somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

পোস্টটি যিনি লিখেছেন

অনল চৌধুরী
সাহসী সত্য।এই নষ্ট দেশ-জাতি-সমাজ পরিবর্তনের প্রচেষ্টাকারী একজন যোদ্ধা।বাংলাদেশে পর্বত আরোহণের পথিকৃত।

বাংলাদেশকে দুর্নীতিমুক্ত করার জন্য ২১টা নির্দেশনা

০১ লা এপ্রিল, ২০২১ রাত ৩:৫৮
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :


১। দেশের সর্বোচ্চ থেকে সর্বনীম্ন পর্যায়ের জনগণের করের টাকায় বেতনভোগী সব কর্মচারীর সম্পদের বিবরণ দেশের প্রতিটা নাগরিকের কাছে ওয়েব-সাইটের মাধ্যমে উন্মুক্ত করে দিতে হবে।

২। দেশের সব ব্যাক্তির জমি, ব্যাংকে জমা টাকাসহ স্থাবর-অস্থাবর সব সম্পদের সর্বোচ্চ সীমার পরিমাণ পেশার ভিত্তিতে নির্ধারিত করে দিতে হবে।

৩। কোনো সরকারী কর্মচারীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠলে তাৎক্ষণিকভাবে তাকে বেতনসহ সাময়িকতভাবে চাকরী থেকে বরখাস্ত করতে হবে। অপরাধ প্রমাণিত হলে চাকরী থেকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত এবং সব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করতে হবে।

৪। শিশুদের ছোটোবেলা থেকেই সৎ-নীতিবান করে গড়ে তোলার জন্য জন্মসনদ এবং এসএসসি’র তালিকাভূক্তির সময় প্রকৃত জন্মতারিখ লিখতে হবে।

৫। দুদকের চার্জশিটভূক্ত সব আসামীকে গ্রেফতার করে বিচার শেষ না হওয়া পর্যন্ত আটক রাখতে হবে।

৬। দেশের প্রতিটা এলাকায় ( ইউনিয়ন পরিষদ ও থানা ) এক বা একাধিক ব্যাক্তিকে দুর্নীতি ও অপরাধ দমনের প্রধান হিসেবে নিয়োগ দিতে হবে, যাদের দুদক ও থানায় সব অপরাধীদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের এবং তদন্ত প্রতিবেদন প্রদানের ক্ষমতা থাকবে।

৭। দেশের মোট জাতীয় আয় এবং মোট জাতীয় ব্যায়, রপ্তানী আয় ও প্রবাসীদের পাঠানো অর্থসহ সরকারী প্রতিটা প্রতিষ্ঠানের সব আয়-ব্যায়ের হিসাব ইন্টারনেটের মাধ্যমে বাংলাদেশের সব নাগরিকদের জন্য উন্মুক্ত করে দিতে হবে।

৮। সরকারী কর্মচারীদের অপ্রয়োজনে বিদেশ ভ্রমন সম্পূর্ণ বন্ধ করতে হবে এবং জরুরী প্রয়োজনে বিদেশ ভ্রমনকালে ৫ তারা হোটেলের পরিবর্তে সাধারণ হোটেলে থাকার ব্যাবস্থা করতে হবে। দেশের কোনো নাগরিক শুধুমাত্র ভ্রমণের জন্য বছরে একবারের বেশী দেশের বাইরে যেতে পারবে না।

৯। দুদকের চাকরীতে নিয়োগের ক্ষেত্রে বয়সসীমা বাতিল করে দেশের যেকেোন বয়সের নীতিবান লোকদের বিভিন্ন পদে নিয়োগ দিতে হবে।

১০। দেশের সব শ্রেণী ও পেশার ব্যাক্তিদের সমন্বয়ে দুদকের পরিচালনা পরিষদ গঠন করতে হবে।

১১। দুদকে আসা প্রতিটা লিখিত অভিযোগ তদন্তের জন্য অভিযোগপত্রের উপর একজন তদন্তকারী কর্মকর্তার নাম ও ফোন নম্বর দিতে হবে এবং এর একটা অনুলিপি অভিযোগকারীকে দিতে হবে যেনো তিনি অভিযোগ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে উক্ত তদন্তকারী কর্মকর্তার সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করতে পারেন।

