somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

1XBET, Surf Excel আর একজন বেয়াদব Shakib Al Hasan সমাচার।

১৮ ই মার্চ, ২০২৩ রাত ১১:৪৪
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :



বাংলাদেশের ক্রিকেট জোয়ার এখন তুঙ্গে, ইংল্যান্ড এর সাথে প্রথম দুটি ওয়ানডে হেরে তৃতীয় ওয়ানডে থেকে জয়ের ধারা চলছে, আজ আয়ারল্যান্ডকে রেকর্ড ১৮৩ রানের ব্যবধানে হারিয়ে জয়রথ এগিয়ে চলেছে যে জয়রথে সাফল্যে আছেন অনেকের চক্ষুশূল বেয়াদব সাকিব আল হাসান। সম্প্রতি স্বর্ণ'র দোকান উদ্বোধন কান্ডে অনলাইন অফলাইন তোলপাড়। টিভি চ্যানেলে সংবাদ থেকে টক শো, খেলা শুরুর আগে প্রচারিত প্রিম্যাচ এনালাইসিস... সবখানে এই আলোচনা দেখলাম। আসামী দুবাইয়ে, আরও অনেক সেলিব্রেটি গেল সেখানে সেদিকে খেয়াল নাই, সব দোষ সাকিব্বাআআআআরররর... "যত দোষ, নন্দ ঘোষ" ছোটবেলায় খুব শুনতাম; তখন খালি ভাবতাম এই নন্দঘোষটা কে? এখন আইস্যা বুঝা গেল, সে ব্যাটা তখন মাত্র জন্মাইছে... ;)

১৪ তারিখ ইংল্যান্ডের সাথে খেলা শেষ হলো, ১৫ তারিখ সাকিব গেলেন মাগুরা, সেটা নিয়ে টিভিতে নিউজ! সাকিব কি অনুমতি নিয়ে গিয়েছেন? তিনি তার জমি বিক্রয় সংক্রান্ত কাজে ঝটিকা এই সফর করেন, সাথে ছিলেন তাসকিন আর শান্ত। এটুকু বুঝা উচিত টিভি রিপোর্টার আর এডিটরের; দলের তিনজন খেলোয়াড় বিনা অনুমতিতে নিশ্চয়ই এতদূর যায় নাই। মজার পর্ব পরের দিন হলো, সাকিব বাই উড়াল দিলেন দুবাই!!! ভাভাগো, ভাভা!!! তাও এক দাগী আসামীর দোকান উদ্বোধনে! আরো অনেক ছেলিব্রেটি সেই অনুষ্ঠানে গেলেও দেশ হামলে পড়লো বেয়াদব সাকিব্বাই এর উপর। দেশ পুরা তোলপাড়... কিন্তু সেখানে অপেক্ষায় ছিলেন মীরা বাঈ ;) থুক্কু সেখানে এসে গেলেন "মাহি ও মাহি..." সেই গল্পে পানি ঢেলে আলোচনার কুপ্পি নিজের দিকে টেনে নিলেন। কিন্তু সাকিব বাই কি আর ছাড়ে। একদিন পরেই আজকে ৯৩ রান করে আউট হয়ে গেলেন, বোলিং এ নিলেন এক উইকেট। ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হওয়ার কথা তারই, কিন্তু তৌহিদ হৃদয় এর ডেব্যু ইনিংস বিবেচনায় রেখে ৯২ রান করা এই ব্যাটসম্যানকে দেয়া হয়েছে আজকের ম্যাচের ম্যান অব দ্যা ম্যাচ এর পুরষ্কার। আর যায় কই, অনেক হাম্বাদিক গবেষণা করা শুরু করে দিয়েছেন, সাকিবের দুবাই যাওয়া ভালো চোখে দেখছে না ক্রিকেট বোর্ড আর আইসিসি; তাই তাকে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ দেয় নাই। =p~ =p~ =p~

আশায় আছি কাল দেখবো, শুনবো বা পড়বো, "নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছেন সাকিব" :-P

তো শিরোনামে ফিরে যাই, খেলার চ্যানেল T Sports এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দেখে আমার সদ্য কলেজে ওঠা এক কাজিন জানতে চাইলো ভাইয়া 1XBET এ খেলার সিস্টেমটা কি আপনে জানেন? আমার মাথা দিলো চক্কর, এই 1XBET এর বিজ্ঞাপন দেশে কিভাবে চলছে? যে দেশে সামুর দুই চারটা বলদ ব্লগার এর পোস্টের ছবির জেরে "পর্ণগ্রাফি সাইট" হিসেবে বিবেচিত হয়; অনলাইনে একটু কিছু বাড়াবাড়ি হলেই "আমি দেখুম চা" আইনে হয় মামলা, সেখানে একটা জুয়ার সাইট এর বিজ্ঞাপন দেশের মেইস্ট্রিম মিডিয়ায় কিভাবে প্রচারিত হচ্ছে? ক্যাসিনো কেলেংকারির পর জানতে পারছিলাম ঢাকা শহরে এত্ত এত্ত ক্যাসিনো ছিলো। কিন্তু এই 1XBET তো ঘরে ঘরে ডাক দিচ্ছে পোলাপানেরে, যে দেশে মুদি দোকানে দোকানে ক্রিকেট খেলা নিয়ে জুয়া হয়, সেখানে 1XBET মেইনস্ট্রিমে বিজ্ঞাপন দিয়ে জুয়ার আসরে ডাকছে সবাইকে।

