somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

জমিদার বাড়ি দর্শন : ০০৬ : বালিয়াটি জমিদার বাড়ি

০৬ ই ডিসেম্বর, ২০২৩ রাত ১১:২০
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
বালিয়াটি জমিদার বাড়ি



বালিয়াটি জমিদার বাড়ি বা বালিয়াটি প্রাসাদ বা বালিয়াটি ১০ আনা (আনি) জমিদার বাড়িটি মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলার বালিয়াটি গ্রামে অবস্থিত।

আমি এই বাড়িটিতে অন্ততো চার বার গিয়েছি দেখতে বিভিন্ন সময়ে। প্রচুর ছবি তোলা আর বিভিন্ন সময়ে।
এই পোস্টে সম্ভবতো ২৫টি ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। তাতেও সবটা পরিষ্কার ফুটিয়ে তোলা সম্ভব হয়নি।
এক পোস্টে এতো ছবি দেখে বিরক্তি আসলে আমি আগেই দুঃখ প্রকাশ করে নিচ্ছি।

বালিয়াটি জমিদার বাড়িটি উঁচু প্রাচীর ঘেরা প্রায় ১৬,৫৫৪ বর্গমিটার এলাকা জুড়ে রয়েছে। প্রাচীরের সম্মুখ অংশে রয়েছে চারটি সিংহদুয়ার।












সামনের ভবনের একটি নাম ছিলো রং মহল। সেখানে বর্তমানে জাদুঘর তৈরি করা হয়েছে। ১৯৮৭ সালে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর বালিয়াটি প্রাসাদকে সংরক্ষিত পুরাকীর্তি হিসেবে ঘোষণা করে। বর্তমানে এই জমিদার বাড়িটি এবং জাদুঘরটি বাংলাদেশ প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগ কর্তৃক সংরক্ষিত ও পরিচালিত হচ্ছে।


১৮ শতকের মাঝামাঝি সময়ে লবণ ব্যবসায়ী গোবিন্দ রাম সাহা বালিয়াটি জমিদার পরিবারের গোড়াপত্তন করেন। ২০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে বালিয়াটির জমিদাররা এই এলাকা শাসন করেন।

গোবিন্দ রাম সাহা বালিয়াটি জমিদার পরিবারের গোড়াপত্তন করে সম্ভবতো আঠারো শতকের মধ্যভাগে জমিদার বাড়ির একটি ভবন নির্মাণ করেন। বর্তমানের সব কটি ভবন তিনি নির্মাণ করেননি। গোবিন্দ রাম সাহার কয়েকজন উত্তরাধিকার ভিন্ন ভিন্ন সময়ে জমিদার বাড়ির সাতটি ভবনের বাকি ভবনগুলি নির্মাণ করেন। সবগুলি ভবনের মোট কক্ষ সংখ্যা প্রায় ২০০ টি।
























জমিদারি সময় কালে সামনের চারটি ভবন ব্যবহার করা হত ব্যবসায়িক কাজে। আর পিছনের ভবন গুলি ছিলো অন্দর মহল, সেখানে জমিদার বাড়ির লোকজনেরা বসবাস করতো।









পাশে প্রায় ভগ্নদশার একটি তিনতলা ভবন রয়েছে কাঠের কারুকাজ করা। পিছনের আরেকটি ভবনে জমিদার বাড়ির চাকর বাকর, গাড়ি রাখার গ্যারেজ, ঘোড়াশালা ছিল বলে মনে করা হয়। আমার যতদূর মনে পরে বাড়িটিতে আমি একাধিক কুয়া দেখেছি।












অন্দর মহলের পিছনেই জমিদার বাড়ির সদস্যদের ব্যবহার করার জন্য আছে বহুঘাটলার অতি সুন্দর একটি পুকুর।












অবশ্য বাড়ির সামনেও বিশাল একটি পুকুর রয়েছে যেটি ছিলো জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত।



