somewhere in... blog
x
ফোনেটিক ইউনিজয় বিজয়

আমার পরিচয়

স্বাধিনতার শত সহস্র, লক্ষ কোটি “সুফল" - কিন্তু একটি মাত্র “কুফল” - দেশের নিতি নির্ধারণে অযোগ্য লোকেরা সব উচ্চাশনে - রাজনিতিতে ও প্রশাসনে - ফলে দেশটি যথাযথভাবে উন্নতিতে আগাতে পারছে না।তারপরেও যেটুকু এগিয়েছে, অধিকাংশ সাধারণের ব্যক্ত

আমার পরিসংখ্যান

ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।
quote icon
আমার জন্ম ০৬ মে, ১৯৫৬ খৃস্টাব্দ (আমার এস এস সি সনদ, জাতিয় পরিচয়পত্র ও জন্ম নিবন্ধনপত্রে জন্ম তারিখ : ১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৫৮ খৃস্টাব্দ - যাকে আমি রাষ্ট্রিয় জন্ম দিন বলি)- বরিশাল উদয়ন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৭৩ খৃস্টাব্দে এস এস সি (বিজ্ঞান) - ১৯৭৫ খৃস্টাব্দে ব্রজমোহন কলেজ (বি এম কলেজ) , বরিশাল থেকে এইচ এস সি (বিজ্ঞান) - মাস্টারদা সূর্য সেন হল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে বাঙলা ভাষা ও সাহিত্য বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর পাশ করি - ২০০১৫ খৃস্টাব্দের মার্চ থেকে ২০০১৮ খৃস্টাব্দের মার্চ পর্যন্ত সময়ে আমি আমেরিকান ইনডিপেনডেন্ট উইনভার্সিটি, ক্যালিফোর্নিয়া থেকে পি এইচ ডি (ডক্টরেট) ডিগ্রি লাভ করি। আমার গবেষণার বিষয় : গুড গভারনেস, ডেমোক্রেসি এন্ড ডেভলপমেন্ট : বাংলাদেশ পারসপেকটিভ - আমি জানুয়ারি, ১৯৭২ খৃস্টাব্দ থেকে জানুয়ারি, ১৯৮৫ খৃস্টাব্দ পর্যন্ত বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, খেলাঘর আসর, বাংলাদেশ উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সি পি বি) সহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সক্রিয় ছিলাম - আমি বরিশাল শহরে অনামি লেন, সদর রোডে বড়ো হলেও - আমার নিজের বা বাবার কোনো বাড়ি নেই - আমার দাদার বাড়ি (দাদার বা তার বাবারও কোনো বাড়ি নেই - ওটিও দাদার দাদার বা তারও আগের কোনো পূর্ব পুরুষের বাড়ি) পিরোজপুর জেলার স্বরূপকাঠী উপজেলার ০১ নং বলদিয়া ইউনিয়নের রাজাবাড়ি (চৌধুরীবাড়ি) তে - আমি ১৯৬৫ খৃস্টাব্দে প্রথম আুষ্ঠানিক ভাবে স্কুলে যেতে শুরু করি - তৃতীয় শ্রেনিতে - স্কুল থেকে পাক ভারত যুদ্ধ বিরোধি এবং ফাতেমা জিন্নার হেরিকেনের পক্ষে মিছিল করে বরিশাল শহর প্রদক্ষিণ করে হাটু পর্যন্ত ধূলা বালিতে একাকার হয়ে বাসায় ফিরি - সাদা জুতা মোজা প্যান্ট নষ্ট করে - তারপর ১৯৬৯ পাকিস্থান দেশকৃষ্টি বিরোধি আন্দোলন ও ১১ দফা ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের আন্দোলনে বরিশালের ততকালিন ছাত্র নেতা শহীদ আলমগির, আ স ম ফিরোজ, মনসুরুল আলম মন্টু, নওশের জাহান, আনোয়ার হোসেন, আনেয়ার জাহিদ, আব্দুল হালিম, কাশি নাথ দত্ত সহ আরো অনেকের সান্নিধ্যে যাবার সৌভাগ্য হয় - ১৯৭০ এর ভয়াল জলোচ্ছাসে উদয়ন স্কুলের বন্ধুদের নিয়ে আমি \"কাকলি ছাত্র সংঘ \" নামে ্একটি সংগঠন গড়ে তুলি - আমরা জুতা পালিশ করে, খবরের কাগজ বিক্রি করে, পেয়ারা বিক্রি করে, অর্থ সংগ্রহ করি ও বিভিন্ন বাসা বাড়ি থেকে পুরনো জামা কাপড় সংগ্রহ করে ভোলার দুর্গত এলাকায় পাঠাই - ১৯৭১ এর পয়লা মার্চ থেকে মিছিল মিটিং ও মুক্তিযুদ্ধের প্রশিক্ষণে অংশ নিলে মামা ও নানার সাথে গ্রামের বাড়ি পাঠিয়ে দিলে, স্বরূপকাঠী কলেজ মাঠে জাহাঙ্গির বাহাদুর