শেষে আসি, সাকিব খেলোয়াড় হিসেবে আমার খুবই প্রিয়, কিন্তু ব্যক্তি সাকিব আল হাসান'কে আমি এক্কেবারেই পছন্দ করি না। কারনটা অনেকেরই অজানা। সাকিবের যখন ডেব্যু হয়েছিলো তখন ভারতের বিতর্কিত লীগ আইসিএল খেলতে বাংলাদেশের অনেক ক্রিকেটার গিয়েছিলেন যারা আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন। সেই দলে ছিলেন তখন টপ ফর্মে থাকা অলক কাপালি, আফতাব আহমেদ, শাহরিয়ার নাফিস এর মত তারকা খেলোয়াড়েরা। বেয়াদব সাকিব তখন এক ইন্টারভিউ এ বলেছিলেন (যত সম্ভব প্রথম আলো'তেই পড়েছিলাম নিউজটা), "যারা তাদের ক্যারিয়ার নিয়ে আর আশাবাদী না তারাই আইসিএল খেলতে গেছেন"। মজার ব্যাপার তখন তিনি মাত্র চারটি ওয়ানডে খেলেছেন। সেই কথার পর ব্যক্তি সাকিব আল হাসান'কে আমার বুঝা শেষ। কিন্তু ব্যক্তি সাকিব আল হাসান আমার দরকার নাই, দরকার খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান; যেখানে তিনি আমার এক নম্বর পছন্দ। আগামী কত বছর পর বাংলাদেশ পরের কথা বিশ্ব ক্রিকেট সাকিবের মত অলরাউন্ডার পাবে তা ভাবার বিষয়। আজকেই জয়সুরিয়া আর আফ্রিদির পর সাকিব ওয়ান ডে'তে সাত হাজার রান আর তিনশত ইউকেট পাওয়া তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে নাম লিখিয়েছেন। উইকেটে দুজনকেই ছাড়িয়ে যাবেন, হয়তো রানে জয়সুরিয়াকে ধরতে পারবেন না। আর পারবেনই বা কিভাবে, পাঁচ নাম্বারে নেমে সোয়া দুইশ ম্যাচে সাত হাজার করেছেন, অন্য দুইজন ছিলেন ওপেনার, এটা মনে রাখতে হবে।

তাই, Surf Excel এর বিজ্ঞাপনের ভাষায় বলতে চাই, "দাগ থেকে ভালো কিছু যদি হয়, দাগই ভালো"। মানে বুঝে আসছে? "বেয়াদব যদি এমন খেলা খেলে তাহলে একটা বেয়াদব একাদশই ভালো"। এই দর্শকরাই গাইতো,

"বাংলার জান, বাংলার প্রাণ, সাকিব আল হাসান"
ঠিক কি না ভাইজান?
এখন ক্যান এত্ত প্যাচান?

শুভরাত্রী।
সর্বশেষ এডিট : ১৮ ই মার্চ, ২০২৩ রাত ১১:৫৬
৭টি মন্তব্য ৭টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

আজ জাতিসংঘেও পাঠাতে পারবো একটা স্মারক চিঠি

লিখেছেন জাহিদ অনিক, ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ১০:২৬



হৃদয়ে আবার কাঁপন - একটা ঠিকানার কি এক তৃষ্ণায়
মনে হয় আবার এসেছে ফিরে আরেক শীতকাল;
পশ্চিম আফ্রিকার সব তাপমাত্রা নিজের মধ্যে টেনে নিয়ে আমি কি এক প্রাণপণ... ...বাকিটুকু পড়ুন

সমস্যা উসকে দেয় সবাই, সমাধান দেয় না

লিখেছেন অনিকেত বৈরাগী তূর্য্য , ২৫ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ রাত ১১:২৪


২০১৭ সালে আরাকানের সশস্ত্র গোষ্ঠী (আরসা) মিয়ানমারের সেনা চৌকিতে হামলা চালানোর পর এর প্রতিক্রিয়ায় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী যখন রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর নির্বিচারে হামলা শুরু করলো, লাখে লাখে রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকতে... ...বাকিটুকু পড়ুন

অস্ট্রেলিয়ার গল্প ২০২৪-১

লিখেছেন শায়মা, ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ সকাল ১১:০৮


২২শে ডিসেম্বর ২০২৩ প্লেনে উঠেছিলাম অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশ্যে। কুয়ালালামপুর হয়ে সিডনী কিংসফোর্ড। প্লেনের টিকেট সিলেক্ট করেছিলাম জানালার ধারে কারণ একা একা যাচ্ছি একপাশেই থাকি। জানালা দিয়ে ভোরের, দুপুরের রাতের আকাশ দেখবো!... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমার কবিতা ও ইসলামের বহু বিবাহে সম্মতি

লিখেছেন মহাজাগতিক চিন্তা, ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ দুপুর ১২:১০



একত্বে অনন্য প্রেম

অনেক নারীর দেহে আস্বাদ পাবে না
খাঁটি প্রেম অমৃতের। শুন অনন্তর
একা এক নারী মন চিত্রাভ প্রান্তর
সেথা পাবে প্রীতিময় বহু অনুভূতি।
নারীর একান্ত কাম্য সুপ্রিয়া হবে না
সে ছাড়া অপর... ...বাকিটুকু পড়ুন

শাহ সাহেবের ডায়রি ।। বিদায় পঙ্কজ উদাস

লিখেছেন শাহ আজিজ, ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ সন্ধ্যা ৬:১৩



চান্দী জ্যায়সা রঙ্গ হ্যায় তেরা
সোনে জ্যায়সে বাল
এক তূ হী ধনবান হ্যায় গোরী
বাকী সব কাঙ্গাল


৭০ দশকের শেষে পঙ্কজ উদাসের এই গান শুনতে শুনতে হাতুড়ি বাটালের মূর্ছনা এক অদ্ভুত... ...বাকিটুকু পড়ুন

×