somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

পোস্টটি যিনি লিখেছেন

নূর মোহাম্মদ নূরু
নূর মোহাম্মদ নূরু (পেশাঃ সংবাদ কর্মী), জন্ম ২৯ সেপ্টেম্বর প্রাচ্যের ভেনিস খ্যাত বরিশালের (বরিশাল স্টীমারঘাটের সৌন্দর্য্য দেখে বিমোহিত হয়েছিলেন বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম। বলেছিলেন, বরিশাল হচ্ছে প্রাচ্যের ভেনিস) উজিরপুর ধানাধীন সাতলা গ্রামে। পিতা প্রাইম

সত্তর ও আশির দশকের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীর ৫ম মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:১৭
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


বাংলাদেশের আধুনিক গানের অন্যতম শিল্পী, সংগীত পরিচালক এবং সুরকার মোহাম্মদ আলী। গারো সম্প্রদায় থেকে উঠে আসা একজন জনপ্রিয় কণ্ঠ শিল্পী যিনি কোন এক মুসলিম মেয়েকে বিয়ে করে নিজেও মুসলিম ধর্মে দীক্ষা নিয়েছিলেন। নিজস্ব গায়কী স্টাইল দিয়ে সাদাকালো যুগের বাংলা ফিল্মে অসংখ্য জনপ্রিয় গান গেয়ে শ্রোতাদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছিলেন।আজ, এখনো টিভিতে যখন সেসব পুরানো বাংলা ছবি প্রচার করা হয় তখন কোন না কোন ছবিতে রাজ্জাক, উজ্বল, কিংবা আলমগীরের লিপসিং এ বেজে উঠে শিল্পীর গাওয়া অমর গানগুলো। কণ্ঠশিল্পী মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীর আজ ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০১৪ সালের আজকের দিনে ঢাকার নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেন। কণ্ঠশিল্পী মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীর মৃত্যুবার্ষিকীতে আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি।


বাংলাদেশের আধুনিক গানের অন্যতম কণ্ঠ শিল্পী মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী ১৯৪৪ সালের ২রা ফেব্রুয়ারি নেত্রকোণা জেলায় জন্মগ্রণ করেন। ১৯৭৩ সালের ২৮শে মার্চ সুরাইয়া সিদ্দিকীর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। ষাট, সত্তর ও আশির দশকে চলচ্চিত্র, রেডিও এবং টেলিভিশনে গান গাইতেন মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী। ১৯৬০ সাল থেকে তিনি রেডিও আর চলচ্চিত্রে গান গাইতে শুরু করেন। ২০৬টি চলচ্চিত্রে তার গান শোনা গেছে। গানের সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৩ হাজার। বাংলা গানের পাশাপাশি উর্দু গানও করেছেন তিনি। শিল্পীর গাওয়া অসংখ্য গানের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু গান হলঃ
১। জানতাম যদি শুভংকরের ফাকি, ২। শ্যামলা মেয়ের ডাগর চোখে কি মায়া লুকানো, ৩। হেসে খেলে জীবনটা যদি চলে যায়, ৪।
আমি কতদিন কত রাত ভেবেছি, ৫। আমি এক দুরন্ত যাযাবর, ৬। একটি ছোট্ট আশা একটি ভালবাসা, ৭। আজ নয় কাল,কাল নয় পরশু. ৮। কে তুমি এলে মোর এই জীবন, ৯। ঐ দুর দুর দুরান্তে নীল নীলান্তে, ১০। জীবনটা হয় যদি এমনি সুন্দর, ১১। তোমার চিঠি পেলাম আমি,তোমার ছোয়া পেলাম, ১২। দুনিয়ার হাল দেখে হয়ে গেছি বেসামাল, ১৩। এই মেঘলা বরন কন্যা চলে, ১৪। এই শহরে আমি যে এক নতুন ফেরীওয়ালা, ১৫। শোন গো রুপসী ললনা,আমাকে যখন তখন, ১৬। দেখ দেখ গ্রামবাসী পাড়া প্রতিবেশী, ১৭। লেখাপড়া করে যে গাড়িঘোড়া চড়ে সে, ১৮। আমি এক মাস্তানা, আমার নেই ঠিকানা, ১৯। হৈ হৈ রঙিলা ,রঙিলারে ইত্যাদি।
সংগীত জীবনে জাতীয় পুরষ্কার ছাড়াও অসংখ্য পুরষ্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হন তিনি। এসবের মধ্যে রয়েছে দীনেশ পদক, বন্ধন লাইফটাইম এ্যাচিভমেন্ট, শিল্পকলা একাডেমি থেকে সংগীত ও নাট্যকলা পুরষ্কার প্রভৃতি।