ও আবু বকর ছিদ্দিকের নেতৃত্বের মুক্তি বাহিনির সাথে সক্রিয় ছিলাম এবং সেপ্টেম্বর/ অক্টোবরে মহসিন ভাইর মুজিব বাহিনি এলে কাটাপিটানিয়া ক্যাম্পে ০৮ -১২- ১৯৭১ (বরিশাল মুক্ত দিবস) পর্যন্ত সক্রিয় ছিলাম - যেহেতু আমি নিজে কোনো পাকিস্থানি মিলিটারি মারিনি - অতএব মুক্তিযোদ্ধা সনদ নেয়া সমিচিন মনে করিনি - আজো করি না - যে সব অমুক্তিযোদ্ধা মিথ্যে সনদ নিয়ে রাষ্ট্রিয় সুবিধা নিচ্ছে - তাদের কারণে অসহায় অসচ্ছল প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা আজ মানবেতর জিবন যাপনে বাধ্য হচ্ছে - সনদ পাবে - চাকুরির সুবিধা পাবে - মাসিক ভাতা পাবে - ছেলে মেয়ে নাতি পুতি শিক্ষার ও চাকুরির সুবিধা পাবে হত দরিদ্র মুক্তিযোদ্ধারা ও তাদের বংশধরেরা - গণহারে সুবিধা দেয়াতে সনদধারিদের সংখ্যায় প্রকৃতরা বঞ্চিত হচ্ছে - সনদ পাবে - সুবিদা পাবে এমন আশা করে কোনো একজন মুক্তিযোদ্ধাও মুক্তিযুদ্ধে যায় নি - প্রত্যেকে জিবন বাজি রেখে দেশকে হানাদার মুক্ত করতে মুক্তিযুদ্ধে গেছে - জাতির পিতার ডাকে ও দেশ প্রেমের আবেগে - সুবিধাবাদি অমুক্তিযোদ্ধারাই ভূয়া সনদ নিয়ে প্রকৃত হতদরিদ্র মুক্তিযোদ্ধাদের সাহায্য থেকে বঞ্চিত করছে - হাজার হাজার প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা সনদ নেয়নি - তারপরেও লাখ লাখ সনদধারি মুক্তিযোদ্ধা কোথা থেকে এলো ? আমি মনে করি, মুক্তিযুদ্ধের পর পরই স্বাধিনতা বিরোধিরা (স্বাধিনতার পরাজিত শত্রুরা) সুকৌশলে সনদ নিয়ে, আজ এই বিতর্কের সৃষ্টি করেছে - আসলে সরকারের নিতি নির্ধারণেও কিছু ত্রুটি ছিলো - উচিত ছিলো -“মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান” এই সনদ সকল মুক্তিযোদ্ধাকে ও তাদের সহযোগিদের দেয়া - কিন্তু ভাতা - চাকুরির বয়স বৃদ্ধির সুবিধা - পোষ্যদের চাকুরি প্রদানের সুবিধা - মাসিক ভাতা - এগুলো কেবলমাত্র হতদরিদ্র অক্ষম অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদেরই দেয়া সংগত ছিলো - এখানেও আমলাদের বা নিতি নির্ধারণে স্বাধিনতা বিরোধিদের (স্বাধিনতার পরাজিত শত্রুদের) বিশাল ভূমিকা রয়েছে বলে আমি মনে করি - দৃঢ় চিত্তে বিশ্বাস করি - না হলে খেতাব প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়েও বিতর্কের কারণ কি হোতে পারে ? খেতাব প্রদানের সময় থেকেই স্বাধিনতা বিরোধিদের (স্বাধিনতার পরাজিত শত্রুদের) সক্রিয়তা বুঝতে পারেনি - মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত সমর্থকরা ও প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা - কারণ যারা ১৬ ডিসেম্বর, ১৯৭১ পর্যন্ত পাকিস্থান সরকারের আজ্ঞাবাহক ছিলো সেই সব আমলারাই ১৭ ডিসেম্বর, ১৯৭১ থেকে বাংলাদেশ সরকারের নিতি নির্ধারক হলেন ? স্বাধিনতার শত সহস্র লক্ষ কোটি ‘সুফল’ আছে - কিন্তু একটি মাত্র ‘কুফল’ - যা আজো জাতিকে পিছু টানছে - প্রতিনিয়ত - তা হোলো “উচ্চাসনে (নিতি নির্ধারণে) অযোগ্যরা (রাজনিতিক ও আমলা) ।। ।। আমি নিজ সামর্থানুসারে চারটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ও কিছু কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের হত দরিদ্র শিক্ষার্থিদের আর্থি ক সহায়তা করে থাকি । দু’টি এতিমখানাতে ও চার - ছয়টি মসজিদে মৃত মা বাবা ও অকাল প্রায়াত ভাতিজির (স্বপ্নীল) নামে -
আমার সকল পোস্ট (ক্রমানুসারে)

