somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

এই পোস্টটি সরিয়ে ফেলা হয়েছে। বিস্তারিত জানতে পোস্টটির লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন।

আলোচিত ব্লগ

কাজে যোগদান ভুল হচ্ছে, ইউরোপ আমেরিকায় শীপমেন্ট বন্ধ থাকার কথা

লিখেছেন চাঁদগাজী, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:১৭



গত ৪০ বছরে, গার্মেন্টস'এর মালিকরা ও অন্যান্য মধ্যভোগীরা যেই পরিমাণ সম্পদের মালিক হয়েছে, তাতে তাদের কর্মচারীদের বিনা কাজে ২/১ বছর মিনিমাম বেতন দেয়ার ক্ষমতা তারা রাখে। গার্মেন্টস'এর... ...বাকিটুকু পড়ুন

আল্লাহ কেলা?

লিখেছেন মোহাম্মাদ আব্দুলহাক, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৮




মানুষ মারার সব আছে, আহত অথবা অসুস্থ মানুষকে সম্পূর্ণ সুস্থ করার কিচ্ছু নেই। কেন জানেন? আঁতেলরা বলেন, মানুষ মানুষকে মারতে পারে, মানুষ মানুষকে বাঁচাতে পারে ন। জন্ম মৃত্যু মুসলমানদের... ...বাকিটুকু পড়ুন

— করোনার সাথে পথে চলতে চলতে———

লিখেছেন ওমেরা, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২২



সারা পৃথিবী লক-ডাউন হয়ে আছে কভিড- ১৯ করোনা আতংকে। মানুষের প্রতিটা মূহুর্ত কাটছে ভয় আর উৎকন্ঠায়। এই মূহুর্তে সম্ভবত পৃথিবীর একমাত্র ব্যাতিক্রম দেশ,সেই দেশের বাসিন্দা আমি, নাম তার... ...বাকিটুকু পড়ুন

থটস

লিখেছেন জেন রসি, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৪৬





১৮৪৬ সালে মার্কস এবং এঙ্গেলস মিলে “The German Ideology” নামে একটা বইয়ের পান্ডুলিপি লিখেছিলেন। কিন্তু বইটা প্রকাশিত হয় ১৯৩২ সালে। এই বইতে তারা শুধু ভাববাদকেই না ফয়েরবাখের... ...বাকিটুকু পড়ুন

শেখ হাসিনা কমপক্ষে গার্মেন্টস'এর ছুটিটা নিজ হাতে কন্ট্রোল করতে পারতো

লিখেছেন চাঁদগাজী, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৫২



শেখ সাহেব জানতেন যে, উনার মেয়ে বুদ্ধিমতি নন, সেজন্য মেয়েকে রাজনীতিতে আসতে দেননি; কিন্তু রাইফেল জিয়া শেখ হাসিনার জন্য পথ রচনা করে গেছে। কমবুদ্ধিমানরা অনেক সময় খুবই নিবেদিত... ...বাকিটুকু পড়ুন

নির্বাচিত ব্লগ

থটস

লিখেছেন জেন রসি, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:৪৬





১৮৪৬ সালে মার্কস এবং এঙ্গেলস মিলে “The German Ideology” নামে একটা বইয়ের পান্ডুলিপি লিখেছিলেন। কিন্তু বইটা প্রকাশিত হয় ১৯৩২ সালে। এই বইতে তারা শুধু ভাববাদকেই না ফয়েরবাখের বস্তুবাদী দর্শনকেও চ্যালেন্জ করেছিলেন। যাইহোক এই বইয়ে তারা যা বলতে চেয়েছেন তা হচ্ছে,

১. দর্শন এবং চেতনা তা ভাববাদীই হোক বা বস্তুবাদী তা যদি প্রয়োগ করা না যায় এবং সে প্রয়োগ যদি পরিবর্তন না ঘটায় তবে সে দর্শন কিংবা চেতনার কোন মূল্য নেই। অর্থ্যাৎ ফল আসতে হবে।

২. মানুষকে বুঝতে হবে প্রকৃতি, সমাজ, তার কর্ম, তার স্বাধীনতা, পরাধীনতা এবং সবকিছুর সাথে তার যে দ্বান্দ্বিক অবস্থান তার আলোকে। অর্থ্যাৎ... ...বাকিটুকু পড়ুন

