somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

বিপদজনক ব্লগ

আমার পরিসংখ্যান

 কৌশিক
quote icon
নিদারুণ প্রহসনের দিনগুলি
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

যদি তুমুল সতর্ক সংকেত হয়, দৌড়ে উঠবো পাহাড়ে!

লিখেছেন কৌশিক, ০২ রা জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১১:০৯

টেকনাফ থেকে মেরিন ড্রাইভ ধরে আমরা যখন ইনানীর দিকে আসছিলাম...পথে পড়লো গর্জন গাছের বাগান। আকাশা ছোঁয়া সরল গাছগুলি সাদাটে রঙের। একটু ফাকা ফাকা, আর আকাশের দিকে উহাদের পাতার ছাদ। বাগানের পরেই রাস্তা, তারপরে খোলা মাঠ, তারপরে মেরিন ড্রাইভ, অতপর সৈকত। দুই রাস্তার মাঝখানে আমার একটা বাড়ি করার ইচ্ছা হয়েছে।

কত দাম... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৯১ বার পঠিত     like!

২০১৮ সাল পুরোপুরি পাল্টে ফেলুক আমাদের, পাল্টে ফেলুক প্রয়োজনে

লিখেছেন কৌশিক, ০১ লা জানুয়ারি, ২০১৮ দুপুর ১২:০৯

গনতন্ত্র কতটা আছে দেশে এটা বোঝা যায় জনগণ কতটা গনতন্ত্র বোঝে তার উপর। জনগণতন্ত্র চলছে দেশে নি:সন্দেহে। ২০১৮ সালে আমি কেবল তার মানটা উন্নত দেখতে চাই। জনগণ আরো বেশী গনতান্ত্রিক হোক সেটা প্রত্যাশা।

গনতন্ত্রের রূপ উন্নত হবার উপরে নির্ভর করে আসলে ক্ষমতাসীনরা কতটা গণবান্ধব থাকবেন। জনগণের জন্য অপকার করা স্বাভাবিক... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৯০ বার পঠিত     like!

গ্রামীণ পটভূমি চিত্রায়নে একটা গুরুতর বিসদৃশ আছে গহীন বালুচরে

লিখেছেন কৌশিক, ৩১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১:৪২

সিনেমা অবশ্যই দর্শকদের পছন্দ মাথায় রেখে বানানো হয়। পরিচালকের ধারণায় দর্শকের অনেক প্রকরণ থাকে। তাদের মনোজয় করার চেষ্টা থাকে। ছবিটাকে চালাতে হবে, বাণিজ্যও করতে দিতে হবে। সংখ্যাগরিষ্ঠেরা মোটা-দাগে ভালোলাগার উপকরণ খুঁজবে। কিছু দর্শক শিল্প সমালোচক - তাদের মনোতুষ্টির জন্য কিছু উপাদান রাখতে হবে। কিছু দর্শক রাজনৈতিক - তাদেরও মনের... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ১৩৯ বার পঠিত     like!

আমার অর্ধেক রক্ত চর থেকে আগত: গহীন বালুচর

লিখেছেন কৌশিক, ২৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:৫৪
১ টি মন্তব্য      ৭০ বার পঠিত     like!

চোখের সামনে তারা চোখের আঙুল তারা

লিখেছেন কৌশিক, ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:০০

গৃহহীনদের নিয়ে Nuno Rocha নামে একজন পর্তুগীজ পরিচালকের বানানো ছোট্ট একটা মুভি দেখে প্রচণ্ড আলোড়িত সকাল থেকে। মুহূর্তের মধ্যে আবেগের বড়ধরণের পরিবর্তন ঘটানোর মত ক্ষমতা এই ৭ মিনিটের ভিডিওটার মধ্যে আছে।

আমাদের শহরে বৃদ্ধ ও শিশুদের ফুটপথে ঘুমাতে দেখতে দেখতে আমরা অভ্যস্ত হয়ে গেছি। ব্যক্তিগত ও জাতিয় আবেগে তারা দু:খ তৈরী... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ১০৯ বার পঠিত     like!

