somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

আমি মোদি ভক্ত ! এটা জেনে আপনি দুঃখ পেলে আমি আনন্দিত হব।

আমার পরিসংখ্যান

আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

রম্য : মাল !

লিখেছেন গেছো দাদা, ১৬ ই জুলাই, ২০২৪ রাত ১০:৪০

বিশ্ব বিখ্যাত বামপন্থী বাঙালি নাট্যকার উৎপল দত্তের উত্তর না পাওয়া প্রশ্ন:

ক্লান্ত উৎপল দত্ত গ্রিনরুমে বসে, সবে মদের প্রথম পেগটা নিয়েছেন। পর্দার ফাঁক দিয়ে দেখে কেউ একজন টিপ্পনি কাটল : ‘দ্যাখ দ্যাখ ... মাল খাচ্ছে রে !’

উৎপল দত্ত সে কথা শুনেও, নির্বিকার চিত্তে উঠে এলেন মঞ্চে।

ভাবলেশহীন ওঁর সিগনেচার গলায়... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৩৪ বার পঠিত     like!

রম্য : বৌ এর জ্বালা !

লিখেছেন গেছো দাদা, ১৪ ই জুলাই, ২০২৪ রাত ২:০৫

সপ্তাহে চার দিন ভালো থাকা তো তিন দিন ঝগড়া। ঝগড়াটা আসলে আমার বৌয়ের সাথে। কারণটা সেরকম কিছুই না, আসলে আমার দুই বন্ধু; অয়ন আর অর্ণব। জীবনে এরকম দুটো বন্ধু থাকলে সংসারে আগুন লাগবেই। আমার বৌয়ের সাথে ঝগড়াটা শুরু হয় শনিবার রাত থেকে, রবিবার সারাদিন চলে, সোমবার রাত পর্যন্ত থাকে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৫৭ বার পঠিত     like!

রম্য: ভবিষ্যত বাণী

লিখেছেন গেছো দাদা, ০৯ ই জুলাই, ২০২৪ রাত ১২:২৫

হঠাৎ করে অদ্ভুত ব্যাপার হচ্ছে। ভবিষ্যতে ঘটবে এমন একটা ঘটনা কেউ তুরুকের কানে খনা গলায় বলে দিচ্ছে। পরে দেখা যাচ্ছে সেটা সত্যিই ঘটছে।
এই যেমন কয়েক দিন আগে কানে কানে কেউ বলল, "কাঁল আঁক্কেল সেঁলামি দিঁতে হঁবে।"
তার পরের দিন আক্কেল দাঁতের এমন ব্যথা উঠল যে সত্যিই আক্কেল সেলামি দিতে হল... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১১৯ বার পঠিত     like!

রম্য : তিলেখচ্চর !

লিখেছেন গেছো দাদা, ২৯ শে জুন, ২০২৪ রাত ১১:৪৪

'তিলেখচ্চর' ঠিক ওর উপযুক্ত বিশেষণ নয়, তিলেখচ্চরের সুপারলেটিভ ডিগ্রী
যদি কিছু থাকে তবে সেটাই ছিলো প্রদীপের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। তুখোড় মেধার
অধিকারী প্রদীপ ছিলো আমার স্কুলের সহপাঠী। কলেজেও দুবছর একসাথে পড়েছি।
তারপর ও মেডিক্যাল পড়তে যাওয়ার পর থেকেই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। আবার যোগাযোগ
হোলো আমি কোলকাতায় এসে একটা আস্তানা কিনে একটু গুছিয়ে বসার পর। তা... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১০৮ বার পঠিত     like!

রম্য : চিকিৎসা =p~

লিখেছেন গেছো দাদা, ২৯ শে জুন, ২০২৪ রাত ১২:০৪

বল্টু ইঞ্জিনিয়ার হয়েও কিছুতেই চাকরি পেলনা। তখন সে একটা ক্লিনিক খুলল আর বাইরে লিখে দিল, “৩০০ টাকায় যে কোন রোগের চিকিৎসা করান। চিকিৎসা না হলে এক হাজার টাকা ফেরৎ!??

এক ডাক্তার ভাবল এক হাজার টাকা রোজকার করার একটা দারুণ সুযোগ সে সেই ক্লিনিকে গেল আর বলল..

ডাক্তার : আমার কোন... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ১৫৭ বার পঠিত     like!

