somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

পরীক্ষা পদ্ধতি ছাড়া ছাত্রছাত্রীদের মেধা যাচাই এর দ্বিতীয় কোন বিকল্প নাই

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০২৩ দুপুর ২:০৯
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

শিক্ষার্থীদের আনন্দময় পরিবেশে পড়ানোর পাশাপাশি মুখস্থনির্ভরতার পরিবর্তে দক্ষতা, সৃজনশীলতা, জ্ঞান ও নতুন দৃষ্টিভঙ্গি সম্পর্কে শেখাতে নতুন শিক্ষাক্রম চালু করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড। এক্ষেত্রে উন্নত দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার উদাহরন তুলে ধরা হচ্ছে। তবে কোন দেশের শিক্ষাব্যবস্থার কথা বলা হচ্ছে সেটা বোধগম্য হচ্ছে না। আমি অন্তত কোন দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ, বৃত্ত নামক গ্রেডিং সিস্টেমের কথা শুনিনি!!

এটা ঠিক যে আমাদের দেশের পড়াশোনা কিছুটা গতানুগতিক মুখস্থ বিদ্যা নির্ভর। ছাত্রছাত্রীরা অধিকাংশ সময়েই না বুঝেই কেবল পড়া মুখস্থ করে। মুখস্থ করার প্রয়োজন অবস্যই আছে , কিন্ত না বুঝে মুখস্থ করলে সেই জ্ঞান এপ্লাই করা সম্ভব হয় না। উন্নত দেশে ক্লাসের পড়াশোনাকে আনন্দময় ও বোধগম্য করার কিছু পদ্ধতি সংক্ষেপে আলোচনা করছি। যে কোন টপিক পড়ানোর সময় বিভিন্ন টুলস যেমন টপিক রিলেটেড ভিডিও , ছবি , মাইন্ড ম্যপ , ফ্লো চার্ট , ট্রি ম্যপ, প্রপস ইত্যাদি ব্যবহ্রত হয়। এছাড়াও বাস্তব জীবনকে সম্পৃক্ত করে বিভিন্ন উদাহরন দিলে সেই টপিক বোঝাটা সহজ হয় শিক্ষার্থীদের জন্য । এরপর শিক্ষক যা পড়িয়েছে তা শিক্ষার্থীরা বুঝেছে কিনা তা চেক করার জন্য ‘’formative assessment ( The purpose of formative assessment is to monitor student learning and provide ongoing feedback ‘’) করা হয় অর্থাৎ ছোট ছোট কুইজ এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বোধগম্যতা চেক করা হয়। কুইজের জন্য ব্যবহ্রত হয় Fill in the blank , matching, True/False ইত্যাদি পদ্ধতি। পরীক্ষা পদ্ধতি ছাড়া আসলে ছাত্রছাত্রীদের মেধা যাচাই এর দ্বীতিয় কোন বিকল্প নাই। আমার এখানকার স্কুলে বছরে চারবার ‘’ weighted assesment ‘’ এবং বছরের শেষে বার্ষিক পরিক্ষা নেয়া হয়। weighted assesment হচ্ছে কয়েকটি টপিকের ওপড় ক্লাস টেস্ট।

