somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

করোনা ভাইরাস সংক্রামণঃ কারও পৌষ মাস, কারও.........

১৫ ই মার্চ, ২০২০ দুপুর ১২:২৪
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
এক



ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বেড়ে ৮৪ হয়েছে, মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। আতঙ্ক বিরাজ করছে দেশজুড়ে। এ পরিস্থিতিতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে গোমূত্রর ওপরই ভরসা রেখেছে হিন্দু দল ‘অখিল ভারত হিন্দু মহাসভা’। তাই এ প্রাণঘাতী ভাইরাস নির্মূলে গোমূত্র এবং গোবরের উপকারিতা সম্পর্কে জনমনে সচেতনতা বাড়াতে চা পার্টির মত এবার গোমূত্র পার্টি আয়োজন করেছে দলটি। দিল্লিতে দলের সদরদপ্তরে 'গোমূত্র পার্টি' আয়োজনের সিদ্ধান্তের কথা আগেই জানিয়েছিল হিন্দু মহাসভা (অল ইন্ডিয়া হিন্দু ইউনিয়ন)। সে পার্টিই শনিবার আয়োজন করে কথা রেখেছেন দলের সভাপতি চক্রপাণি মহারাজ।

পার্টিতে ২শ’ মানুষ যোগ দিয়েছে এবং আয়োজকরা ভারতের অন্যান্য আরো জায়গাতেও এমন পার্টি আয়োজন করবেন বলে জানিয়েছেন। অনেক হিন্দুই বিশ্বাস করেন গরুর মূত্র পবিত্র এবং তা পান করলে দাওয়াই হিসাবে কাজ করে।পার্টিতে যোগ দেওয়া একজন বলেন, “আমরা ২১ বছর ধরে গোমূত্র পান করে আসছি। আমরা গোবর দিয়ে স্নানও করি। আমরা কখনোই ওষুধ সেবনের প্রয়োজন বোধ করিনি।”

গোমূত্র পার্টিতে করোনাভাইরাস কী এবং গোজাত পণ্য দিয়ে কীভাবে কোভিড-১৯ থেকে বাঁচা যায় সে সম্পর্কে মানুষকে বোঝাবেন বলে এর আগে সংবাদমাধ্যমে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন চক্রপানি মহারাজ। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে এ লড়াইয়ে গোশালাগুলোকেও সামিল করতে চায় হিন্দু মহাসভা। এজন্য গোশালাগুলোর সঙ্গে যোগাযোগও শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন চক্রপাণি মহারাজ।
সূত্রঃ bdnews24.com

দুই



প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ভারতে গোমূত্রের হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও গোবরের সাবান কেনার হিড়িক পড়েছে! দেশটিতে যখন হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সংকট, ঠিক তখন ‘কাউপ্যাথি’ নামে এক ব্র্যান্ড বাজারে এনেছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার। বিভিন্ন ই-কমার্স সাইটে দেদারছে বিক্রি হচ্ছে সেই স্যানিটাইজার। তবে এই স্যানিটাইজারের কোনো কার্যক্ষমতা আছে কিনা, তার প্রমাণ এখনও মেলেনি।

ভারতীয় গণমাধ্যম এই সময় জানিয়েছে, ই-কমার্স সাইটে ৫০ মিলিলিটারের দুটি হ্যান্ড স্যানিটাইজার পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ১০০ টাকায়; যা গরুর গোমূত্র দিয়ে তৈরি। আর ২১০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে ‘কাউপ্যাথি’ সাবানের প্যাক; যা গোবর দিয়ে তৈরি।
প্রসঙ্গত করোনাভাইরাস আতঙ্কের পর থেকে গোমূত্র এবং গোবরের ওপরেই প্রবল আস্থা দেখিয়েছেন হিন্দু মহাসভার সভাপতি চক্রপাণি মহারাজ। এই মারণ ভাইরাস নির্মূল করতে গোমূত্র, গোবর এবং গোজাত সামগ্রীর উপকারিতা সম্পর্কে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানো প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি। দিল্লিতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে চা পার্টির মতো ‘গোমূত্র পার্টি’ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে হিন্দু মহাসভা।

সূত্রঃ ভারতে গোমূত্রের স্যানিটাইজার ও গোবরের সাবান কেনার হিড়িক!