ভাবতে ভালো লাগছে যে আমাদের নিজেদের একটা দিবস আছে

লিখেছেন কৌশিক, ১৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৫১

একসময়ে বাংলা ব্লগ দিবস থাকবে একটা এই দেশে এটা আসলে আমি কখনই কল্পনা করি নি। এমনিতেই অ্যাডভান্স কল্পনা করার একটা বাতিক আছে প্রত্যেকটা মানুষের কিন্তু তাই বলে এটা অত সহজ কল্পনাও মনে হয়নি। কিন্তু পৃথিবীতে কল্পকাহিনীর চেয়ে দ্রুত অনেক কিছু ঘটে যায় কখনও। যেমন আগামী এক দশকের মধ্যে রোবোট পথচারীদের... বাকিটুকু পড়ুন

১০ টি মন্তব্য      ৯৪ বার পঠিত     like!

প্রকৃতিতে ধ্বংস বলতে কিছু নাই

লিখেছেন কৌশিক, ০১ লা মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:২৭

ঘাস হলে ভালো হতো। প্রাণীর প্রাণ আমার না থাকলে ভালো হতো। অথবা ঘাস না হয়ে মাটি হলে ভালো হতো। বা পাথর। মাটি-পাথর হাজার হাজার বছর বেঁচে থাকতে পারে। আমরা মরে গিয়ে যা হবো! মাটিদের আলাদা করলেও মাটি। কিছু মাটি বিচ্ছিন্ন হলেও মাটিরা সম্পূর্ণ থাকে, কমে না তাদের কিছুই। অথচ আমাদের... বাকিটুকু পড়ুন

৭ টি মন্তব্য      ১৫৩ বার পঠিত     like!

অপরিকল্পিত অবকাঠামো গড়ে তোলার 'উন্নয়ন'কে আত্মহত্যা বলতে হবে

লিখেছেন কৌশিক, ২৯ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ দুপুর ১২:৪৭

অস্বস্তিকর একটা বাতাস ঘিরে ধরেছে ঢাকাকে। দিল্লীর মত হয়তো ভয়াবহ নয়, কিন্তু একদিন হয়তো ছাড়িয়ে যাবে দিল্লীকেও। আমার দম বন্ধ হয়ে আসে। দেহের ভেতরে প্রতিদিন লক্ষবার এই অস্বস্তিকর বাতাস ঢোকে। কোনো নিস্তার নাই। ঢাকায় থাকতে হলে এই বাতাসের আঘাত সহ্য করতে হবে। বাতাস পণ্ডিতেরা বলে কোনো ক্ষতিকর কেমিকেলের অস্তিত্বের কথা।... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ১১১ বার পঠিত     like!

তিন নম্বর হাত

লিখেছেন কৌশিক, ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ দুপুর ১২:২০

পরে আমি এটা মেনে নিয়েছিলাম। প্রশ্ন শুনে কোনো বিকার হতো না। শারীরিক রক্ষণশীলতা তো ছিলোই। প্রতিক্রিয়াহীন থাকতে পারতাম। তবে আমার তিন নম্বর হাত দেখে মানুষের বিস্মিত হওয়া উপভোগও করতাম। তাদের মন্তব্যগুলো মজার হতো। খুব কম সেখানে ভীতি থাকতো, তবে তিয়শা ছাড়া। মাঝবয়সেও তার কিশোরীর মত আঁতকে ওঠা মানিয়ে গেছিলো, বয়সও... বাকিটুকু পড়ুন

৫ টি মন্তব্য      ২৪৪ বার পঠিত     like!

তারা মাটির মানুষ...আর আমরা সিমেন্টের

লিখেছেন কৌশিক, ৩১ শে ডিসেম্বর, ২০১৫ দুপুর ১:২০

একজন কৃষকের বাড়িতে গেলাম। ভাত খেলাম। মুরগী দিয়ে। বেগুন আর চাপিলা মাছ ভাজি। একটা ঘর কাম বেড রুম কাম ড্রয়িং রুম কাম ডাইনিং রুমের ভেতরে বিশাল একটা তক্তাপোষের সাইডে থাকা টেবিলে প্লেট রেখে। চেয়ারে বসে। কৃষক খেলো মাটির ফ্লোরে ফ্রি'তে। নিজের পুকুরের মাছ, নিজের ক্ষেতের চাল আর সবজি খাওয়ালো কৃষক।... বাকিটুকু পড়ুন

৩৫ টি মন্তব্য      ৫৭৩ বার পঠিত     ১২ like!