সমুদ্র অর্থনিতিতে (Blue Economy) অপার সম্ভাবনা –অফুরন্ত সম্পদের ভান্ডার বঙ্গোপসাগর –

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ১৯ শে নভেম্বর, ২০২২ দুপুর ১:৫৩


সমুদ্র অর্থনিতিতে (Blue Economy) অপার সম্ভাবনা –অফুরন্ত সম্পদের ভান্ডার বঙ্গোপসাগর –
২০১২ খৃস্টাব্দের ১৪ মার্চ আন্তর্জাতিক শালিস আদালতের (পি.সি.এ) রায়ের মাধ্যমে মিয়ানমারের সঙ্গে মামলায় বাংলাদেশ প্রায় ০১ লাখ ১৮ হাজার ৮১৩ বর্গকিলোমিটারের বেশি সমুদ্র এলাকার দখল পায় –
২০১৪ খৃস্টাব্দের ০৮ জুলাই বাংলাদেশ ও ভারতের ম্যধকার বিরোধপুর্ণ সমুদ্রসিমার আনুমানিক ২৫ হাজার... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৯৫ বার পঠিত     like!

কৃষক নেতা অ্যাডভোকেট শহিদ আবদুর রব সেরনিয়াবাতের অমর কির্তি, যা অধিকাংশ মানুষ ভুলে গেছে – নতুন প্রজন্ম জানেন না...

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ১৯ শে নভেম্বর, ২০২২ সকাল ৯:৪৪

কৃষক নেতা অ্যাডভোকেট শহিদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত -
কৃষক নেতা অ্যাডভোকেট শহিদ আবদুর রব সেরনিয়াবাতের অমর কির্তি, যা অধিকাংশ মানুষ ভুলে গেছে – নতুন প্রজন্ম জানেন না -
১৯৫৩ খৃঃ জুড়ে তৎকালিন পূর্ব পাকিস্থান ছিলো মুসলিম লিগ বিরোধি গণ আন্দোলনে উত্তাল ! ঘোষিত রাজনৈতিক দল না হলেও এ গণ আন্দোলনে পূর্ব... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৫৩ বার পঠিত     like!

