somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

বইয়ের সাথে সেলফি!!!

২৯ শে আগস্ট, ২০১৪ রাত ১:১৬
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

পুরনো আমলের লোকজন কেমন বইয়ের সঙ্গে ছবি তুলতেন মনে আছে৷? খুব পণ্ডিত মানুষ না হলেও, পিঠ-উঁচু চেয়ারে বসে ছবি তোলার সময় পাশে যে নিচু টেবিলে একটা অলস হাত রাখা থাকত, সেই টেবিলের ওপর দু-তিনটে বইও থাকত৷‌ নেহাত না থাকলে ছবি রি-টাচ করার সময় বইগুলো এঁকে দেওয়া হত৷‌ হাতে আঁকা ছবি হলেও অবশ্যই থাকত বই৷‌ আর মানুষটি পেশায় শিক্ষাবিদ হলে তো কথাই নেই৷‌ ভাঁজ করে বুকের কাছে তুলে রাখা ডান হাতে নিশ্চিত ধরা থাকত একটি-দুটি বই৷; ঠিক যেভাবে লড়াকু সৈনিক চিতিয়ে রাখা বুকের ঠিক পাশে শক্ত মুঠিতে ধরে থাকে শাণিত বর্শা৷‌ কিংবা শিকারীর পায়ের নীচে মৃত বাঘ আর হাতে দোনালা বন্দুক; কতকটা অভিজ্ঞানের মতো৷‌ ওই ছবির মানুষটি কীরকম, উনি পড়ুয়া৷‌ ওই যে হাতে ধরা বই! উনি সৈনিক; কিংবা উনি শিকারী।

আমাদের এই বইন্যাওটা অভ্যাসটা রয়ে গিয়েছে৷‌ এখনও বহু লোক ছবি তুলতে হলে সটান গিয়ে বইয়ের তাকের সামনে দাঁড়িয়ে পড়েন৷‌ নিজের সঙ্গে নিজের বই-ভাণ্ডার দেখাতে এঁরা সমান উৎসাহী৷‌ এর মধ্যেও এক ধরনের দেখানেপনা থাকে৷‌ কিন্তু সেটা কি ‘এই দেখো, আমি কত পড়াশোনা করি’, না ‘এই দেখো, আমার কত বই’? নাকি দুটোই?

বহু শিক্ষিত মধ্যবিত্তকে প্রচ্ছন্ন গর্ব নিয়ে বলতে শুনেছি, ‘লোকের বাড়িতে দামী জিনিসপত্র, টাকাপয়সা, সোনাদানা থাকে। কিন্তু আমার বাড়িতে, হেঁ হেঁ, বই ছাড়া আর কিছুই পাবেন না৷‌’ কিছু লোক অবশ্য থাকেন, যাঁরা ছুতোনাতায় জাহির করতে ভালবাসেন যে তাঁরা পড়াশোনা ছাড়া অন্য কিচ্ছুটি করেন না৷‌ টিভি দেখেন না, ফুটবল বিশ্বকাপ বা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে অর্বাচীনের হুজুগ ভাবেন, তাস-দাবা-পাশা, চা-পান-দোক্তা, মদ-মাংস-ইয়ে, কোনও নেশা নাকি তাঁদের নেই, এক পড়াশোনা ছাড়া!

কিন্তু এর বাইরেও একদল লোক আছেন, যাঁরা আদতেই বইয়ের প্রেমে বিভোর৷‌ বহু বছর পর দেখা হলেও তাঁরা ‘কেমন আছেন’ না জিজ্ঞেস করে প্রথমেই জানতে চান, ‘এখন কী পড়ছেন?’ এবং এই প্রশ্নের পিছনে একটা সুপ্ত ইচ্ছে থাকে, তাঁরা নিজেরা কী পড়ছেন, সেটা জানানোর৷‌ এঁরা মাসমাইনের টাকা বাঁচিয়ে বই কেনেন, বোনাসের টাকার কিছুটা বইমেলা কেন্দ্রিক সাহিত্যে অর্পণ করেন এবং যা খুশী তা বই কিনে আহ্লাদে আটখানা হন; বই হলেই হল৷, লেখক দেখার টাইম নাই। নতুন বই কিনে এঁদের বাড়ি পৌঁছনোর তর সয় না, ছুটন্ত বাসে বা লোকাল ট্রেনের কামরায়, কিংবা রিকশায় সম্তর্পণে প্যাকেট খুলে পুনঃ পুনঃ নতুন বইয়ের মুখচন্দ্রিমা দর্শন করে শিহরিত হন৷‌ নীলক্ষেতের ফুটপাতে পুরনো বইয়ের দোকানে এঁরা হামলে পড়ে গুপ্তধন খোঁজেন৷‌ চেনা দোকানদার হলে পুরনো প্রেমের মতো চোখে চোখে ইশারা হয়, নতুন কিছু এল নাকি?

