somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

নিখোঁজ বিজ্ঞপ্তি - কারো জানা / খোঁজে থাকলে দয়া করে তাদের ব্লগে হাজির করুন / হতে বলুন আর বর্ণচোরা (ভিন্ন নামে ) হয়ে থাকলে হাজিরা দেন প্লিচ :(( প্লিচ। আমরা আপনাদের সবাইকে মিচ করছি।

২৫ শে জানুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:৪২
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


ছবি - quora.com

গত কয়েকমাস যাবত ব্লগে ব্যাপক জনপ্রিয় এবং সুলেখক তিন তিনজন ব্লগার অনুপস্থিত ।তারা হলেন ব্লগার -

১। কবিতা পড়ার প্রহর - https://www.somewhereinblog.net/blog/Mahrin
২। সামু পাগলা ০০০৭ - Click This Link
৩। বিপ্লব06 - Click This Link

তাদের অনুপস্থিতি হঠাত এবং রহস্যজনক। জনপ্রিয় এবং পাঠকপ্রিয় সুলেখক হওয়া সত্মেও তারা কেন দীর্ঘদিন ব্লগে অনুপস্থিত এ বিষয়ে কিছুটা হলেও আমি চিন্তিত। যদি তারা ভাল ও সুস্স্থ্য থাকেন তাহলে ঠিক আছে বা সুস্স্থ্য থাকা সত্মেও কেন তারা ব্লগে অনুপস্থিত এটাও প্রশ্ন ।যদি কারো জানা থাকে তাহলে তাদের আপডেট জানাবেন দয়া করে ।আর আপনাদের মাঝে যদি কেউ ভিন্ন নামে ব্লগে সক্রিয় থাকেন ,তাহলে আমার/আমাদের চিন্তা দূর করার জন্য হলেও উপস্থিতি নিশ্চিত করবেন প্লিজ প্লিজ।

=============================================================================




১।ব্লগার কবিতা পড়ার প্রহর - https://www.somewhereinblog.net/blog/Mahrin/30311335 তার "চিলেকোঠার প্রেম" এর সর্বশেষ পোস্ট লিখেছেন, চিলেকোঠার প্রেম- ২০ এবং শেষ পর্ব (২৩ শে নভেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৫৫ মিনিট)।

ব্যাপোক পাঠকপ্রিয় এবং সুখপাঠ্য এই পোস্টে আমার মন্তব্য ছিল -
-------------------------------------------------------------------------------
- প্রকৃতির স্বাভাবিক নিয়ম এই যে, - "যার শুরু আছে তার শেষ ও আছে"।

৩ রা আগস্ট রাত ১১:১৩ মিনিটে যে "চিলেকোটার প্রেমের " গল্প শুরু হয়েছিল তার সমাপ্তি হল ২৩ শে নভেম্বর সকাল ১১:৫৫ মিনিটে।দিনের হিসাবে ১১২ দিন ।আমার মনে হয়,এই ১১২ দিন ব্লগের পাঠক মাত্রই বুদ হয়েছিল চিলেকোটার প্রেমে।নবীন-প্রবীন সবাই উপভোগ করেছে তাদের প্রেম কাহিনী আর উদ্বেগ-উৎকনঠায় থেকেছে এর পরে কি ঘটবে তা নিয়ে।সেই হিসাবে লেখিকা সফল।আর এই সীমিত সময়ে যদিও ভালবাসায় বুদ হয়ে থাকারই কথা ছিল তারপরেও আমরা এই ভালবাসার কোমল রুপ যেমন দেখেছি তেমনি বিচছেদের মত কঠিন কাজও দেখেছি এবং মেনে নিয়েছি।

একটি গল্প-উপন্যাস তখনই সফল হয় যখন এটি পাঠকপ্রিয়তা পায় এবং পড়তে পড়তে কখনো মনে হয়না যে সে গল্প-উপন্যাস পড়ছে । তার মনে এ ধারনাই আসে যে আরে এত আমারই জীবন কাহিনী । মানে গল্পের চরিত্রের মাঝে লেখকের লেখার চমতকার লিখন শৈলিতে ভাবতে বাধ্য হয় লেখার চরিত্রকে নিজের মাঝে ধারন করতে।আর ক্ষেত্রে লেখিকা শতভাগ সফল ।আর অবিশ্বাস্য ও অকল্পনীয় এবং ভাবনার বাইরের চেয়ে সুন্দর একটি গল্প উপহার দেয়ার জন্য লেখিকাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

