somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

:(( রম্য লেখাঃ আমি VS পোষা-প্রাণীর ইতি কথা :((

২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৪২
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :



প্রিয় ব্লগবাসী, বাসায় তো আমরা অনেকেই শখের বসে অনেক কিছুই প্রতিপালন করি। সে কুকুর, বিড়াল, পাখি, কবুতর ইত্যাদি যাই হোক না কেন। তবে আমার ক্ষেত্রে পুরো চিত্রটাই ভিন্ন :(( যাই হোক সে ভিন্নতাই আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করতে যাচ্ছি B-)

ঘটনা ১ (স্কুল লাইফ): বহুকাল আগে বানর দেখিয়া মনের ভিতরে ফুড়ুৎ কইরা শখ জাগলো যে একটা বানর পাললে খারাপ হয় না। একটা সঙ্গী পাওয়া যাইবো। যাক বাবা রে বললাম, একটা বানর নিয়ে পাললে কেমন হয়?

বাবাঃ তোরে পালতাছি তাই অনেক X(( ঘরে দুইটা বানর পালার কোন যুক্তিকতা আমি দেখি না :-P এইটা আমার বাসা কোন চিড়িয়াখানা না বুঝতে পারসস বান্দর X((
আমিঃ এ কৈমন বিচার :(( হে আমার মমতাময়ী মা, তোমার কাছে বিচার দিলাম :((
মাঃ তোর বাবা ঠিকই কইছে, ঠিকই তো তুই সারাদিন যে বানদড়াঁমি করোস, উল্টা তোরে খাঁচায় ভইরা রাখা দরকার X(
আমিঃ স্পিকারের উপ্রে যদি কিছু থাকে ঐটা হইয়া গেছিলাম :((

যাক সেই থিক্কাই বানর পালার ইচ্ছা বাদ :((

ঘটনা ২ (কলেজ লাইফ): অনেক কাল আগে আরে ডাইনাসোর যুগে না আর কি, যখন টিভি তে vodafone এড আসতো তখন ঐখানে পাগ প্রজাতীর কুকুর দিয়ে এড দিয়েছিলো। তখন থেকে মনে ধরছিলো একটা পাগ পালুম B-)) । কয়েকবার পশু-পাখি বিক্রয়ের দোকানে ঢুঁ ও দিছি। যদি দাম শুনিয়া হালকার উপ্রে ঝাপসা ইস্টুক করছিলাম :(( যাক গেলাম আমার বাবার কাছে আকুল আবেদন নিয়া, বাবা আমি একটা কুকুর পালতে চাই :``>> বলার পর,

বাবাঃ (কিছুক্ষণ কি জানি চিন্তা করার পর) কি চালাইতে চাস?
আমিঃ আরে চালামু কে কইলো, কইছি পালতে চাই?
বাবাঃ তুই আবার কি পালতে চাস? আমি তোরে পালতাছি তাই অনেক :-/
আমিঃ একটা পাগ পালতে চাই :D
বাবাঃ পাগ কি? :|
আমিঃ এইটা কুকুরের আরেকটা প্রজাতি।(তৎকালীন প্রস্তর যুগে আছিলাম। ঢাকায় ২জি নেট ও খুবই কষ্ট কইরা পাইতো :(( )
বাবাঃ কুকুরেরও এত জাত আছে নাকি :-/ এইটা কি কুকুরের নাম নাকি কুকুরের মাসতুতো/জেঠাতো কোন প্রজাতি?
আমিঃ ঐটাই যা ভাবো আর কি!!! তা আমারে একটা কিনা দেও না বাবা :((
বাবাঃ (টিভি তে এড দেখানোর পর) আমারে পেট শপে নিয়া গেলো। দাম এবং ওদের লালন পালনের সব নিয়ম জানার পর আমারে কইলো, "হয় বাসায় তুই থাকবি নইলে কুত্তা থাকবো, আমি দুইটার খরচ বহন করতে পারুম না X(( "
আমিঃ থাক লাগবো না কুত্তা, বাসায় চলো কালকে আমার কলেজে ক্লাশ টেস্ট আছে :((
বাবাঃ আর যদি কোন দিন কইসস, তাইলে তোর একদিন কি আমার একদিন X((

যাক কুকুর পালার চিন্তাও বাদ :((

ঘটনা ৩ (বর্তমান লাইফ): বিগত কয়েকমাস আগে, এক বড় ভাইয়ের বাসায় গেছিলাম। গিয়া দেখি উনার বাসায় তিনটা বিড়াল। তা তিনটার নাম রাখছে মিনি, সোনাই আর রুপাই। আমি এগুলা মনে রাখতে না পাইরা, থ্রী ইডিয়স মুভির কথা চিন্তা কইরা নাম দিয়া দিলামঃ কিলোবাইট (এইটার পিঠের দিক কালা), মেগাবাইট, গিগাবাইট (এইটা একটু বড় ছিলো)। যদিও কিছুক্ষণ পর নিজেই গুলাইয়া ফালাইছিলাম কার নাম কি দিছিলাম :||