দুদকের ইচ্ছামতো অভিযোগ তদন্ত এবং কোনো অভিযোগ বাতিল করা চলবে না।

১২। দুদক চেয়ারম্যানকে প্রতিদিন ৮ ঘন্টা কর্মদিবসের মধ্যে ৫ ঘন্টা অভিযোগকারী ও দর্শনার্থীদের সাথে দেখা করে তাদের কথা শুনকে হবে। কারণ তাকে বেতন দেয়া হয় জনগণকে সেবা দেয়ার জন্য। শুধু বদ্ধ কক্ষে আলোচনা সভার জন্য না।

১৩। দুর্নীতি সংক্রান্ত সব অভিযোগ দুদকের মতো থানায়ও আমলযোগ্য করতে হবে।

১৪। সরকারী কর্মচারীদের গ্রেফতার বা দুর্নীতি তদন্তের জন্য অনুমতির বিধান বাতিল করতে হবে। তাদের বাড়ি কেনার জন্য ২% সুদে গৃহ ঋণ ,গাড়ি কেনার জন্য ৩০ লাখ , গাড়ি পালার জন্য প্রতি মাসে ৫০ হাজার এবং মোবাইল কেনার জন্য ৭৫ হাজার টাকা এবং প্রতিমাসে সরকারী খরচে মোবাইল বিল দেয়ার জমিদারী সব সুযোগ বাতিল করতে হবে।

১৫। দুর্নীতিজদের দেশে অবস্থিত সব অর্থ ও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে রাষ্ট্রের মালিকানায় নিতে হবে। বিদেশে থাকা সব সম্পত্তিও বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি হিসেবে ঘোষণা করতে হবে।

১৬। বাজেয়াপ্ত করা অর্থ-সম্পদ ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনার জন্য দেশের সব পেশার ব্যাক্তিদের নিয়ে গঠিত একটা সমিতি গঠন করতে হবে।

১৭। দুর্নীতিবাজদের বাজেয়াপ্ত করা সব নগদ অর্থ দেশের জনগণের কল্যাণে ব্যায় করতে হবে।

১৮। আয়ের সাথে সম্পদের অসঙ্গতি পাওয়া গেলে দেশের যেকোনো ব্যাক্তি দুর্নীতিবাজদের কাছে এর ব্যাখা চাইতে পারবে এবং সেটা দিতে ব্যার্থ হলে তার বিরুদ্ধে মামলা করতে পারবে।

১৯। । দেশের প্রতিটা এলাকায় সৎ ও নীতিবান ব্যাক্তিদের দুর্নীতি ও অপরাধ দমনের জন্য স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে নিয়োগ দিতে হবে। দুর্নীতিবাজদের বাজেয়াপ্তকৃত অর্থ থেকে তাদের বেতন দিতে হবে।

২০। দুর্নীতিবাজদের স্ত্রী ও ১৮ বছর উর্দ্ধ সন্তানদের আইনের আওতায় আনতে হবে। কারণ তারাই তাদের সব অপরাধের উৎসাহ ও মদদদাতা এবং দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত সম্পদের উত্তরাধিকারী। দুর্নীতিবাজদের দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত এবং দেশে ও বিদেশে অবস্থিত ও পাচার করা সব সম্পদ উদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত এদের আটক রাখতে হবে।

২১। যেকোনো অংকের সরকারী অর্থ-সম্পদ লুটকারী দুর্নীতিবাজদের এবং বিদেশে টাকা পাচারকারীদের সর্বনীম্ন শাস্তি যাবজ্জীবন এবং সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড হতে হবে।

********
আপনারা কি এইসব দাবী ও সুপারিশগুলির সাথে একমত?

যদি হয়ে থাকেন, তাহলে শুধু মন্তব্য করে নিজেদের দায়িত্ব শেষ না করে দেশে এগুলি প্রতিষ্ঠার জন্য জনমত গড়ে তোলেন। কারণ বাংলাদেশ চোর-দুর্নীতিবাজ-লুটপাটকারীদের দেশ না।

এই দেশ মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে বিশ্বাসী সৎ-নীতিবান-দেশপ্রেমিকদের সম্পত্তি।

চোর-ডাকাতদের অবাধে দুর্নীতি-লুটপাট করতে দেয়ার জন্য বাংলাদেশের ৩০ লাখ মানুষ প্রাণ দেয়নি।

দেশ স্বাধীন হয়েছে দেশের জনগণের সন্মান, স্বাধীনতা ও অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য।