প্রথম দিকের পুরো লেখা জুড়ে নায়িকার একতরফা অন্ধ ভালবাসার রুপ দেখতে দেখতে বিরক্ত বোধ করলেও শেষ দিকে এসে সেই নায়িকার ই কঠোর কঠিন রুপ দেখে শংকিত বোধ করতাম।নারী যে শুধু কোমল মনের প্রেমিকাই হয় তা নয় কখনো কখনো সে কঠোর কঠিন প্রতিপক্ষের চেয়েও কঠিন হতে পারে তা দেখে রীতিমত আতংক বোধ করতাম। আর পরিশেষে বিচছেদের মাধ্যমে তাদের ভালবাসার যে সমাপ্তি দেখলাম এতে নায়িকার কোমল মনের পাশাপাশি একটি কঠোর কঠিন মনেরও পরিচয় মিলে।এজন্যই হয়ত কথায় আছে , " যে রাধে সে চুলও বাধে"।

অবিশ্বাস্য ও অকল্পনীয় এবং ভাবনার বাইরের চেয়ে সুন্দর এই গল্প লেখিকার চমতকার লেখা,কাহিনী বিন্যাস ও উপস্থাপনের কল্যানেই সম্ভব হয়েছে তার পরেও আমার মনে হয় এতে আর কিছু ঘটনা প্রবাহ সহায়ক ও নিয়ামক হিসাবে ভূমিকা পালন করেছে এ গল্পের সাফল্যের পিছনে। তা আমার ধারনা ।জানিনা লেখিকা বা বাকি পাঠক আমার সাথে একমত হবেন কিনা?

*এই লেখার সফলতার পিছনে আমি লেখিকার বাইরে আরো ২ জনকে ধন্যবাদ দিতে চাই ।তারা হলেন - ১।লরুজন (আশা করি পাঠকরা কেউ লরুজনকে ভুলেনি ) ও ২। সামু পাগলা০০৭ বা পাগলা বহিন কে ।

** লরুজনকে এ কারনে ধন্যবাদ দিতে চাই যে, লরুজন যদি লেখিকাকে উত্তেজিত বা বিক্ষুব্ধ না করত তাহলে লেখিকা হয়ত এত মনোযোগ দিয়ে লিখত না আর লরুজনের বিরক্তকর কাজের জন্যই অধিক সংখ্যক পাঠক এ গল্প তথা লেখিকার সাথে সংযুক্ত হয়ে ,লেখিকাকে তথা তার লেখাকে ভালবেসে তাকে সফল করে তুলেছে।তাই লরুজনের জন্য রইল উষ্ণ অভিনন্দন।

** আর সামু পাগলা০০৭ বহিনের কথা কি বলব!!! তার একটি লাইন-একটি লেখা "সামু ব্লগারদের চলমান কিছু আন্ডাররেটেড রোমান্টিক সিরিজ (প্লিইইই চেক দেম আউট, মিস করবেন না! :)" ই অনেককে একবার হলেও এই ৩ গল্পে চোখ বুলাতে বাধ্য করেছে ।

আর একই সময়ের এই ৩ গল্পের মাঝে সন্ধ্যা প্রদীপ এর "বুকের ভেতর মৃত নদী" একটি নিটোল প্রেমের গল্প ।তার পরেও অনিয়মিত লেখার কারনে আমার মনে হয় ততটা পাঠকপ্রিয়তা পায়নি বলে আমার মনে হয়।

বিপ্লব০০৬ -এন ইডিয়ট ইন ম্যারিজ - কি কমু। ভাই মনে হয় বিয়া না করতে পাইরে কোমায় চলে গেছে ।তাই পাঠক এটাও মিস করেছে।

***কবিতা পড়ার প্রহর এর " চিলেকোটার প্রেম " -আহা!!! গল্প পড়ে আমার মনে হয় কারোও এমন মনে হয়নি যে তারা গল্প পড়ছে। সবারই মনে হয় তাই মনে অইছে যে , "আরে এত আমারি জীবনের কাহিনী!!! লেখিকা কেমনে জানল আর জাইনা লিখখাও লাইল।

গল্প সেইরম অইছে+++। লেখিকার লেখা সফল...।আর এই সফলতার জন্য সামু পাগলা ০০০৭ বনির জন্যও রইল উষ্ণ অভিনন্দন হৃদয়ের গভীর থেকে।

আর সবশেষে লেখিকার জন্য শুধু ভালবাসা ( চিলেকোটার না ) আর অপেক্ষা পরে কোন একসময়ের আবারো এরকম আরেকটি হৃদয় ছোয়া লেখার যা হবে মিলনের ,বিরহের নয় অবশ্যই :P

