somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

কিং টাইগার

আমার পরিসংখ্যান

উৎকৃষ্টতম বন্ধু
quote icon
নামের সার্থকতা রক্ষার চেষ্টায় আছি।
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ নিয়তির পথে যাত্রা(পর্ব ১) অক্ষশক্তির সৃষ্টি, স্প্যানিশ গৃহযুদ্ধ এবং অষ্ট্রিয়া দখলের প্রথম পদক্ষেপগুলো।

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৪ বিকাল ৪:৫৮

১মার্চ, ১৮৯৬ সাল।

আদওয়া শহর, ইথিওপিয়া[প্রাচীন আবিসিনিয়া]।



সর্বমোট ১৮০০০ পদাতিক সৈন্য এবং ৫৬টি আর্টলারি পিসে সজ্জিত, জেনারেল ওরেস্তে বারাতিয়েরির(Oreste Baratieri) ইটালিয়ান সেনাবাহিনী রাতের অন্ধকারে আদওয়া শহরের দিকে অগ্রসর হয়। তাদের উদ্দেশ্য, সংখ্যার দিক দিয়ে আধিপত্য বিস্তারকারী কিন্তু যুদ্ধসরঞ্জামের দিক দিয়ে নাজুক অবস্থায় থাকা আবিসিনীয় বাহিনীকে, চিরতরে ধ্বংস করে দেওয়া। যদিও জেনারেল বারিতিয়েরি... বাকিটুকু পড়ুন

৪৪ টি মন্তব্য      ১৪৮০ বার পঠিত     ১১ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(শেষ পর্ব) টার্গেট রাইনল্যান্ড

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ সন্ধ্যা ৭:৪০





****



আখেন, ট্রিয়ার এবং সারব্রুকেন; জার্মানির রাইনল্যান্ডে অবস্থিত তিনটি শহরের নাম। জার্মানির রাইন নদী এই তিন শহর ঘেঁষে প্রবাহিত হয়েছে। জায়গার নাম রাইনল্যান্ড রাখা হয়েছে বিখ্যাত নদী রাইনের নামে। শহরে বসবাসকারী জনসংখ্যার সংখ্যাগরিষ্ঠই হল জার্মান। তাদের দেখলে মনে হয় যে তারা সুখে শান্তিতে বসবাস করছে। নীরবে শান্তিপূর্ণ জীবন যাপন করলেও এই... বাকিটুকু পড়ুন

৬১ টি মন্তব্য      ২৬২০ বার পঠিত     like!

রোয়ান অ্যাটকিনসন এবং তার অনবদ্য স্টেজ পারফরম্যান্স [একটি ভিডিও ব্লগ]

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ০৩ রা জুলাই, ২০১৩ বিকাল ৪:১৯







ইউটিউবে ভিডিও দেখার বেলায় আমি একটি নিয়ম মেনে চলি। তা হল, বিষয়বস্তু নির্বাচন করে সে ভিডিও এবং তার সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য ভিডিওগুলো এক বসায় যতটুকু সম্ভব, দেখে ফেলার চেষ্টা করা। তো গত পরশু বিকেলবেলা কয়েক ঘন্টাব্যাপী ইউটিউব অভিযানের শুরুতেই ভুত চাপল, মিস্টার বিনের এপিসোডগুলো একবার দেখার। মিস্টার বিন কার না... বাকিটুকু পড়ুন

৪২ টি মন্তব্য      ৮২২ বার পঠিত     like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(৯ম পর্ব) জার্মান সমরাস্ত্রীকরণ

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ৩০ শে জুন, ২০১৩ রাত ১:২৬





১৭ই মার্চ ১৯৩৫, রবিবার।



সকালবেলা।



খবরের কাগজ খোলার সাথে সাথে পুরো বিশ্ববাসীর কাছে ধরা পড়ে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। প্রায় প্রতিটি দেশের সংবাদপত্রের প্রথম পাতায় স্থান পায় নিম্মলিখিত এই খবরটি... ... বাকিটুকু পড়ুন

৫৪ টি মন্তব্য      ২৬৯৭ বার পঠিত     ২০ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(অষ্টম পর্ব) "যে সমাজে বই পুড়িয়ে ফেলা হয়, সে সমাজের মানুষগুলোর আগুনে পুড়ে মৃত্যু নিয়তি...

