somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

আমার পরিসংখ্যান

আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

মহিষমথন

লিখেছেন প্রথম ফুল, ০৭ ই অক্টোবর, ২০২১ রাত ১১:৫৫

মহিষাসুর সভায় বসে, অসুর চারিপাশে,
হঠাৎ রিনি-ঝিনি আওয়াজ কোথার থেকে আসে?
পরনে লাল ঘাগরা পরা, মল বাজিয়ে পা’য়,
নর্তকী এক এসে দাড়ায় স্বর্গের দরজায়।
‘অসুর-শ্রেষ্ঠ মহিষাসুর সবার চেয়ে বড়ো,
সাহস থাকে আমার সাথে এসে লড়াই করো!’
হা হা করে হেসে অসুর বলল তাকে, ‘ওরে,
তোকে আমি পুষব আমার শোয়ার সাথী করে!
তাকিয়ে দ্যাখ আমার শরীর, দ্যাখ আমার এই... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৩৯ বার পঠিত     like!

সিংহমর্দিনী

লিখেছেন প্রথম ফুল, ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:২২

একথা সবাই জানে যে দুর্গা সিংহ চড়তেন। এবং সেই সিংহ মহিষাসুরের সঙ্গে লড়াইয়ের সময় দুর্গাকে সাহায্য করেছিল। কিন্তু দুর্গা কীভাবে হিংস্র সিংহকে বশ করলেন? গ্রীক পুরাণে হারকিউলিস কীভাবে সিংহ বধ করেছিলেন সেই কাহিনী আছে। বাইবেলেও স্যামসনের সাথে সিংহের যুদ্ধের কথা আছে। এই দুই মহাবীরই সিংহের মুখের চোয়ালকে দু'হাতে ধরে টেনে... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ১৫৭ বার পঠিত     like!

এথেনা

লিখেছেন প্রথম ফুল, ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১:১৬

গ্রীক দেবী এথেনা এক অসামান্য চরিত্র।

গ্রীকরা তাঁকে একাধারে যুদ্ধ ও জ্ঞানের দেবী হিসাবে পূজা করত। এদিক থেকে দুর্গা ও সরস্বতী দু'জনের সাথেই তাঁর মিল আছে। আবার এথেনার সঙ্গী ছিল প্যাঁচা, যা গ্রীকদের কাছে জ্ঞানের প্রতীক। সেদিকে লক্ষ্মীর সাথেও এথেনার মিল আছে।

এথেনার বাবা ছিলেন দেবরাজ জিউস। জিউসের মতো শক্তিশালী কোনো দেবতা... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৮১ বার পঠিত     like!

আবাহন

লিখেছেন প্রথম ফুল, ২০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ৯:৩০

গল্প-শেষের লগ্ন এখন
সূর্য ডোবার পালা
তোর সামনেই ইতিহাসের লক্ষ চিতা জ্বালা,

তোর কানেতেই শতাব্দীদের বুক-ফাটা চীৎকার
তোর চোখেরই সামনে পড়ে রক্তজমা হাড়।

তোর নুপূরের শব্দে ওরা নাচের সাড়া খোঁজে
তোর চলনে - তোর বলনে - কামের ভাষাই বোঝে
তোর চাহনি, তোর বিভঙ্গ
তোর পিপাসা, তোরই রঙ্গ
সবই ওদের চুমুক দিয়ে নেশায় ডোবার ফুর্তি।

মোহিনী! তুই এবার দেখা অসুর-দলন-মূর্তি!

বাহুবলের গর্ব... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৫৫ বার পঠিত     like!

কমলকাঁটা

লিখেছেন প্রথম ফুল, ০৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:৩৫

ফুলের মতো কোমল দেখে বাসতে পারো ভালো,
আঁধার ধরায় জ্বালতে পারি লক্ষ তারার আলো,
হিংসা-বিষের পাত্র ভরে আনতে পারি সুধা,
তৃপ্তি দিয়ে পূরতে পারি বিশ্বগ্রাসী ক্ষুধা,
নরম বলে শক্তিহীনা ভাবছো তুমি যাকে
স্মরণ রেখো - গোলাপ ফুলে কাঁটাও জেগে থাকে।

জন্ম থেকে হাজার শিকল, হাজার খাঁচার তলে,
চুঁইয়ে পড়া আকাশ-বাতাস প্রাণ জুগিয়ে চলে,
নীচের আসন... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৩০ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৩৬২ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