বাংলাদেশের নতুন কারিকুলামের বিরুদ্ধে দেশব্যপী অভিভাবকদের প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নতুন কারিকুলামের আওতায় বিভিন্ন ক্লাস ও প্রজেক্টে মূল্যায়নের পদ্ধতি দেখে মনে হল এই সিস্টেম উন্নত দেশে মুলত যেসব ছাত্রছাত্রী পড়াশোনায় অমনোযোগী বা যাদের learnng difficulty আছে তাদের ক্ষেত্রে ব্যবহ্রত হয়। সিঙ্গাপুরে সেকেন্ডারি স্কুলে ‘’ নরমাল টেকনিকাল’’ একটা শাখা আছে যে শাখার ছাত্রছাত্রীদের কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে শিক্ষা প্রদান করা হয়ে থাকে। তবে তাদেরকে কারিগরী শিক্ষা দেয়া হলেও বছর শেষে কিন্ত ঠিকই পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মেধা যাচাই করা হয়।। স্কুলের সংখ্যাগরিষ্ঠ ছাত্র ছাত্রীরা এক্সপ্রেস শাখায় পড়ে যারা ক্লাস টেন শেষ করে 'ও' লেভেল পরীক্ষায় বসে।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভের পরে দেশের শিক্ষাব্যবস্থা পুনর্গঠনের জন্য যে শিক্ষাকমিশন গঠন করা হয় তাতে মুহম্মদ_কুদরাত-এ-খুদা সভাপতি নির্বাচিত হন । তার নাম অনুসারে পরবর্তিকালে রিপোর্টির নাম রাখা হয় ' ড.কুদরাত-এ-খুদা শিক্ষাকমিশন রিপোর্ট'। এটি প্রকাশিত হয় ১৯৭৪ সালের মে মাসে ' বাংলাদেশ শিক্ষা কমিশন রিপোর্ট' নামে। এতে ৩৬ তি অধ্যায় ছিল এবং পৃষ্ঠা সংখ্যা ছিল মোট ৪৩০ যেখানে শিক্ষার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যাবলী লিপিবদ্ধ করা হয়। ৩৬ টি অধ্যায়ের শিরোনাম হলোঃ
চরিত্র ও ব্যক্তিত্ব গঠন
কর্ম অভিজ্ঞতা
শিক্ষার মাধ্যম
শিক্ষায় বিদেশী ভাষার স্থান
শিক্ষক- শিক্ষার্থীর হার
প্রাক্‌- প্রাথমিক শিক্ষা
প্রাথমিক শিক্ষা
মাধ্যমিক শিক্ষা
বৃত্তিমূলক শিক্ষা
ডিপ্লোমা স্তরে প্রকৌশল শিক্ষা ও প্রযুক্তিবিদ্যা
মাদ্রাসা শিক্ষা ও টোল শিক্ষা
শিক্ষক শিক্ষণ
উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা
ডিগ্রী স্তরে প্রকৌশল শিক্ষা ও প্রযুক্তিবিদ্যা
বিজ্ঞান শিক্ষা
কৃষিশিক্ষা
বাণিজ্যশিক্ষা
আইনশিক্ষা
ললিতকলা
পরীক্ষা ও মূল্যায়ন পদ্ধতি
শিক্ষকদের দায়িত্ব ও মর্যাদা
নিরক্ষরতা দূরীকরণ
বয়স্ক শিক্ষা ও অনানুষ্ঠানিক শিক্ষা
নারীশিক্ষা
বিশেষ শিক্ষা
শারীরিক ও মানসিক বাধাগ্রস্থদের এবং বিশেষ মেধাবীদের জন্য শিক্ষা
স্বাস্থ্য শিক্ষা
শরীরচর্চা ও সামরিক শিক্ষা
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি
শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক
শিক্ষাগৃহ ও শিক্ষার উপকরন
গ্রন্থাগার
শিক্ষাক্ষেত্রে সুযোগ সুবিধা
ছাত্র নির্দেশনা ও পরামর্শদান
ছাত্রকল্যাণ ও জাতীয় সেবা, শিক্ষার জন্য অর্থসংস্থান এবং পরিশেষ


শিক্ষায় বিশাল অবদানের জন্য একুশে পদক প্রাপ্ত কুদরতি এ খুদার প্রনয়নকৃত শিক্ষাব্যবস্থায় আপনি কি কোন ত্রুটি দেখতে পাচ্ছেন ? বরং এত বছর পরেও দেখা যাচ্ছে যে, আমাদের শিক্ষার ভিতটা ছিল খুবই মজবুত। তাহলে এই ভিতটা ভেঙ্গেচুরে নতুন কারিকুলাম প্রবর্তনের হেতু কি ? সব দেশে এডুকেশন সিস্টেম যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আপডেট করা হয় ,ছাত্রীছাত্রীদের গিনিপিগ বানিয়ে নিত্য নতুন কারিকুলাম এক্সপেরিমেন্ট এর বিষয়টা বিগত কয়েক বছর ধরে কেবল আমাদের দেশেই দেখছি!!!!

