somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

ঘুষ ও দুর্নীতি দমনে ইসলামের ভুমিকা

১৫ ই জানুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:২০
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


বাংলাদেশের মুসলমানেরা (জনসংখ্যার প্রায় ৮৫%) যদি ইসলামের বিধান মানতো তাহলে দেশে ঘুষ আর দুর্নীতি থাকত না। একবার আসাদ গোত্রের এক ব্যক্তিকে রাসূল (সা.) যাকাতের কাজে নিয়োগ দেন। তার নাম ছিল ইবনুল লুতাবিয়্যাহ। কাজ থেকে ফেরার পর সে বলল, এই হচ্ছে যাকাতের সম্পদ আর এগুলো আমাকে হাদিয়া (উপহার) দেওয়া হয়েছে। তখন রাসূল সা. মিম্বারে ওপর দাঁড়িয়ে আল্লাহর প্রশংসা ও গুণকীর্তণের পর বললেন, আমার প্রেরিত কর্মচারীর কী হল, সে বলে এটা যাকাতের সম্পদ আর এটা আমি হাদিয়াস্বরূপ পেয়েছি। সে তার বাপ-মার ঘরে বসে দেখতে পারে না তাকে হাদিয়া দেওয়া হয় কিনা? আল্লাহর কসম করে বলছি তোমাদের কেউ খেয়ানত করলে তা নিজের কাঁধে নিয়েই কেয়ামতের ময়দানে উপস্থিত হবে। উট, গরু, বা ছাগল যাই হোক সেগুলো আওয়াজ করতে থাকবে। এরপর রাসূল সা. উভয় হাত উত্তোলন করে দু’বার বললেন, হে আল্লাহ! আমি পৌঁছে দিয়েছি। হাত উত্তলনের কারণে রাসূল সা. এর বগলের শুভ্রতা আমরা দেখতে পেলাম। (বুখারী হা/৬৫৭৮, ৮৮৩)

আমাদের সমাজে অনেক ঘুষখোর ঘুষ গ্রহণ করে বলে এটা উপহার বা সেবার বিনিময়ে পাওয়া মূল্য। কিন্তু উপরের হাদিসটা খেয়াল করলে দেখা যায় যে, কোনও গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকার কারণে মানুষ তাকে অর্থ, উপঢৌকন দেয় বা বিভিন্নভাবে তাকে সুবিধা প্রদান করে থাকে। এইগুলি সবই আসলে ঘুষ। তার মনে রাখতে হবে যে সে তার কাজের জন্য রাষ্ট্র/ প্রতিষ্ঠান থেকে বেতন পায়। হাদিসে রসুল সা. জানতে চেয়েছেন যে ঐ ব্যক্তি যদি জাকাত আদায়ের দায়িত্বে না থাকত তাহলে কি লোকেরা তাকে হাদিয়া ( উপহার) দিত?

ঘুষ দেয়া ও নেয়া দুইটাই কঠিন গুনাহর কাজ। তবে ঘুষ দেয়া অনেক ক্ষেত্রে জায়েজ আছে। যেমন একটা ন্যায্য অধিকার পাওয়ার জন্য যদি কেউ ঘুষ দিতে বাধ্য হয় সেই ক্ষেত্রে ঘুষ দেয়া জায়েজ ঘুষ দেয়া কখন জায়েজ । উদাহরণ স্বরূপ বলা যায় আপনি জমির নামজারির জন্য গেলেন। আপনার কাগজপত্র সব ঠিক আছে। কিন্তু আপনি ঘুষ না দিলে ঐ নামজারি হবে না। এই ক্ষেত্রে ঘুষ দেয়া জায়েজ। কিন্তু যে ঘুষ নিলো সে অপরাধী।

আল্লাহতালা ইরশাদ করেন, ‘তোমরা একে অন্যের ধন-সম্পদ অন্যায়ভাবে গ্রাস কর না এবং মানুষের ধন-সম্পত্তির কিছু অংশ জেনে-শুনে অন্যায়ভাবে আত্মসাৎ করার উদ্দেশ্যে বিচারকদের হাতে তুলে দিও না। যদিও তোমরা তা জানো।’ –সূরা আল বাকারা: ১৮৮