আপনারা যদি একমত হন এবং দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করার প্রতিজ্ঞা করেন, শুধু তাহলেই দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করে উন্নত দেশে পরিণত করা যাবে।

আর সেটা না হতে পারলে শুধু স্বাধীনতার ৫০ বছর পর কেনো, ৫০০ বা ৫ হাজার বছর পরও বাংলাদেশ দুর্নীতিমুক্ত হবে না।
সর্বশেষ এডিট : ২১ শে এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২১
১১টি মন্তব্য ১১টি উত্তর

আপনার মন্তব্য লিখুন

ছবি সংযুক্ত করতে এখানে ড্রাগ করে আনুন অথবা কম্পিউটারের নির্ধারিত স্থান থেকে সংযুক্ত করুন (সর্বোচ্চ ইমেজ সাইজঃ ১০ মেগাবাইট)
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar
এই পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে :
আলোচিত ব্লগ

কুমিল্লা ইস্যুতে আরও কিছু কথা,

লিখেছেন সরোজ মেহেদী, ১৭ ই অক্টোবর, ২০২১ রাত ১০:৫২

অনেকেই সুর মেলাচ্ছেন সাম্প্রদায়িক অপশক্তির ষড়যন্ত্র, সাম্প্রদায়িক হামলা, সাম্প্রদায়িক ধ্বংশলিলা এসব আহ্লাদিত বাক্যমালার সাথে। আহ্লাদ করেন তবে ‘সাম্প্রদায়িক’ শব্দটার জায়গায় ‘রাজনৈতিক’ বসান। ক্ষমতালোভীও বসাতে পারেন (সে যে কোনো দল, এই... ...বাকিটুকু পড়ুন

আফ্রিকায় টিকাও নেই, ভাতও নেই

লিখেছেন চাঁদগাজী, ১৭ ই অক্টোবর, ২০২১ রাত ১০:৫৪



আফ্রিকার গ্রামগুলো মোটামুটি বেশ বিচ্ছিন্ন ও হাট-বাজারগুলোতে অন্য এলাকার লোকজন তেমন আসে না; ফলে, গ্রামগুলোতে করোনা বেশী ছড়ায়নি। বেশীরভাগ দেশের সরকার ওদের কত গ্রাম আছে তাও... ...বাকিটুকু পড়ুন

কবির সাথে সাক্ষাত

লিখেছেন স্বপ্নবাজ সৌরভ, ১৮ ই অক্টোবর, ২০২১ সকাল ১০:৪১



কবির সাথে দেখা হয়না অনেকদিন।
আগে দেখা হতো নিয়মিত।
সকালটাকে তিনি বিকেলের
চৌরাস্তায় নিয়ে যেতে পারতেন, তীব্র গ্রীষ্মে বর্ষা নামাতেন তুমুল তোড়ে।
রোদের আক্রোশে গা এলিয়ে তিনি ভাসতেন জোছনাবিহারে।
শহরের অবাঞ্ছিত... ...বাকিটুকু পড়ুন

সামাজিক অনুষ্ঠান তথা বিয়ে বাড়ির খাওয়ার অভিজ্ঞতা....

লিখেছেন জুল ভার্ন, ১৮ ই অক্টোবর, ২০২১ সকাল ১০:৪৯

সামাজিক অনুষ্ঠান তথা বিয়ে বাড়ির খাওয়ার অভিজ্ঞতা....

যেকোনো সামাজিক অনুষ্ঠানের মধ্যে আমাকে যেটা সবথেকে টানে সেটা হল খাওয়াদাওয়ার অনুষ্ঠান, তা যতটা না খাবার জন্য তার থেকে অনেক বেশী খাদকদের আচরণ দেখতে।... ...বাকিটুকু পড়ুন

পরিত্যাক্ত রেল স্টেশনের নাম ভরত খালি

লিখেছেন প্রামানিক, ১৮ ই অক্টোবর, ২০২১ দুপুর ১২:৫৮


ভরত খালী স্টেশনের নাম ফলক এখনো অক্ষত আছে।

১৯৩৭ সালে ব্রিটিশ রেলওয়ে কোম্পানি যমুনা নদীর এপার ওপার ট্রেনের যাত্রী পারাপারের জন্য পূর্বপাড়ে জামালপুর অংশে বাহাদুরাবাদ ঘাট এবং পশ্চিম পাড়ে... ...বাকিটুকু পড়ুন

×