somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

একজন তথাকথিত Zadet এর গল্প ( উৎসর্গ হামিম উদ্দীন ভাই- Ex Cadet Forum-FB) )

১৮ ই মে, ২০১১ বিকাল ৩:৫৫
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

Let me share a fun. A sarcastic article. All writings are imaginary, about a fine institution named Zadet Academy. Do not try to find similarities with you. If you find any, that will be your responsibility. Zadets are theoretically brilliant. In general, on an average, zadets know good amount of theories. Most of them run after scientific theories. I shall categorically give you a breakdown of a batch of ex-zadets. Some zadets will fly abroad immediately. Some will join armed forces (to me it is a wastage) even having best academic results. Some will destroy their head by swallowing equations of engineering. Some will destroy their life by chewing medical books. Some will admit in science faculties of universities. No police, lawyer, political leaders, writers, poets, journalists, mass media workers, media personalities, businessmen, economists except very few. Million dollar question, could zadets prove them best? Note: not to hurt.
ফেসবুক এ নতুন একটা গ্রুপ হয়েছে Ex Cadet Forum নামে। গতকাল শ্রদ্ধেয় হামিম ভাই উপরের পোস্টটা দেখে আমার এক zadet এর কথা মনে পড়ল যে কিনা ঐ একাডেমি থেকেই পাস করেছে। পোস্ট এর সাথে গল্পটা প্রাসঙ্গিক মনে হল জন্যে শেয়ার করতে চাচ্ছি।

আমার গল্পের zadet ২০০০ সালে ঐ একাডেমিগুলোর কোন একটাতে যোগ দিয়েছিল। তার ইনটেকের বেশিরভাগ zadet এর মত প্রথম ২ টা বছর তার বেশ কষ্টে কাটে, যদিও তার দাবি অন্যদের থেকে তার কষ্ট কিঞ্চিত বেশি ছিল। যেহেতু বই পড়ার অভ্যাস ছিল আর তুমুল আগ্রহও ছিল ঐ একাডেমিতে সে বই পড়ার একটা ভাল পরিবেশ খুঁজে পায়। তার পেছনে অবশ্য একটা কারন ছিল তা হল ঐ একাডেমিতে টিভি দেখার সুযোগ ছিল না বললেই চলে। তাই বই পড়াই তার বিনোদন এর একমাত্র মাধ্যম হয়ে পড়ে। ক্লাস নাইন এ থাকতে সে মার্ক্সবাদের প্রতি আগ্রহী হয়। সে কেন মার্ক্সবাদের প্রতি আকৃষ্ট হয়েছিল তার কারন অবশ্য জানা যায় নি। পরবর্তীতে সে লেলিনবাদে আকৃষ্ট হয় এবং সমাজতন্ত্রকে উৎকৃষ্ট বলে জ্ঞান করে। সমাজতন্ত্রের প্রতি তার এই আগ্রহ তার জীবন আচরনকেই কেমন বদলে দিতে থাকে। সে আর সায়েন্স এ আগ্রহ পায় না। সে ততদিনে এস এস সি পাস করেছে। এইচ এস সি তে যখন তার অন্য বন্ধুরা ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার হবার লক্ষ্য নিয়ে পড়াশোনা করছে তখন সে ভাবে ওদের জীবনের লক্ষ্য কত সাধারণ, কতটা ব্যক্তিকেন্দ্রিক। সে চিন্তা করে একটা মানুষ কি শুধু নিজের জীবন যাপন করার জন্যই জন্মায়? অবশ্যই না। একটা কিছু বড়, ব্যক্তি স্বার্থের বাইরে বড় কিছু করতে সে তখন দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। সে তত দিনে নিজের জীবনের লক্ষ্য স্থির করে ফেলেছে। সে গন যোগাযোগ ও সাংবাদিকতায় পড়তে চায় আর চায় দেশের মানুষ যেন অন্তত এটুকু বুঝতে পারে আমাদের বিদ্যমান রাজনৈতিক ব্যবস্থার মধ্যেই দুর্নীতির বীজ বপন করা আছে, এই ব্যবস্থার পরিবর্তন দরকার। তার এই চিন্তা চেতনা স্বভাবতই তার পড়াশোনায় বিঘ্ন ঘটায়। এইচ এস সি টা সে কোন রকমে উৎরে যায়।
এইচ এস সি-র পর তার এই সাংবাদিকতা পড়ার ইচ্ছা আর জীবন দর্শন শুনে বাবা মা বুঝে ফেলেন ভার্সিটিতে পড়লে তাদের ছেলের গোল্লায় যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। তারা নানা ভাবে তাকে এই চিন্তা বাদ দিতে বলেন। পরে আরো বিভিন্ন প্রতিকুল পরিস্থিতিতে পড়ে তাকে একরকম বাধ্য হয়েই সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে হয়। এখন তার বাবা মা তাকে নিয়ে গর্বিত, আত্নীয় স্বজনরাও পরিচয় দিতে গর্ববোধ করেন। তবে জানা যায় তার মনে শান্তি নেই।