তিন
যারা এখনও গোমাতার এই মহাবিদ উপকার নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করছেন তাদের জন্য এই লেখাটা দিলাম। গোমূত্র: উপকারিতা, ব্যবহার, পুষ্টি সংক্রান্ত তথ্য, ক্যালোরি এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াঃ

হিন্দুদের কাছে গরু একটি পবিত্র প্রাণী। প্রাচীন ভারতে চাষাবাদ এবং গরু ও ছাগল পালন ছিল উপার্জনের এইটি প্রধান উৎস। সেই আদি যুগ থেকেই গরুকে পূজা করার প্রথা চালু আছে। মূলত এর দুধের কারণেই গরুর অর্থনৈতিক মূল্য ছিল খুবই উঁচু। গোমূত্রের ব্যবহারও চালু ছিল। আপনি জিজ্ঞাসা করতেই পারেন যে কেন গোমূত্র?

আপনি জেনে অবাক হবেন যে গোমূত্র এবং গোবর, এই দুইটিরই চিকিৎসার উপকরণ হিসাবে মূল্যবান! তথ্যটি এই যে পঞ্চগব্য হল গরুর দুধ, মূত্র, ঘি, দই এবং গোবরের মিশ্রণ। এই পঞ্চগব্যের ঔষধি ব্যবহার আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে বলা আছে। চিকিৎসা বিষয়ক সংস্কৃত গ্রন্থ, সুশ্রুত সংহিতা অনুযায়ী গরু থেকে প্রাপ্ত সব বস্তুগুলির মধ্যে গোমূত্রকে সব চেয়ে কার্যকর উপশমকারী বলে মনে করা হয়।

আয়ুর্বেদ গোমূত্রকে অমৃত বা জীবনদায়ী জল বলে মনে করা হয়। নাইজেরিয়ায় এবং মায়ানমারের লোক-চিকিৎসকরাও তাদের ওষুধে গোমূত্রকে অন্তর্গত করেছেন।

কেউ কেউ মনে করেন যে সূর্যোদয়ের আগে সংগ্রহ করা কুমারী গরুর মূত্র পান করাই শ্রেষ্ঠ। আবার কেউ কেউ মনে করেন যে গাভিন (গর্ভবতী) গরুর মূত্রই সব চেয়ে পুষ্টিকর কারণ এতে বিশেষ হরমোন থাকে। বিশ্বাস করা হয় যে গোমূত্রের ব্যবহারে প্রায় 80 রকমের অনারোগ্য রোগের এবং অন্যান্য সমস্যার নিরাময় করা যায়।

ঔষধি গুণ ছাড়াও গোমূত্রের আরও অনেক ব্যবহার আছে। জৈব চাষে ব্যাপকভাবে গোমূত্র সার হিসাবে ব্যবহার করা হয়। নিম পাতার আর গোমূত্র এক সাথে মিশিয়ে চমৎকার বায়ো-পেস্টিসাইড হয়। গোমূত্র প্রচলিত পরিষ্কার করার দ্রবণের অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল ক্ষমতাকে বাড়িয়ে তোলে। তাই বিশেষ করে মেঝে পরিষ্কার করার জন্যও গোমূত্র ব্যবহার করা হয়। বিশ্বাস করা হয় যে গোমূত্র দিয়ে মেঝে পরিষ্কার করলে স্থানটি জীবাণু-মুক্ত হয়ে একটি পবিত্র স্থান হয়ে যায়। কসমেটিকস, বিশেষত শ্যাম্পু এবং সাবান প্রস্তুতে গোমূত্র ব্যবহার করা হয়।