আর আমার মন্তব্যের জবাবে - লেখক বলেছিলেন -
--------------------------------------------------------------
সকাল থেকেই নানারকম কাজ ছিলো।

এই মন্তব্য পড়ে ভাষা হারালাম ভাইয়া। তুমি যদি লিখতে তো মনে হয় আরও সুন্দর হত। তবে আমার মনের বেদনা কষ্ট বা ভালোবাসা কি কের বুঝতে জানিনা.......
আমিও তো পারিনি ১০০% বুঝাতে ......
ভাইয়া এই গল্প যদি প্রকাশিত হয় তোমার এই লেখা মুখবন্ধে থাকবে সাথে আরও থাকবে যারা যরাা এি গল্প নিয়ে মূল্যবান মন্তব্য দিয়েছিলো। পরে আসবো কোনোদিন সেসব নিয়ে।
আমি সাফল্য পছন্দ করি। সেই জন্য হেরে যাওয়া কাজও আমি করার সময় মন দিয়ে করি। তার জন্য লড়াই করি।
কিন্তু এই লেখা শুধু নিজের জন্যই ছিলো।
তবুও এই লেখার সাফল্যে আমি নিজেকে নিজেই মুগ্ধ হলাম।

কিছু পাঠকের পাগলা ভালোবাসা আমার জামাই পাগলী বউ এর মত তাদের উপাধী দিলাম পাঠক পাগলা .....০৯ ই ডিসেম্বর, ২০২০ রাত ১১:১৬ সর্বশেষ ব্লগে উপস্থিতি(মোঃ মাইদুল সরকার ভাইয়ের মন্তব্যের জবাবে )।তার পর থেকে ব্লগে উপস্থিতি নেই।

তার পর থেকে নিখোজ। এখন আমার প্রশ্ন, বোন কি শুভ্রর বিচছেদ এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি বা এখনো শুভ্রর জন্য শোক পালন করতেছে নাকি সব কিছু ভলে গিয়ে আমাদের না জানিয়ে এই লকডাউনের মাঝে শুভ্রর সাথে মিটমাট করে আবার সংসার শুরু করল ।আবার এরকম ও কি হয়েছে কিনা শুভ্রকে ভুলার জন্য শুভ্রর মত অন্য কাউকে নিয়া ব্যাপোক :P মজায় দিন কাটাচছে।আবার এও ভাবি,বোন কি রাইটার ব্লকে পড়ল না নতুন কোন গল্পের পটভূমি খুজতে এখানে-সেখানে ঘুরে বেড়াচছে । আর তার অভাবে ব্লগে গল্প (প্রমের) করা চলছে।যদিও "অপু তানবীর" ভাই গল্প লিখেন তার পরেও কেমন যেন খালি খালি লাগে। কারন,আমি আবার প্রমের গল্প ব্যাপোক বালাবাই। যাই হোক যেভাবেই থাকুক ভাল থাকুক আর মাঝে মাঝে কিছু মিছু লিখে আমাদের বিনোদিত করুক আর আমদের মাঝে (ব্লগ)ফিরে আসুক ,এটাই চাওয়া।
=============================================================================



২।সামু পাগলা ০০০৭ Click This Link তার সর্বশেষ পোস্ট লিখেছেন, "সামু ব্লগারদের চলমান কিছু আন্ডাররেটেড রোমান্টিক সিরিজ (প্লিইইই চেক দেম আউট, মিস করবেন না! :) )" লিখেছেন " ১০ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:১৪মিনিটে"।এটিও ব্যাপোক পাঠকপ্রিয় এবং সুখপাঠ্য ।

এই পোস্টে আমার মন্তব্য ছিল - ধন্যবাদ ,সামু পাগলা বহিন,
-----------------------------------------
তরুন মেধাবী গল্পকার পরিচিতি পর্বের জন্য। আপনার এ মহতি উদ্যোগ সাধুবাদ পাবার যোগ্য।

এবার আসেন আলোচিত ৩ জনের লেখায় -

১।সন্ধ্যা প্রদীপ এর "বুকের ভেতর মৃত নদী" একটি নিটোল প্রেমের গল্প ।আমি বহুত ভালাবাই :-B প্রেমের গল্প ( এই আকামের কামলা কিনা )
১।মোর মন্তব্য ছিল এরম: প্রেমের ক্ষেত্রে মেয়েরা আসলে একটু অগোছালো,আলভোলা-ভূলোমনা,কেয়ারিং ,খুব বেশী স্মার্ট নয় এমন ছেলেদেরই প্রাধান্য দেয় বলে আমার (নিজেও এই আকামের কামলা কিনা B-)) এই জন্য) বিশ্বাস। আর এই জন্য তারা (প্রেমিকারা /শ্রাবণীরা) পরবর্তী জীবনে অনেক ত্যাগ ও বেদনাদায়ক পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়।