রম্য : পর্দা ফাঁস!!

লিখেছেন গেছো দাদা, ২৬ শে জুন, ২০২৪ রাত ১১:৫৫

মাসখানেক হলো মলিনা দেবী ছেলে তমালের বিয়ে দিয়েছেন পাশের গ্রামের ওনার দূর সম্পর্কের বোনের ননদের মেয়ে পিউয়ের সাথে । পিউ ফর্সা না হলেও একটা আলগা শ্রী আছে । মাথায় মেঘের মত একঢাল মাজা পর্যন্ত ঘন কালো চুল । চোখগুলো টানাটানা সুন্দর ।

শাশুড়ি মলিনা দেবী একটু সেকেলে হলেও বৌমাকে ভালোবাসেন... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ২০৪ বার পঠিত     like!

রম্য : বাংলা বানান শেখা !

লিখেছেন গেছো দাদা, ২৫ শে জুন, ২০২৪ রাত ১১:৩৭



—‘‌নাদু!‌ অ্যাই নাদু।’‌
—‘‌এই তো। বলো’‌
—‘‌থাকিস কোথায়?‌ ডেকে ডেকে সাড়া পাওয়া যায় না।’‌
—‘‌রান্নাঘরে ছিলাম মামা।’‌
—‘‌রান্না ঘরে কী করছিলি?‌’
—‘‌বাতাসার কৌটো খুঁজছিলাম। মুড়ি দিয়ে খাবো।’‌
—‘‌মুড়ি বাতাসা!‌ ছ্যা ছ্যা।’‌
—‘‌আর কী করব বলো। মামীকে বললাম, পরীক্ষা তো শেষ। আজ রাতে একটু লুচি আলুর দম হোক। কেমন যেন খেঁকিয়ে উঠল।’‌
—‘‌আর লোক পেলি না?‌ শেষে মামীকে?‌... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১১৬ বার পঠিত     like!

রম্য : পরেশদার পরোটা

লিখেছেন গেছো দাদা, ২৫ শে জুন, ২০২৪ রাত ১২:১৩


.
সকাল ছটায় টোটোয় করে স্টেশন চত্বরে পৌঁছাল পরেশ। টোটো থেকে চটপট নামিয়ে ফেলল মালগুলো। দুটো বড় হাঁড়ি, একটা ড্রাম, গোটা দুয়েক বালতি, হাতা, প্লাস্টিকের টুল ইত্যাদি। তাতে আছে ছশো পরোটা, আলুর দম, শশা-পেঁয়াজ কুঁচি, কাগজের প্লেট...
স্টেশন চত্বরেই একটা শেডের নীচে জিনিসগুলো সাজিয়ে নিল। আধ ঘন্টা লাগল সব গোছাতে। ততক্ষণে... বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ২০২ বার পঠিত     like!

রম্য : কলকাতার পকেটমার!

লিখেছেন গেছো দাদা, ২০ শে জুন, ২০২৪ রাত ১২:৩০

কেউ যদি বলে কলকাতার কি কি জিনিস বিখ‍্যাত তাহলে নিশ্চয় বলা হবে কলকাতার রসগোল্লা, কলকাতার স্ট্রীট ফুড ইত্যাদি। আমার মতে তার মধ্যে অবশ্যই আসা উচিত কলকাতার পকেটমার।

এটাও একটা কলকাতার বিশেষ শিল্প‌। ভিড় বাসে চাদরের তলা দিয়ে সোনার বোতাম খুলে নেওয়া কলকাতার পকেটমারদের বাঁহাত কা খেল ছিল একসময়।

মেটিয়াবুরুজ না কোথায় যেন... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ১৬৪ বার পঠিত     like!

রম্য : কীপটেমির চরম সীমা !

লিখেছেন গেছো দাদা, ১১ ই জুন, ২০২৪ রাত ১:০১

সেদিন সকালে হরেনদার সঙ্গে দেখা । দাঁত মাজছিল । আমাকে দেখে থু করে পিক ফেলে বলল , " দুশটা টাকা আমার জলে চলে গেল জানিস ! "

বললাম , " কেন ? কিকরে ? "
হরেনদা বলল , " আরে দুশ টাকা দিয়ে একটা পাঞ্জাবী কিনেছিলাম । বছর-দুই পরেছি । দেখি... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ১৭২ বার পঠিত     like!

