somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

অপেক্ষার পালা শেষ-----

আমার পরিসংখ্যান

ফিউজিটিভ
quote icon
জাতিসংঘের কোন এক সংস্থায় কর্মরত।

[email protected]
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

ট্রাভেলগ-২

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২৫

খুব ভোরে ছোট একটা শহরে এসে উপস্থিত হলাম!



তখনো রাস্তার বাতিগুলো নিভে নাই।



বেশিক্ষন লাগলো না পুরো শহরটা ঘুরে দেখতে!



আশ্চর্যের ব্যপার হলো কোন জনমানবের সাথে দেখা হলো না।



শুধু নিঝুম নিস্তব্ধ বাড়ি, আর কিছু গাড়ি।




সুনশান নিরবতা... বাকিটুকু পড়ুন

৯ টি মন্তব্য      ১৪৩ বার পঠিত     like!

শিরোনামহীন ৩

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ১৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:৪৪

ঠিক দশ মিনিট অপেক্ষার পর দরজা খুলল।

এই দশ মিনিটে আমি বেশ কয়েকবার দরজায় বিভিন্নভাবে টোকাটুকি করেছি। দুবার সামনের ফূল বাগান থেকে ঘুরে এসেছি। বেশ কিছু ছোট বড় ফুলের বাগান রয়েছে গোটা রিসোর্ট জুড়ে।

তাছাড়া ফোন বন্ধ পেয়েও বেশ কয়েকবার বউকে ফোন করার চেষ্টা করেছি। সম্ভবত: ফোনের চার্জ ফুরিয়ে গেছে-অথবা ফোন... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৬৮ বার পঠিত     like!

ট্রাভেলগ-১

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ১৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সকাল ১০:৩৩

মিক্সড ডর্মিটরিতে আমার প্রথম রাত্রি যাপনের সৌভাগ্য (বা দুর্ভাগ্য) হয় ইকো ডিজাইন নামক ছোট্ট ঘরোয়া এক গেস্ট হাউজে, আটলান্টিক মহাসাগরের ছোট্ট দ্বীপ মাদেইরার ছোট্ট শহর মাচিকো সিটিতে।
ফটো: Machico City beach, Madeira



কোন এক দুপুর বেলা আমি হাজির হলাম। ক্রিস্টিনা - গেস্ট হাউজ মালিকের একমাত্র মেয়ে কাম কেয়ারটেকার -... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ১৩৯ বার পঠিত     like!

শিরোনামহীন ২

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:১৬

হন হন করে বাড়ির পথে হেটে চলেছে পাককু মিয়া। সে আজ প্রথম বেতন পেয়েছে। আট হাজার নয়শত সাইত্রিশ টাকা। বারবার সে পরীক্ষা করে দেখছে টাকাটা যথাস্থানে রয়েছে কিনা।
অবশ্য বারবার পরীক্ষা করতে কিছুটা লজ্জাই লাগছিল। কারন সে টাকাটা রেখেছে তার আন্ডারঅয়ারের গোপন পকেটে। বারবার ওখানে হাত দিচ্ছে - কেউ যদি... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৭৪ বার পঠিত     like!

হিহিমুমু-২

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৫

"হেমু ভাই। জুতা ফালায়ে দিলাম।"
"কেন?"
"আপনে খালি পায়ে হাটবেন আর আমি হাটুম জুতা পায়ে - কেমুন দেখায়?"
"ভালো করেছিস।"
"চাইরশ তিরিশ টাকা দিয়া কিনছিলাম।" - উদাস গলায় বলল মোবারক।
"জুতার জন্য খারাপ লাগছে?"
"ঠিক তা না। তয় ওই দিন যার পকেট মাইরা জুতা কিনছিলাম হে মনে হয় খুব কষ্টের মইধ্যে আছিলো। জুতা ফালানোর সময় মনে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৪০ বার পঠিত     like!

হিহিমুমু-৬

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ভোর ৫:০৬

:"কিরে তোর হাতে মোবাইল ফোন? তোর নিজের নাকি?

:"হ্যা খালা। অনেকের সাথে যোগাযোগ করতে হয় তাই দুটো মোবাইল ফোন কিনলাম।"

:"বলিস কি? দুটো?
আরে তাইতো। দুটোই তো!"

খালা আশ্চর্য হয়ে গেলেন। মনে হলো আমার হাতে মোবাইল ফোন থাকার ব্যাপারটা তিনি মানতে পারছেন না; তাও আবার দু দুটো!!

:"এই তোর ব্যপার কিরে?? দুটো মোবাইল ফোন হাতে... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ১৫১ বার পঠিত     like!

শিরোনামহীন

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সকাল ৭:০৭

আমি একটা মৃতদেহ খুজছি। জরুরী ভিত্তিতে একটা মৃতদেহ খুজছি। ভীষন দরকার। দেহটি হবে আমার শারিরীক বৈশিষ্টের। আমি নিজেকে লুকিয়ে ফেলতে চাই! চিরতরে!!

কাজটা কঠিন কিছু না। শুধু বদলে দেবো পরিচয়। সবাই ভাববে আমি মরে গেছি...

কিন্তু আমি বেঁচে থাকবো... নাম পরিচয় বিহীন।

একবার পেয়েও গিয়েছিলাম একটা। কিন্তু সেটা ছিলো লোকে লোকারন্য একটা স্থানে।... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৩১ বার পঠিত     like!