গোমূত্রের পুষ্টিগুণ সংক্রান্ত তথ্য - Cow urine nutrition facts in Bengali
গোমূত্রের স্বাস্থ্য-সংক্রান্ত উপকার - Cow urine health benefits in Bengali
কর্কট রোগে গোমূত্র - Cow urine for cancer patients in Bengali
ক্ষত নিরাময়ে গোমূত্র - Cow urine for wound healing in Bengali
অন্ত্রের কৃমি নিরাময়ে গোমূত্র - Cow urine for intestinal worms in Bengali
গোমূত্র একটি বায়ো-এনহ্যান্সার - Cow urine as bio-enhancer in Bengali
দেহের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় গোমূত্র - Cow urine for immune system in Bengali
মধুমেহ রোগে গোমূত্র - Cow urine for diabetes in Bengali
বার্ধক্যের চিহ্ন রোধে গোমূত্র - Cow urine anti-ageing benefits in Bengali
ত্বকের উপকারে গোমূত্র - Cow urine benefits for skin in Bengali
অর্শের চিকিৎসায় গোমূত্র - Cow urine for haemorrhoids in Bengali
গোমূত্রের অন্যান্য উপকারিতা - Other benefits of Cow urine in Bengali
গোমূত্রের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া - Cow urine side effects in Bengali

চার
যারা এখন সন্দেহের দোলাচলে আছেন তাদের জন্য রেফারেন্স দিলামঃ
১। Gurpreet Kaur Randhawa. Cow urine distillate as bioenhancer. J Ayurveda Integr Med. 2010 Oct-Dec; 1(4): 240–241. PMID: 21731367

২। Gurpreet Kaur Randhawa, Rajiv Sharma. Chemotherapeutic potential of cow urine: A review. J Intercult Ethnopharmacol. 2015 Apr-Jun; 4(2): 180–186. PMID: 26401404

৩। Devender O. Sachdev, Devesh D. Gosavi, Kartik J. Salwe. Evaluation of antidiabetic, antioxidant effect and safety profile of gomutra ark in Wistar albino rats. Anc Sci Life. 2012 Jan-Mar; 31(3): 84–89. PMID: 23284212

৪।Sonia Singla, Satwinder Kaur. BIOLOGICAL ACTIVITIES OF COW URINE: AN AYURVEDIC ELIXIR. EUROPEAN JOURNAL OF PHARMACEUTICAL AND MEDICAL RESEARCH.

৫। Dr. Omaprakash W.Talokar, Dr.Archana R. Belge, Dr.Raman S. Belge. Clinical Evaluation of Cow-Urine Extract special reference to Arsha (Hemorrhoids). International Journal of Pharmaceutical Science Invention, Volume 2 Issue 3 ‖ March 2013 ‖ PP.05-08

৬। Javid Ahmad Ganaie, Varsha Gautam, Vinoy Kumar Shrivastava. Effects of Kamdhenu Ark and Active Immunization by Gonadotropin Releasing Hormone Conjugate (GnRH-BSA) on Gonadosomatic Indices (GSI) and Sperm Parameters in Male Mus musculus. J Reprod Infertil. 2011 Jan-Mar; 12(1): 3–7. PMID: 23926493

৭। Sumeet Khanduja, Prachi Jain, Sumit Sachdeva, Jitender Phogat. Cow Urine Keratopathy: A Case Report. J Clin Diagn Res. 2017 Apr; 11(4): ND03–ND04. PMID: 28571179

৮। Jian Meng Hoh and B. Dhanashree. Antifungal effect of cow's urine distillate on Candida species. J Ayurveda Integr Med. 2017 Oct-Dec; 8(4): 233–237. PMID: 28869083