পুনশ্চঃ জানা যায় ছেলের বই পড়ে মাথা বিগড়ে ছিল জন্যে বাবা মা তাদের ছোট মেয়েদের পাঠ্যপুস্তকের বাইরে আর কোন বই পড়া নিষিদ্ধ করেছেন।
০টি মন্তব্য ০টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

যামিনী রায়ের আঁকা কিছু নারীচিত্র

লিখেছেন মরুভূমির জলদস্যু, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:৫৪



যামিনী রায় উনিশ শতকের শেষ ও বিশ শতকের মধ্যভাগে বাংলার আধুনিক চিত্রকলা ইতিহাসের একজন শিল্পী। তিনি ছিলেন একজন বাঙ্গালী চিত্রশিল্পী। তিনি বাংলার বিখ্যাত লোকচিত্র কালীঘাট পটচিত্র শিল্পকে বিশ্বনন্দিত করে... ...বাকিটুকু পড়ুন

তিনি আসছেন !

লিখেছেন স্প্যানকড, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:২৯

ছবি নেট ।


একটা সময় ইসলামে হাতেগোনা কয়েকজন ছিল। এখন সেই হাতেগোনা সংখ্যা কোটিতে এসে গেছে। নবী ইব্রাহীম আঃ কে যখন আগুনে নিক্ষেপ করা হয় তখন দুনিয়ায় শুধু... ...বাকিটুকু পড়ুন

আবরার হত্যায় ২০ জনের মৃত্যুদণ্ড, ৫ জনের যাবজ্জীবন

লিখেছেন এম টি উল্লাহ, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:৪৫


বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে করা মামলায় ২০ জনের মৃত্যুদণ্ড ও ৫ জনের যাবজ্জীবন আদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। বুধবার (৮ ডিসেম্বর) ঢাকার... ...বাকিটুকু পড়ুন

এটা ধর্মীয় পোষ্ট নহে

লিখেছেন রাজীব নুর, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:১০

ছবিঃ আমার তোলা।

আল্লাহ আমার উপর সহায় আছেন।
অথচ আমি নামাজ পড়ি না। রোজা রাখি না। এক কথায় বলা যেতে পারে- ধর্ম পালন করি না। তবু আল্লাহ আমাকে বাঁচিয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আওয়ামী লীগের আমলে ২২ জন ছাত্রলীগারের ফাঁসী?

লিখেছেন চাঁদগাজী, ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২৫




** এই রায় সঠিক নয়, ইহা আজকের জন্য মুলা; হাইকোর্টে গেলে ২/৩ জনের ফাঁসীর রায় টিকে থাকবে, বাকীরা জেল টেল পাবে। ****

১ম বিষয়: আওয়ামী লীগের শাসনামলে,... ...বাকিটুকু পড়ুন

×