তবে তুষারের মত ছেলেদের ভালবাসা হয়ত ভাল নয় তারপরেও প্রেমিকার মনে একটা আশা থাকে সে হয়ত ঠিকই তাকে তারমত করে তৈরী করে নিতে পারবে একসময়।তবে প্রেমের ক্ষেত্রে এ জাতীয় ছেলেরা অনেক মিথ্যা বলে এটা প্রমাণীত (আমাকে দিয়ে আমি বলছি)।অবশ্য প্রেম এবং যুদ্ধ ক্ষেত্রে সব কিছুই যদিও বৈধ তারপরেও প্রেমের ক্ষেত্রে এমন বড় মিথ্যা বলা উচিত নয় যাতে সম্পর্কের ভিওিমুলই নড়ে যায়।

আর মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়েরা জীবন যুদ্ধে তার সহযোগী হিসাবে তার সমমনা একজনকেই সহযোগী হিসাবে চায় যে কিনা তাকে বুঝবে,সহযোগীতা করবে ,তার মা-বাবা তথা পরিবারকে ভালবাসবে এবং সুখে-দুখে বন্ধুর মত পাশে থাকবে। তবে জীবনের জটিলতায় অনেক সময় তার হিসাব মিলেনা ।তখন আসলে মেয়েটাকে তার জীবনের সবচেয়ে বড় ত্যাগ অথবা ক্ষতিটাই
মেনে নিতে হয়।
জানিনা আপনি লেখক কিভাবে তাদের প্রেমের সমাপ্তি টানবেন ।লেখক হিসাবে আপনার পূর্ণ স্বাধীনতা আছে তাদের প্রেমকে সফল বা ব্যর্থ হিসাবে উপস্থাপন করার। আপনি তাদের প্রেমকে যেমন সফল ভাবে রুপায়িত করতে পারেন আবার ব্যর্থ ও করে দিতে পারেন।তবে যাই করেন - বাদরের গলায় মুক্তার মালা দিয়েন না।হয় তুষারের ভুলটাকে মিনিমাইজ করে ভাল হিসাবে অথবা শ্রাবণীর জীবন থেকে তাকে বাদ দিয়ে দেন। আমি শ্রাবণীর প্রেমের ভবিষ্যতের পাশাপাশি তার নিজের ভবিষ্যত নিয়েও শংকিত।

পরবর্তী পর্বে দয়া করে ,শ্রাবণীর জীবন থেকে ব্যর্থতার কাল মেঘ সরিয়ে সাফল্যের ঝলমলে আলোয় আলোকিত করে দেন । শ্রাবণীর বুকের ভেতরের মৃত নদীটাকে ভালবাসায়,সাফল্যের ধারায় পরিপূর্ণ করে দেন।

২।বিপ্লব০০৬ -এন ইডিয়ট ইন ম্যারিজ - কি কমু।বলার ভাষা নাই। ভাইয়ের বিয়ার চিন্তায় আমার ঘুম আহেনা ,মাথা পুরা হ্যাং হয়ে আছে কবে -এই আকাম ডা করব।
১। আমি মন্তব্যে বলেছিনু: ছব পরিকল্পনা ঠিক আছে বাহে,কিন্তুক এক টাহা দেনমোহর এইডা মনে হয় মানব না সুন্দরী।এ ইজজত কা সওয়াল বাহে। কমছে কম ত B-)) অর্ধ কোরর হোনা চাইয়ে।
তারপরে কি অইল , জানবার মুনচায়।

২। আমি মন্তব্যে বলেছিনু: আমনে লোক ছুবিধার না।খালি অপছন খুজেন।পেলান এ,পেলান বি করেন।জীবন ত একটাই।এত পেলান কইরা কি অইব।

বিয়ার লাই বিসমিললাহ বলে নাইমা পড়েন মিয়া ভাই,বিয়া কোরবার জন্য একবেলাই যথেষ্ট।আর জ্যাটলগ ছুডাইবার লাই B-)) বিয়াতুন বড় কুন অষুদ নাই।
ছুনদরী মনে হয় বিলা (রাগ) অইছে।কারন, দেশে আইবার আগে আপনার ছুনদরীরে জিজ্ঞাসা করা উচিত ছিল,কিছু :-B মিছু লাগত কিনা,আর তারপর আপনার নিজস্ব দায়বদ্ধতায় কওয়া দরকার ছিল আননে হের লাই এককান I PHONE -11 /PRO / SE / XR নিয়া আইতাছেন।আর আননে কিনা ছকলেট আনতাছেন।হে কি বাচচা যে ইতা খাইব।

