somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

ইমন জুবায়েরঃ একজন অমর গীতিকার-এর বাংলা গানের সিনক্রোনাইজড লিরিকস এখন ইন্টারনেটে

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৩ রাত ৯:৪৯
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


(ক) বহুমুখী প্রতিভার ইমন জুবায়ের

বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী প্রয়াত ইমন জুবায়ের-এর অন্যতম একটি পরিচয় হচ্ছে, তিনি গান লিখতেন। এদেশের ব্যান্ড সঙ্গীতের প্রথমদিকের দূর্দান্ত বিকাশমান সময়টিতে প্রখ্যাত ব্যান্ড দল ‘ব্ল্যাক' এর অধিকাংশ গানেরই গীতিকার ছিলেন-জুবায়ের হোসেন ইমন ( আমাদের ইমন জুবায়ের )।

Wikipedia-র নিবন্ধে বাংলাদেশের ‘ব্ল্যাক' ব্যান্ড বিষয়ক বর্ণনার এক পর্যায়ে লেখা আছে-

…… but soon enough shifted to the name Black by a suggestion from friend, classmate and future band member Asif Haque. The band would then be introduced to Zubair Hossain Imon, an old acquaintance of guitar player Asif, whom the band considers to be "the stalwart member" and their "philosophical mentor". He is widely known for helping the band with their songwriting, often directly contributing words and ideas.

অন্যদিকে বাংলা উইকিপিডিয়া-য় ‘ব্ল্যাক' ব্যান্ড বিষয়ক নিবন্ধে শুরুতেই উল্লেখ আছে,

“ব্ল্যাকের জন্ম তাদের অনেক গানের গীতিকার জুবায়ের হোসেন ইমনের বাসা থেকেই। পার্ল জ্যাম, শ্যাভেজ গার্ডেনের ব্যান্ডের গান তাদের অনুপ্রেরণার উৎস ছিল।....”

‘ব্ল্যাক' ব্যান্ড এর গানসহ নিজের লেখা বিভিন্ন গানের বিষয়ে স্মৃতিচারণ করে ইমন একে একে লিখেছেন,

তানিম-এর গান

আমার শততম পোষ্ট: আমার লেখা অল্টারনেটিভ ব্যান্ড ব্ল্যাক-এর একটি গান: ‍

জেনদর্শন: ব্ল্যাক-এর একটা গানে।

আমার লেখা একটি unreleased গান: একা (২)

অভিমান: আমার লেখা ব্ল্যাক-এর সেই অভিমানী গান ...

কবিতা থেকে গান: উৎসবের পর

ইমন-এর এসব নিবন্ধের স্মৃতিচারণ থেকে ষ্পষ্টতঃই বেরিয়ে আসে বাংলা গান লেখার প্রতি তার আগ্রহ, মনোনিবেশ ও ঐকান্তিক প্রচেষ্টার কথা। অন্যদিকে তাঁর এই সব লেখায় সংযোজিত মন্তব্য বিশ্লেষণ করলে বোঝা যায়, তার লেখা গান বোদ্ধা শ্রোতাদের কাছে অন্যরকম এক মর্যাদার আসন পেয়েছে।

ইমন জুবায়ের-এর 'তানিম-এর গান' শীর্ষক ব্লগটির মন্তব্য কলামে ব্লগার রিজওয়ানুল ইসলাম রুদ্র এবং ইমন এর কথোপকথন থেকে ব্লগার ‘ইমন জুবায়ের’-এর নিজেকে প্রকাশ করার বিষয়ে অত্যন্ত সংযমী এক বিনয়ী মনোভাবের পরিচয় পাওয়া যায়।

ইমন যখন লিখলেন - “তানিম। আরবো ভাইরাস ব্যান্ডের ড্রামার। দিন কয়েক আগে এসে বলল একটা কম্পোজিশন করছি। লিরিক দেন। গান লেখার ব্যাপারে কিছু অভিজ্ঞতা আছে। লিখে দিলাম”- তখন তাঁর এই অতি বিনয়ী “গান লেখার ব্যাপারে কিছু অভিজ্ঞতা আছে” লাইনটিকে কেন্দ্র করে রিজওয়ানুল ইসলাম রুদ্র-র মনে ভাবনা এলো- এই ইমন জুবায়ের-ই হয়তো ব্ল্যাক এর গানের গীতিকার ‘জুবায়ের হোসেন ইমন’ !

