somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

বিপদজনক ব্লগ

আমার পরিসংখ্যান

 কৌশিক
quote icon
যখন বিকাল হতে থাকে, হতে হতে সূর্যটা ঢলে পড়ে, পড়তে থাকে
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

ডিপ্রেশন থেকে বাঁচার জন্য নিজেকেই পথ খুঁজে নিতে হয়

লিখেছেন  কৌশিক, ২০ শে জানুয়ারি, ২০১৫ সকাল ১০:৫০

মানুষ একা থাকলে ডিপ্রেশন তৈরী হতে পারে। বিশেষত যারা কখনও একা থাকে না। ডিপ্রেশন কিভাবে চিহ্নিত করা যায় তার একটা বাস্তব জ্ঞান অর্জন হলো এবার আমার।

মূলত অস্থিরতা ডিপ্রেশনের প্রধান লক্ষণ। হুদাহুদিই অস্থির। অপেক্ষা করা ইমপসিবল হয়ে যায়। একইসাথে মানুষ যে দুইচারদিকে স্বাভাবিক মনযোগ দিতে পারে সেটা একদমই বন্ধ হয়ে যায়।... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৯৮ বার পঠিত     like!

একবছর চশমা ছাড়া পৃথিবী দেখতে পেরেছিলাম!

লিখেছেন  কৌশিক, ১৯ শে জানুয়ারি, ২০১৫ সকাল ১১:২২

এটা ভালো করে বুঝতে পারছি আমার পেইন কেউ বুঝবে না। আমারই বুঝতে হবে। চশমা পরিহিত প্রথম সকালে আমার যে কষ্ট তার পরিমাণ কোনো হিসাবে রাখা সম্ভব না। চশমা পরিহিত বলাও ঠিক হচ্ছে না, এটাকে বলা উচিত আবার চশমা শৃঙ্খলিত জীবন অতিবাহিত করতে বাধ্য হওয়া। পরিহিত হলে যেকোনো সময় খুলে রাখা... বাকিটুকু পড়ুন

৮ টি মন্তব্য      ১০৩ বার পঠিত     like!

পোড়ার সব স্মৃতি পুড়ে যায় চিরতরে রাষ্ট্রের ইতিহাসে

লিখেছেন  কৌশিক, ১৫ ই জানুয়ারি, ২০১৫ বিকাল ৫:১১

যখন একটা আস্ত বাস কে বারবি-কিউ বানানো হয়, তার ভেতরে যাত্রীদের শরীর, হাত-পা, বুক-পেট, মাথা-চুল-চোখ-মুখ সম্পূর্ণ পুড়ে যেভাবে ঝলসে যায় - কালো হয়ে দুমড়ে-মুচড়ে কাচামাংশ যেভাবে বেরিয়ে থাকে তা আর কোনভাবেই মানব শরীর মনে হয় না। যা আর মানব মনে হয় না তার সাথে আর মানবীয় হয়ে ওঠার কোনো সুযোগ... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ৬০ বার পঠিত     like!

যেখানে দরজা নাই বলে ছিলো জাগতিক বিভ্রম

লিখেছেন  কৌশিক, ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৪ রাত ১:০৯

দরজা খুলে নেমে যাই।

সিঁড়ির ধাপগুলো চওড়া ও উঁচু। সতর্ক পায়ে ভারসাম্য হারাতে হারাতে নামতে থাকি দ্রুত। মনে হচ্ছে এখন আমি অনেক কিছুই করতে পারি। দৌড়ে নামতে পারি। অথচ একটু আগেও আমার নিষেধ ছিলো। আরোপিত বাধার কল্পিত শঙ্কা চেপেই উঠেছিলাম। কষ্ট হচ্ছিলো - ক্ষয়ে যাচ্ছিলো ধৈর্য। কিন্তু সফলভাবে ঢুকে পড়ার... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৩৭ বার পঠিত     like!

একটা দীঘল সময় হচ্ছে নিয়মের বাই-প্রোডাক্ট

লিখেছেন  কৌশিক, ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৪ রাত ৮:৫৯

কোনো কাজ না থাকার স্টেট টা ভাবতাম বেশ উত্তেজনাকর হবে। কিন্তু এখন দেখছি পেইনফুল। সময়ের দীর্ঘতা ক্লান্তিকর। এরচেয়ে হুটহাট করে সময় চলে গেলে - সময় না পাওয়া গেলে - ভাবনা জমতে পারে না। জমে জমে জটিল অনুভূতি তৈরী করে ফেলতে পারতো না।

জটিল অনুভূতির সাইড-ইফেক্ট অনেক। আপ-ইফেক্টও। অনিয়ম সম্ভবত নিয়মের... বাকিটুকু পড়ুন

৭ টি মন্তব্য      ৬১ বার পঠিত     like!