আবিষ্কার – মাছ চাষ- রিসার্কুলেটিং অ্যাকোয়াকালচার সিস্টেম (রাস)-

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ০৫ ই নভেম্বর, ২০২২ সকাল ৮:৩৫

আবিষ্কার – মাছ চাষ- রিসার্কুলেটিং অ্যাকোয়াকালচার সিস্টেম (রাস)-
রিসার্কুলেটিং অ্যাকোয়াকালচার সিস্টেম (রাস) মাছ চাষের একটি অগ্রসরমান আন্তর্জাতিক প্রযুক্তির ধারণা – দেশে তৈরি প্লাস্টিক সিট দিয়ে তৈরি ড্রাম আকৃতির বেশ বড়ো একটি ট্যাংকে পানি ধরবে ১০ হাজার লিটার – প্রতি হাজার লিটার পানিতে ৮০ থেকে ১০০ কে. জি. মাছ উৎপাদন করা যায়... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৪৯ বার পঠিত     like!

০৩ নভেম্বর চার নেতা হত্যা দিবস – জেল হত্যা দিবস -

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ০৩ রা নভেম্বর, ২০২২ সকাল ১১:৪০


জেল হত্যা দিবস: ০৩ নভেম্বর ১৯৭৫ খৃ: কারাগারের ভেতর জাতীয় চার নেতা তাজউদ্দিন আহমেদ, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, ক্যাপ্টেন মনসুর আলি ও এ.এইচ.এম. কামরুজ্জামানকে যেভাবে খুন করা হয় -
০৩ নভেম্বর ১৯৭৫ খৃ: মধ্যরাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে একটি পিকআপ এসে থামে।
তখন রাত আনুমানিক দেড়টা থেকে দুইটা।
প্রত্যক্ষদর্শীদের বর্ণনায় সে গাড়িতে কয়েকজন সেনা... বাকিটুকু পড়ুন

৪ টি মন্তব্য      ৮৮ বার পঠিত     like!

কৃষক নেতা অ্যাডভোকেট আবদুর রব সেরনিয়াবাত -

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ৩১ শে অক্টোবর, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:০৭

কৃষক নেতা অ্যাডভোকেট আবদুর রব সেরনিয়াবাত -
১৯৫৩ খৃঃ জুড়ে তৎকালিন পূর্ব পাকিস্থান ছিলো মুসলিম লিগ বিরোধি গণ আন্দোলনে উত্তাল ! ঘোষিত রাজনৈতিক দল না হলেও এ গণ আন্দোলনে পূর্ব পাকিস্থান যুবলীগের ভূমিকা ও নেতৃত্ব ছিলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্র্ণ ! সে বছর শেষের দিকে যুবলীগের সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ইমাদুল্লাহ (লালা) বরিশাল... বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৪৫ বার পঠিত     like!

৩১ অক্টোবর ইন্দিরা গান্ধির মৃত্যু (হত্যা) দিবস -

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ৩১ শে অক্টোবর, ২০২২ বিকাল ৪:০৩


ইন্দিরা প্রিয়দর্শিনী গান্ধী নেহেরু; (১৯ নভেম্বর, ১৯১৭ – ৩১ অক্টোবর, ১৯৮৪) ছিলেন একজন ভারতীয় রাজনীতিবিদ, ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের প্রাক্তন সভানেত্রী এবং ভারতের তৃতীয় প্রধানমন্ত্রী। ইন্দিরা গান্ধীই হলেন একমাত্র মহিলা যিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। পারিবারিক পরিচয়ে ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুর কন্যা ইন্দিরা ১৯৬৬ খৃ: জানুয়ারি থেকে ১৯৭৭ খৃ: মার্চ এবং... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৪৫ বার পঠিত     like!