আরো নিশ্চিত হওয়ার জন্য তাই রুদ্র ইমনকে জিজ্ঞেস করলেন,




সত্যি, ব্লগার রুদ্র ভুল বলেননি। 'দর্শন, আমাদের ভেতরের মৃত প্রেম, নৈঃসঙ্গ জীবন, পুরনো পায়ের ছাপ, শরবিদ্ধ মানুষ...' এসব নিয়েই ছিল ইমন জুবায়ের-এর অন্যরকম অপরূপ লিরিকস এর জগত...।


এবার আসি আরেকজন ব্লগারের উদ্ধৃতিতে। ব্লগার ফ্লাইং ডাচম্যান সামহয়্যারইন ব্লগে এক লেখায় লিখেছেন (ব্ল্যাক এর ভুলে যাওয়া গানঃ চেনা দুঃখ)-

“আন্ডারগ্রাউন্ড ব্যান্ড হলেও ব্ল্যাক ব্যতিক্রমী লিরিকস ও মিউজিকের কারণে অল্প সময়েই ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে, যা শীর্ষস্থানীয় যে কোন মেইন্সট্রিম বা আন্ডারগ্রাউন্ড ব্যান্ডের জন্য কল্পনাতীত”।

এই উদ্ধৃতিতে উল্লিখিত ব্যতিক্রমী লিরিকস এর স্রষ্টা আর কেউ নন, আমাদের কাঁদিয়ে রেখে বিদায় নেওয়া সদ্য প্রয়াত কিংবদন্তী ব্লগার - ‘ইমন জুবায়ের’ ।


(খ) ইমন জুবায়ের-এর লেখা গানের সিনক্রোনাইজড বাংলা লিরিকস আপলোডঃ




‘ব্ল্যাক' এর অধিকাংশ গানের অপরূপ এই স্রষ্টা ইমন জুবায়ের-এর স্মৃতিকে বিশ্বের বাংলা ভাষাভাষী গানের শ্রোতাদের কাছে চির-অম্লান রাখতে তাঁর রচিত ব্ল্যাক-এর ‘আমার পৃথিবী’ অ্যালবামের ‘অভিমান’ শিরোণামের গানটির সিনক্রোনাইজড বাংলা লিরিকস আপলোড করেছি ‘টিউনউইকি’ নামের লিরিকস প্লেয়ারের সার্ভারে ( আগামীতে তাঁর লেখা আরো গান এর সিনক্রোনাইজড লিরিকস আপলোড করা হবে.....) ।

ফলে, ‘টিউনউইকি’ প্লাগ- ইন দিয়ে কম্পিউটারে এবং ‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লেয়ার দিয়ে এন্ড্রয়েড, সিম্বিয়ান মোবাইল অথবা আইফোনে দেখা যাবে ইমন জুবায়ের রচিত এই গানের সিনক্রোনাইজড বাংলা লিরিকস। বাংলা অক্ষরেই গানের কথার সাথে সাথে এই লিরিকস হাইলাইট অবস্থায় স্ক্রল বা মুভ করবে, শুধু যদি আপনার মোবাইল ফোন সেটটি যুক্তাক্ষরসহ বাংলা ফন্ট সাপোর্টেড হয়।

(গ)এন্ড্রয়েড মোবাইল/ট্যাবলেট পিসিতে ‘অভিমান’