তুমি বাস করো কয়েকটা তুমির যৌথমানুষে

লিখেছেন  কৌশিক, ১৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৪ রাত ১২:০৬

তোমাকে আমার বলা হয় নি। এ-যাবত যা যা বলা হয়েছে সেসব ভুলকথা। বলতে চাইনি। শকুন-মুখী বাসের ভেতর সিদ্ধ হতে থাকি যাপিত-জ্যাম-বেলায়। এর ভেতরে মাথার ভেতরে খই ফুটবে - গভীরতার ফুল্কিতে একটু বেমানান ভাবা বৈকি।

আমি যা বলতে চাই - তা পারি নি। অবশ্য এজন্য আশায় নাই - আশায় বসবাসও করি... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৪৬ বার পঠিত     like!

মাঝে মাঝে বা প্রায় প্রায় বা অলওয়েজ

লিখেছেন  কৌশিক, ১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৪ দুপুর ১২:৩৩

ক্ষুদ্র কিছু অতীব ক্ষুদ্র কিন্তু তার কিছু একটা আছে বিশালতা মুহূর্তের জন্য হিপনোটাইজ করে ফেলে। তখন আর কিছু দেখি না।



এমন ঘোরে ফেলা কয়েকটা মুহূর্ত দীর্ঘতর হতে থাকে - সময়ের ডাইমেনশন অস্বীকার করে।



তেমন কিছু মুহূর্তের মধ্যে জন্ম নেয়া স্বপ্ন অসম্ভব অপেক্ষার জন্ম দেয়। দীর্ঘ হতে থাকে বেঁচে থাকা। মনে... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ২৪ বার পঠিত     like!

যে অনুভূতির ভাষা হয় না

লিখেছেন  কৌশিক, ১৭ ই ডিসেম্বর, ২০১৪ দুপুর ২:২৫

কোনও এক প্রকাশ ধরণে না যাওয়া পর্যন্ত অনুভূতি নিজেই অনুভূতিহীন বা না-অনুভূতি। ইদানিং আমার এই না-অনুভূতি হচ্ছে বলে একে দেহ দেবার ষড়যন্ত্র করেছি।

বন্ধু-বিহীন আছি বলা যায় প্রায়। একসময়ে বন্ধুত্ব হয়। তারপরে আরো বন্ধু। তারপরে আর বন্ধু হয় না। পরের বন্ধুদের আরো পরিচয থাকে - কেউ সহকর্মী, কেউ সহমর্মী, কেউ... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৬৮ বার পঠিত     like!

অসমিয়া - একটু যেনো স্কোপ আমাদের নিজেদের দেখার

লিখেছেন  কৌশিক, ১৪ ই ডিসেম্বর, ২০১৪ সকাল ১১:৪৩

আসাম ঠিক একটু উত্তরে গেলেই। এত কাছে। ভাষাও কত পরিচিত। অথচ ভিন্ন জাতি। বাংলা ও অসমিয়া ভিন্ন মনে করে নিজেদের।

পাপন নামে তাদের একজন গায়ক আছে। সুর করে। কথাগুলো প্রায় বোঝা যায়। অসমিয়ায়। শুনতে বেশ লাগে। একটু বেশী-ই ভালো।

আমার মাঝেমাঝে আসাম যেতে ইচ্ছে করে। প্রায় আমাদের মত কিন্তু আমরা... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪৩ বার পঠিত     like!

বিবাহের বয়স কমিয়ে বাল্যবিবাহ বৃদ্ধির চেষ্টার প্রতিবাদে মানব বন্ধনে যোগ দেবার আহবান

লিখেছেন  কৌশিক, ১৪ ই অক্টোবর, ২০১৪ দুপুর ২:৩০

বাংলাদেশে বিবাহের বয়স সেই ১৯২৯ সাল থেকে আইনগত ভাবে এক নিয়মে চলতেছে। ছেলেদের জন্য ২১, মেয়েদের জন্য ১৮। প্রায় শতাব্দী পুরানো এই নিয়ম সামাজিকভাবে প্রতিষ্ঠিত - মোটামুটি সবাই জানে যে মেয়েদের বিবাহ ১৮ বছরের কমে দেয়া যায় না। তারপরেও মানুষ বিয়া দেয়, বেশী বয়স দেখায়া। নিয়মটা পুরাপুরি ফলো না করলেও... বাকিটুকু পড়ুন

৫৮ টি মন্তব্য      ৮৭১ বার পঠিত     like!