আর বিমানবালারা ছব ছুনদরীই ছিল ,মাগার আননের ছুনদরী ফুন না ধরায় :-< আননের মোন বিলা ঐ গেচিল।
রোমান্টিক সিনেমা দেইখা কাম ঐব বইলা মনে অয়না।তার পরেও আললার নাম লই আই পরেন দেশে।যা অইবার তাই অইব।

চিন্তা ন কড়ি (পেলান বি,ছি,ডি রেডি)।

৩।আমি মন্তব্যে বলেছিনু: ভাইজান,বুজবার লাগছি ।
আপনি ছ্যাকা খাইয়া বেকা ঐবার লাগছেন।
চিনতা ন করি। কিছু মিছু ঐব বলে মন কয়।

ছুনদরীর মেসেজ,এক ঘন্টা আগের ফ্লাইট - ছব মিলাইয়া মনে ঐবার লাগছে ,ছ্যাকা খাইয়া বেকা ঐছেন ঠিক আছে তয় কোমায় যাওয়ার আগেই ভালা কিছু :-B মিছু ঘটব বইলা মন কইতাছে....।

বালা কইরা ঘুমাইয়া লন। ঘুমেততুন উইটটাঐ দেখবেন --------ঠিক ঐয়া গেচে ।

৪। আমি মন্তব্যে বলেছিনু: এইয়া অই ঠিক আছে বাহে, "pray for her (সুন্দরী) to be happy"আংগুর হল টক অইল না খাইতে পারলে।

কি আর করা হৃদয় জালে ঢুকব ঢুকব কইরাও জালের (প্রেমের) B-)) ফান কাইটটা বাইর ঐ গেল সুন্দরী (আগেই কইছিলাম ,এত কম দেনমোহরে মাইয়া রাজী অইবনা ,আমার মনে লয় মাইয়া আননের লগে একটু খেলছে / ঘুড়ি ওড়ানো আরকি । :(( নাটাই হাতে রাকছিল আর আননেরে একটু সুতা ছাড়ি দেকছে )।

অর কুন দোষ নাই ,দোষ অইল বয়সের ।ভাইজান বুইললা জান ।এই ছুন্দরী আননের লাই বানাই ন উপরওয়ালা।

next ছুন্দরীর খবর কন।
ভাইজান আর কিছু বলেনা । ব্যাপক টেনশনে আছি ,ভাইজানের বিয়া লই।



৩।কবিতা পড়ার প্রহর এর " চিলেকোটার প্রেম " -

কি কমু - এই লেখা পড়ে - আবার আবার মুনচায় :(( -এই আকাম করবার লাই।

১।মুই বলেছিনু: আজ একসাথে সব গুলি পর্ব একটানে পড়ে ফেললাম।

গল্প পড়ছি মনে হয়নি। মনে অইছে আমারি জীবনের কাহিনী আমনে কেমনে জানলেন আর জাইনা লিখখাও লাইলেন ( এই আকাম :P করছি কিনা)
গল্প সেইরম অইছে+++। লেখা আপনার সফল...।

দুনিয়ার সকল শাশুড়ি (আমার মা ) একই চরিত্রের ।
শাশুড়িদের চরিত্রের ভিন্নতা খুবই কম দেখতে পাওয়া যায়।

২। মুই বলেছিনু:: এই অংশ সেইরম অইছে+++।

বাবার সর্বজনীন রুপ এটাই ।মায়েরা বরাবরই ছেলের বউদের ব্যাপারে প্রথম প্রথম দুশ্চিন্তায় থাকে।পরে আশা করি ঠিক হয়ে যাবে।
কি কমু।আমনে বহিন রে কিছু কই ছোড করবার চাইনা।শুধু কমু "ধন্যবাদ" তিন তিনডা বালাবাসার গল্প একসাথে পরার সুযোগ দানের জন্য।

আর আমার মন্তব্যের জবাবে - লেখক বলেছিলেন - ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:২৯ মিনিটে
--------------------------------------------------------------
আপনার এ মহতি উদ্যোগ সাধুবাদ পাবার যোগ্য।- থ্যাংকু থ্যাংকু। :)

এবার আসেন আলোচিত ৩ জনের লেখায় -আচ্ছা, আমিও আসছি.... ;)