এই জমিদারদের আরো কিছু স্থাপনা মূল এই বাড়িটির আশে পাশেই রয়েছে। যেমন চার আনা জমিদার বাড়ি বা পশ্চিম বাড়ি, গোলাবাড়ি, উত্তর বাড়ি ইত্যাদি।

ছবি সূত্র : উইকিপিডিয়া


বালিয়াটির জমিদার নিত্যানন্দ রায় চৌধুরীর দুই ছেলে বৃন্দাবন চন্দ্র রায় চৌধুরী এবং জগন্নাথ রায় চৌধুরী বেশ বিখ্যাত লোক ছিলেন। জমিদার কিশোরীলাল রায় চৌধুরী এবং জমিদার রায় বাহাদুর হরেন্দ্র কুমার রায় চৌধুরী তৎকালীন শিক্ষাখাতে উন্নয়নের প্রচুর কাজ করেছিলেন।

জমিদার কিশোরীলাল রায় চৌধুরী ১৮৮৪ সালে তার পিতার নামানুসারে ঢাকার জগন্নাথ কলেজ (জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়) প্রতিষ্ঠা করে ছিলেন। এছাড়াও তিনি ১৮৮৭ সালে ঢাকায় বাংলা বাজারে তার নিজ নামে কিশোরীলাল জুবিলী হাইস্কুল প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি ঢাকাতে নাট্য চর্চার জন্য মালঞ্চ নামে একটি রঙ্গমঞ্চ গড়ে তোলেন। ১৯২৩ সালের দিকে বালিয়াটিতে একটি দাতব্য চিকিৎসালয় তৈরিই করেন।

অন্যদিকে জমিদার রায়বাহাদুর হরেন্দ্র কুমার রায় চৌধুরী তার পিতা জমিদার ঈশ্বর চন্দ্র রায় চৌধুরীর নামানুসারে বালিয়াটিতে প্রতিষ্ঠা করেন ঈশ্বর চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়



বালিয়াটির জমিদার হীরালাল রায় চৌধুরী বালিয়াটির পাশে কাউন্নারা গ্রামে একটি বাগানবাড়ি নির্মাণ করেন। সেখানে দিঘির মাঝখানে একটি প্রমোদ ভবন বা হাওয়াখানা গড়ে তোলেন।




বালিয়াটি জমিদার বাড়ি পরিদর্শনের সময় সময়সূচি :
গ্রীষ্মকালে (এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর) : সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত।
শীতকালে (অক্টোবর থেকে মার্চ) : সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

সাপ্তাহিক বন্ধ :
প্রতি রবিবার পূর্ণ দিবস ও সোমবার অর্ধ দিবস এবং সকল সরকারি ছুটির দিনে পূর্ণ দিবস বন্ধ থাকে বালিয়াটি জমিদার বাড়ি।

বিরতি :
প্রতি শুক্রবার দুপুর ১২ টা ৩০ মিনিট থেকে ২ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত জুম্মার নামাযের জন্য বন্ধ থাকে।
শুক্রবার বাদে অন্যান্য দিন দুপুর ১টা থেকে ১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত বন্ধ থাকে।

প্রবেশমূল্য :
জমিদার বাড়িতে প্রবেশের জন্য টিকেটের মূল্য জনপ্রতি দেশি দর্শনার্থী ২০ টাকা, সার্কভুক্ত দর্শনার্থী ১০০ টাকা এবং বিদেশি দর্শনার্থী ২০০ টাকা।



তথ্য সূত্র ও বর্ননা : উইকিপিডিয়া, অন্তর্জাল।

অবস্থান : বালিয়াটি, সাটুরিয়া, মানিকগঞ্জ, বাংলাদেশ।
GPS coordinates : 23°59'40.9"N 90°02'32.5"E
গুগল ম্যাপ : বালিয়াটি জমাদার বাড়ি
ছবি তোলার তারিখ : ২৫শে নভেম্বর ২০১৬ খ্রিষ্টাব্দ।



=================================================================
আরো দেখুন -
মরুভূমির জলদস্যুর ভ্রমণ বিলাস