৯। Madhav University [internet]. Rajasthan. India. Cow Urine: A Divine Medicine

সূত্রঃ Click This Link

পাঁচ
ভারতীয় সংস্কৃতিতে গরুকে গোমাতা বলে আখ্যায়িত করা হয়, কারণ গরু মানুষকে মায়ের সমান উপকার দিয়ে থাকে। গরুর দুধে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টিদ্রব্য থাকে। গরুর গোবর জ্বালানী হিসেবে ব্যবহৃত হয় ও গোমূত্রকে জৈব সার ও ঔষধ তৈরিতে ব্যবহার করা হয়। সাম্প্রতিক, গুজরাটের একদল বিজ্ঞানী গোমূত্রের গবেষণা করে একথা জানিয়েছেন যে এই বস্তুটির মধ্যে ক্যান্সার এর মত রোগ নিরাময়ের রসদ রয়েছে। বিবিধ হিন্দু পুরাণে ও গুগুলের উইকিপিডিয়াতেও গোমূত্রের উপকারিতা উদাহরণসহ বেশ নিরেট ব্যাখ্যা রয়েছে।

গুজরাটের জুনাগড় কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এর জৈবপ্রযুক্তির বিজ্ঞানীরা গোমূত্রকে ব্যবহার করে যে ক্যান্সার আক্রান্ত কোশ মারা যায় সেই বিষয়টির গবেষণায় প্রথম পদক্ষেপ নেন। তারা দাবী করেন যে, গোমূত্র কাজে লাগিয়ে সাধারণ ক্যান্সার যেমন মুখের, ফুসফুসের, বৃক্কের, চামড়া ও বুকের ক্যান্সার নিরাময় করা সম্ভব।
গবেষকদের মধ্যে সহায়ক শ্রদ্ধা ভাট ও রিউকামসিন্‌ তোমার ও গবেষণায় প্রযুক্ত সদস্য কবিতা যোশী তাদের সুদীর্ঘ একবছরের গবেষণার ফলাফল ব্যক্ত করেছেন। তাদের বক্তব্য তারা যে গবেষণা সুদীর্ঘ এক বৎসর ধরে চালিয়েছেন সেটি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ ছিলো কারণ তারা সরাসরি ক্যান্সার আক্রান্ত কোষের উপর পরীক্ষা করেছিল যেগুলো কিনা বোতলে তৈরী হয়েছিলো।  শ্রদ্ধা ভাট আরও বলেন “আমরা আসলে পরীক্ষা করতে চেয়েছিলাম যে ঠিক কত পরিমাণ ক্যান্সার আক্রান্ত কোষ গোমূত্র দ্বারা ধ্বংস করা যাচ্ছিলো এই বিষয়টি । পরবর্তী ক্ষেত্রে আমরা ইঁদুরের উপড় গবেষণা করতে চাই। যদি এই পরীক্ষাটি একবার সফল হয়ে যায় তাহলে আমরা বিভিন্ন ধরণের ক্যান্সার নিরাময়ের ঔষধ তৈরি করা শুরু করতে পারবো।” গবেষক ও বিশেষজ্ঞ হিসেবে তোমার বলেন যে কেমোথেরাপির প্রভাবে সুস্থ কোশগুলিও ধ্বংস হয়ে যায় কিন্তু গোমূত্র শুধুমাত্র ক্যান্সার আক্রান্ত কোশগুলিকেই বিনষ্ট করে। থড়ুপুজার ধন্বন্তরী বিদ্যাশালা আয়ুর্বেদিক কেন্দ্রের প্রধান শতিশ নাম্বুদিরির মতে এটি পাকস্থলীর ঘা বা পাকস্থলীর ক্যান্সার এর উপশমে সক্ষম, তাছাড়া যকৃৎ প্রদাহ, ও শ্বাসকষ্টজনিত রোগের উপশমেও সক্ষম। ২০০২ সালে ভারতীয় গবেষক যারা গোমূত্রের অ্যান্টিবায়োটিক ক্ষমতার উপড় গবেষণা করছিলেন তাদের Council of Scientific and Industrial Research Centre-এ গবেষণার ছাড়পত্র দিয়েছে।
২০১০ সালে রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘ এবং ন্যাশানাল এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউট থেকে গো-বিজ্ঞান অনুসন্ধান কেন্দ্র (দেওলাপুর) কে অনুদান করা হয়েছে। এই সব সংস্থা গোমূত্র নিয়ে গবেষণায় আমেরিকার পেটেন্ট স্বত্বকে স্বাগত জানিয়েছেন।