১।সন্ধ্যা প্রদীপ এর "বুকের ভেতর মৃত নদী" একটি নিটোল প্রেমের গল্প
প্রেমের ক্ষেত্রে এ জাতীয় ছেলেরা অনেক মিথ্যা বলে এটা প্রমাণীত (আমাকে দিয়ে আমি বলছি)।
তার মানে আপনিও মিথ্যুক ছেলে ছিলেন? ;)

আর মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়েরা জীবন যুদ্ধে তার সহযোগী হিসাবে তার সমমনা একজনকেই সহযোগী হিসাবে চায় যে কিনা তাকে বুঝবে,সহযোগীতা করবে ,তার মা-বাবা তথা পরিবারকে ভালবাসবে এবং সুখে-দুখে বন্ধুর মত পাশে থাকবে। তবে জীবনের জটিলতায় অনেক সময় তার হিসাব মিলেনা ।তখন আসলে মেয়েটাকে তার জীবনের সবচেয়ে বড় ত্যাগ অথবা ক্ষতিটাই মেনে নিতে হয়।
এই কথাগুলো এত বেশি পারফেক্ট যে কি বলব! খুব ভালো এনালাইসিস করেছে নারী চরিত্রকে। গল্পের নায়িকার মনে হচ্ছে, নিজের চেয়ে এসট্যাবলিশড ছেলেকে বিয়ে করলে, তার শোপিস হয়ে থাকতে হবে। সেরকম ছেলের জীবনে অবদান রাখার মতোও কিছু অবশিষ্ট নেই। যে নিজে থেকেই গোছালো তাকে আর কি গোছাবে? কিন্তু তুষারের মতো অগোছালো, মিথ্যুক একটা ছেলেকে বেটার অপশন মনে করছে শুধু এই আশায় যে "আমি সব বদলে ফেলব! আত্মসম্মান নিয়ে বাঁচতে পারব।" কিন্তু যে ছেলেকে ২৫ বছরে মা শুধরাতে পারেনি, তাকে কয়েক বছরের প্রেমিকা/বউও বেশিরভার সময়ে শুধরাতে পারেনা। তখন সব স্বপ্ন ভেঙ্গে ভালোবাসাটা চলে যায়। অন্যদিকে বাপের বাড়িতেও জায়গা হয়না কেননা তাদের সাথে ঝগড়া করেই তো অনিশ্চিতের দিকে পা বাড়িয়েছিল। বাজে একটা পরিস্থিতি তৈরি হয় সবমিলে।
আমি আশা করি, সিরিজটি পড়ে মেয়েরা সচেতন হবে এসব ব্যাপারে। সেজন্যেই সিরিজটি আমার প্রিয়।

২। বিপ্লব০০৬ -এন ইডিয়ট ইন ম্যারিজ

ভাইয়ের বিয়ার চিন্তায় আমার ঘুম আহেনা ,মাথা পুরা হ্যাং হয়ে আছে কবে -এই আকাম ডা করব।
আমারো একই অবস্থা, কবে গল্পের নায়ক খুঁজে পাবে বধুকে? হাহা
আমি মন্তব্যে বলেছিনু: ছব পরিকল্পনা ঠিক আছে বাহে,কিন্তুক এক টাহা দেনমোহর এইডা মনে হয় মানব না সুন্দরী।এ ইজজত কা সওয়াল বাহে। কমছে কম ত B-)) অর্ধ কোরর হোনা চাইয়ে। তারপরে কি অইল , জানবার মুনচায়।
দেনমোহরের বিষয়টা এত সহজ হয়না সাধারণত। পাত্র পাত্রী কথা বলে ১ টাকা সেট করে ফেলল আর হয়ে গেল - এসব মুভিতে হয়। বাস্তবে "সাধারণত" দুই পরিবারের মুরুব্বীরা মিলে অনেক আলোচনা করে ডিসাইড করেন, অনেকসময় এই একটা বিষয়ে মতের অমিলের কারণে বিয়ে ভেঙ্গেও যায়। আমার কথা হচ্ছে দেনমোহর এত কমও হওয়া উচিৎ না যাতে করে দেওয়া আর না দেওয়া সমান হয়ে যায়, আবার পাত্রের সামর্থ্যের বাইরেও হওয়া উচিৎ না যে সে শোধই করতে পারলনা। লোক দেখানো/মাফ করানো ইত্যাদি নিয়তে নয় শোধের নিয়তে দেনমোহর নির্ধারণ করতে হবে।