এই সম্প্রদায়ের মধ্যে যাবতীয় সামাজিক আলাপচারিতা হয় মূলত বই নিয়েই৷‌ কী কিনলেন, কী পড়লেন, কোনটা বেশ সরেস লাগল, কোনটা অখাদ্য৷‌ নতুন বই কিনলে স্ট্যাটাস বা ছবি আপলোড করে পাঁচজনকে জানানো; দেখে সবাই বলবে "বুড়ো ভাম ফের খোকা হল"!
সো হোয়াট???
সবই আসলে আমাদের প্রতি তাদের হিংসে :P

উপরে উল্লেখিত ২ ক্যাটাগরির পড়ুয়ার মধ্যে আমি সম্ভবত প্রথম ক্যাটাগরির; দেখানে পড়ুয়া :/ আমি অলস :(

ফেসবুকে কিছু পড়ুয়ার বুক সেলফের ছবি দেখে হিংসায় জ্বলে পুড়ে ছারখার হয়ে গিয়েছি।

চাইলে আপনাদের বুক সেলফের ছবি কমেন্টে দিতে পারেন :)
আশা করি কেউ কারো বই দেখে ধার চাইবেন না :P

ফেসবুক পোস্ট লিঙ্কঃ Click This Link
০টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

ব্লগার হিসাবে মানুষের প্রতি আপনার কর্তব্য কী?

লিখেছেন রাজীব নুর, ১৮ ই আগস্ট, ২০২২ দুপুর ১:৪৩



একজন ব্লগার একজন সাধারন মানুষের চেয়ে আলাদা।
একজন সাধারন মানুষ কাজ করে। সংসার নিয়ে ব্যস্ত থাকে। সে শুধু তার কাজ এবং সংসার নিয়েই ভাবে। দেশ বা সমাজ নিয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমার বড় কন্যা (ছবি ব্লগ) - ০৫

লিখেছেন মরুভূমির জলদস্যু, ১৮ ই আগস্ট, ২০২২ বিকাল ৫:২৩


ছবি তোলার স্থান : সোনাকান্দা দূর্গ, বন্দর, নারায়ণগঞ্জ, বাংলাদেশ।
ছবি তোলার তারিখ : ২৪/১২/২০১৭ ইং

আমার বড় কন্যা সাইয়ারা নাজিবা সোহেন বেশশান্ত আর লক্ষী মেয়ে ছিলো ছোট বেলায়, এখনো আছে। দেখতে দেখতে... ...বাকিটুকু পড়ুন

ভূতের রানীর জন্মদিনে !!

লিখেছেন নূর মোহাম্মদ নূরু, ১৮ ই আগস্ট, ২০২২ বিকাল ৫:৫০


ভূতের রানীর জন্ম দিনে !!
(মজা দেই, মজা লই)
নূর মোহাম্মদ নূরু

উৎসর্গঃ ভূতের রানীসহ সকল ভূতদেরকে!

ভূতের রানীর জন্ম দিনে ব্যপক আয়োজন,
পঁচা মাছের কোপ্তা কাবাব মরা মুরগীর রান।
নাতীন জামাই... ...বাকিটুকু পড়ুন

''আফগানিস্তানে তালেবান" - শাসনের এক বছর । তালেবান শাসনের এক বছরে কি পেল আফগানিস্তান এবং কোথায় ও কেমন আছে এখন !!! ( তালেবানদের কাবুল দখল পরবর্তী ফলোআপ পোস্ট - ৯ )।

লিখেছেন মোহামমদ কামরুজজামান, ১৮ ই আগস্ট, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:২৫


ছবি - আল জাজিরা

আফগানিস্তান থেকে আমেরিকা এবং পশ্চিমা বিশ্বের অবমাননাকর পশ্চাদপসরণ এবং কাবুল থেকে বিশৃঙ্খল প্রস্থান করার পর তালেবানরা আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করে ২০২১ সালের ১৫... ...বাকিটুকু পড়ুন

গায়ে হলুদ নামক অপ্রয়োজনীয় অনুষ্ঠানের কোন দরকার আছে কি?

লিখেছেন মোহাম্মদ গোফরান, ১৮ ই আগস্ট, ২০২২ রাত ৮:২৪


একটি গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানে লিনা।

চাটগাঁতে অধিকাংশ বৃহস্পতিবার যন্ত্রনাদায়ক হয়ে ওঠে গায়ে হলুদের জন্য। বিয়েটা সহজ ভাবে হয়ত নেয়া যায় কিন্তু গায়ে হলুদ রিসেপশান বা ওয়ালিমা খুবই অপ্রয়োজনীয় মনে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×