আমার জুতা কিনে ফেলা উচিত কিনা সে বিষয়ে একটা টকশো হতে পারে

লিখেছেন  কৌশিক, ১৩ ই অক্টোবর, ২০১৪ সকাল ১১:৫৭

আমার জুতা নাই। বিষয়টা নিয়ে আমি পেরেশান। কাউকে মারার জন্য না, নিজের পাকে অভিজাত-পূর্ণভাবে মুড়িয়ে রাখার জন্য। বিশেষ করে যখন সুন্দর পোশাক পরা মানুষের কাছে যাই তখন। জুতা যে নাই একেবারে তা না, কিন্তু সে জুতা জুতা না। ছেড়া জুতা এবং আরেকটা কেডস। কেডস পরে তো আলোতে যাওয়া যায় না... বাকিটুকু পড়ুন

১২ টি মন্তব্য      ১৯৯ বার পঠিত     like!

(নদী সেলফি - ৩)

লিখেছেন  কৌশিক, ১১ ই আগস্ট, ২০১৪ সকাল ১০:১১

তোমাকে দেখলেই নদী হয়ে যাই। উৎসের কাছে যেমন শান্ত, দূরে গেলে ততটাই অশান্ত। আরো দূরে গেলে সমুদ্র। উত্তাল। আরো দূরে মহাসমুদ্র। মহাপ্রলয়ের মত অশান্ত। ঠিক যেখানে উড়োজাহাজ হারিয়ে যায়। ফেরার পথ থাকে না। সকল রহস্য নিয়ে ডুবে যায় অবশেষে।



তারপরেও নদী বলেই বেঞ্চি লাগোয়া কাশবনে ডুবে থাকতে পারি। নুয়ে পড়ে উঠতে... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৭২ বার পঠিত     like!

(নদী সেলফি - ২)

লিখেছেন  কৌশিক, ০৮ ই আগস্ট, ২০১৪ সন্ধ্যা ৭:০৫

ঐ নদীর একটা নাম আছে। ধরো তার নাম দিলাম যে নামে তুমি ডাকো তাই। যে নাম নথিভুক্ত হয় অন্যদের আইডিতে, এ নাম তার অন্তর্কাঠামো পরিচয়ের, তাই পৃথক। সবার দরকার হয় না বলে তারা ছেড়ে গেছে আর তুমি ফিরে আসো বারবার মহীয়সীর পাড়েই, যে নামে সে সাড়া দেয় কেবল তোমার আলোড়নে।



নদীর... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৪৪ বার পঠিত     like!

(নদী সেলফি -১)

লিখেছেন  কৌশিক, ০৭ ই আগস্ট, ২০১৪ সকাল ৯:১৫

একটা নদী নেমে গেলো নদীতে। যার মুখরিত সেলফি হতে এখনও গড়িয়ে নামছে জোয়ার। বয়স্ক প্লানটেশন সারি সারি হিমেলিমার ভেতরে ছাদ বানিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। এমন বিষণ্ণতার গর্ব নিয়ে আমাদের চার চারটি পা থেমে থাকে। আমরা ইচ্ছে করলে নদীতে নামতে পারি, ওপাড়ের দিনগুলোতে রাত নামাতে পারি।



তোমার যদি যাবার দিব্যি থাকে এই তড়িঘড়ি... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪২ বার পঠিত     like!

স্যাম্পল-৪

লিখেছেন  কৌশিক, ০৬ ই আগস্ট, ২০১৪ সকাল ৯:১৯

সমুদ্র ও নদীর চিত্রল চ্যালেঞ্জ থেকে অসমাপ্ত কাব্য ঠিক উপকূলে বসে আছে। উভয়ের একই উপকূল। তীর ধরে হাঁটতে থাকলে একটা পোতাশ্রয়। গলুই বন্দী ঝুম বৃষ্টি। এসবে তোমার ঠোঁট ফুলে ওঠা তীব্রতার মাদল। একটা আরণ্যককাল পেড়িয়ে আবার একটু বেসামাল হবে কি? প্রতি মৃত্যুর জন্য বিকবে একটা সন্ধ্যা অথবা সূর্য-পূর্ব সকাল।



আমি... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৬১ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৯১৫৯৯৪ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