এন্ড্রয়েড মোবাইল/ট্যাবলেট পিসিতে এ গানের সিনক্রোনাইজড লিরিকস দেখার জন্য প্রথমেই ‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লেয়ার ডাউনলোড করতে হবে Google play -স্টোর এর এই লিংক থেকেঃ

‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লেয়ার

এরপর গানটি ডাউনলোড করে নেওয়া যেতে পারে এই লিংক থেকেঃ

গানঃ অভিমান – ব্ল্যাক

ডাউনলোড করা গানটি বাংলা সাপোর্টেড এন্ড্রয়েড মোবাইল/ট্যাবলেট পিসির মাইক্রো-এসডি কার্ডে সেভ করে নিয়ে ‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লেয়ার দিয়ে তা চালাতে হবে। গানটি চলা শুরু করা মাত্রই এই লিরিকস প্লেয়ার ইন্টারনেট এর মাধ্যমে ‘টিউনউইকি’র সার্ভার থেকে খুঁজে নেবে এর জন্য আপলোড করা লিরিকসটি।

যাদের কাছে আগে থেকেই গানটির MP3 ফরমেটের ফাইল ডাউনলোড করা আছে, তাদের ক্ষেত্রে শুধু গানটির MP3-ট্যাগ নীচের মতো করে এডিট করে নিয়ে তারপর তা ‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লেয়ার দিয়ে চালালেই চলে আসবে আপলোড করা সিনক্রোনাইজড লিরিকস।

Title: Abhiman
Artist: Black
Album: Amar Prithibi

বাংলা অক্ষরেই বাংলা ব্লগের নিবেদিত চিরঞ্জীব ব্লগার ইমন জুবায়ের-এর লেখা গানের কথাগুলো আপনার চোখের সামনে ভেসে বেড়াবে গানের কথা আর সুরের সময়ক্ষণ-এর সাথে মিল রেখে...। গানের পেছনে দেখা যাবে এ গানের অ্যালবাম আর্ট এভাবেঃ


গ্রামীণফোন কর্তৃক সদ্য বাজারে ছাড়া সিম্ফনী ট্যাবলেট পিসি সম্পূর্ণ ভাবে বাংলা যুক্তাক্ষর সাপোর্ট করে। এই এনড্রয়েড ট্যাবলেটে ‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লেয়ারের স্ক্রীণে দেখুন ইমন-এর গানের সিনক্রোনাইজড বাংলা লিরিকস-এর কিছু স্ক্রীণ শটঃ



সেটটি আড়াআড়িভাবে ধরলে গানটির লিরিকস দেখা যাবে এভাবে....



গানটির শেষের দিকে মিউজিক চলাকালীন সময়ের বিরতীতে ভেসে উঠবে ‘ব্ল্যাক' ব্যান্ড এর সংক্ষিপ্ত পরিচিতি এভাবেঃ



(ঘ) উইন্ডোজ পিসিতেই দেখুন ব্ল্যাকের ‘অভিমান’ এর সিনক্রোনাইজড লিরিকস

উইন্ডোজ পিসিতে এ গানের সিনক্রোনাইজড লিরিকস দেখতে হলে প্রথমেই ‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লাগ-ইন সফটওয়্যার ডাউনলোড করতে হবে এই লিংক থেকেঃ

‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লাগ-ইন ডাউনলোড

এরপর গানটি ডাউনলোড করে নিতে হবে এই লিংক থেকেঃ

গানঃ অভিমান – ব্ল্যাক

ডাউনলোড করা ‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লাগ-ইন এর সেটআপ ফাইলটি ডাবল ক্লিক করে প্লাগ-ইনটি পিসিতে ইনষ্টল করে নিতে হবে। এবার ডেস্কটপে থাকা এই প্লাগ-ইন এর আইকনে ডাবল ক্লিক করে তা চালু করলেই উইন্ডোজের ‘উইন্ডোজ মিডিয়া প্লেয়ার’ আপনা আপনি চালু হয়ে যাবে। এবার ‘উইন্ডোজ মিডিয়া প্লেয়ার’ দিয়ে ইন্টারনেটে সংযুক্ত থাকা অবস্থায় গানের ফাইলটি চালিয়ে দিয়ে ‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লাগ-ইন-এর স্ক্রীণে ফিরে আসলেই দেখা যাবে গানের কথার সাথে সাথে হাইলাইটেড সিনক্রোনাইজড লিরিকস স্ক্রল করছে....।