বরেণ্য কণ্ঠশিল্পী মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী সিদ্দিকী ২০১৪ সালের ৪ নভেম্বর'১৪ রোজ মঙ্গলবার সকাল ৯টায় ঢাকার নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেন। তার শারিরীক সমস্যার কারণে একই বছরের ২০ অক্টোবর রাতে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়েছিল। তার স্ত্রী সুরাইয়া সিদ্দিকী জানান, তিন বছর আগে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পাশাপাশি মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত সমস্যায় ভুগেছিলেন । এ ছাড়াও তার ডায়াবেটিকস আর কিডনিজনিত রোগও ছিল। কয়েকদিন ধরেই স্বাভাবিক খাবার খেতে পারছিলেন না তিনি। এ কারণে রক্তের শর্করা নিচের দিকে নেমে যাওয়ায় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় ৪ নভেম্বর সকাল ৯টায় ল্যাবএইড হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী সুরাইয়া সিদ্দিকী, তিন মেয়ে এ্যানী সিাদ্দকী, রেনি সিদ্দিকী এবং গিনি সিদ্দিকী এবং অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ তার ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী। জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীর মৃত্যুবার্ষিকীতে আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি।

নূর মোহাম্মদ নূরু
গণমাধ্যমকর্মী
[email protected]
সর্বশেষ এডিট : ০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:১৭
৩টি মন্তব্য ২টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

আমার স্বপ্ন

লিখেছেন রাজীব নুর, ২১ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৩৪




১। সোমাবার রাতের ঘটনা।
রাত ১১ টায় বিছানায় গেলাম। ঠিক করলাম আজ ঘুম না এলেও চোখ বন্ধ করে পড়ে থাকব। ঘুমের দরকার আছে- সুন্দর এবং সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য।... ...বাকিটুকু পড়ুন

গ্রামটির নাম ঢাকুয়া

লিখেছেন রমিত, ২১ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:০২

গ্রামটির নাম ঢাকুয়া
------------------- রমিত আজাদ



ঢাকা থেকে অনেক দূরে, গ্রামটির নাম ঢাকুয়া।
সবুজ ছায়ার মায়ার দেশে প্রাণ ভরেছে আকুয়া।
মশগুল তায় টিয়া পাখী, রঙ ছড়াতে আশমানে,
তেপান্তরের মাঠ ছাপিয়ে ফিঙে নাচে গুলশানে!
ফুলবনে... ...বাকিটুকু পড়ুন

আসসালামু আলাইকুম। কারও বিরক্তি উদ্রেক করলে ক্ষমা প্রার্থী

লিখেছেন শের শায়রী, ২১ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:০৫



ম্যায় আপনে ঘর মে হী আজনবী হো গয়্যা হু আকর
মুঝে ইয়া দেখকর, মেরি রুহ ডর গয়্যি হ্যায়
সহমকে সব আরজু কোনে মে যা ছুপী হ্যায়
লবে বুঝা দি আপনে চেহেরো কি হসরতোনে
কি... ...বাকিটুকু পড়ুন

শ্রাউড অভ তুরিন অথবা যীশুর কাফন (প্রথম পর্ব)

লিখেছেন শের শায়রী, ২১ শে নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৫৩



সন্ধ্যা তখন ঘনিয়ে এসেছে, সেদিন ছিল প্রস্ততির দিন অর্থ্যাৎ সাব্বাথের দিনের আগের দিন। সে জন্য আরিম্যাথিয়া নিবাসী জোসেফ সেখানে এলেন। ইনি ছিলেন ধর্ম সভার একজন সন্মানিত সদস্য। তিনি ঐশী... ...বাকিটুকু পড়ুন

ব্লগ ডে- ২০১৯

লিখেছেন শায়মা, ২২ শে নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:০৮


"ব্লগ ডে" এ দু'টি শব্দ মনে পড়লে আমার চোখে ভাসে কৌশিকভাইয়ার অসাধারণ কন্ঠে উপস্থাপনার ছবিটি। চোখে ভাসে জানা আপুর ছিপছিপে শাড়ি পরা চেহারাটা। চোখে ভাসে প্রায় তুষার কন্যা টাইপ ধপধপে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×