অণুগল্প- উড্ডীন

লিখেছেন ফাহমিদা বারী, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১১:১৬


টাইয়ের নট বাঁধতে বাঁধতে কতকিছু মনে পড়ে গেল শ্যামলের!
এতদিন পরে মোমেনের ফোন। কী মনে করে হঠাৎ? দেখাতে চাইছে কত ওপরে উঠেছে? বেশ তো! শ্যামলও দেখাবে ক্লাসের সেকেণ্ড বয় হয়েও সেও কিছু কম ওপরে উঠেনি ওর চেয়ে। ফোনটা এসেছিল গতকাল রাতে। রিসিভ করতেই ওপাশে মোটা গলায় কেউ বলে উঠলো,
‘কী রে... ফার্স্ট বয়কে ভুলে গেছিস একেবারে! একসময় না হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করতি আমার সাথে! চল কাল দেখা করি। হোটেল র‍্যাডিসন...ঠিক এগারোটায়! আসবি?’
না এসে উপায় কী! এ যেন অনেকটা ওপেন চ্যালেঞ্জ!
বেয়ারা তার জন্য নির্ধারিত জায়গা দেখিয়ে দিয়ে তাকিয়ে থাকে মুখের দিকে। শ্যামল বিরক্ত মুখে কফির অর্ডার দেয়। সাড়ে এগারো...বারো...কেউ আসে না। দূর!... ...বাকিটুকু পড়ুন

গল্প - আইডেন্টিটি ক্রাইসিস

লিখেছেন সাজিদ উল হক আবির, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ১০:১২

সাবেরের পরিচিত জন কেউ শুনলে হয়তো বিশ্বাস করবে না, কিন্তু সত্য ঘটনা এই যে - আজকে কোন চাকুরির ইন্টার্ভিউ না থাকা সত্যেও সাবেরকে দেখা যাচ্ছে একটি ব্যস্তসমস্ত প্রাইভেট ব্যাংকের এইচ আর ডিপার্টমেন্টের বাইরের একটি সোফায় বসে থাকতে। তার দৃষ্টি মেঝের দিকে। নিবিড় মনোযোগের সাথে ফ্লোরের টাইলস দেখছে সে। রুমটা এমনই এয়ারকন্ডিশনড যে তার শৈত্যের ধাক্কা সামলাতে না পেরে অফিসের কর্মচারিরা সকলেই তাদের ড্রয়ারে একটা এক্সট্রা সোয়েটার রাখে বারো মাস, এবং অফিসে এসেই সেটা পরে নেয়। নতুবা কাজ করা সম্ভব হয় না। এই শৈত্যের মাঝেও কপাল জুড়ে বিন্দু বিন্দু ঘামের ফোঁটায় সাবেরকে দেখে বোঝা যায় যে সে খানিকটা ভীত, অনেকটাই... ...বাকিটুকু পড়ুন

আমিও ভালোবাসতাম সবুজ—

লিখেছেন নীলসাধু, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:৪৫

কিনে রাখা বইগুলো পড়ে থাকবে টেবিলে
কে উল্টাবে আমার কবিতার খাতা
বড়ই অবহেলায় হয়তো পড়ে থাকবে
আহমেদ ছফা
আবুল হাসান—

গত শীতে লাগানো গাছগুলো এই পৃথিবীর আলো হাওয়ায় বেড়ে উঠবে
জাম জারুল আর কৃষ্ণচূড়ার ঐ চারা
প্রতি বসন্তে হয়তো ঝরে যাবে হলুদ রঙের পাতা
দেখা হবে না আমার।

এই শহরের বিষাক্ত আলো হাওয়ায়
বেশতো বেঁচেই ছিলাম
প্রিয় মানুষের স্পর্শ ছাড়াই ফিরে যেতে হবে অন্য ভুবনে
ভাবিনি! রোদ মেখেছি
এ গলি থেকে সে পাড়া দাপিয়ে বেড়িয়েছি
কতো রঙের খেলা। আজ সব ছেড়ে যাবার সময়ে
এই নগরের জন্যে
মায়া হচ্ছে খুব!

তোমরা যারা রয়ে যাবে
অবারিত সবুজ ধানি জমির গন্ধ মেখে হেঁটে যাবে
তারা সকলে জেনো
আমিও ভালোবাসতাম সবুজ
নদীর কালো জল
আর
প্রেমিকার সলাজ হাসি—

নীলসাধু ...বাকিটুকু পড়ুন

শের

লিখেছেন এ.টি.এম.মোস্তফা কামাল, ০৫ ই এপ্রিল, ২০২০ রাত ৯:০৮


দুই শ' সাতাত্তর


অবুঝের মুখজুড়ে ভেসে ওঠে বুঝদার ভাব।
সেটা দেখে কামালের মুখে হবে হাসির অভাব?

দুই শ' আটাত্তর


পাড়ায় পাড়ায় শত রূপসীর রূপের দ্যোতনা;
তুমি না হারিয়ে গেলে এ খবর জানাই হতো না !
...বাকিটুকু পড়ুন