somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

একজন অস্থির মানুষ। বৈপরীত্যকে লালন করি নিজের ভিতরে । সময়ের ধুলোবালি দৃষ্টিকে ঝাপসা করে- তবু চোখ মেলে চেয়ে থাকি নির্বিকার। অন্তরাত্মা চিতকার করে তবু শান্ত ভাবে হেঁটে চলি -যেন অন্যকারো চলা । উচ্চারিত কথামালা-সে ও যেন অন্য কারো বলা।

আমার পরিসংখ্যান

সেজুতি_শিপু
quote icon
লেখালেখি করা হয়ে ওঠে না। কিন্তু মাথার ভিতর তাগিদ অনুভব করি।কত কী দেখছি চারপাশে, কত কত অনুভব ইচ্ছে করে রেখে দেই শব্দ মালা গেথে।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

তোমার সীমানা জ্বালাও

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৩৫


——————————
নুসরাত, প্রিয়াংকা রেড্ডী ..........এবং সকল নারী
———-

তুমি পোষাক পড়বে সেভাবেই যেন
ততটাই দেখা যায় , যতটা দেখলে
দৃকমাত্র লালাঝরা লোলুপের লালা থাকে সংযত ,
যদিও তোমার ছায়াতেও তার লালশার লালা ঝরে!
ঘুরবে ফিরবে- সীমার মধ্যে, মাথার ওপরে আকাশ যেন না টানে।
স্রষ্টার আকাশ তোমার জন্যে নয়।
যেখানেই যাও, বেলাবেলি ঘরে ফিরো -
নির্জন পথ পাশে... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ১১৫ বার পঠিত     like!

খাদ্য বনাম খাদক

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:২৩



শৈশবের বিজ্ঞান পাঠে খাদ্যশৃঙ্খল পাঠ করেছি । সমাজে সংসারে জটিল খাদ্যশৃঙ্খল দেখে দেখে অভিজ্ঞ হয়ে উঠেছি ।
মৎস্য -ন্যায় নীতির এই ব্যবস্থায় বড়মাছটি ছোটমাছকে গিলে খাবে এটিই নিয়ম জগতে। শক্তিমান খাদক আর শক্তিহীন তার করুণ খাদ্য ।
পাশাপাশি আরেকটি খাদ্যশৃঙ্খল দেখছি । সেখানের নিয়ম যেন কিছু... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৫৭ বার পঠিত     like!

কাকতালীয়

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৮



আলবেয়ার কাম্যু, সাহিত্যে নোবেল বিজয়ী ফরাসী-আলজেরিয়ান দার্শনিক, সাংবাদিক, লেখক । দ্বিতীয় কনিষ্ঠতম নোবেল বিজয়ী এই লেখক ১৯৫৭ সালে মাত্র ৪৪ বছর বয়সে নোবেল পুরষ্কার লাভ করেন। ' দি স্ট্রেঞ্জার্স' , ' দি মিথ অফ সিসিফাস', দি রেবেল', দি প্লেগ' ইত্যাদি তাঁর বিখ্যাত রচনা । তিনি... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৮৩ বার পঠিত     like!

কথা ছিল

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ২৮ শে নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৫০


তখন সব পাখির ঘরে ফেরার সময়-
সব পাখিই কি দিনশেষে ফিরে আসে ঘরে?

বাতাবীগন্ধে ভিজে একশা’ বাতাস
এসে দাঁড়িয়েছে আমার খাঁচাভর্তি বেদনার পাশে,
আর আমি তখন পুড়ছি তোমার শীতল আগুনে।
সফেদ তৃষ্ণার গালিচা চোখের দরজা পেরিয়ে
ছড়িয়ে যাচ্ছে চারিদিকে -দুর্দান্ত মড়কের মত-
গোলাপের লাল গরল আঁজলা ভরে ধরতে ধরতেও-
গলিয়ে পড়ছে-
কথা ছিল তুমি আসবে ।

তৃষ্ণার... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ৬৫ বার পঠিত     like!

একলা ভেসে যায়

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ২০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৬



কখনও কেউ তুমুল ভীড়ে
একলা হয়ে যায়।
উথাল পাতাল ঢেউয়ে ভাসা
একরত্তি জলের ফোঁটা -
ঢেউ মিছিলে সবার সংগে-
একলা ভেসে রয়।

গায়ের সাথে গা লেগে যায়-
তেমন করে বাঁচা
অষ্টেপৃষ্ঠে দমবন্ধ,
একরত্তি খাঁচা।

তবু যেন ,স্পর্শবিহীন খা- খা
জনারণ্যে শূন্য এবং একা
মধ্যরাতে অশরীরি-নুজ্ব্য আকাশ
দরজা খুলে দাঁড়িয়ে থাকে ঠায়।
ঢেউয়ের মধ্যে একফোঁটা জল
একলা ভেসে যায়... বাকিটুকু পড়ুন

১৪ টি মন্তব্য      ১০২ বার পঠিত     like!

