somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

বিসিএস পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষায় বসতে না পারার কষ্টটা সমালোচনার কোন বিষয়বস্তু নয়

২৭ শে এপ্রিল, ২০২৪ সন্ধ্যা ৭:৩৬
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :

গতকালের একটি ভাইরাল খবর হচ্ছে কয়েক মিনিটের জন্য বিসিএস পরীক্ষা দেয়া হলো না ২০ প্রার্থীর !! অনেক প্রার্থীর কান্নাকাটির ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।এ বিষয়ে পিএসসি চেয়ারম্যান এর নিয়ামানুবর্তিতার জ্ঞান বিতরনের বহর দেখে অবাক হইনি । দয়ামায়াবীহিন অযোগ্য লোকেরাই এখন সর্বত্র চেয়ার দখল করে বসে আছে। সাধারন মানুষের মাঝ থেকেও দয়া মায়া নামক জিনিষটা ধীরে ধিরে উবে যাচ্ছে। ফেসবুক/ ব্লগে কান্নাকাটি করা প্রার্থীদের ব্যপক সমালোচনা করা হচ্ছে । এমনকি তাদের নিয়ে তামাশা করা কিছু পোস্ট , কমেন্টও দেখলাম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে।

বিসিএস পরীক্ষার প্রিপারেসন যে, কি জিনিষ তা নিজ চোখে দেখেছি আমার স্টুডেন্ট লাইফে। আমার সহপাঠীদের অনেকেই বিসিএস পাশ করে বিভিন্ন ক্যডারে চাকুরি করছে। তাদেরকে দেখেছি বিসিএস এর প্রিপারেশন নেয়া শুরু করেছিল ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হওয়া মাত্রই। ফার্স্ট ইয়ারেই এক সহপাঠীর হাতে বিসিএস গাইড দেখে চমকে গিয়েছিলাম। সে জানায় যে '' এখন থেকেই প্রিপারেশন নেয়া শুরু না করলে মাস্টার্সের পর খুব বেশি সময় হাতে থাকে না ''!! ইউনির কঠিন পড়াশোনার পাশাপাশি তাদের চাকুরির পরীক্ষার প্রস্তুতি নেয়া দেখেই বুঝে গিয়েছিলাম যে, এই পরীক্ষায় বসা আমার কম্ম নয়!!

দিন রাত এক করে প্রস্তুতি নেয় সরকারী চাকুরি প্রত্যাসী এই পরীক্ষার্থীরা। সরকারী চাকুরি মানেই একটা ধারনা আমাদের মনে পোক্ত হয়ে গেছে যে, এরা সবাই ঘুসখোর। এতটা জেনারেলাইজ না করে নিজের চারপাশে তাকালে টের পাবেন যে, সব সরকারী কর্মকর্তাই ঘুসখোর নয়। সবাই বিবেক , সততা টাকার কাছে বিক্রি করে দেয়নি। ঘুসখোর তারাই যাদের রাজনৈতিক উচ্চমহলের সাথে যোগাযোগ আছে। নেটওয়ার্কের আওতায় না থাকলে ঘুস খাওয়া এত সহজও নয়। এ কারনেই গনহারে সব সরকারী অফিসারদেই এক কাতারে ফেলে দেয়া কোন অবস্থাতেই সমীচিন নয়।

মাত্র কয়েক মিনিট লেট হবার কারনে পরীক্ষার্থীদের হলে ঢুকতে না দেয়াটা অমানবিকতার উদাহরন। যে দেশে আছি সেখানে বিসিএস পরীক্ষা বলে কিছু নাই। সরকারী চাকুরি ও প্রাইভেট চাকুরির মাঝে পার্থক্য বিশেষ নেই। সরকারী বা প্রাইভেট চাকুরি পেতে হয় এপ্লাই করে ইন্টারভিউ এর মাধ্যমে।এখানে বোর্ড এক্সাম মুলত ও/ এ লেভেল পরীক্ষা। কোন কারনে কেউ যদি লেট হয় তবে সে ক্ষেত্রে কি ধরনের নিয়ম এখানে রয়েছে তা নীচে দেখুন -

What happens if you are late for Olevel exam?
What should you do? Don't panic because even if you are late, you are still allowed to take the exam. Call your school immediately and cab down. You can also head down to the nearest designated secondary school and take your exam there instead! প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি যে, সিঙ্গাপুর একটি ট্রাফিক জ্যাম মুক্ত শহর। গাড়ী, ট্যক্সি , বাস বা ট্রেন যেটাতেই চরুন, তা আপনাকে ঠিক সময়ে পৌছে দেবে কাংখিত গন্তব্যে। তারপরেও আমরা সবাই মানুষ। কঠিন ডিসিপ্লনের মাঝে থাকলেও মাঝে মাঝে ভুল ভ্রান্তি হতেই পারে । তার মানে এই নয় যে , নিয়ামানুবর্তিতার জ্ঞানের অভাব!!