জমিদার বাড়ি দর্শন : ০০১ : বালিয়াপাড়া জমিদার বাড়ি
জমিদার বাড়ি দর্শন : ০০২ : বীরেন্দ্র রায় চৌধুরী বাড়ি
জমিদার বাড়ি দর্শন : ০০৩ : জ্যোতি বসুর পৈতৃক বাড়ি
জমিদার বাড়ি দর্শন : ০০৪ : আমিনপুর ঠাকুর বাড়ি
জমিদার বাড়ি দর্শন : ০০৫ : বড় সর্দার বাড়ি


বাংলার জমিদার বাড়ি সমগ্র - ০১
বাংলার জমিদার বাড়ি সমগ্র - ০২
বাংলার জমিদার বাড়ি সমগ্র - ০৩
বাংলার জমিদার বাড়ি সমগ্র - ০৪
বাংলার জমিদার বাড়ি সমগ্র - ০৫
বাংলার জমিদার বাড়ি সমগ্র - ০৬
বাংলার জমিদার বাড়ি সমগ্র - ০৭
সর্বশেষ এডিট : ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২৩ রাত ১০:৪৫
১৩টি মন্তব্য ১৩টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

রাজধানীতে শিশু ধর্ষণ , নির্যাতন, হত্যাকান্ড ও মানুষরুপি কিছু জানোয়ারের কথা ।

লিখেছেন সাখাওয়াত হোসেন বাবন, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ দুপুর ১২:৩৯

ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম , ইন্টারনেট ।

গতকাল ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গিয়ে যৌন হয়রানীর শিকার হয়েছে এক রাশিয়ান শিশু। অভিযোগ পাওয়ার পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দ্রুত গ্রেফতার করেছে নির্যাতনকারীকে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আর-রাহমান

লিখেছেন মহাজাগতিক চিন্তা, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ দুপুর ১:৪৬




আর-রাহমান চির দয়াময় যিনি
পৃথিবী ভরিয়ে দিয়ে লতায় পাতায়
মাটিকে জীবন্ত করে সবুজ শোভায়
করেন ধরনীতল অনিন্দ সুন্দর।
সৃষ্টি তাঁর অপরূপে সাজালেন তিনি
রাতের প্রকৃতি ভাসে চাঁদ জোছনায়
গ্রীষ্মের রোদের তাপে তরু-বনছায়
শান্তির শীতল বায়ু... ...বাকিটুকু পড়ুন

=সকল ছেড়ে যেতে হবে=

লিখেছেন কাজী ফাতেমা ছবি, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ বিকাল ৩:৫২



©কাজী ফাতেমা ছবি

কেউ রবো না এখান'টাতে
ইহকালের মোহ টানে
সাঙ্গ হবে ভবলীলা-
ভেসে যাবো মরণ বানে!

কেউ রবে না আপন হয়ে-
হাতটি ছেড়ে দেবে শেষে
যেতে হবে খালি হাতে
শেষের খেয়ায় একলা ভেসে!

সঙ্গে... ...বাকিটুকু পড়ুন

অক্টোপাসের বাহুতে

লিখেছেন মোগল সম্রাট, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ বিকাল ৪:১২




রজর আলীর গাছীর বয়স সত্তুরের কাছাকাছি হলেও গায়-গতরে এখনো শক্তি সামর্থ্য সবই আছে। রোদে পুড়ে জলে ভিজে গড়া শরীরে কোন রকম বয়সের ভার চোখে পড়ে না। অগ্রাহায়নের শুরুতেই দুই গ্রামের... ...বাকিটুকু পড়ুন

শাহ সাহেবের ডায়রি ।। খেজুর

লিখেছেন শাহ আজিজ, ২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ৯:৪০



খুব পুষ্টিকর ফল খেজুর । সেই খেজুরের ট্যাক্স কমিয়েও রক্ষা নেই । খেজুর বিক্রেতারা খেজুরের দাম আরেক দফা দাম বাড়িয়ে ভোক্তাদের বিব্রত করেছে । সরকার কার্যত ব্যার্থ... ...বাকিটুকু পড়ুন

×