এভারেস্ট দেখতে চাই

লিখেছেন কৌশিক, ২৫ শে নভেম্বর, ২০১৫ বিকাল ৫:৩৩

এভারেস্টকে দেখে আমার আনন্দ হয় শুধু, ভয় হয় না। সরাসরি পাহাড়টার নিচে দাঁড়িয়ে দেখি নি বলেই বোধহয়। তবে কাঠমান্ডু থেকেও দেখি নি। অথচ আমি জানতাম কাঠমান্ডু থেকে এভারেস্ট দেখা যায়। কি ভুল জানতাম! কাঠমান্ডু নামার পরেও আমার ভুল ভাঙেনি। হোটেলে যাবার পথটুকুতে গাড়ি থেকে অতিদূরে অণুবীক্ষণী দৃষ্টি ছুড়েও আমি এভারেস্টের... বাকিটুকু পড়ুন

১৩ টি মন্তব্য      ২৮২ বার পঠিত     like!

মহিষ প্রিয় গাইড - জানি না দেহের রঙ

লিখেছেন কৌশিক, ২০ শে নভেম্বর, ২০১৫ রাত ১০:২৮

তুমি ছাড়া কখনও একটা দিন ভাবিনি। এটাকে ভালোবাসা বলে না, বলে জীবন। জীবনের জন্য তুমি, কিন্তু আর সব কিছুর জন্য না। ওসবে আছে বাজেট, আছে সায়েন্স। সংবিধান। আদর্শ - উত্তরের সাথে দক্ষিণের সংঘাত। কিন্তু তোমার বেলায় সব নিয়ম-ভাঙা-যাপন।

তুমি ছাড়া মূলত তীব্র জঙ্গিপনা নেই, হারাবার জন্য ন্যুনতম পিছুবোধ নেই। নাটক... বাকিটুকু পড়ুন

৯ টি মন্তব্য      ৭৫ বার পঠিত     like!

হ্যালো বাংলাদেশ, হাউ আর ইউ?

লিখেছেন কৌশিক, ১৯ শে নভেম্বর, ২০১৫ বিকাল ৪:১২

বাংলাদেশের সাথে অনেকদিন কোনো কথা হয় না। আড়ি। আগে ফোনে মাঝেমাঝে কথা হতো। কিন্তু এখন তাও হয় না। এর আগে চ্যাটিং করতাম প্রচুর। কত বিষয় নিয়ে আলাপ হতো। আলাপের পরে প্রলাপ হতো। তারপরে দুজন ঘুরতে বের হতাম। ঢাকা শহরে উন্মুক্ত প্রান্তর বলে যে বিখ্যাত জায়গাটি আছে সেখানে যেতাম। বাদাম খেতে... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ১১০ বার পঠিত     like!

ফেসবুকের উপরে চাপ কমান, বেশী বেশী ব্লগিং খান

লিখেছেন কৌশিক, ১৯ শে নভেম্বর, ২০১৫ রাত ১২:৩৬

আলুর উৎপাদন এতই হয়েছে যে দাম কমতে কমতে শূন্য প্রায়। অথচ চালের দাম আকাশ ছোঁয়া। একটা রাজনৈতিক দলতো ঘোষণা করে বসলো তারা ক্ষমতায় আসলে প্রতি কেজি চালের দাম করবে দশ টাকা। তখন ছিলো তত্ত্বাবধায়ক সরকার। ২০০৭ এর জানুয়ারির কোনো একদিন সেই তত্ত্বাবধায়ক সরকার আসলো ক্ষমতায়। যেদিন আসলো সেদিন বেশ ঢাক-ঢোল... বাকিটুকু পড়ুন

২৭ টি মন্তব্য      ৫৮০ বার পঠিত     like!

সু-পালিশ করতে করতে দেখতে থাকি কন্যার ছোট জুতা বড় হয়ে যায় দিনেদিন

লিখেছেন কৌশিক, ০২ রা আগস্ট, ২০১৫ সকাল ১১:০২

সকাল বেলা মেয়ের সু পালিস করা আমার অন্যতম একটা প্রিয় কাজ। পালিশ করার আগে ছোট্ট দুটি কালো জুতো দেখে আমি বুঝতে পারি মেয়েটা আগের দিন স্কুলে কতটুকু খেলেছে। স্কুল গ্রাউন্ডের কোন অংশে গিয়েছে - কোন রাইডে চড়েছে, ইত্যাদি। জুতায় লেগে থাকা ময়লা অথবা কাদার পরিমাণ বলে দেয় তার স্কুল টাইম... বাকিটুকু পড়ুন

২২ টি মন্তব্য      ৫২৭ বার পঠিত     ১৫ like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৯৫৪৫৭৬ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