মানুষের প্রতি যদি মানুষের সহমর্মিতা না থাকে, তবে কি আমাদের মানুষ বলা যায়? দরিদ্র এই দেশে পরিবারের একজনের স্থায়ী একটি চাকুরি মানে পুরো পরিবারের চেহারা পালটে যাওয়া। কঠিন জীবন সংগ্রামে লিপ্ত বিসিএস পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষায় বসতে না পারার কষ্টটা তাই সমালোচনার কোন বিষয়বস্তু নয়।






সর্বশেষ এডিট : ২৮ শে এপ্রিল, ২০২৪ দুপুর ২:৩৫
৮টি মন্তব্য ৮টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

আজকের ব্লগার ভাবনা: ব্লগ জমছেনা কেন? এর পেছনে কারণ গুলো কি কি? ব্লগাররা কি ভাবছেন।

লিখেছেন লেখার খাতা, ১৩ ই জুন, ২০২৪ রাত ৮:৩৫


সুপ্রিয় ব্লগারবৃন্দ,
আম পাকা বৈশাখে বৈশাখী শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি। কাঠফাটা রোদ্দুরে তপ্ত বাতাস যেমন জনপ্রাণে একটু স্বস্তির সঞ্চার করে, ঠিক তেমনি প্রাণহীন ব্লগ জমে উঠলে অপার আনন্দ... ...বাকিটুকু পড়ুন

ঢাকার ২৭ নম্বর সমুদ্রবন্দর থেকে

লিখেছেন অপু তানভীর, ১৩ ই জুন, ২০২৪ রাত ১১:০০

চারটার দিকে বাসায় ফেরার কথা ছিল । তবে বৃষ্টির কারণে ঘন্টা খানেক পরেই রওয়ানা দিতে হল । যদিও তখনও বৃষ্টি বেশ ভালই পড়ছিল । আমি অন্য দিন ব্যাগে করে রেইনকোন... ...বাকিটুকু পড়ুন

মুক্তিযুদ্ধা কোটা ব্যাবস্থা কাউকে বঞ্চিত করছে না।

লিখেছেন হাসান কালবৈশাখী, ১৪ ই জুন, ২০২৪ রাত ৩:৩২

কোটা ব্যাবস্থা কাউকে বঞ্চিত করছে না।
সকল যোগ্যতা জিপিএ-্র প্রমান দিয়ে, এরপর প্রিলিমিনারি পরীক্ষা, সেকেন্ডারি।
এরপর ভাইবা দিয়ে ৬ লাখ চাকুরি প্রার্থি থেকে বাছাই হয়ে ১০০ জন প্রাথমিক নির্বাচিত।

ধরুন ১০০... ...বাকিটুকু পড়ুন

নিউ জার্সিতে নেমন্তন্ন খেতে গিয়ে পেয়ে গেলাম একজন পুরনো ব্লগারের বই

লিখেছেন খায়রুল আহসান, ১৪ ই জুন, ২০২৪ দুপুর ১২:৩৭

জাকিউল ইসলাম ফারূকী (Zakiul Faruque) ওরফে সাকী আমার দুই ঘনিষ্ঠ বন্ধুর ঘনিষ্ঠ বন্ধু; ডাঃ আনিসুর রহমান, এনডক্রিনোলজিস্ট আর ডাঃ শরীফ হাসান, প্লাস্টিক সার্জন এর। ওরা তিনজনই ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের একই... ...বাকিটুকু পড়ুন

বেনজীর তার মেয়েদের চোখে কীভাবে চোখ রাখে?

লিখেছেন বিচার মানি তালগাছ আমার, ১৪ ই জুন, ২০২৪ বিকাল ৩:০৬


১. আমি সবসময় ভাবি দুর্নীতিবাজ, ঘুষখোর যারা মিডিয়ায় আসার আগ পর্যন্ত পরিবারের কাছে সৎ ব্যক্তি হিসেবে থাকে, কিন্তু যখন সবার কাছে জানাজানি হয়ে যায় তখন তারা কীভাবে তাদের স্ত্রী,... ...বাকিটুকু পড়ুন

×