somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

শান্তির দেবদূতের সায়েন্স ফিকশন উপন্যাস - "আর্কোইরিচ কসমস"

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ রাত ১০:৪৭
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :



কুহক কমিক্স এন্ড পাবলিকেশন থেকে এক মাস আগে প্রকাশিত হলো আমার মৌলিক সায়েন্স ফিকশন উপন্যাস, "আর্কোইরিচ কসমস"। এখন 'রকমারি', 'ইবই ঘর', 'ধী বইঘর' সহ প্রায় সবগুলো অনলাইন বুকশপ থেকেই বইটি পাওয়ার যাচ্ছে। বইয়ের ভূমিকার অংশটুকু এখানে তুলে ধরলাম। আশা করি যার সায়েন্স ফিকশন পড়তে পছন্দ করেন তাদের ভালো লাগবে।

লেখকের কথা
আর্কোইরিচ কসমস’ উপন্যাসটি ‘কুহক কমিক্স এন্ড পাবলিকেশন’ হতে অতিশীঘ্রই প্রকাশিত হতে যাচ্ছে। এই সায়েন্স ফিকশনটি আমার পঞ্চম বই হলেও এটি আমার লেখা প্রথম উপন্যাস। প্রথম সায়েন্স ফিকশন উপন্যাস ‘প্রজেক্ট প্রজেক্টাইল’ প্রকাশের আরও বছর তিনেক আগে, ২০১৬ সালের দিকে এই উপন্যাসটি লিখেছিলাম। তখন গল্পের মূল থিম ছিলো; আমরা, মানুষেরা কণ্ঠের সাহায্যে শব্দ তরঙ্গ তৈরি করে ভাষার মাধ্যমে একে অপরের সাথে যোগাযোগ করি। কিন্তু যদি কোনও বিশ্বে কোনও প্রাণীর বিবর্তন এমনভাবে হয় যে, তারা চিত্রের মাধ্যমে যোগাযোগ করে। সেক্ষেত্রে কণ্ঠের চেয়ে চোখ হয়ে উঠবে ভাব আদান-প্রদানের প্রধান মাধ্যম।

ফুরফুরে মেজাজে এটিকে ব্লগে প্রকাশের জন্যে পর্বে ভাগ করে গুছাচ্ছি; তখনই মাথায় যেনও আকাশ ভেঙে পড়ে। ঐ বছরেই হলিউডের একটি মুভি ‘Arrival’ বের হয়। মুভিটিতে ভিনগ্রহীদের সাথে মানুষের কালো রঙের এক ধরণের প্যাটার্নের মাধ্যমে যোগাযোগ দেখানো হয়। মুভিটি দেখা শেষ করেই বজ্রাহতের মতো বসেছিলাম কিছুক্ষণ! তারপর গল্পটিকে আর প্রকাশ না করে হার্ডডিস্কের এককোণে ফেলে রেখেছিলাম প্রায় পাঁচ বছর। অতঃপর কুহক থেকে যখন সায়েন্স ফিকশন প্রকাশের আগ্রহ প্রকাশ করা হলো, তখন এই লেখাটির কথা মনে পড়ে। তারপর এডিট করে বেশকিছু অংশ বদলে ফেলি; মূল থিম আমূল পালটে ভিন্ন একটা রূপ দেই।

ছয় বছর আগের লেখা এই ‘আর্কোইরিচ কসমস’; বিজ্ঞানের নানান বিষয়ে ধারণার জন্যে তখন অনেকের সাহায্য নিয়েছিলাম। অনেক রেফারেন্স ঘেঁটেছিলাম যেগুলোর কথা এখন আর মনে নেই। তবুও যাদের কথা ও যেসকল রেফারেন্সের কথা মনে আছে সেগুলো যুক্ত করে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে রাখছি।