আবিষ্কার- “পলিনেট হাউস” চাষ পদ্ধতি - শিতকালে গ্রিষ্মের ও গ্রিষ্মকালে শিতকালের সবজি চাষ হবে -

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ৩১ শে অক্টোবর, ২০২২ সকাল ১০:২৩

আবিষ্কার- “পলিনেট হাউস” চাষ পদ্ধতি -
সবজি চাষের জন্যে দেশের সব চেয়ে উপযোগি জেলা রাজশাহি - জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে কৃষি ক্ষেত্রে বাড়ছে ঝুকি - জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে কৃষি ক্ষেত্রে বাড়ছে নিত্য নতুন ঝুকি - জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে ক্রমেই হুমকির মুখে পড়ছে কৃষি – জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব থেকে... বাকিটুকু পড়ুন

২ টি মন্তব্য      ৫৩ বার পঠিত     like!

বিদ্যুৎ খাত ও ক্যাপাসিটি চার্জ মহাজোট সরকারের ১৪ বছরের উন্নয়ন অর্জনকে ‘‘ম্লান ও প্রশ্নবিদ্ধ’’ করে দিয়েছে -

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ২৩ শে অক্টোবর, ২০২২ রাত ১০:৩৯

বিদ্যুৎ খাত ও ক্যাপাসিটি চার্জ মহাজোট সরকারের ১৪ বছরের উন্নয়ন অর্জনকে ‘‘ম্লান ও প্রশ্নবিদ্ধ’’ করে দিয়েছে -
গেলো ০৩ বছরে ‘‘ক্যাপাসিটি চার্জ’’ গচ্ছা দিয়েছে ৫৩,৭৮৮ হাজার কোটি টাকা -
আর গেলো সাড়ে ০৭ বছরে ‘‘পদ্মা সেতুতে’’ ব্যয় হোয়েছে ৩০,১৯৩ কোটি টাকা -

সাড়ে ০৭ বছরে ‘‘পদ্মা সেতুতে’’ ব্যয়... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ১০৬ বার পঠিত     like!

জলবায়ু বিপর্যয় - ০২ :

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ২৩ শে অক্টোবর, ২০২২ সকাল ১০:০০


(০১) প্রতিদিন সকালে মহানগরির রাস্তা ঝাড়ু দেয়া ও দিনে দুই বার (সকালে ও বিকালে) রাস্তায় পানি ছিটিয়ে রাস্তা ধুয়ে দিতে হবে-
(০২) ছোটো গাড়ির ব্যবহার অতিমাত্রায় কমাতে হবে, ছোটো গাড়িতে “সড়ক কর” (Road Tax) আইন প্রবর্তন করতে হবে-
প্রাইভেট কার ও মাইক্রোবাস রাস্তায় বের করতে হলে প্রতিদিন ৩০০ থেকে... বাকিটুকু পড়ুন

১ টি মন্তব্য      ৫১ বার পঠিত     like!

জলবায়ু বিপর্যয় - ০১ :

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ২২ শে অক্টোবর, ২০২২ রাত ১০:২৭

জলবায়ু বিপর্যয় - ০১
উপকূলীয় এলাকায় মাটিতে লবণের পরিমাণ বেড়ে কৃষিজমির উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে এবং লবণাক্ততার কারণে প্রয়োজনীয় সুপেয় পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে-
পৃথিবীর তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারণে হিমালয়সহ উত্তর ও দক্ষিণ মেরু অঞ্চলের বিপুল বরফ গলে সমুদ্রের পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পাবে ফলে ২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের স্থলভাগের প্রায় ২০ ভাগ... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ২৩ বার পঠিত     like!

আবিষ্কার – কৃষি (কৃষক ও কৃষি গবেষক)

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ১৯ শে অক্টোবর, ২০২২ রাত ১০:১৯

আবিষ্কার – কৃষিআবিষ্কার – কৃষি (কৃষক ও কৃষি গবেষক) (কৃষক ও কৃষি গবেষক)
বাংলাদেশ এমন একটি বিশ্বশ্রেষ্ঠ উর্বর মাটির দেশ, যে দেশে কোনো রোপন ছাড়া – কোনো ‘সার’ প্রয়োগ ছাড়া - কোনো পানি ছাড়া - কোনো প্রকার যত্ন ছাড়া - সারা বাংলাদেশে “দুর্বা ঘাস” (দুলফা ঘাস) অযত্নে... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৩৪ বার পঠিত     like!