নিশ্চয়ই যে অন্যায়ভাবে অন্যের সম্পদ আত্মসাৎ করবে, কিয়ামতের দিন তার জন্যে নির্ধারিত রয়েছে জাহান্নাম । (বুখারী, মিশকাত/৩৯৯৫)

হারাম খাদ্য ভক্ষণ করা শরীর, জান্নাতে প্রবেশ করবেনা । (মিশকাত/২৭৮৭)

আমাদের দেশে অনেক ডাক্তার ওষুধ কোম্পানি থেকে অর্থ ও উপহার নিয়ে থাকেন। ইসলামে এই ধরণের অর্থ বা উপহার গ্রহণ নিষেধ করা হয়েছেওষুধ কোম্পানি থেকে উপহার গ্রহণের ক্ষেত্রে ইসলামী বিধান] ওষুধ কোম্পানির কাছ থেকে উপহার নেয়ার বিধান। কারণ অর্থ/ উপহার গ্রহণের কারণে ডাক্তার ঐ কোম্পানির ওষুধের প্রতি পক্ষপাতিত্ব প্রদর্শন করতে পারেন। ফলে অন্য ভালো ও কার্যকর ওষুধ সে নাও লিখতে পারে। তাছাড়া রোগীর কাছে থেকে সে ফি নিচ্ছে এই শর্তে যে সে রোগীর জন্য প্রয়োজনীয় ও কার্যকরী ওষুধের পরামর্শ দেবে। কিন্তু ওষুধ কোম্পানির কাছ থেকে অর্থ নিলে ডাক্তারের মন ঐ কোম্পানির প্রতি আকৃষ্ট হবে পরিনামে যথাযোগ্য ওষুধ সে নাও লিখতে পারে। অথবা সে হয়তো দুইটা ওষুধের জায়গায় ঐ কোম্পানির চারটা ওষুধ লিখে দিতে পারে। এভাবে লোভে পড়ার কারণে ডাক্তার তার নিরপেক্ষ অবস্থান ধরে রাখতে পারবে না। এই সব কারণে এই ধরণের প্রলুব্ধকারি লেনদেন হারাম করা হয়েছে। একই নিয়ম প্রযোজ্য রোগ নির্ণয়ের বিভিন্ন পরীক্ষার বিপরীতে ডাক্তারদের দস্তুরি (কমিশন) গ্রহণের ক্ষেত্রে।

আমাকে একবার একজন মহিলা সরকারী ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কথা প্রসঙ্গে বললেন যে তাদের জ্যেষ্ঠ সহকর্মীরা ইতিপূর্বে তাদেরকে বলেছেন যে যদি কেউ স্বেচ্ছায় কিছু দেয় তবে নিয়ে নেবেন। আসলে স্বেচ্ছায় বা অনিচ্ছায় যেভাবেই ঘুষ দেয়া হোক না কেন গ্রহীতা উভয় ক্ষেত্রেই কবিরা গুনাহ করলেন।

যে ব্যক্তি হারাম পথে আয় করে আল্লাহ তার দোয়া কবুল করেন না।

রাসুল (সা.) উল্লেখ করেন, কোনো ব্যক্তি দূর-দূরান্তে সফর করছে, তার মাথার চুল এলোমেলো, শরীরে ধুলাবালি লেগে আছে। এমতাবস্থায় ওই ব্যক্তি উভয় হাত আসমানের দিকে তুলে কাতর স্বরে হে প্রভু! হে প্রভু! বলে ডাকছে। অথচ তার খাদ্য হারাম, পানীয় হারাম, পরিধেয় বস্ত্র হারাম । সে হারামই খেয়ে থাকে। ওই ব্যক্তির দোয়া কিভাবে কবুল হবে!' (মুসলিম, হাদিস : ২৩৯৩)

মহানবী (সা.) ইরশাদ করেন, ‌ 'যে ব্যক্তি হালাল খাবার খেয়েছে, সুন্নাহ মোতাবেক আমল করেছে ও মানুষকে কষ্ট দেওয়া থেকে বিরত থেকেছে, সে জান্নাতে যাবে।' (তিরমিজি শরিফ, হাদিস : ২৫২০)