রম্য : আদর উশুল !

লিখেছেন গেছো দাদা, ০৮ ই জুন, ২০২৪ রাত ১২:২৪

স্ত্রীর সাথে সন্ধ্যায় তুমুল ঝগড়া হয়েছে। রাতে খুব আদর পেতে ইচ্ছে করছে।ওকে ভয়ে কিছু বলতেও পারছি না।
হঠাৎ চেঁচিয়ে বললাম " ঝগড়া করেছো ভালো কথা,খবরদার যদি আমায় টাচ করেছো তো ! "

কথাটা বলতেই পাশে শুয়ে থাকা স্ত্রী সাপের মতো ফোঁস করে উঠলো।
বললাম " গায়ে গা লাগাবে না বলে দিলাম।... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ২৯২ বার পঠিত     like!

রম্য : ফ পা !!

লিখেছেন গেছো দাদা, ১১ ই মে, ২০২৪ রাত ১২:০৯

যারা ফ পা কি জানেন না, তাঁদের জানাই এটি আদতে ফরাসী; faux pas। মানে ভুল জায়গায় ভুলভাল আচরণ। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ঘটনাটা ঘটে অজান্তে।

এই ধরুন বিলাতী সমাজে গালে চুমু খাওয়া নেহাত জলভাত, কিন্তু সেই একই কাজ মেট্রো রেলে করলে তা ফ পা। বিলাতে কারও বাড়ি যাবার সময় রেড ওয়াইন... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ২০৪ বার পঠিত     like!

রম্য : সেফটিপিন

লিখেছেন গেছো দাদা, ২৪ শে এপ্রিল, ২০২৪ সন্ধ্যা ৭:১৮

উপলকে দেখে সবাই ফিক ফিক করে হাসছে। উপল জানে কেন হাসছে সবাই।
ওর প্যান্টের চেন খোলা। আসলে খোলা ঠিক নয়। ছিঁড়ে গেছে। হাঁটছিল সে, হঠাৎ খেয়াল হল প্যান্টের চেন টানতে ভুলে গেছে। রাস্তায় দাঁড়িয়ে পড়ে জোরে চেন টানতে গিয়ে পটাং করে ছিঁড়ে গেল। আর আজই দেখে দেখে টি-শার্ট আর স্কিন... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১৮৬ বার পঠিত     like!

রম্য : মদ্যপান !

লিখেছেন গেছো দাদা, ২৩ শে এপ্রিল, ২০২৪ দুপুর ১২:৫৩

প্রখ্যাত শায়র মীর্জা গালিব একদিন তাঁর বোতল নিয়ে মসজিদে বসে মদ্যপান করছিলেন। বেশ মৌতাতে রয়েছেন তিনি। এদিকে মুসল্লিদের নজরে পড়েছে এই ঘটনা। তখন মুসল্লীরা রে রে করে এসে তাকে বাধা দিল। বলল, মসজিদ আল্লাহর ঘর। মদ্যপানের জায়গা নয়।

গালিব তাকালেন মুসল্লীদের দিকে।
তারপর ধিরে সুস্থে আরেক চুমুক খেয়ে আওড়ালেন এক... বাকিটুকু পড়ুন

২১ টি মন্তব্য      ৫৯৩ বার পঠিত     like!

রম্য ; লোকালট্রেনের ডেইলি প্যাসেঞ্জার !

লিখেছেন গেছো দাদা, ১৩ ই এপ্রিল, ২০২৪ দুপুর ১:৫৭

লোকালট্রেনের ডেইলি প্যাসেঞ্জারদের কথাবার্তায় একটা যে আলাদা রকমের রসবোধ থাকে, তার কিছু উদাহরণ..

ট্রেনের ভিতর একজন আরেকজনকে জিজ্ঞস করলেন, 'কি দাদা, অফিসে চল্লেন?' ঝাঁঝালো উত্তর এলো, 'তা নয় তো কি? সকালবেলা ভিড় ঠেলে বাইজিবাড়ি যাচ্ছি নাকি?' =p~

একটা ট্রেন স্টেশানে দাঁড়িয়ে আছে, একজন লোক হন্তদন্ত হয়ে এসে জানলার... বাকিটুকু পড়ুন

১১ টি মন্তব্য      ২২৫ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ২২১৮২৩ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