স্রষ্টাকে স্মরণ করি দমে দমে -

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ১৯ শে অক্টোবর, ২০২২ সকাল ৯:২৮

স্রষ্টাতো খারাপের বা ক্ষতির বা পরাজয়ের কোনো দায় নেন না - স্রষ্টা কেবল কৃতিত্বের বা ভালোর বা জয়ের বা বিজয়ের কৃতিত্বি নেন - বাকিটুকু পড়ুন

৩ টি মন্তব্য      ৮১ বার পঠিত     like!

আড়াই বৎসরের ছেলে রাসেল আমাকে বলছে ‘‘৬ দফা মানতে হবে- সংগ্রাম, সংগ্রাম- চলবে চলবে’’ ভাঙা ভাঙা করে বলে কি মিষ্টি...

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ১৮ ই অক্টোবর, ২০২২ রাত ৯:৫০

শেখ রাসেল তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের ঢাকা অঞ্চলের ধানমন্ডিতে ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধু ভবনে ১৮ অক্টোবর, ১৯৬৪ খৃস্টাব্দে জন্মগ্রহণ করেন। বঙ্গবন্ধু তাঁর প্রিয় লেখক খ্যাতিমান দার্শনিক ও নোবেল বিজয়ী ব্যক্তিত্ব ‘‘বার্ট্রান্ড রাসেলের’’ নামানুসারে পরিবারের নতুন সদস্যের নাম রাখেন ‘রাসেল’। এই নামকরণে মা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। শৈশব থেকেই দুরন্ত... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ৬৯ বার পঠিত     like!

আসন্ন দুর্ভিক্ষ রোধে বাংলাদেশের কৃষক ও কৃষি গবেষকগণ উল্লেখযোগ্য ভুমিকা পালন করবে যদি তারা সরকারি সহানুভুতি পান -

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ১৬ ই অক্টোবর, ২০২২ সকাল ১১:০৮

বাংলাদেশ এমন একটি বিশ্বশ্রেষ্ঠ উর্বর মাটির দেশ, যে দেশে কোনো রোপন ছাড়া – কোনো ‘সার’ প্রয়োগ ছাড়া - কোনো পানি ছাড়া - কোনো প্রকার যত্ন ছাড়া - সারা বাংলাদেশে “দুর্বা ঘাস” (দুলফা ঘাস) অযত্নে অবহেলায় জন্ম হয় বা হোতে পারে - সে দেশের মাটিতে যত্ন... বাকিটুকু পড়ুন

৬ টি মন্তব্য      ৯৫ বার পঠিত     like!

১৬ অক্টোবর- বিশ্ব খাদ্য দিবস ও বিশ্ব অ্যানাস্থেসিয়া দিবস

লিখেছেন ডঃ রুহুল আমিন চৌধুরী।, ১৬ ই অক্টোবর, ২০২২ সকাল ১০:৪২

১৬ অক্টোবর ২০২২ খৃস্টাব্দ -
১৬ অক্টোবর গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ২৮৯তম (অধিবর্ষে ২৯০তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ৭৬ দিন বাকি রয়েছে।
ঘটনাবলী
৬৯০ - উ জে টিয়ান চীনের প্রথম সম্রাজ্ঞী হন। উ জে টিয়ান হলেন চীনের ইতিহাসে একমাত্র সম্রাজ্ঞী।
১৭১০ - ব্রিটিশ সৈন্যরা পোর্ট রয়্যাল দখল করে।
১৭৫৬ - মনিহারীর যুদ্ধে নবাব সিরাজউদ্দৌলার... বাকিটুকু পড়ুন

০ টি মন্তব্য      ১৯ বার পঠিত     like!
আরো পোস্ট লোড করুন
ব্লগটি ১২৩২৯ বার দেখা হয়েছে

আমার পোস্টে সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার করা সাম্প্রতিক মন্তব্য

আমার প্রিয় পোস্ট

আমার পোস্ট আর্কাইভ