সূত্রঃ Click This Link

ছয়
ভারতের উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত বলেছেন, গরু আমাদের অক্সিজেন দেয় বলেই তাকে মাতা বলা হয়। হার্ট ও কিডনিসহ সারা শরীরের জন্যই গোবর ও গোমূত্র খুবই উপকারী। গরুর পাশে থাকলে টিবি রোগ ভালো হয়ে যায়। আমাদের বিজ্ঞানীরাও এখন এই প্রশংসাপত্র দিয়েছেন।

সম্প্রতি ভাইরাল হয়ে যাওয়া একটি ভিডিওতে ত্রিবেন্দ্রকে এই কথাগুলো বলতে শোনা যায়। এদিকে কয়েকদিন আগেও দেরাদুনের একটি অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, শ্বাসকষ্টের সমস্যাও সারিয়ে দিতে পারে গরু। এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, এই শৈলরাজ্যে এটাই মানুষের বিশ্বাস। আর মানুষের বিশ্বাসের কথাই তুলে ধরেছেন মুখ্যমন্ত্রী। কোনো মুমূর্ষু রোগী গরুর কাছাকাছি থাকলে তার দ্রুত আরোগ্য হবে।
তিনি আরো বলেন, গবেষণায় উঠে এসেছে যে গোমূত্রের উপকারিতা অপরিসীম। পাহাড়ের কোলে থাকা মানুষেরা বিশ্বাস করেন, গরু অক্সিজেন ত্যাগ করে। 
সূত্রঃ Click This Link

ভারতের শিক্ষাক্ষেত্রে অভূত পূর্ব সাফল্যঃ
১। গোমূত্র ও গোবর নিয়ে গবেষণা করে পিএইচডি
২। গরুর গোবর-মূত্র গবেষণায় ডি-লিট ডিগ্রি লাভ

প্রস্তাবনাঃ
কিছুদিন ধরেই বিভিন্ন পত্রপত্রিকাতে এইসমস্ত সংবাদগুলি পড়ার পর মনে হচ্ছে আমাদের দেশে একটা নতুন বিরাট ব্যবসা খোলার অপার সু্যোগ এসে গেল। ইদানিং খবরের কাগজগুলি শোনা যাচ্ছে গার্মেন্ট ইন্ড্রাসট্রিজের এক্সপোর্টে ধবস নেমে এসেছে, প্রবাসী শ্রমিকরাও একে একে দেশে ফিরে আসছে। দেশের অর্থনীতি বাঁচিয়ে রাখার জন্য অতি দ্রুতই নতুন কোন ব্যবস্থার আয়োজন করা দরকার যাতে আবার বিদেশী রেমিটেন্স আগের মতোই প্রবাহিত থাকবে।

তাছাড়া এটা অন্য কোন দেশ নয়, ভারত বলে কথা! বর্তমান সরকার অতি দ্রুতই ভারতের মতো এত গভীর বন্ধুপ্রতীম রাষ্টের প্রয়োজনে সবকিছু নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে উচিত।

সারাদেশ থেকে সরকারী এবং প্রয়োজন পরলে বেসরকারী ব্যবস্থাপনার আধীনে গোমূত্র এবং গোবর সংগ্রহ করে ইলিশ মাছের মতো করে ভারতে পাঠানো হোক।

যারা এখন আন্দাজ করতে পারছেন না কিভাবে গোমূত্র সংগ্রহ করা হবে তাদের জন্য বলছি, সারা দেশ থেকে গোদুগ্ধ যেভাবে সংগ্রহ করা হয় সেভাবেই এটা সংগ্রহ করা হবে। আর সেই পাঠানো এক্সপোর্টের প্রথম লট যাবে মোদির সৌজন্যে রাষ্ট্রীয় উপহার হিসেবে।