নিজেকে এগিয়ে নিতে একটু গুছিয়ে নিন আরো

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৯


কেমন যেন অস্থির সময়। আমরা ছুটছি । খুব যে বেশি ব্যস্ততা কাজের- ঠিক তেমনটি নয় সবসময়। তবু যেন কেমন অগোছালো। একটা অতৃপ্তি যেন থেকেই যায়। কীভাবে নিজেকে কিছুটা গুছিয়ে আনা যায় তা নিয়ে কিছু জানার চেষ্টা করছিলাম । দেখলাম, কিছু ছোট ছোট ব্যাপার অভ্যাস করা গেলে জীবন... বাকিটুকু পড়ুন

১৬ টি মন্তব্য      ১৯৬ বার পঠিত     like!

সুখের জন্যে

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ৩০ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:২২



সুখের জন্যে ,
একটি শান্ত নদী চেয়েছিলাম ।
এবেলা -ওবেলা জোয়ার- ভাঁটায়
চলবে ফিরবে পোষ মেনে নেওয়া স্রোত ।
আমি সে নদীতে কখনও কোন
প্লাবন প্রত্যাশা করিনি ।

সুখের জন্যে-
পাহাড় চূডায় একটি ঘর চেয়েছিলাম
কেটে কেটে সাতশ সাতটি সিঁড়ির শেষ ধাপে।
বিশুদ্ধ বাতাস ছাড়া আর কারো প্রবেশ নিষেধ
সেখানে, অকষ্মাৎ মেঘ এসে বিঘ্ন ঘটালে
পেড়ে ফেলবার... বাকিটুকু পড়ুন

১৮ টি মন্তব্য      ৯৪ বার পঠিত     like!

অনি:শেষ অপেক্ষা

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ১০ ই জুলাই, ২০১৯ দুপুর ২:৩৮



মিহি মায়ার চাদর জড়িয়ে কুয়াশায়
একজোড়া অলৌকিক খেজুর গাছ-
অমৃতের কলসী হাতে-
অনাদিকাল থেকে অপেক্ষমাণ ।
সবুজ সুখের ডগায়
জ্বলজ্বল চোখে-এক বিন্দু অশ্রু
অন্তর্ধানের ঠিক আগে- অপেক্ষায় আছে।
প্রায়ান্ধকারে টুপটাপ ঝরে পড়ে
অপার্থিব গাবের কুসুম,
হাস্নাহেনার ঝোপ পেঁচিয়ে অন্ধকারে
একটি পয়মন্ত বাস্তুসাপ,
গাঁদা অরণ্যে কিশোরী জ্যোৎস্না-
নির্ঘুম বসে আছে আমার জন্যে ।

বাঁধ ভেঙে গেলে প্রবল বেগে জনপদে
ঢুকে পড়ে... বাকিটুকু পড়ুন

১৫ টি মন্তব্য      ১১৯ বার পঠিত     like!

দগ্ধ কবিতা

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ২১ শে মার্চ, ২০১৯ সকাল ১০:৪৪


বিস্তর জরুরী কাজ সারা হলে
আমরা একটি দিনের দরজায়
তালা লাগিয়ে চাবিটি ছুঁড়ে দিয়েছিলাম-
নিস্কম্প তিমিরে, প্রতিদিনের মত ।
নৈশভোজ শেষ হলে
ঠিক যেভাবে ছুঁড়ে ফেলি উচ্ছিষ্ঠ।
আলোগুলো একে একে -
নিভিয়ে দিয়েছিলাম,
কী দরকার জ্বেলে রাখার?
কে না জানে -
কী থাকবে আর- কী নিভে... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৮২ বার পঠিত     like!

ভাস্কর্য

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ১০ ই মার্চ, ২০১৯ বিকাল ৫:২৯


কিশোরী কুড়িয়েছিল ফুল,
রাশি- রাশি, থোকা-থোকা-
হ’তে পারে ভুল-
তবু সে মালা গেঁথেছিল।
সম্মোহিত সোনালী সাগরে
সমর্পনের অলীক জোয়ার ডাক দিলে-
উদ্ভিন্ন জ্যোৎস্না ডুবে মরে-
কিশোরীও সমূল ডুবেছিল ।

এরপর অশরীরি ক্রুর অমাবশ্যা রাতে
লুন্ঠনের বিভৎসতম সুনামিতে,
কুমারী স্বপ্ন ভেসে গেছে ।
নগরের চিৎকৃত চৌরাস্তায়
ক্লিষ্ট মধ্যরাতের অন্তহীন বাঁকে-
প্রস্তরীভূত কান্না এসে শেষে
স্বাগত দেহভঙ্গীমার
নিপুন ভাস্কর্য হয়ে ওঠে ।
... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ৬৮ বার পঠিত     like!

