somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

পোস্টটি যিনি লিখেছেন

নতুন নকিব
আলহামদুলিল্লাহ। যা চাইনি তার চেয়ে বেশি দিয়েছেন প্রিয়তম রব। যা পাইনি তার জন্য আফসোস নেই। সিজদাবনত শুকরিয়া। প্রত্যাশার একটি ঘর এখনও ফাঁকা কি না জানা নেই, তাঁর কাছে নি:শর্ত ক্ষমা আশা করেছিলাম। তিনি দয়া করে যদি দিতেন, শুন্য সেই ঘরটিও পূর্নতা পেত!

শেষমেষ করোনা ভ্যাকসিন আসছে দুই মুসলিম বিজ্ঞানীর হাত ধরেই

২১ শে নভেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৪৯
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

জার্মানির পশ্চিম অঞ্চলের Rhineland-Palatinate এর রাজধানী এবং প্রধান শহর Mainz এর Goldgrube street এ অবস্থিত BioNTech এর সদর দপ্তর। ছবিঃ বায়োটেকের উইকি থেকে সংগৃহীত।

শেষমেষ করোনা ভ্যাকসিন আসছে দুই মুসলিম বিজ্ঞানীর হাত ধরেই

করোনা প্রাদুর্ভাব শুরুর প্রাক্কালে কিছু কিছু লোকজনকে দেখা গেছে, তারা মুসলিমদের ঠাট্টা বিদ্রুপ করছেন। মিডিয়ার এই জয়জয়কারের সময়ে অন্যান্য বিষয়ের মত করোনাও হয়ে ওঠে আলোচনার অন্যতম বিষয়। যে যেভাবে পেরেছেন, এই মহামারি থেকে নিজে বাঁচার পাশাপাশি অপরকে বাঁচানোর উপায় উপকরণ খুঁজতে চেষ্টা করেছেন। কোনো কিছু জানতে সক্ষম হলে অনেকেই তা অন্যদেরও অবহিত করতে সচেষ্ট হয়েছেন। মহামারি বা এই ধরণের বিপদাপদ থেকে আত্মরক্ষার জন্য কেউ কেউ হাদিসে বর্ণিত দোআ কালাম পোস্ট দিয়েছেন। বিভিন্ন মিডিয়া এমনকি আমাদের প্রিয় এই প্লাটফরমটিতেও এই বিষয়ক অনেক পোস্ট এসেছে। আমি নিজেও একাধিক পোস্ট করেছি তখন। তবে, লক্ষনীয় বিষয় ছিল, মিডিয়ার সেসব পোস্ট এবং লেখায় এক শ্রেণির লোক তাদের মনোভাবকে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করেছেন। মুসলিমদের কিছুই করার নেই, দোআ পাঠের ভেতরেই তাদের দৌড় শেষ, মোল্লার দৌঁড় মসজিদ পর্যন্ত, মুসলিমরা বিশ্বের বোঝা ছাড়া আর কিছু না, বিশ্বকে করোনা মুক্ত করতে মুসলিমদের কোনো অবদান নেই- ইত্যাদি কথা তাদের কাছ থেকে প্রচুর শুনতে হয়েছে। তাদের সেসব শ্লেষাত্মক খোঁচা দেয়া কথার জবাব দেয়ার ইচ্ছে আদৌ নেই; তবে, তাদের একটু অবহিত করতে পারলে অন্ততঃ কিছুটা প্রশান্তি হয়তো এই ভেবে পাব যে, বাদবাকি বিশ্ববাসীর সাথে তারাও প্রত্যক্ষ করছেন যে, শেষমেষ করোনা ভ্যাকসিন আসছে তাদের এতদিনকার অবজ্ঞা, অবহেলা আর উপহাসের পাত্র দুই মুসলিম বিজ্ঞানীদের হাত ধরেই।

জ্বি, বায়োটেকের প্রধান নির্বাহী এবং সহপ্রতিষ্ঠাতা জার্মানির স্বনামধন্য প্রোফেসর ড. উগার শাহিন ও তার স্ত্রী বিখ্যাত জার্মান ফিজিশিয়ান এবং বায়োটেকের সহপ্রতিষ্ঠাতা ওজলেম তুরেসি। এই দুই বিজ্ঞানীর কথাই বলছি। চলুন, সামান্য পরিচিত হয়ে নিই তাদের সাথে-

ড. উগার শাহিন ও ওজলেম তুরেসি দম্পতি জার্মানির নাগরিক। এই দুই মুসলিম বিজ্ঞানীর হাত দিয়ে করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কৃত হয়েছে। করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ যখন সামনে ঠিক তখনই ফাইজার ও জার্মান ভিত্তিক বায়োএনটেক কোম্পানিই প্রথম এই সুখবরটি দিয়েছে। বায়োটেকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা উগার শাহিন বলেন, এ বছরের শেষ দিকে আমরা ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের দেশসমূহে করোনার টিকা বিতরণ করতে পারব। –ইউরো নিউজ, এএফপি, এপি