পরের এক্সপোর্টের লটগুলি থেকে সরকার শুল্ক আদায় করতে পারে। ভারতের জনসংখ্যা অনেক বেশি। ইচ্ছে করলেই সারাদেশে সব গো-মাতার সকল গোমূত্র এবং গোবর ভারতে রপ্তানী করা যেতে পারে।

এর সাথে সাথেই গোপালগঞ্জ (আসল নাম ভুলে গেছি করোনার ভয়ে) ভার্সিটিতে ভারতের সহায়তায় গোমূত্র গবেষনাগার প্রতিষ্ঠা এবং এই বিষয়ে পিএইডি, ডি-লিট ডিগ্রী প্রদানে অতিসত্ত্বর ব্যবস্থা করা হোক।

এই বিষয়ে ব্লগের বিজ্ঞ এবং সম্মানিত ব্লগারদের সুচিন্তিত মতামত আশা করছি।
সবাইকে ধন্যবাদ ও শুভ কামনা রইল।
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত @ নীল আকাশ, মার্চ ২০২০

সর্বশেষ এডিট : ১৬ ই মার্চ, ২০২০ সকাল ১১:০৪
৩৩টি মন্তব্য ৩৪টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

করোনার মাঝে ভয়ংকর প্রতিবাদে জ্বলছে আমেরিকার অনেক শহর

লিখেছেন চাঁদগাজী, ৩০ শে মে, ২০২০ সকাল ৯:৪১



*** হোয়াইট হাউজের ২০০ গজের মধ্যে পুলিশ ও প্রতিবাদকারীদের মাঝে ধাক্কাধাক্কি চলছে , মানুষ হোয়াইট হাউসে প্রবেশের চেষ্টা করছে, অনেকেই আহত হয়েছে; এখনো গ্রেফতার করা হচ্ছে না।... ...বাকিটুকু পড়ুন

যেভাবে হত্যা করা হয় প্রেসিডেন্ট জিয়াকে-

লিখেছেন গিয়াস উদ্দিন লিটন, ৩০ শে মে, ২০২০ বিকাল ৩:৫৪

১/



রাতের শেষ প্রহরে তিনটি সামরিক পিকআপ জিপ এসে দাঁড়ালো চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসের গেটের সামনের রাস্তায়। একটি পিকআপ থেকে একজন লেফটেন্যান্ট কর্নেলের কাঁধে র রকেট লঞ্চার থেকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আজ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ২৯তম মৃত্যু বার্ষিকী

লিখেছেন রাজীব নুর, ৩০ শে মে, ২০২০ বিকাল ৫:৫৬



আমি জিয়াকে পছন্দ করি।
কারন উনি একজন সৎ লোক ছিলেন। ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে উনি কোনো দূর্নীতি করেন নি। কিন্তু অনেক ভুল কাজ করেছেন। রাজাকার গোলাম আযমকে দেশে ফিরিয়ে এনেছেন।... ...বাকিটুকু পড়ুন

অশিক্ষা, কুশিক্ষায় নিমজ্জিত, রাজনৈতিক জ্জানহীনরা সামরিক শাসনকে মিস করে।

লিখেছেন চাঁদগাজী, ৩০ শে মে, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৮



১৯৭১ সালে মুক্তিযোদ্ধারা পরাজিত হলে, ২ কোটী বাংগালীর ঘরে জেনারেল ইয়াহিয়ার ছবি ঝুলতো সেদিন; কিছু বাংগালী আছে, মুরগীর মতো, চিলে বাচ্চা নিলে টের পায় না। নাকি আসলে মুসরগী টের... ...বাকিটুকু পড়ুন

পৃথিবী বিখ্যাত ব্যক্তিদের মা'য়েরা .............. এট্টুসখানি রম্য :D

লিখেছেন আহমেদ জী এস, ৩০ শে মে, ২০২০ রাত ৮:০৫



পৃথিবীর সব মা’য়েরাই একদম মা’য়ের মতো ।
সন্তান বিখ্যাত কি অবিখ্যাত, সে জিনিষ তার কাছে কোনও ব্যাপার নয়। তার কাছে সে কোলের শিশুটির মতোই এই টুকুন । যাকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×