হারাম উপায়ে অর্জিত অর্থ দিয়ে হজ্জও করা যাবে না হারাম টাকায় হজ্জের বিধান। হারাম অর্থ/সম্পদ থেকে মুক্তি পেতে হলে তওবা করতে হবে এবং ঐ অর্থ/ সম্পদ দান করে দিতে হবে কোনও সওয়াবের আশা না করে।

আমাদের দেশে ঘুষ, দুর্নীতির বহু পন্থা আছে। ইসলামী বিধি বিধান মানলে দেশ ও জাতি ঘুষ ও দুর্নীতির বিষাক্ত ছোবল থেকে মুক্তি পেতে পারে। ইসলাম শুধু কালিমা, নামাজ, রোজা ইত্যাদির মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। জীবনের সকল ক্ষেত্রে ইসলামের বিধিবিধান আমাদের মানতে হবে। তবেই ব্যক্তি পর্যায়ে ও জাতিগতভাবে ইসলামের সুশীতল ছায়া আমরা অনুভব করতে পারবো। আল্লাহ আমাদেরকে সর্ব ক্ষেত্রে ইসলামের বিধান অনুসরন করার তৌফিক দান করুন। আমিন।

ছবি - https://patriotrising.com
সর্বশেষ এডিট : ১৫ ই জানুয়ারি, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:০৬
২১টি মন্তব্য ২১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

বিবিধ

লিখেছেন কলাবাগান১, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ সকাল ১১:৪১

১- অনেকে এর ই মোজা পরার পর মোজার ইলাস্টিক থেকে চোখে পড়ার মত পায়ে দাগ দেখা যায়।


এটা যদি অনেকদিন ধরেই চলতে থাকে, তা হলে কিন্তু আপনার উচিত হবে... ...বাকিটুকু পড়ুন

একটি অশালীন কবিতা

লিখেছেন রাজীব নুর, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ দুপুর ১:০২




শাহেদ জামাল আজ খুব মদ খাবে
একদম ভরপুর দুষ্ট মাতাল হয়ে যাবে
তার ভদ্র লিমিট যদিও তিন পেগ
সে খাবে তেরো পেগ, তাতে কার কি?
নিজের পয়সায় খরিদ করে... ...বাকিটুকু পড়ুন

কেন বাংলাদেশের বিমানবাহী রণতরী এবং উন্নত ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা প্রয়োজন?

লিখেছেন নাহিদ ২০১৯, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ বিকাল ৪:৫৫

একটা দেশের গুরুত্ব অনেকটা বিবেচিত হয় তার অর্থনৈতিক অবস্থা কতটা শক্তিশালী। কিন্তু আমি এখানে দ্বিমত পোষণ করে বলছি বিশ্বে একটা দেশ কতটা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে তা নির্ভর করে তার সামরিক... ...বাকিটুকু পড়ুন

নাদের আলির ভাংগা স্বপন !

লিখেছেন স্প্যানকড, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৪৩

তৈল চিত্র আর্টিস্ট নাস্তিয়া ফরচুন

ছুটছে পিঁপড়ের দল
দেয়াল জুড়ে সারি
নাদের আলি
মনে করে সে
রাজা সোলেমন!

জিগাই ফেলে,
কি হে পিঁপড়ের দল
আছিস কেমন?

কেউ শোনে না
সোজা যাচ্ছে চলে
কেউ তাকায়... ...বাকিটুকু পড়ুন

গল্পঃ শেষ যাত্রার শুরু....

লিখেছেন অপু তানভীর, ০৫ ই মার্চ, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২৯

ছবিঃ ইন্টারনেট


কত সময় ধরে আকাশের দিকে তাকিয়ে রয়েছি তা আমার নিজেরই মনে নেই । লক্ষ কোটি তারার দিকে তাকিয়ে থাকতে ভাল লাগছে । মনে হচ্ছে যেন আমি এই... ...বাকিটুকু পড়ুন

×