরকার মাথায় আসলো না (বিভিন্ন পোস্ট নিয়ে অ্যানালাইসিস করেন যারা তারা বাদে)।

■ নতুন অ্যাকাউন্ট খুলুন বাটনটার কনট্রাস্ট কমিয়ে দিন, বিরক্তিকরভাবে চোখে লাগছে। নতুন একজনের জন্যে এটা ঠিক আছে কিন্তু রেগুলার ভিজিটরদের জন্যে এটা ভাল আইকন হয়নি। কনট্রাস্ট কমিয়ে দিলেই হবে।

■ এই ভার্সনটা আপনারা আলাদা সার্ভারে হোস্ট করছেন (সাইটের স্পিড দেখে তাই মনে হলো)। ফুল রিলিজ না হওয়া পর্যন্ত এনট্রি সীমিত করুন।

■ গ্রুপ ব্লগ অনেক আগেই ইন্তিকাল করেছে, এটাকে আর টেনে আনবেন না, বাদ দিন একে। বরং পোস্টে ক্যাটাগরী যোগ করার অপশন যোগ করুন। গ্রুপ ব্লগের টার্গেট কি একই ধরনের পোস্টগুলিকে এক জায়গায় রাখা, এইতো? এইজন্যে পুরো পৃথিবীর সবাই পোস্ট-ক্যাটাগরী ব্যবহার করে, আপনারাও তাই করুন। এখন যেমন অনুরোধ পেলে নতুন গ্রুপ খুলে দেন, তখন অনুরোধ পেলে নতুন ক্যাটাগরী ক্রিয়েট করবেন, সিম্পল এবং ইফেক্টিভ অ্যাক্সেস ডিজাইন।

■ নোটিশবোর্ডের লিংক সবপেজেই রাখার সিদ্ধান্তটা ঠিক হয়নি। নোটিশবোর্ড কেন দেখবো আমি? আমি ব্লগ পড়তে/লিখতে আসছি, সেটা করেই আমার কাজ শেষ। সাইটের নোটিশবোর্ডে কি লেখা আছে সেটা দেখার কোন কারণ নাই। আপনাদের টার্গেট যদি হয় ইমপরটেন্ট কোন ডিসিশন/নিউজ সব ব্যবহারকারীর কাছে পৌছে দেয়া তাহলে আপনাদের পোস্ট টিকার ব্যবহার করা উচিত, যখন দরকার তখন শো করবেন এবং সময়মত সরিয়ে নেবেন। এরফলে একজন ব্যবহারকারী/পাঠক ব্লগে আসলেই উপরে ব্যানারের নিচে ভেসে থাকবে, স্ক্রল করলে সেটাও নামতে থাকবে টাইপের জিনিস বলছি আসলে। আপনারা জানেন এটা করা মোটেই কঠিন কাজ না, এবং সেইসাথে এটা নোটিশবোর্ড লিংক রাখার ব্যাপারটাকেও সিম্পলিফাই করবে।

*************
এইতো, ভাল থাকবেন সবাই :)
৪৫টি মন্তব্য ৪২টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

শেষ বিজয়

লিখেছেন রুমী ইয়াসমীন, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৪৬



শুধু আর একটা বিজয় চাই, শেষ বিজয়!
যে বিজয়ে আমরা মরে গিয়েও বেঁচে রবো,
ম্রিয়মাণ হয়েও দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাবো,
ভেঙে দিয়ে তোমাদের যতো সংশয়, যতো ভ্রুকুটি।
যে জন্মের শুরু থেকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

ধূষর দিনে উড়াউড়ি

লিখেছেন রোকসানা লেইস, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৩৬

সকাল থেকে তুমুল বরফের উড়াউড়ি দেখছি। যত না তুষার পরছে তার চেয়ে বেশি উড়ছে, মাটিতে শুয়ে থাকা বরফ।
ঘন মেঘের কুণ্ডলি পাকিয়ে ধূষর অন্ধকার হয়ে যাচ্ছে দৃষ্টি সীমানা। দূরে দিগন্ত... ...বাকিটুকু পড়ুন

সু চির বক্তব্য নিয়ে ব্লগাররা যা ভাবছেন

লিখেছেন রাজীব নুর, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৩০



যিনি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়ালেখা করা মানুষ, যিনি শান্তিতে নোবেল পুরষ্কার পেয়েছেন তিনিই কিনা আজ নির্যাতিতদের বিরুদ্ধে দাড়িয়ে অসত্য বক্তব্য দিচ্ছেন। সুচি সামরিক শাসকের পুতুল।এমন নিকৃষ্ট মানবতাবিরোধী অপরাধীর কঠোর বিচার... ...বাকিটুকু পড়ুন

ইফ ইন্ডিয়া ওয়াজ নট ডিভাইডেড, জিন্নাহ উড বি অনলি ফাদার অব হিজ ওন চিল্ড্রেন

লিখেছেন সায়েমুজজ্জামান, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:৩২

আমি কোরিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইন্ডাষ্ট্রি অ্যান্ড ট্রেড পলিসি বিষয়ে পড়ছি। একই বিষয়ের আগের ব্যাচের আফগান ছাত্র আবদুল হামিদ নজরি। তিনিও আফগানিস্তানের সরকারি কর্মকর্তা। আমাদের দেখা হয় ডরমিটরির হালাল কিচেনে। কথায়... ...বাকিটুকু পড়ুন

বেকুব (ও দুষ্ট) বন্ধুর চেয়ে শিক্ষিত শত্রু ভালো

লিখেছেন চাঁদগাজী, ১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৩



বেগম জিয়া সবচেয়ে কম-শিক্ষিত ও কম-বুদ্ধিমান মানুষ, যিনি আধুনিক যুগে, মুক্তিযুদ্ধে-জয়ী একটি জাতিকে অনেকটা একজন রাণীর মতো চালায়েছেন প্রায় ৩৫ বছর; এটা রূপকথার রাণীদের চেয়েও বড় ধরণের মীথ... ...বাকিটুকু পড়ুন

×