তা আমার ঐ সন্মানিত বড় ভাই আমারে বিড়াল পালা নিয়া অনেক জ্ঞান প্রদান করলো, যা আমার মাথার উপ্রে দিয়া গেলো। তবে বিড়াল গুলা ওয়েল ট্রেইনড আছিলো। কি বলে পটি না হাগু ট্রেনিং ও দেয়া, এইগুলার খাওয়া খাদ্যের দাম শুইনা আমি আবারো হালকার উপ্রে ঝাপসা ইস্টুক করছিলাম :(( আমি তো মনে করছিলাম বিড়াল মাছ আর দুধ দিলেই খুশি |-) । কিন্তু এইগুলা ও যে ডিজুস হইয়া গেছে জানা ছিলো না :((

অতঃপর একদিন অফিস থেকে বাসায় ফেরার সময় বাবার কাছে বললাম,

আমিঃ বাবা, বিড়াল কি পালা ঠিক?
বাবাঃ ঠিক বেঠিক এর কি আছে।
আমিঃ না গতকাল ভাইয়ের বাসায় তিনটা বিড়াল দেখলাম তো। ভালোই আছে। বাচ্চা বিড়াল আর কি :D তিড়িং-বিড়িং করে :)
(সরাসরি বলতাছি না যে বিড়াল পালুম, যদি কই তাইলে আমারে রাস্তাতেই দৌঁড়ানি দিতো)
বাবাঃ ভালো, তা দেখসস ঠিকাছে। ঐ সব পালার কোন কাজ নাই। বাসায় মাছ, দুধ কিছুই রাখবো না। ক্ষুধা লাগলে নিজের মনে কইরা সব খাইয়া ফালাইবো। ও কাউরে কিছু জিজ্ঞাসা করার প্রয়োজন মনে করবো না।
আমিঃ না, দেখলাম ভাই স্যুপ খাওয়াইলো। মাছ ও খাওয়াইলো।
বাবাঃ (খানিক তাস্কিত হইয়া) হুমম খাওয়াতে পারে, তাতে তোর সমস্যা কই? তুই ও না হয় একটু টেস্ট কইরা দেখতি, বলদ কোনহানকার X((
আমিঃ না এমনিই কইলাম আর কি :((
বাবাঃ চুপ থাক। অফিসের কাজ তো ঠিকমত করস না। এখন আইছে বিড়ালের উপরে বিচার বিশ্লেষণ করতে। বাসায় গিয়া কাজের রিপোর্ট গুলা আমারে দিবি। নইলে আজকে তোর খানা-পিনা বন্ধ X((
আমিঃ হালার কপাল রে :(( বিড়ালের লিগা আজকে আমার ওভারটাইম করা লাগবো :((

তাই চিন্তা করছি আর কোন দিন কোন কিছু পালার কথা বাসায় কমু না :(( কারণ যদি কই তাইলে আমারে যে পালতেছে তাই বন্ধ কইরা দিবো :((
সর্বশেষ এডিট : ২৪ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৪২
৭টি মন্তব্য ৭টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

ডাকাতদর্শন

লিখেছেন মৃত্তিকামানব, ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৩০


আমাদের ছোটবেলায় প্রতিদিন নিয়ম কইরা দিনের বেলায় চুরি হইত আর রাতের বেলায় ডাকাতি।ডাকাতরা বেবাক কিসিমের মুখোশ পইরা, অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হইয়া আইসা স্বর্ণালংকার, টাকাকড়ি থেকে শুরু কইরা শ্বশুরবাড়ি থেকে আসা পিঠাপুলি... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমার উপদেশ বা অনুরোধ

লিখেছেন রাজীব নুর, ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:০৩



একটা গল্প দিয়ে লেখাটা শুরু করি-
একজন বয়োজ্যেষ্ঠ ভদ্রলোক তরমুজ বিক্রি করছেন। তরমুজের মূল্যতালিকা এমন: একটা কিনলে ৩ টাকা, তিনটা ১০ টাকা।
একজন তরুণ দোকানে এসে একটা তরমুজের দাম... ...বাকিটুকু পড়ুন

মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসির আদেশ

লিখেছেন শাহ আজিজ, ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:০৪






সকালে তৎপর মিডিয়া দেখাচ্ছিল বাবার মোটর বাইকে চড়ে মিন্নি কোর্টে এসেছে মাস্ক পরে । এই তিনটার সময় বাবা মিন্নি ছাড়াই বাইক নিয়ে ফিরে গেল... ...বাকিটুকু পড়ুন

তিস্তায় চীনাদের যোগ করার কোন প্রয়োজন নেই, বাংগালীদের পারতে হবে।

লিখেছেন চাঁদগাজী, ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:৫৯



ভারতের সাথে তিস্তার পানি বন্টন ও বন্যা কন্ট্রোল কোনভাবে হয়ে উঠছে না; ভারতের পানির দরকার, এতে সমস্যা নেই; ওদের প্রয়োজন আছে, বাংলাদেশেরও প্রয়োজন আছে, এই সহজ ভাবনাকে কাজে লাগিয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

পদ্মবিল

লিখেছেন সাদা মনের মানুষ, ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:৪৮


ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে ৩৫ কিলোমিটার দূরে আখাউড়া উপজেলার ত্রিপুরা সীমান্তবর্তী মিনারকোট পদ্মবিল। টিভির খবরটা দেখেই কয়েকজন বন্ধু নিয়ে ছুটে গিয়েছিলাম পদ্মবিল দেখতে। প্রত্যন্ত অঞ্চল হলেও ওখানটায় গাড়ি নিয়ে যাওয়ার... ...বাকিটুকু পড়ুন

×