উইকিপিডিয়া, Quanta Magazine, Schizophrenia.com, Sabine Hossen – এর ইউটিউব চ্যানেল, - এই উৎসগুলো না থাকলে এতো সহজে আর সায়েন্স ফিকশন উপন্যাস লিখা হয়ে উঠতো না। গল্পটির বেটা রিডার ছিলেন সুলেখক মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী ভাই। উনার সুচিন্তিত মতামত গল্পটির সমৃদ্ধিতে অনেক অবদান রেখেছে।

অবশেষে পাঠকবৃন্দের প্রতি রইল অনেক শুভেচ্ছা। গল্পের ভেতর যেকোনও ধরণের অসামঞ্জস্য, তথ্যগত ভ্রান্তি নজরে আসলে নির্দ্বিধায় জানাবেন। আশা করি সকলে কল্পবিজ্ঞানের পুরো সাদ এই গল্পে আস্বাদন করতে পারবেন। সকলকে ধন্যবাদ।
সর্বশেষ এডিট : ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ রাত ১০:৫২
৯টি মন্তব্য ৯টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

প্রিয় কন্যা আমার- ৬৮

লিখেছেন রাজীব নুর, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ১২:২১



হ্যালো ফারাজা,
এখন তোমার তিন বছর দুই মাস। আদর ভালোবাসায় তোমার দিন যাচ্ছে। তুমি বড় হচ্ছো। খুব পাকনা হয়ে গেছো তুমি। আজ আমাকে ফোন করে খুব সিরিয়াস ভাবে... ...বাকিটুকু পড়ুন

বাংলাদেশে একসময়কার জনপ্রিয় ব্লগিং যেভাবে হারিয়ে গেল

লিখেছেন ইএম সেলিম আহমেদ, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ সকাল ১১:২১




বাংলাদেশে আজ থেকে ১০-১৫ বছর আগে লেখালেখির জন্য বেশি জনপ্রিয় মাধ্যম ছিল কমিউনিটি ব্লগিং সাইটগুলো। এর মধ্যে কয়েকটি ওয়েবসাইট ভিউয়ার সংখ্যার দিক দিয়ে শীর্ষে উঠে আসে। কিন্তু এক সময়... ...বাকিটুকু পড়ুন

রাজধানীতে শিশু ধর্ষণ , নির্যাতন, হত্যাকান্ড ও মানুষরুপি কিছু জানোয়ারের কথা ।

লিখেছেন সাখাওয়াত হোসেন বাবন, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ দুপুর ১২:৩৯

ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম , ইন্টারনেট ।

গতকাল ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গিয়ে যৌন হয়রানীর শিকার হয়েছে এক রাশিয়ান শিশু। অভিযোগ পাওয়ার পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দ্রুত গ্রেফতার করেছে নির্যাতনকারীকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আর-রাহমান

লিখেছেন মহাজাগতিক চিন্তা, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ দুপুর ১:৪৬




আর-রাহমান চির দয়াময় যিনি
পৃথিবী ভরিয়ে দিয়ে লতায় পাতায়
মাটিকে জীবন্ত করে সবুজ শোভায়
করেন ধরনীতল অনিন্দ সুন্দর।
সৃষ্টি তাঁর অপরূপে সাজালেন তিনি
রাতের প্রকৃতি ভাসে চাঁদ জোছনায়
গ্রীষ্মের রোদের তাপে তরু-বনছায়
শান্তির শীতল বায়ু... ...বাকিটুকু পড়ুন

=সকল ছেড়ে যেতে হবে=

লিখেছেন কাজী ফাতেমা ছবি, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ বিকাল ৩:৫২



©কাজী ফাতেমা ছবি

কেউ রবো না এখান'টাতে
ইহকালের মোহ টানে
সাঙ্গ হবে ভবলীলা-
ভেসে যাবো মরণ বানে!

কেউ রবে না আপন হয়ে-
হাতটি ছেড়ে দেবে শেষে
যেতে হবে খালি হাতে
শেষের খেয়ায় একলা ভেসে!

সঙ্গে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×