ফাইজার যে করোনা ভ্যাকসিনটির ঘোষণা দেয়, তা করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে ৯০ শতাংশ কার্যকর বলে জানা যায়। আর বড় সুখবর হলো, এ প্রথম ভ্যাকসিনটি আবিস্কৃত হয়েছে নিবেদিতপ্রাণ এক মুসলিম দম্পতির হাত ধরে। এই সুখবরটির মূল্য এই সময়ে কত তা অনুমান করা যাবে না। মুসলিম উম্মাহর গর্ব করার মত বিষয় বটে। ২০২১ সালের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের অধিভুক্ত রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে বায়োটেকের ভ্যাকসিন বিতরণ করা সম্ভব হবে বলে আশা করছেন বায়োটেকের প্রধান নির্বাহী ড. উগার শাহিন। অবশ্য তিনি জানিয়েছেন, 'এর জন্য এখন প্রয়োজন যথাযথ কতৃপক্ষীয় স্বীকৃতি বা অনুমতি।'

তিনি বলেন, 'আমরা এবছরের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা ইউরোপীয়ান ইউনিয়ন বা উভয়ের অনুমতি পেতে পারি। ইতোমধ্যে মার্কিন ওষুধ প্রশাসন, এফডিএর দপ্তর এ সংক্রান্ত একটি অনুমতিপত্র তৈরির প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে এসেছে। আমরা খুব সম্ভব ডিসেম্বরে টিকা সরবরাহ করতে পারব।'

তিনি এপিকে বলেন, 'এ টিকা হবে করোনা প্রতিরোধে অসাধারণ প্রতিষেধক।'

সংবাদ সূত্রঃ

দুই মুসলিম বিজ্ঞানী দম্পতির হাত দিয়ে করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কার

ড. উগার শাহিন সম্পর্কে আরও জানতে- Uğur Şahin

উৎসর্গঃ আমাদের সম্মানিত ব্লগার চাঁদগাজী ভাইয়ের সুস্বাস্থ্য কামনা করছি। পোস্টটি তাকেই উৎসর্গিত।
সর্বশেষ এডিট : ২১ শে নভেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৪১
২৬টি মন্তব্য ২১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

অর্ধ-দশকের পথচলা: ছিলা-নাঙ্গা ও বোঙ্গা-বোঙ্গা কিছু কথা!!!

লিখেছেন আখেনাটেন, ২৪ শে নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:১৭


ঘুর্ণিঝড়। জলোচ্ছ্বাস। লন্ডভন্ড। ক্ষয়ক্ষতি। আহাজারি। পলায়ন। ভাগবাটোয়ারা। শান্তি। সাধারণত আমাদের দেশের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া পরাক্রমশালী সামুদ্রিক ঝড়গুলোর পরের জীবনচক্র কিছুটা এরকমই। বিশেষ করে, দেশের আপামর জনতা যাদের... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমার দৃষ্টিতে নতুন শিক্ষাব্যবস্থা

লিখেছেন মৌরি হক দোলা, ২৪ শে নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩৯



১. তৃতীয় শ্রেণির আগে কোনো পরীক্ষা ব্যবস্থা থাকবে না। আলহামদুলিল্লাহ! কিছু কোমলমতি শিক্ষার্থী বুঝি এবার অসুস্থ প্রতিযোগিতা থেকে রেহাই পাবে! আরো ভালো হয় যদি এদের ভর্তি পরীক্ষাও বন্ধ হয়।


২.... ...বাকিটুকু পড়ুন

অবশেষে দৈত্যের পতন

লিখেছেন চাঁদগাজী, ২৫ শে নভেম্বর, ২০২০ রাত ২:৩১



ট্রাম্প দেশের ক্ষমতা হস্তান্তরকারী সংস্হাকে কাজ শুরু করার অর্ডার দিয়েছে; আজ সকাল থেকে সংস্হাটি ( জেনারেল সার্ভিস এজনসীর ) কাজ শুরু করেছে, নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের লোকেরা... ...বাকিটুকু পড়ুন

একটার তো বাহাদুরি মমিনরা নিল, বাকি ভ্যাকসিন গুলোর বাহাদুরি তাহারা নেয় না কেন?

লিখেছেন এ আর ১৫, ২৫ শে নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৮:৫২



বাহাদুরির বিষয় হলে যারা ধর্মীয় পরিচয় নিয়ে বাড়াবাড়ি শুরু করেন, তারা জবাব দিবেন কি?
কার্দিয়ানিরা মুসলমান নহে কিন্তু যেহেতু বাহাদুরির বিষয় তাই ডঃ সালাম হয়ে গেলেন মুসলমান... ...বাকিটুকু পড়ুন

নভোনীল পর্ব-১৪ (রিম সাবরিনা জাহান সরকারের অসম্পূর্ণ গল্পের ধারাবাহিকতায়)

লিখেছেন ফয়সাল রকি, ২৫ শে নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:৫১



- ময়ী, ময়ী! আর কত ঘুমাবি? এবার ওঠ।
দিদার ডাকতে ডাকতে মৃনের রুমে ঢুকলো। মৃন তখনো বিছানা ছাড়েনি। সারারাত ঘুমাতে পারেনি। ঘুমাবে কী করে? রাজ্যের দুঃশ্চিন্তা ভর করেছিল ওর... ...বাকিটুকু পড়ুন

×