অন্বেষণ

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ২৪ শে অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৩:৫১



আমায় কি সমুদ্র ডেকেছে-
উত্তাল দামামা কেন বুকে?
আমায় কি আগুন ছুঁয়েছে-
অনন্ত দহন কেন চোখে?

অসীমের সকল বোঝা কাঁধে-
তবে কি আকাশ ডেকে গেছে?
মাটি তো শক্ত করেই বাঁধে
কেউ কি শিকড় ছিঁড়ে বাঁচে?

আমার কি দুয়ার এলোমেলো-
বাউল বাতাস এসে ঢোকে?
তবে কি প্রভাত এসে গেলো-
অরুণ আলোক শিখা চোখে?

মেঘদল আমায় কি ডাক দিল-
হৃদয়ে ময়ূর কেন নাচে?
চরাচর নিস্তব্ধ হয়ে... বাকিটুকু পড়ুন

৩১ টি মন্তব্য      ২৩৬ বার পঠিত     like!

রাজনীতি

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ২২ শে অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১০:০৬


তুমি কোচরে বকুল এনে
গাঁথ যদি বৃক্ষের শরীরে-
অথবা পেতে দাও ঘাসের জমিনে
সুরভিত হবে না বাগান ।
কোকিলের কন্ঠ ছিঁড়ে
ভাসে যদি রক্তগংগা গান
ইথারে নিশানা খোঁজা -
বালখিল্য নিতান্ত নাদান ।
সকাল বিকেল দগ্ধ চোখে
ঢেলে যাও চন্দনের নদী
ধূসর ভূমিকা পাঠে আমি যা বুঝেছি
বেলা শেষে চরাচরে সব রাজনীতি ।

============== বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৮৩ বার পঠিত     like!

কোথায় তবে যাই

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ২১ শে অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:০৯



পায়ের নীচে এক সমুদ্র সরষে গড়াগড়ি,
একপা' এদিক, একপা' ওদিক- চটুল ফিঙে-
চতুর্দিকেই পথের ছড়াছড়ি।
আমি তো চাই , মৌণ পাহাড় হতে-
আমি তো চাই -অন্ধকারের চৌমাথাতে-
ঠায় বসে রই- তারার আসন পেতে ।

অন্ধকারের অতল পাত্র
আমূল শূন্য হলে
অনেক দূরকে ভেঙেচূড়ে ফেলে -
আলোক হাতে ফেরিওয়ালা
ঠিক দাঁড়াবে এসে ।
চাই বা... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ১১৪ বার পঠিত     like!

অর্থহীন

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১১



আলোটুকু যখন তুলে দিচ্ছিলাম
তোমার বাড়িয়ে দেওয়া হাতে-
সোনার কৌটোয় কোন ব্যথা
গোপনে তুলে রেখেছিলাম কিনা
বুঝে উঠতে পারিনি ।
না ক্লান্তি, না বিষন্নতা কিংবা আশাহনন-
এসবের আর কোন মানে নেই আদতে ।

জাহাজের মাস্তুলে বসে থাকতে থাকতে
আজও চোখে পড়ে কতকি,
আগের মতই।
কেবল দেখছি না আর কিছুই - আগের মত।
যতগুলো রং মেখে নিয়েছিলাম
একে একে... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ১০৭ বার পঠিত     like!

প্রদর্শনী

লিখেছেন সেজুতি_শিপু, ১৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১১:৩৪




চারপাশের উচ্চকিত প্রদর্শনীর ভীড়ে
ক্লান্ত হতে হতে -
আর কোন প্রদর্শনী ভালো লাগছিলো না বলে-
স্বস্তি তখন অজ্ঞাতবাসে যেতে চেয়েছিল।
কেননা, গোলাপী কাপড়ে মোড়া উৎসবের রং
তখন বড় উৎকট মনে হচ্ছিল, সোনালী দেয়ালে
আলোর রোশনাই, লাউড স্পীকারে গান-বাজনা ,
চুড়ির রিনিঝিনি শব্দ দরজায় দাঁড়াতে না দাঁড়াতেই
বেজে উঠা নুপুর। চোখ ফেরানোর আগেই
গমগম গলাতে কেউ একজন... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ১২১ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৯৫৮৫ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