ভবিষ্যতের ইতিহাসঃ

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ৩১ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:১০

সকালে অফিসে যাইতে গিয়া দেখি আমার ড্রোন স্টার্ট নেয় না।আউট অফ অর্ডার। মেজাজ খারাপ হয়ে গেলো।
আজ বাসে কইরা যাওয়া লাগবে মনে হয়! তাড়াতাড়ি রিক্সায় কইরা মিরপুর রোডে চলে আসলাম।

রাস্তায় বাসের অভাব নাই। কিন্তু উঠতে পারি না কোনটাই... দুনিয়ার ভিড়!
একটা লক্কর ঝক্কর ৮ নম্বর বাস আসলো - সীটও খালি আছে মনে... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ১২৮ বার পঠিত     like!

হিহিমুমু-৫

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ৩০ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৩:১০

মোবাইল ফোন নামক বিরক্তিকর বস্তু এখন আমারও আছে -একটা নয় দু'দুটো।

অনুরোধে ঢেঁকি গেলার মতো আমি আদেশক্রমে মোবাইল ফোন গিলে বসে আছি। অবশ্য গিলে বসে আছি বলা ঠিক হচ্ছে না। সবসময় হাতে নিয়ে আছি। খুবই বিরক্তিকর ব্যাপার।

বেলাল এবং রুপার বিষয়টা কিছুটা অদ্ভুতুড়ে মনে হচ্ছে আমার কাছে। দুজনেই আমার জন্য হুবহু একই... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১০১ বার পঠিত     like!

হিহিমুমু-৭

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ২৫ শে জানুয়ারি, ২০২০ ভোর ৪:৫৩

সকাল থেকে হাতের তালুতে ভীষন চুলকাচ্ছে।
চুলকানি কমাতে গিয়ে চামড়া ছিলে ফেলার উপক্রম করে ফেলেছি তবুও চুলকানি কমছে না। কি যন্ত্রনা!!

মোবারক বললো - "ভাইজান এইডা ভালো লক্ষন। হাতে ট্যাকা পয়সা আসার লক্ষন।"

আমি হ্যা বা না কিছু বললাম না।

"ভাইজান ফোন বাজে।"

আমি দেয়ালে হাত ঘসাঘসি করছিলাম। বেশ আরাম বোধ হচ্ছিলো। ছাগলে যেভাবে বেড়ায়... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৭৪ বার পঠিত     like!

ভবিষ্যতের ইতিহাসঃ সুর্য্য (আষাঢ়ে গল্প!)

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ২৩ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ২:০৬

আমাকে চিনতে পারছেন? আমি মোস্তাফিজুরুদ্দিনুজ্জামানিয়া। গোমস্তা ট্রাভেলসের কর্নধার। আজ ২৩ জানুয়ারী ৩০২০ সাল। আমার ছোটমেয়ের জন্মদিন। আর মেয়ের জন্মদিন পালন উপলক্ষ্যে দারুন একটা প্লান করেছি আমি। এ প্লান বাস্তবায়নের জন্য আমি পাঁচশত রোবট ভাড়া করেছি। প্লানটা অনেকের কাছে পাগলামী মনে হতে পারে - আর তাছাড়া এটা অনেক খয়খরচার ব্যাপার তো... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১২৫ বার পঠিত     like!

হিহিমুমু-৩

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:০২

সংসদ ভবনের সামনের রাস্তায় সাইকেল চালাচ্ছি। গিয়ার নামক প্যাঁচযুক্ত সাইকেল। রুপা অনেকটা জোর করেই আমাকে গছিয়ে দিয়েছে সাইকেলটা!
তবে ভালোই লাগছে সাইকেল চালাতে। হাটাহাটির চেয়ে সাইকেল চালানো মনে হচ্ছে অনেক সুবিধাজনক! তাছাড়া সাইকেলটার ঢংও কমনা! ইয়া মোটা এক একটা টায়ার!! রাজা বাদশাহরা কখনো সাইকেল চালিয়েছে বলে শুনিনি। তবে এটা চালানোর সময়... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৮৮ বার পঠিত     like!

দানিয়ৃবের পাড়ে, Bratislava - the capital city of Slovakia

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ২৩ শে এপ্রিল, ২০১৭ সকাল ৮:২৯
৮ টি মন্তব্য      ২২৯ বার পঠিত     like!

হিহিমুমু-১

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ১৮ ই এপ্রিল, ২০১৭ দুপুর ২:০৮

"ভাইজান, আমি হেমু হইবার চাই।"
"সেজন্যই কি পান্জাবীর মধ্যে হলুদ মাখিয়েছিস?"
"জে।" মাথা চুলকাতে চুলকাতে জবাব দেয় মোবারক।
"কিন্তু হলুদ তো ঠিকমত মাখাতে পারিসনি। বিশ্রী দেখা যাচ্ছে।"
"ভুই হই গেছে ভাই। দোকান থিকা কম দামি হলুদ গুড়া কিনছি। ইসকয়ার কোম্পানীরটা লাগামু এরপরেরবার।"
"ভালো। তা হেমু সেজে তুই কি করবি?"
"রাইত বিরাইতে রাস্তাঘাটে ঘুরমু।"
"ঘুমাবি না?"
"না ঘুমামু না।"
"যদি... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১৫৯ বার পঠিত     like!

হিহিমুমু-৪

লিখেছেন ফিউজিটিভ, ০৫ ই মে, ২০১৬ রাত ৮:১৬

'এই হিমু এই..'
কে যেন চিৎকার করে ডাকছে। আমি আড় চোখে তাকালাম। সর্বনাশ - মাজেদা খালা। আমার থেকে মাত্র কয়েক ফুট দুরে। গাড়ীর ভেতর থেকে চেঁচাচ্ছেন।
আমি দ্রুত পরিস্থিতি পর্যালোচনা করলাম। 'এক দৌড়ে পগার পার' হয়ে যাওয়া টাইপ কিছু একটা করা দরকার। তবে পালানোর কোন পথ নেই বলেই মনে হচ্ছে।
এখানে বলে রাখি,... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ১৪৭ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৪২৪৮৯ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