আগের মতোই বলতে হয়, যাদের কম্পিউটারে গানটির MP3 ফরমেটের ফাইল আগে থেকেই ডাউনলোড করা আছে, তাদের ক্ষেত্রে শুধু গানটির MP3-ট্যাগ এডিট করে নিয়ে (উপরে প্রদর্শিত সঠিক ইংরেজী বানান অনুসারে) তারপর তা ‘টিউনউইকি’ প্লাগ-ইন ব্যবহার করে চালালেই চলে আসবে আপলোড করা সিনক্রোনাইজড লিরিকস।


(ঙ) সিম্বিয়ান সেটে ব্ল্যাকের ‘অভিমান’ এর সিনক্রোনাইজড লিরিকসঃ

নোকিয়ার বাংলা সাপোর্টেড সিম্বিয়ান সেটে এ লিরিকস দেখতে চাইলে অভি বা নোকিয়া স্টোর থেকে ‘টিউনউইকি’ লিরিকস প্লেয়ার ডাউনলোড করে নিতে হবে। তারপর একই নিয়মে গানটি সেই প্লেয়ার দিয়ে চালাতে হবে।

(চ) আমাকে তুমি জাগিয়ে একা কেন ঘুমালে?...

ইমন জুবায়ের রচিত ব্ল্যাক-এর ‘অভিমান’ গানটির তিনটি লাইন এরকমঃ
‘আমাকে তুমি জাগিয়ে একা কেন ঘুমালে?
আমাকে এড়িয়ে তোমার আকাশে
কবে ফুল ঝরেছে বলো !’

ইমন জুবায়ের আজ নেই। কিন্তু তার সব লেখা, তার সব অসাধারণ কাজ নতুন করে বিশ্লেষণ করে, নতুন করে অনুধাবন করে, যেন প্রতিদিন নতুন নতুন আঙ্গিকে তাঁকে আবিষ্কার করা যাচ্ছে। প্রতিদিন যেন নতুন এক ইমন নতুন প্রতিভার মুকুট পড়ে হাজির হচ্ছে শোকস্তব্ধ ব্লগারদের চিন্তায়, চেতনায় আর উপলব্ধিতে।

ইমন ঘুম ভাঙ্গিয়েছিলেন সবার।
কিন্তু কাউকে কখনো গর্ব করে বলেননি-
‘ওঠো ! চোখ খুলে তাকাও! দেখে নাও - এটাই ব্লগিং ! এভাবেই লিখতে হবে তোমাদের!’
কাউকে কিছু না বলে শুধু জাগিয়ে দিয়েই নিজে নীরবে ঘুমিয়ে পড়েছেন সবার আগে।...
আমাদের সবাইকে এভাবে জাগিয়ে দিয়ে কেন অবেলায় ঘুমিয়ে গেলেন আমাদের প্রিয় ইমন, আমাদের নক্ষত্র- বিশাল?
কি এমন অভিমান তার, জমতে জমতে পাথর হয়ে বসেছিল, হৃদয়তন্ত্রীতে?
গানে তিনি লিখেছিলেন,
‘আমাকে এড়িয়ে তোমার আকাশে
কবে ফুল ঝরেছে বলো !’