আমাদের শিক্ষাবোর্ডে কারা আছেন বর্তমানে আমার জানা নাই। শুধু একটা প্রশ্ন মনে জাগছে যে , তাদের সন্তানেরা কি বাংলা মিডিয়ামে পড়ছে?

তথ্যসুত্র ঃ উইকিপিডিয়া
সর্বশেষ এডিট : ০৫ ই ডিসেম্বর, ২০২৩ দুপুর ১:৩৪
২২টি মন্তব্য ১৯টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

ইমাম মাহদী (আ.) আসার আগ পর্যন্ত মুসলিম জাতি কি করবে?

লিখেছেন মহাজাগতিক চিন্তা, ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ সকাল ১১:১০



সূরাঃ ৮ আনফাল, ৬৫ ও ৬৬ নং আয়াতের অনুবাদ-
৬৫। হে নবি! মু’মিন দিগকে যুদ্ধের জন্য উদ্বুদ্ধ কর। তোমাদের মধ্যে কুড়িজন ধৈর্যশীল থাকলে তারা দুইশতজনের উপর বিজয়ী হবে।তোমাদের মধ্যে... ...বাকিটুকু পড়ুন

বাংলা ভাষার ত্রাতা গুরু মওলানা আকরম খাঁ সম্পর্কে ব্লগারদের ধারণা স্বচ্ছ নয়

লিখেছেন সত্যপথিক শাইয়্যান, ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ দুপুর ১:০৭






ছবিঃ ১৯৭১ সালের ১৪ই ও ১৬ই মার্চ, দৈনিক আজাদ সম্পাদকীয়।

কয়েক দিন আগে ব্লগার গেছো দাদা তার একটি পোস্টে ভাষা শিল্পী মওলানা আকরম খাঁ সম্পর্কে উল্লেখ করেছেন যে,... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমার বন্ধু রতন

লিখেছেন রূপক বিধৌত সাধু, ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ বিকাল ৩:৫২


আমাদের বাড়ি থেকে এক বাড়ি পরেই রতনদের বাড়ি। সে আমার ছোটোবেলার বন্ধু। একসাথে প্রাইমেরি স্কুলে পড়ালেখা করেছি। সে ছিল আমার নিত্যদিনের সঙ্গী। বিকেলে খেলাধুলা করতাম যেমন, দু'জন ভিসিআর দেখার... ...বাকিটুকু পড়ুন

বুক রিভিউ অথবা আমার চিন্তাব্যাখ্যার ব্যায়াম সিরিজঃ ১

লিখেছেন শরৎ চৌধুরী, ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ বিকাল ৪:০৮



বইয়ের নামঃ অহেতুক আলেবালে জলসেচনে ক্ষতি নাই
কবিঃ আদনান আলী
প্রথম প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
প্রকাশকঃ চন্দ্রবিন্দু


‘বুক রিভিউ’ নামক শব্দ যুগলের পেছনে ছায়ার মত যে শরীরী চিত্রকল্প জেগে উঠতে পারে সেটাকে বাংলা ভাষার শক্তি... ...বাকিটুকু পড়ুন

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন কতটা বাস্তবায়ন হচ্ছে?

লিখেছেন এম ডি মুসা, ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ১১:১৯



১৯৭৫ সালে ১১ জানুয়ারি জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান বলেনঃ বাংলাদেশ সামরিক বাহিনীর প্রধান, বাংলাদেশ সামরিক একাডেমীর অধ্যক্ষ ও আমার ক্যাডেট ভাইয়েরা, আপনারা সকলেই আমার আন্তরিক অভিনন্দন গ্রহণ করুন।... ...বাকিটুকু পড়ুন

×