৩।কবিতা পড়ার প্রহর এর " চিলেকোটার প্রেম " -

বাবার সর্বজনীন রুপ এটাই ।মায়েরা বরাবরই ছেলের বউদের ব্যাপারে প্রথম প্রথম দুশ্চিন্তায় থাকে।পরে আশা করি ঠিক হয়ে যাবে। কি কমু।
ভালো বলেছেন।

শুধু কমু "ধন্যবাদ" তিন তিনডা বালাবাসার গল্প একসাথে পরার সুযোগ দানের জন্য।
মোস্ট ওয়েলকাম। ধন্যবাদ আমার দেওয়া উচিৎ। তিনটি সিরিজে আপনার সকল মন্তব্যগুলো এক করে এমন একটি মন্তব্য করার আইডিয়াটা জোশ! আমার পোস্টে এসে যে সময় ও মেধা ব্যয় করেছেন তাতে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাই। আমার কি যে ভালো লেগেছে বলার না। এমন মন্তব্যে আমাকেই শুধু নয়, যে সিরিজগুলোর কথা লিখেছি তাদের লেখক/লেখিকাদেরও অনুপ্রাণিত করেছেন।
এভাবেই সুন্দর মন্তব্য/প্রতিমন্তব্যে সামুকে মাতিয়ে রাখুন।
ভালো থাকুন।

সর্বশেষ - ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩৫ মিনিটে মূর্খ বন মানুষের মন্তব্যের জবাবে বলেছিলেন - আমি খুশি হলাম জেনে যে পোস্টটি আপনার মতো ব্যস্ত মানুষের কিছুটা কাজে লাগবে। তবে এসব সম্ভবত আপনার প্রিয় জনরার লেখা না, তাই ভালো নাও লাগতে পারে।

যাই হোক, অনেক ধন্যবাদ মন্তব্যটির জন্যে। ভালো থাকবেন অবশ্যই।

তার পর থেকে নিখোজ। এখন আমার প্রশ্ন, বোন কি লেখা-পড়া নিয়া ব্যস্ত নাকি লকডাউনে বিয়াশাদী করে ঘর-সংসার করতেছেন না ক্যারিয়ার-চাকরী-বাকরীর চিন্তায় / লইয়া ব্যস্ত আর উনার অবর্তমানে সামুর আড্ডাঘর বন্ধ।ধুলা-বালি জমা হচছে আড্ডাঘরে। কেউ নাই দরজা খুলে ঝাড়পোছ করার জন্য । আবার রোস্ট (মুরগীর নয় ) পোস্ট ও বন্ধ । যার ফলে আমরা পাচছিনা মসলাদার কিছু।উনার অবর্তমানে ব্লগে এখন সব কঠিন কঠিন লেখা ।যাই হোক যেভাবেই থাকেন ভাল থাকেন আর মাঝে মাঝে কিছু মিছু লিখে আমাদের বিনোদিত করেন।
===============================================================================



৩।বিপ্লব06 Click This Link,তিনি তার সর্বশেষ পোস্ট লিখেছেন, "এন ইডিয়ট ইন ম্যারিজ!!! (চৌদ্দ)" ১৫ ই আগস্ট, ২০২০ সকাল ৮:৪২ মিনিট"।এটিও ব্যাপোক পাঠকপ্রিয় এবং সুখপাঠ্য ।

এই পোস্টে আমার মন্তব্য ছিল -
-------------------------------------
এইয়া অই ঠিক আছে বাহে, "pray for her (সুন্দরী) to be happy"আংগুর হল টক অইল না খাইতে পারলে।

কি আর করা হৃদয় জালে ঢুকব ঢুকব কইরাও জালের (প্রেমের) B-)) ফান কাইটটা বাইর ঐ গেল সুন্দরী (আগেই কইছিলাম ,এত কম দেনমোহরে মাইয়া রাজী অইবনা ,আমার মনে লয় মাইয়া আননের লগে একটু খেলছে / ঘুড়ি ওড়ানো আরকি । :(( নাটাই হাতে রাকছিল আর আননেরে একটু সুতা ছাড়ি দেকছে )।

অর কুন দোষ নাই ,দোষ অইল বয়সের ।ভাইজান বুইললা জান ।এই ছুন্দরী আননের লাই বানাই ন উপরওয়ালা।

next ছুন্দরীর খবর কন।

জবাবে ভাইজান (লেখক) বলেছিলেন -আঙ্গুর ফল টক এই কোথা কিন্তু আমি কই নাই
-------------------------------------------------
নেক্সট সুন্দরি পাইপলাইনে আছে! আসতেছে!