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ২৭ শে মার্চ, ২০১৩ দুপুর ২:২৭



***

সিংহাসন দখল করাটা নিঃসন্দেহে একটা কঠিন কাজ। কিন্তু তা টিকিয়ে রাখাটা আরও কঠিন। এই বাক্য দুটির সত্যতা নিয়ে কারও কোনো সন্দেহ নেই। ইতিহাস ঘাটলে এ সম্পর্কে ভুরি ভুরি প্রমাণ পাওয়া যাবে বৈকি। ১৯৩৩ সালে, হিটলার যখন জার্মানির সিংহাসনে আসীন হন, তিনি ভালো করে জানতেন, এই সিংহাসনটি আঁকড়ে ধরে রাখাটা হবে... বাকিটুকু পড়ুন

৭০ টি মন্তব্য      ১৭১৪ বার পঠিত     ১৬ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(সপ্তম পর্ব) গেস্টাপো(GeStaPo)

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ১৮ ই মার্চ, ২০১৩ সকাল ১০:৩৭





স্বপ্নের থার্ড রাইখ সিরিজের প্রথম পাঁচটি পর্বে আমি হিটলারের চূড়ান্ত ক্ষমতা দখল তথা তার জার্মানির একনায়ক বনে যাওয়ার কাহিনী তুলে ধরেছিলাম। ১৯৩৩ সালে, চ্যান্সেলর হিসেবে হিটলার জার্মানির গদিতে বসেছিলেন। আর ১৯৩৪ সালের অগাস্ট মাসের মধ্যে তিনি জার্মানির অবিসংবাদিত নেতা তথা জার্মানির ফুয়েরার বনে যান। এই দেড় বছর সময়ের মধ্যে, ক্ষমতা... বাকিটুকু পড়ুন

৭৮ টি মন্তব্য      ৩১২৩ বার পঠিত     ১৭ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(ষষ্ঠ পর্ব) The Triumph of the Will(ছবি+মুভি ব্লগ)

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৩ রাত ১১:৩৯





আজ থেকে ৭৯ বছর আগে, লেনি রিফেনস্টাল নামক একজন জার্মান অভিনেত্রী কাম পরিচালক একটি মাস্টারপীস তৈরি করেছিলেন। মাস্টারপীসটি নাম হল "The Triumph of the Will"। নিজের সমস্ত মেধা, শ্রম এবং ভালোবাসা দিয়ে লেনি এটি সৃষ্টি করেছিলেন। এ কারণে, লেনির সাধনা বৃথা যায়নি। তার অবদানের পুরস্কারস্বরূপ, বর্তমানে "The Triumph of the... বাকিটুকু পড়ুন

৫৬ টি মন্তব্য      ১৮৫৮ বার পঠিত     ১৪ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(৫ম পর্ব) "হিটলার, জার্মানির ফুয়েরার"।

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ১৮ ই জানুয়ারি, ২০১৩ সন্ধ্যা ৬:০৪





হিটলারের প্রিয় S.A বাহিনীর অপমৃত্যু ঘটে ১৯৩৪ সালের ৩০শে জুন। ১৯২০ সাল থেকে S.A বাহিনী ছিল নাৎসি পার্টির অবিচ্ছেদ্য অংশ। এ কথা মোটেই অস্বীকার করা যাবে না যে, হিটলারের ক্ষমতায় আসার পিছনে S.Aএর অবদান ছিল অনেক বেশী। অথচ ১৪ বছর পর, হিটলার নিজ হাতে তাদের মৃত্যু নিশ্চিত করলেন। S.A এর... বাকিটুকু পড়ুন

৫৭ টি মন্তব্য      ২২১৫ বার পঠিত     ১৫ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(৪র্থ পর্ব) operation hummingbird

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৩ রাত ১১:২১





আগের পর্বের লিংক



----------------------------------------------------------------------------------



৩০শে জুন, ১৯৩৪। ... বাকিটুকু পড়ুন

৫৩ টি মন্তব্য      ১৬৫১ বার পঠিত     ১১ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(৩য় পর্ব) the night of the long knives

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০১৩ রাত ১০:১৩





১৯৩৩ সালের ২৩শে মার্চ, হিটলার তার দীর্ঘদিনের অধরা "enabling act" আইনটি বিনা বেগে পাশ করাতে সক্ষম হন। এটি এমন এক আইন, যার মাধ্যমে জার্মানির সম্পূর্ণ সংবিধান পরিবর্তন করা যাবে। এছাড়া এর মাধ্যমে নতুন আইন পাশ এবং পুরাতন সকল আইনের পরিবর্তন এবং পরিবর্ধন করা সম্ভব। এই আইন অনুযায়ী জার্মানির সমস্ত দায়... বাকিটুকু পড়ুন

৪৭ টি মন্তব্য      ১৮৪৬ বার পঠিত     like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(২য় পর্ব) Hitler becomes Dictator

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ২০ শে ডিসেম্বর, ২০১২ বিকাল ৫:৩৯





নির্বাচনে জয়লাভ করবার জন্যে যদি কোনো দল তার দেশের একটি আস্ত দালানে অগ্নিসংযোগ ঘটায়, তবে তাদের আপনি কি বলবেন? নিশ্চয় উন্মাদ?