খুব বলতে ইচ্ছে করে ইমনকে- ইমন, আপনি ভুল লিখেছিলেন ! আপনার ধারনাটা সম্পূর্ণ ভুল!
আমাদের ফাঁকি দিয়ে, এভাবে ‘এড়িয়ে যাবার’ পরেও আপনার আকাশে কিন্তু শুধু ফুল-ই ঝরছে...।
প্রতিদিন সহস্র ‌আবেগ-আপ্লুত থরো থরো সব ফুল !
প্রতিদিন সহস্র অশ্রুমাখা আমাদের অনিঃশেষ অজস্র ভালবাসা !

দেখতে কি পান, ইমন?
পৌঁছে কি তা’ একবার, অন্য ভুবনের অনুভবে ?


............................................................................




ব্ল্যাক এর এই গান ছাড়াও অন্যান্য বাংলা গানের 'সিনক্রোনাইজড বাংলা লিরিকস আপলোড'-এর বিষয়ে আমার ইতিপূর্বের দুটি লেখাঃ

প্রথম পর্ব

দ্বিতীয় পর্ব


সর্বশেষ এডিট : ১১ ই জানুয়ারি, ২০১৩ রাত ৯:৪৯
১৮টি মন্তব্য ১৩টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

মুরাদ হাসানকে মন্ত্রিত্ব কেড়ে নেওয়া হইছে, মাহিয়া মাহি ওমরাহ করতে গেছেন

লিখেছেন জ্যাকেল , ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ৮:৩৭

নৈতিক স্খলন জনিত কারন দেখিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান ইহার মন্ত্রিত্ব তো গেল। ইমন (দালাল) সাক্ষাৎকারে বলেছে সে রেইপ করার কথা আগে জানতে পারেনি। এইদিকে মাহিয়া মাহি ওমরাহ করতে গিয়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

মুনজির- মুস্তফা.........

লিখেছেন জুল ভার্ন, ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:৩৭

মুনজির- মুস্তফা.........


বাবার কোলে নিচ্ছেন শিশুকে। অনাবিল হাসি একরত্তির মুখে। আর বাবার চোখে মুখে পরিতৃপ্তির ছাপ। মেহমেত আসলানের তোলা এই ছবি সিয়েনা ইন্টারন্যাশানালে সেরা ছবির স্বীকৃতি পেয়েছে। ছবিটি সিরিয়ার সীমান্তে... ...বাকিটুকু পড়ুন

জীবনের কৌতুক

লিখেছেন মরুভূমির জলদস্যু, ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:০১


আলম সাহেবের বয়েস হয়েছে।
সরকারী চাকুরে ছিলেন, অবসর নিয়েছেন অনেক বছর আগেই। চোখের সামনে একমাত্র ছেলেটা ধীরে ধীরে বড় হয়ে উঠেছে। আলম সাহেবের স্ত্রী নিজের স্বাধ্যের মধ্যের সবটুকু দিয়ে মোটামুটি ধুমধাম... ...বাকিটুকু পড়ুন

সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ হরে জরুরি ভিত্তিতে যা করণীয়। ভূমি/জমি/বাড়ি বেদখল হলে করণীয়

লিখেছেন এম টি উল্লাহ, ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:২৫



জোর করে কেও যদি আপনার সম্পত্তি দখল করে ফেলে, তখন আপনি কি করবেন? প্রতিনিয়ত জমি, বাড়ি, ফ্ল্যাট হতে কেউ না কেউ দখলচ্যূত হচ্ছেন। প্রভাবশালী ব্যক্তিরা প্রায়ই... ...বাকিটুকু পড়ুন

ছোটলোক চেনার উপায় কী?

লিখেছেন রাজীব নুর, ০৭ ই ডিসেম্বর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৩০



একবার এক ধনী লোক এক জায়গায় অনেক গুলা হীরা রাখে। সেখান থেকে একটা ইঁদুর ভুল করে হীরের টুকরো গিলে ফেলে।
হীরের মালিকের রাতের ঘুম উড়ে যায়। ইঁদুর মারার জন্যে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×