সর্বশেষ - ০৩ রা নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৮:৩০ মিনিটে শয়মা বনির মন্তব্যের জবাবে বলেছিলেন - আছি ভালোই। আপনি ভালো আছেন না?
ইদানীং লিখতে মন চায় না। একবার লেখার মুড আসলে দেখা যাবে কয়েক পর্ব লিখে ফেলছি! - ভালো থাকবেন! ।

তার পর থেকে নিখোজ। এখন আমার প্রশ্ন, ভাই কি বিয়া না করতে পাইরা রাগে-দুঃখে বনবাসে বা কোমায় চলে গেল নাকি ? না আমাদের না জানিয়ে লকডাউনে বিয়া কইরা চুপি চুপি হানিমুন করবার লাগছে ? এদিকে আমরা মিস করছি নতুন নতুন পাত্রী দেখার
অভিজ্ঞতা থেকে

=========================================================================

সবশেষে,আপনাদের তিনজনকেই আমি ব্যাপোকভাবে মিস :(( করছি। আমার বিশ্বাস, বাকী ব্লগার রাও আমার মত আপনাদের কে , আপনাদের লেখাকে মিস করছেন। এই লেখা দেখা/পড়া মাত্রই ব্লগে আপনাদের উপস্থিতি কামনা করছি। আর অন্য ব্লগার বা কেউ যদি তাদের ব্যক্তিগতভাবে জানেন তাদের এই বার্তা পৌঁছে দিন আমরা তাদের সবাইকে (তিনজনকে )খুব মিস করছি এবং ব্লগে তাদের সরব উপস্থিতি কামনা করছি। আপনারা তিন তিনজন গুণী ব্লগারের অনুপস্থিতে ব্লগে গল্প, আড্ডা ও ভালবাসা অনুপস্থিত হয়ে গেছে। ব্লগ হয়ে গেছে রস-কস-সিংগরা-বুলবুলি বিহীন।আপনারা ফিরে আসুন ব্লগে আর ব্লগ হয়ে উঠুক পরিপূর্ণ আর আমরা পাই নতুন নতুন লেখ।
সর্বশেষ এডিট : ২৫ শে জানুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:৪৫
২১টি মন্তব্য ২১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

বিবিধ

লিখেছেন কলাবাগান১, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ সকাল ১১:৪১

১- অনেকে এর ই মোজা পরার পর মোজার ইলাস্টিক থেকে চোখে পড়ার মত পায়ে দাগ দেখা যায়।


এটা যদি অনেকদিন ধরেই চলতে থাকে, তা হলে কিন্তু আপনার উচিত হবে... ...বাকিটুকু পড়ুন

একটি অশালীন কবিতা

লিখেছেন রাজীব নুর, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ দুপুর ১:০২




শাহেদ জামাল আজ খুব মদ খাবে
একদম ভরপুর দুষ্ট মাতাল হয়ে যাবে
তার ভদ্র লিমিট যদিও তিন পেগ
সে খাবে তেরো পেগ, তাতে কার কি?
নিজের পয়সায় খরিদ করে... ...বাকিটুকু পড়ুন

কেন বাংলাদেশের বিমানবাহী রণতরী এবং উন্নত ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা প্রয়োজন?

লিখেছেন নাহিদ ২০১৯, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ বিকাল ৪:৫৫

একটা দেশের গুরুত্ব অনেকটা বিবেচিত হয় তার অর্থনৈতিক অবস্থা কতটা শক্তিশালী। কিন্তু আমি এখানে দ্বিমত পোষণ করে বলছি বিশ্বে একটা দেশ কতটা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে তা নির্ভর করে তার সামরিক... ...বাকিটুকু পড়ুন

নাদের আলির ভাংগা স্বপন !

লিখেছেন স্প্যানকড, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৪৩

তৈল চিত্র আর্টিস্ট নাস্তিয়া ফরচুন

ছুটছে পিঁপড়ের দল
দেয়াল জুড়ে সারি
নাদের আলি
মনে করে সে
রাজা সোলেমন!

জিগাই ফেলে,
কি হে পিঁপড়ের দল
আছিস কেমন?

কেউ শোনে না
সোজা যাচ্ছে চলে
কেউ তাকায়... ...বাকিটুকু পড়ুন

গল্পঃ শেষ যাত্রার শুরু....

লিখেছেন অপু তানভীর, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২৯

ছবিঃ ইন্টারনেট


কত সময় ধরে আকাশের দিকে তাকিয়ে রয়েছি তা আমার নিজেরই মনে নেই । লক্ষ কোটি তারার দিকে তাকিয়ে থাকতে ভাল লাগছে । মনে হচ্ছে যেন আমি এই... ...বাকিটুকু পড়ুন

×