বাংলাদেশীদের কাছে এটি মোটেও অবাক করার মতন কোনো ব্যাপার নয়। আমরা হরহামেশাই আমাদের দেশের প্রধান দুই দল এবং তাদের দোসরদের কাঁদা ছোড়াছুড়ি এবং জনগণের সমর্থন আদায়ের জন্যে একে অপরের উপর... বাকিটুকু পড়ুন

৬০ টি মন্তব্য      ১৬০৬ বার পঠিত     ১৫ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ স্বপ্নের থার্ড রাইখ(১ম পর্ব) রাইখস্টাগ অগ্নিকান্ড(The Reichstag on fire)

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১২ বিকাল ৪:৫৩





২৭শে ফেব্রুয়ারি, ১৯৩৩।



সন্ধ্যা সাতটা।



"হ্যালো, যোসেফ গোয়েবলস বলছি।" ... বাকিটুকু পড়ুন

৭৬ টি মন্তব্য      ২৮১৩ বার পঠিত     ২০ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ হিটলারের অবসরকালীন নিবাস,

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ২৪ শে নভেম্বর, ২০১২ রাত ১১:৪০



১৯২৫ সালের ১৮ জুলাই, হিটলার প্রকাশ করেন তার আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ "মাইন কাম্ফ"। প্রকাশের প্রথম কয়েক বছর বইটি খুব কম মানুষই কিনেছিলেন। ফলে বইটি থেকে হিটলারের আয় ছিল যৎসামান্য। কিন্তু হিটলার চ্যান্সেলর হবার পরে দৃশ্যপট রাতারাতি পাল্টে যায়। মাইন কাম্ফ অতি অল্প সময়ে তৎকালীন সব রেকর্ড ভেঙ্গে দেয়। হিটলারের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টও... বাকিটুকু পড়ুন

৭৭ টি মন্তব্য      ১৭১০ বার পঠিত     ২৫ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ নাৎসিদের উত্থান(শেষ পর্ব) নাটকীয় বিজয়

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ২০ শে অক্টোবর, ২০১২ দুপুর ২:৪৭

১৯৩২ সালের ১০ এপ্রিল, জার্মানিতে দ্বিতীয় দফায় প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম দফা নির্বাচনের মত, এতেও প্রেসিডেন্ট হিন্ডেনবার্গের কাছে অ্যাডলফ হিটলার পরাজিত হন। পূর্বের নির্বাচনের তুলনায় যদিও তিনি প্রায় ২০ লাখ ভোট বেশী পেয়েছিলেন, কিন্তু তবুও প্রেসিডেন্ট হিন্ডেনবার্গকে হারানোর সামর্থ্য তার ছিল না।







হিটলারের পরাজয়ে তার বিরোধিরা উল্লসিত হন। তাদের মধ্যে... বাকিটুকু পড়ুন

৫৪ টি মন্তব্য      ১৪০৪ বার পঠিত     ১৮ like!

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাসঃ নাৎসিদের উত্থান(ষষ্ঠ পর্ব) সাফল্যের নিশ্বাস দূরত্বে

লিখেছেন উৎকৃষ্টতম বন্ধু, ০৯ ই অক্টোবর, ২০১২ বিকাল ৩:২৬





১৯২৫ সালে হিটলার কারাগার থেকে মুক্তি লাভ করেন। অতঃপর তিনি তার দলকে নতুন করে সাজানোর কাজে হাত দেন। যা কিছু করার নিয়মতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নির্বাচনের মাধ্যমে করতে হবে। পরিকল্পনা অনুসারে A State within a State নীতি গ্রহণ করা হয়। রাষ্ট্রের আদলে পার্টিকে সাজানো হয় এবং সেই সাথে খোলা হয় অনেক বিভাগ।... বাকিটুকু পড়ুন

৬৮ টি মন্তব্য      ১২৪৯ বার পঠিত     ২১ like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ৪৯২৮৩ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